Logo
শিরোনাম

একসঙ্গে ডিআইজি হলেন স্বামী-স্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) যুগ্ম কমিশনার পদে কর্মরত পুলিশ কর্মকর্তা দম্পতি একসঙ্গে পদোন্নতি পেয়ে উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) হয়েছেন। এ দম্পতিসহ ডিএমপির মোট ১১ জন পুলিশ কর্মকর্তা ডিআইজি পদে পদোন্নতি পেয়েছেন।

ডিএমপি জানায়, ডিআইজি পদে পদোন্নতি পেয়েছেন ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার (অপারেশন্স) মো. মনির হোসেন ও তার সহধর্মিণী ডিএমপির পরিবহন বিভাগের যুগ্ম কমিশনার শামীমা বেগম।

বুধবার (১১ মে) রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের উপ-সচিব ধনঞ্জয় কুমার দাস স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে ৩২ জন পুলিশ কর্মকর্তাকে ডিআইজি পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়।

সিরাজগঞ্জ জেলায় জন্মগ্রহণ করা মনির হোসেন ১৯৯৯ সালের ২৫ জানুয়ারি ১৮তম বিসিএসের মাধ্যমে সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ যোগদান করেন। পেশাগত জীবনে দক্ষতার পরিচয় দিয়ে তিনি ডিএমপির প্রসিকিউশন বিভাগের উপ-কমিশনারসহ গোপালগঞ্জ ও নড়াইল জেলার পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া, তিনি পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। পেশাগত দক্ষতার জন্য পেয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম)।

এদিকে, মনির হোসেনের স্ত্রী শামীমা বেগম একই সালে একই বিসিএসের মাধ্যমে এএসপি হিসেবে যোগদান করেন। ডিএমপির ওমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন বিভাগের উপ-কমিশনারসহ সিআইডি এবং পুলিশ সদর দপ্তরের গুরুত্বপূর্ণ পদে পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া তিনি অ্যাডিশনাল ডিআইজি হিসেবে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স ও পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার টাঙ্গাইলে দায়িত্ব পালন করেছেন।

২০০৬-০৭ সালে আইভরিকোস্টে এবং ২০১০-১১ সালে সুদানে জাতিসংঘ মিশনে শান্তিরক্ষী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন শামীমা বেগম। পেশাগত দক্ষতার জন্য তিনিও পেয়েছেন প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক (পিপিএম)। এছাড়া, শামীমা বেগম বাংলাদেশ পুলিশ উইমেন নেটওয়ার্কের (বিপিডব্লিউএন) সহ-সভাপতি ও আইএডব্লিওপির রিজিয়ন-২২ এর কো-অর্ডিনেটর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন।

ডিআইজি পদে পদোন্নতি পাওয়া ডিএমপির অন্য ৯ জন কর্মকর্তারা হলেন- অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) মো. মুনিবুর রহমান, অতিরিক্ত কমিশনার (কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম) মো. আসাদুজ্জামান, যুগ্ম কমিশনার (অ্যাডমিন অ্যান্ড ডিবি-দক্ষিণ) মো. মাহবুব আলম, যুগ্ম কমিশনার (হেডকোয়ার্টার্স) মিরাজ উদ্দিন আহম্মেদ, যুগ্ম কমিশনার (লজিস্টিকস্) মঈনুল হক, যুগ্ম কমিশনার (কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম) মো. ইলিয়াছ শরীফ, যুগ্ম কমিশনার (ট্রাফিক-দক্ষিণ) সৈয়দ নুরুল ইসলাম, যুগ্ম কমিশনার (ক্রাইম) মো. আনিসুর রহমান, যুগ্ম কমিশনার (সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম ও ডিবি-উত্তর) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

নিউজ ট্যাগ: ডিএমপি ডিআইজি

আরও খবর



থ্রি-হুইলার-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই বন্ধু নিহত

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৭২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়কে মোটরসাইকেল ও থ্রি হুইলারের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই বন্ধু নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়নের কাঠেরঘর এলাকায় বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়কে এই দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন অপর মোটরসাইকেল আরোহী সুমন নামের এক যুবক। তিনি আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

