Logo
শিরোনাম

এক মাস পর রামপালে আবার শুরু হচ্ছে বিদ্যুৎ উৎপাদন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ১৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের কারণে বন্ধের প্রায় এক মাস পর আবারও পরীক্ষামূলক বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হতে যাচ্ছে কয়লাভিত্তিক রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রে। ন্যাশনাল লোড ডেসপাচের পক্ষ থেকে অনুমতি পাওয়ায় আগামীকাল শুক্রবার থেকে শুরু হবে এই কার্যক্রম। গত ২৪ অক্টোবর ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের কারণে ঝুঁকি এড়াতে ন্যাশনাল লোড ডেসপাচের নির্দেশে ৯১৫ একর জমির ওপর নির্মিত এই বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ করা হয়।

প্রকল্প-সংশ্লিষ্টরা জানান, গত ১৫ আগস্ট এই মেগা প্রকল্পের প্রথম ইউনিট পরীক্ষামূলক বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু করে। ধাপে ধাপে বিভিন্ন লোডে ৬৬০ মেগাওয়াটের এই ইউনিটের ক্ষমতা পরীক্ষা করা হচ্ছে।

প্রথম ইউনিট উৎপাদনে যাওয়ার ছয় মাসের মধ্যে একই মেগাওয়াট ক্ষমতার দ্বিতীয় ইউনিট বাণিজ্যিকভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু করবে। এরই মধ্যে দ্বিতীয় ইউনিটের সার্বিক কাজের ৮০ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে। আগামী ডিসেম্বরেই বাগেরহাটের রামপাল উপজেলায় অবস্থিত বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ মালিকানাধীন এই বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রথম ইউনিটের বাণিজ্যিকভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদনে যাওয়ার কথা রয়েছে।

কর্তৃপক্ষ জানায়, প্রথম ইউনিটের পরীক্ষামূলক বিদ্যুৎ উৎপাদন ৪০০ মেগাওয়াট পর্যন্ত পৌঁছালে গত ২৪ অক্টোবর বাংলাদেশে আঘাত হানে সিত্রাং। সে সময় সর্বোচ্চ সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে উৎপাদন বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

ন্যাশনাল লোড ডেসপাচ অনুমতি দেওয়ায় ২৫ নভেম্বর রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে শুরু হবে লোড টেস্ট। টানা ৭২ ঘণ্টা বিভিন্ন ধাপে ইউনিটটির লোড টেস্ট ৬৬০ মেগাওয়াটে পৌঁছানোর চেষ্টা করা হবে। সার্বিক প্রক্রিয়া সফল হলে জাতীয় কমিটি পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রকে বাণিজ্যিকভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষমতার সনদ দেবে। এই সনদ পেলেই বাণিজ্যিক বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হবে।

বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া ফ্রেন্ডশিপ পাওয়ার কোম্পানি (প্রা.) লিমিটেডের ডিজিএম (এইচআর ও পিআর) আনোয়ারুল আজিম জানান, ২৫ নভেম্বর আবারও বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হবে। ধাপে ধাপে ৬৬০ মেগাওয়াটের লোড টেস্ট সফলভাবে সম্পন্ন হলেই প্রথম ইউনিট বাণিজ্যিক উৎপাদনে যাবে। দ্বিতীয় ইউনিটের বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু হবে ২০২৩ সালের জুন মাসে।

২০১০ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে দুই দেশের মধ্যে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের সমঝোতা স্মারক সই হয়। ওই বছরের ৩০ আগস্ট বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) ও ভারতের বিদ্যুৎ বিভাগ (এনটিপিসি) ১৩২০ মেগাওয়াটের বিদ্যুৎকেন্দ্রের চুক্তি সই করে।

২০১২ সালের ৩১ অক্টোবর কোম্পানি আইন, ১৯৯৪ অনুযায়ী গঠিত হয় বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া ফ্রেন্ডশিপ পাওয়ার কোম্পানি প্রাইভেট লিমিটেড। ভারতের এক্সিম ব্যাংকের ঋণ সহায়তায় এই প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয় ১৬ হাজার কোটি টাকা। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ভারত হেভি ইলেকট্রিক্যালস লিমিটেড প্রতিষ্ঠানটির নির্মাণ এবং জার্মানির ফিসনার পরামর্শক প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে।


আরও খবর



নোয়াখালীতে মা-বাবাকে আটকে রেখে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরবাটা ইউনিয়নে বাবা-মাকে মারধর করে বাইরে আটক রেখে মেয়েকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ সময় ধর্ষণকারীরা ওই বাড়িতে হামলা-ভাঙচুর ও লুটপাট চালিয়েছে। পরে হেল্প লাইন ৯৯৯ এ ফোন দিলে চরজব্বার থানার পুলিশ গিয়ে ভুক্তভোগীদের উদ্ধার করে।

