Logo
শিরোনাম

এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রের তালিকা প্রকাশ

প্রকাশিত:সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ অক্টোবর ২০২১ | ৯৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা কেন্দ্রের তালিকা প্রকাশ করেছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড। আজ সোমবার (১১ অক্টোবর) চলতি বছরের পরীক্ষার এই তালিকা প্রকাশ করা হয় ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে।

জানা গেছে, এবারের এসএসসি ও সমমান এবং এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা ১৪ নভেম্বর থেকে শুরু হবে। এসএসসির তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা ১৪ নভেম্বর শুরু হয়ে শেষ হবে ২৩ নভেম্বর।

প্রতি বছর ফেব্রুয়ারির শুরুতে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হয়। কিন্তু করোনার কারণে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে আবশ্যিক বিষয় বাদ দিয়ে তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ে এসএসসির পরীক্ষা নেওয়া হবে। অন্যদিকে, এইচএসসি পরীক্ষায় তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা ২ ডিসেম্বর শুরু হয়ে শেষ হবে ৩০ ডিসেম্বর।


আরও খবর



‘ফ্রান্সের গির্জায় হাজার হাজার যৌন নিপীড়ক ছিল’

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ | ৪৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ফ্রান্সের রোমান ক্যাথলিক চার্চগুলোতে উনিশ শ পঞ্চাশের দশকে হাজার হাজার যৌন নির্যাতনকারী ছিলেন বলে একটি তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে। রোমান ক্যাথলিক চার্চে ঘটে যাওয়া বহু যৌন নির্যাতনের ঘটনার তদন্তের জন্য গঠিত এক নিরপেক্ষ কমিশন এ তথ্য প্রকাশ করেছে। কমিশনের প্রধান জঁ-মার্ক সোভ বলেছেন, সে সময় হাজার হাজার শিশু নির্যাতনকারী তৎপর ছিল এবং এটি হচ্ছে ন্যূনতম অনুমান।

ফরাসি বার্তা সংস্থাকে তিনি জানিয়েছেন, দুই হাজার ৯০০ থেকে তিন হাজার ২০০ শিশু নির্যাতনকারী পাদ্রী ও অন্যান্য যাজকদের বিরুদ্ধে প্রমাণ সংগ্রহ করেছেন তারা। মোট এক লাখ ১৫ হাজার জন পাদ্রী ও গির্জার অন্যান্য কর্মকর্তার ব্যাপারে এ তদন্ত চালানো হয়। রিপোর্টটি তৈরি হয়েছে চার্চ, আদালত এবং পুলিশের দলিলপত্রের আর্কাইভে পাওয়া তথ্য এবং যৌন নির্যাতনের শিকারদের সাক্ষাতকারের ওপর ভিত্তি করে।

আগামী মঙ্গলবার এই তদন্তের চূড়ান্ত প্রতিবেদন পেশ করা হবে। রিপোর্টটি আড়াই হাজার পৃষ্ঠার হবে। যৌন নির্যাতনের শিকার একজন বলেছেন, এর ফল হবে বোমা বিস্ফোরণের মতো। 

বিভিন্ন দেশে কয়েকটি কেলেংকারির ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর ফরাসি ক্যাথলিক গির্জা কর্তৃপক্ষ ২০১৮ সালে ওই তদন্তের আদেশ দেন। কমিশনের সদস্যদের মধ্যে ছিলেন ডাক্তার, ইতিহাসবিদ, সমাজবিজ্ঞানী এবং ধর্মতত্ত্ববিদরা। আড়াই বছরের মধ্যে সাড়ে ছয় হাজারেরও বেশি সাক্ষীর সাথে যোগাযোগ করা হয়।

রোমান ক্যাথলিক প্রকাশনা দ্য ট্যাবলেটের ক্রিস্টোফার ল্যাম্ব বলেছেন, এই যৌন নির্যাতন কেলেংকারি ক্যাথলিক চার্চকে গত ৫০০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বড় সংকটে ফেলেছিল।

এর ধারাবাহিকতায় পোপ ফ্রান্স এ বছরই ক্যাথলিক চার্চে নিয়ম-কানুনে সংশোধনী আনেন যাতে যৌন নিপীড়ন, শিশুদের ওপর যৌন নির্যাতন, শিশু পর্নোগ্রাফি ও এসব ঘটনা চাপা দেবার চেষ্টাকে স্পষ্টভাবে অপরাধ হিসেবে তালিকাভুক্ত হয়।