নিহত দুইজন হলেন- বরিশাল নগরীর ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের শাহপরান সড়কের বাসিন্দা শাহজাহান মৃধার ছেলে নিরব (২৫) এবং একই এলাকার নাছির হাওলাদারের ছেলে লিমন (২২)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নিরব তার মোটরসাইকেলে দুই বন্ধু লিমন ও সুমনকে নিয়ে বরিশালের দিকে আসছিলেন। পথিমধ্যে নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়নের কাঠেরঘর এলাকায় বিপরীত দিক  থেকে যাত্রী নিয়ে যাওয়া একটি বেপরোয়া গতির থ্রি হুইলারের সঙ্গে মোটরসাইকেলটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই নিরব নিহত হন এবং আহত লিমন ও সুমনকে উদ্ধার করে  শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

শেবাচিম হাসপাতাল সূত্র জানিয়েছে, ১৫ মিনিট চিকিৎসা নেওয়ার পরে লিমনও মারা যান। তাদের সঙ্গী সুমনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল কালাম বুধবার সকাল ১০টায় হতাহতের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নলছিটি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতাউর রহমান বুধবার সকালে জানান, মঙ্গলবার রাতে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু পুলিশ পৌঁছার আগেই নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে বরিশালে শেবাচিম হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



রাশিয়ার হুমকি উপেক্ষা করে নেটোতে যোগ দিল ইউরোপের দুই দেশ

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাশিয়ার হুমকি উপেক্ষা করে নেটোতে যোগ দিল ইউরোপের দুই দেশ ফিনল্যান্ড এবং সুইডেন। নেটো প্রধান জেন্স স্টোল্টেনবার্গের হাতে বুধবার আবেদনপত্র তুলে দেন দুই দেশের রাষ্ট্রদূত। এই সিদ্ধান্তকে ঐতিহাসিক পদক্ষেপ বলে বর্ণনা করেন নেটো প্রধান।

তবে নেটো সদস্য তুরস্ক এই যোগদানের বিরোধিতা করেছে। তাদের অভিযোগ প্রতিবেশী এই দুই দেশ তুরস্কের বিদ্রোহী গোষ্ঠীকে আশ্রয় দিচ্ছে। যদিও নেটো প্রধান বলেছেন, সদস্য দেশগুলির নিরাপত্তার স্বার্থে আমাদের এক সঙ্গে কাজ করতে হবে এবং এই কাজ করতে গিয়ে অনেক সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে। তবে সেগুলিও সমাধান করতে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

নেটোর বহর বাড়ার আত্মবিশ্বাসী স্টোল্টেনবার্গ জানিয়েছেন, নেটোকে আরও মজবুত করতে সব সদস্য দেশই সহমত পোষণ করেছে। তবে তুরস্কের আপত্তির বিষয়টি নিয়ে সদস্য দেশগুলি আশাপ্রকাশ করেছে যে, খুব দ্রুত এই সমস্যাও কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে।

ইউক্রেনের পর পরই যখন ফিনল্যান্ড এবং সুইডেন নেটোতে যোগদানের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছিল, মস্কো হুমকি দিয়েছিল এর ফল ভুগতে হবে। ইউক্রেনের মতো পরিস্থিতি হতে পারে বলেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সানা মারিন জানিয়ে দিয়েছিলেন, রাশিয়ার হুমকিতে তাঁরা ভয় পান না। এমনকি পরমাণু হুমকিতেও নয়।

গত ৯ মে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন হুমকি দিয়েছিলেন, সদস্য বাড়ানোর কাজ বন্ধ করুক নেটো। এমনকি হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন, এই দুই দেশ যদি নেটোতে যোগ দেয়, তা হলে সামরিক এবং প্রযুক্তিগত দিক থেকে উপযুক্ত জবাব দেওয়া হবে। তার মধ্যেই ফিনল্যান্ড এবং সুইডেনের আকাশসীমায় রুশ সামরিক বিমান উড়তে দেখা যায়। তার পরই জল্পনা শুরু হয়, তা হলে কি এ বার ফিনল্যান্ড এবং সুইডেনেও সামরিক অভিযানেকর ছক কষছে রাশিয়া।


আরও খবর



একদিনে সাড়ে ৪ হাজার ভারতীয় ভিসা প্রদান

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৪১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে বাড়তি ভিসা আবেদন গ্রহণ ও ভিসা প্রদানের ঘোষণা দিয়ে রেখেছিল ঢাকায় অবস্থিত ভারতীয় ভিসা সেন্টার। এরই ধারাবাহিকতায় ঢাকা থেকে গত একদিনে সাড়ে ৪ হাজার ভারতীয় ভিসা দেওয়া হয়েছে। রোববার (১ মে) ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