সোমবার (৭ নভেম্বর) সকালে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য ওই কিশোরীকে ২৫০ শয্যা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

এরআগে রোববার (৬ নভেম্বর) রাত ১১টার দিকে ইউনিয়নের পশ্চিম চর মজিদ এলাকার আশ্রয়ণ কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতিতা কিশোরী ও তার মা-বাবাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ভুক্তভোগীরা জানায়, স্থানীয় হোসেন বাহিনীর ২০-২৫ জন সন্ত্রাসী রাত আনুমানিক ১১টার দিকে তাদের বসতবাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে এবং লুটপাট চালায়। এসময় গৃহকর্তা ও তার স্ত্রীকে ঘর থেকে বের করে বেদম মারধর করে। একপর্যায়ে ঘরে থাকা তার মেয়েকে তিনজন ধরে রাখে এবং দুইজন পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এ ঘটনার পর রাতেই ওই কিশোরী আত্মহত্যার চেষ্টা করে। পরে ৯৯৯ ফোন দিলে চরজব্বার থানার পুলিশ গিয়ে ভুক্তভোগীদের উদ্ধার করে।

পরে কিশোরীসহ তার বাবা-মাকে প্রথমে সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। পরে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য সোমবার সকালে ওই কিশোরীকে ২৫০ শয্যা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক সৈয়দ মহি উদ্দিন আবদুল আজিম জানান, কিশোরীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

চরজব্বার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জয়নাল আবেদিন জানান, রাতে অভিযোগ পাওয়ার পরপরই পুলিশ ভুক্তভোগীদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নিউজ ট্যাগ: ধর্ষণের অভিযোগ

আরও খবর



মেক্সিকোতে ১৬ হাজারের বেশি অভিবাসী আটক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 | ৩৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মেক্সিকোতে গত চার দিনে ১৬ হাজারের বেশি বিদেশি অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে। আটকদের মধ্যে প্রায় পাঁচ হাজার অভিবাসী ভেনেজুয়েলার নাগরিক। দেশটির ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব মাইগ্রেশনের (আইএনএম) বরাতে আজ মঙ্গলবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই তথ্য জানিয়েছে।

আইএনএম জানিয়েছে, মেক্সিকোর ২২টি প্রদেশে ১৭ থেকে ২০ নভেম্বরের মধ্যে ১৬ হাজার ৯৬ অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে। আটকদের মধ্যে বিশ্বের ৪৬টি দেশের নাগরিক রয়েছেন।

আটক অভিবাসীদের মধ্যে অধিকাংশই মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকান বিভিন্ন দেশের নাগরিক। এর মধ্যে ভেনেজুয়েলার ৪ হাজার ৯৬৮ জন, নিকারাগুয়ার ১ হাজার ৩৮৬, হন্ডুরাসের ১ হাজার ৩১১ ও ইকুয়েডরের ১ হাজার ২৮৫ জন নাগরিক রয়েছেন।

মেক্সিকোর সরকারি সংস্থাটি বলছে, ক্রমে বাড়তে থাকা ঠান্ডা এবং পাচারকারীদের খপ্পরে পড়ার শঙ্কার মধ্যে প্রতিনিয়ত অভিবাসী আসছেন। তাই আগুয়াসকালিয়েন্টেস, চিয়াপাস, দুরাঙ্গো, হিডালগো, পুয়েব্লা, সান লুইস পোটোসি, ভেরাক্রুজ, জাকাতেকাসসহ বেশ কয়েকটি প্রদেশের অভিবাসী অ্যাটেনশন সেন্টারগুলোতে সংস্থাটির পরিষেবা বাড়ানো হয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তার শাসনামলে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত পার হয়ে আসা রেকর্ড সংখ্যক অভিবাসী সমস্যা মোকাবিলা করছেন। এই অভিবাসীর মধ্যে ২০২২ অর্থবছরে শুধু ভেনেজুয়েলা থেকেই এসেছেন ১ লাখ ৮৭ হাজার অভিবাসী।


আরও খবর

‘নীতি পুলিশ’ বিলুপ্ত করলো ইরান

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




বিশ্বে করোনা কমেছে মৃত্যু, শনাক্ত ৩ লাখের বেশি

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ৪৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্বজুড়ে করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন প্রায় সাড়ে ৮৫০ মানুষ। ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা নেমে এসেছে তিন লাখে।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে জাপানে। দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রাণহানির তালিকায় এরপরই রয়েছে ফ্রান্স, তাইওয়ান, ব্রাজিল, দক্ষিণ কোরিয়া ও রাশিয়া।

বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৬৪ কোটি ১৮ লাখের ঘর। মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৬৬ লাখ ২১ হাজার।