ঈদের আগে ভারতীয় ভিসা প্রত্যাশীদের সুবিধার্থে ছুটির দিনেও গত ৩০ এপ্রিল ভারতের হাইকমিশন শুধুমাত্র ঢাকাতেই প্রায় ৪ হাজার ৫০০টি ভিসা ইস্যু করেছে। এদিন ভিসা ডেলিভারির সুবিধার্থে সারা বাংলাদেশের ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রগুলো (আইভিএসি) বিকেল ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চালু ছিল।

আজও আইভিএসি খোলা রয়েছে। ভিসা আবেদন গ্রহণ ও পাসপোর্ট ডেলিভারি দেওয়া হচ্ছে। তবে ঈদের জন্য আগামী ২ ও ৩ মে ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্র বন্ধ থাকবে।উল্লেখ্য, ঈদ সামনে রেখে ঢাকার ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্র ভিসা আবেদন জমা ও পাসপোর্ট ডেলিভারি দেওয়ার সময়সীমা বাড়ানো হয়।


আরও খবর



বায়তুল মোকাররমে ঈদ জামাতে মুসল্লিদের ঢল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৭২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে পবিত্র ঈদুল ফিতরের জামাতে মুসল্লিদের ঢল নেমেছে।মঙ্গলবার ফজরের নামাজের পর রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মুসল্লিরা ঈদুল ফিতরের দুই রাকাত ওয়াজিব নামাজ পড়তে জাতীয় মসজিদে আসতে থাকেন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বায়তুল মোকাররম ও এর আশপাশের এলাকা মুসল্লিদের পদচারণায় মুখর হয়ে ওঠে।

বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাত সকাল ৭টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও মসজিদে প্রবেশে সাড়ে ৬টার দিকেই মুসল্লিদের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে। দক্ষিণ গেইট দিয়ে লাইন ধরে আর্চওয়ের ভেতর দিয়ে মুসল্লিরা মসজিদে প্রবেশ করেন।

দুই বছর পর বড় কোনো জামাতে অংশ নিয়ে নামাজ আদায়ের জন্য মুসুল্লিদের ছিল বিশেষ প্রস্তুতি। সবাই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে নামাজ আদায় করেছেন।

মুসল্লিদের সারি মাওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়াম ছাড়িয়ে বঙ্গবন্ধু স্কয়ার পর্যন্ত চলে গেছে। প্রবেশ গেইটে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে তৎপর দেখা গেছে।

বায়তুল মোকাররম মসজিদে ঈদুল ফিতরের ৫টি জামাত হচ্ছে। প্রথম জামাত শুরু হয় সকাল ৭টায়। এতে ইমাম ছিলেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান।

প্রথম জামাত সকাল ৭ টা ২৭ মিনিটে শেষ হয়। প্রথম জামাত চলাকালীন বিপুল সংখ্যক মুসল্লি দক্ষিণ গেটের বাইরে রাস্তায় অপেক্ষা করতে থাকেন।

প্রথম জামাত শেষ হলে মুসল্লিরা দুটি আর্চওয়ে দিয়ে হুড়মুড় করে প্রবেশ করতে থাকেন। মুসল্লিদের চাপে আর্চওয়ের কিছু অংশ ভেঙে পড়ে। একপর্যায়ে আর্চওয়ে দুটি সরিয়ে দেওয়া হয়।

দ্বিতীয় জামাত শুরু হয় সকাল ৮টায়। তৃতীয় জামাত সকাল ৯টায়, চতুর্থ জামাত সকাল ১০টায়। পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাত সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে অনুষ্ঠিত হবে।জামাতে নামাজ আদায়ের পর মুসল্লিদের মোসাফাহা ও কোলাকুলির মাধ্যমে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করতে দেখা গেছে।

বহুদিন পর বড় জামাতে নামাজ পড়তে পারায় মুসুল্লিদের মধ্যে বাড়তি উচ্ছ্বাস কাজ করেছে। আজ স্বাস্থ্যবিধি কিছুটা শিথিল ছিল। অনেকে মাস্ক ছাড়াই জামাতে অংশ নিয়েছেন।  


আরও খবর



বাগেরহাটে নদীর চর থেকে অজ্ঞাত নারীর মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৭৯জন দেখেছেন
আব্দুল্লাহ আল মামুন

Image

বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার বলেশ্বর নদীর চর থেকে অজ্ঞাত এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) দুপুরে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। ওই নারীর বয়স আনুমানিক ৭০ বছর।

শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকরাম হোসেন বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে বলেশ্বর নদীর চর থেকে অজ্ঞাত এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।


আরও খবর