শুক্রবার (১৮ নভেম্বর) সকালে ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮৩৮ জন। আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে ৩১ জন। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৬৬ লাখ ২১ হাজার ৪৭৯ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৬ হাজার ৪২৬ জন। আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে প্রায় ২৪ হাজার। মহামারির শুরু থেকে এখন পর্যন্ত ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৪ কোটি ১৮ লাখ ৩৪ হাজার ১৫৮ জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে জাপানে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৯৩ হাজার ৫ জন এবং মারা গেছেন ১৩৩ জন। মহামারির শুরু থেকে পূর্ব এশিয়ার এ দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৩৫ লাখ ১৯ হাজার ৮০১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৪৭ হাজার ৯৫৯ জন মারা গেছেন।

অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। গত ২৪ ঘণ্টায় এই দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজার ২৫৭ জন এবং মারা গেছেন ১২৪ জন। ভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এ দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১০ কোটি ৯৭ হাজার ৫২৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১১ লাখ ১ হাজার ৭৯৬ জন মারা গেছেন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে।


আরও খবর

‘নীতি পুলিশ’ বিলুপ্ত করলো ইরান

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে ডেঙ্গু পরীক্ষার নির্দেশ

প্রকাশিত:শনিবার ০৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৫৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশের সব সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে ডেঙ্গুর নমুনা পরীক্ষার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম। গতকাল শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে হেমাটোলজি সোসাইটি অব বাংলাদেশ আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

খুরশীদ আলম বলেন, ডেঙ্গুর সুচিকিৎসা নিশ্চিতে সারাদেশে সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে ডেঙ্গু পরীক্ষার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এরই মধ্যে এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন হয়েছে। তবে রাজধানীর একাধিক হাসপাতালে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তারা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া এ নিদের্শনা মানছে না। রোগীদের ওষুধও কিনতে হচ্ছে বাইরে থেকে। দেয়া হচ্ছে না মশারি।

স্বাস্থ্যের ডিজি বলেন, ডেঙ্গু পরিস্থিতি কবে নিয়ন্ত্রণে আসবে, তা ভালো বলতে পারবেন কীটতত্ত্ববিদরা। তবে চিকিৎসার দিক থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কোনো ঘাটতি নেই। উপজেলা-জেলা পর্যায়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা রয়েছে। ডেঙ্গু পরীক্ষা সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে দেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে ডেঙ্গু শনাক্ত না হওয়ায় এবং হাসপাতালে দেরিতে আসায় ঝুঁকি বাড়াচ্ছে। মৃত্যুও বাড়ছে। উদ্বেগজনক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে স্থানীয় সরকার ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর একসঙ্গে কাজ করছে।


আরও খবর



‘মানুষের জীবন নিয়ে খেলতে চাইলে প্রতিহত করা হবে’

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৩৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, আওয়ামী লীগ হলো জনতার দল, মাঠ ময়দানে আন্দোলন সংগ্রামের দল। আওয়ামী লীগ শান্তি সৃষ্টি করে, শান্তি সৃষ্টির লক্ষ্যে অশান্তি সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সবসময় কাজ করে। জনগণকে নিয়ে যেকোনো অন্যায়, অবিচার অথবা ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড যারা করে, যারা জীবন নিয়ে ছিনিমিনি করতে চাইবে, যারা মানুষের জীবনকে লাশ বানিয়ে ফায়দা লুটতে চাইবে, তাদের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিহত করবে।

আওয়ামী লীগের সম্মেলন উপলক্ষে স্বেচ্ছাসেবক ও শৃঙ্খলা উপ-কমিটির সভায় তিনি এসব কথা বলেন। শুক্রবার (১৮ নভেম্বর) সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক ও শৃঙ্খলা উপ-কমিটির আহ্বায়ক আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ।

বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ২০১৩, ১৪ ও ১৫ সালে যেভাবে অগ্নিসন্ত্রাস চালিয়ে, বোমা নিক্ষেপ করে মানুষ পুড়িয়ে মেরে ছিল, তারাই আবার সেই কায়দায় সন্ত্রাস সৃষ্টি করার পাঁয়তারা চালাচ্ছে। যেখানেই সন্ত্রাস হবে সেখানে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করবে। এদের রুখে দেওয়ার জন্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সতর্ক অবস্থানে থাকবে। প্রস্তুত থাকবে। এই মুহূর্তে আমরা সম্মেলন নিয়ে ব্যস্ত। প্রতিদিন আওয়ামী লীগের জনসভাগুলো জনসমাবেশে রূপ নিচ্ছে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কথা শোনার আগ্রহ দেখাচ্ছে জনসাধারণ।


আরও খবর