কমিশন প্রধান সোভ ফরাসী দৈনিক লা মন্ডেকে বলেছেন, এই প্যানেল এমন ২২টি ঘটনার তথ্যপ্রমাণ কৌঁসুলিদের হাতে তুলে দিয়েছে যেগুলোর ব্যাপারে এখনো ফৌজদারি পদক্ষেপ নেয়া সম্ভব।



আরও খবর



বিশ্বজুড়ে বেড়েছে সংক্রমণ, কমেছে মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৫৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে বিশ্বের প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। করোনায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনাটিও ঘটেছিল চীনে

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে শ্বাসতন্ত্রের প্রাণঘাতী রোগ করোনার সংক্রমণ বেড়েছে, কিছু পরিমাণে কমেছে এ রোগে মৃত্যুর সংখ্যা। তবে এই সময়সীমার মধ্যে বিশ্বে বেড়েছে এই রোগটি থেকে সুস্থতার হারও। মহামারি শুরুর পর থেকে এ রোগে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হালনাগাদ তথ্য প্রদানকারী ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার্স এ তথ্য জানিয়েছে।

ওয়েবসাইটটির পরিসংখ্যান বলছে, শুক্রবার বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৫৬ হাজার ৪৩৪ জন এবং এ রোগে মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৭০১ জনের। পাশপাশি, এই দিন করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৩ লাখ ৯০ হাজার ২০০ জন।

আগের দিন, বৃহস্পতিবার বিশ্বে করোনায় নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ৪ লাখ ৭০ হাজার ৫৯২ জন। ওইদিন এ রোগে মারা গিয়েছিলেন ৭ হাজার ৪৮৯ জন এবং সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন ৩ লাখ ৭৯ হাজার ৮৩১ জন।

অর্থাৎ, ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে বিশ্বে নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে ১৪ হাজার ১৫৮ জন এবং মৃতের সংখ্যা বেড়েছে ২১২ জন। এবং, এই সময়সীমার মধ্যে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির সংখ্যা বেড়েছে ১০ হাজার ৩৬৯ জন।

শুক্রবার  করোনায় নতুন আক্রান্ত ও মৃত্যুর হিসেবে বিশ্বের দেশসমূহের মধ্যে শীর্ষে ছিল যুক্তরাষ্ট্র। ওয়ার্ল্ডোমিটার্সের তথ্য অনুযায়ী, এই দিন দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮২ হাজার ২৭৪ জন এবং এ রোগে মারা গেছেন ১ হাজার ৫৫২ জন।

করোনায় দৈনিক মৃত্যুতে এ দিন যুক্তরাষ্ট্রের পরেই ছিল রাশিয়া। যুক্তরাষ্ট্রের একসময়ের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ও বিশ্বের বৃহত্তম এই দেশটিতে শুক্রবার করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৬৪ জনের। পাশাপাশি, এই দিন দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭ হাজার ১৪১ জন।

যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া ছাড়া অন্যান্য যেসব দেশে করোনায় সংক্রমণ-মৃত্যুর উচ্চহার দেখা গেছে সে দেশসমূহ হলো যুক্তরাজ্য (নতুন রোগী ৪৯ হাজার ২৯৮, মৃত্যু ১৮০), তুরস্ক (নতুন রোগী ২৮ হাজার ১৯২, ‍মৃত্যু ২২৮) ও ইউক্রেন (নতুন রোগী ২৩ হাজার ৭৮৫, মৃত্যু ৬১৪)

করোনায় বিপর্যস্ত দুই দেশ ভারত ও ব্রাজিলে বর্তমানে কমে আসছে এ রোগের সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার। শুক্রবার ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ হাজার ৩৩১ জন এবং এ রোগে মারা গেছেন ৬৬৬ জন। অন্যদিকে, এই দিন ব্রাজিলে নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ১৪ হাজার ৪০২ জন এবং এ রোগে মৃতের সংখ্যা ছিল ৪৪৭ জন।

ওয়ার্ল্ডোমিটার্সের তথ্য অনুযায়ী, ২০২০ সালে করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত করোনায় বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত হয়েছেন মোট ২৪ কোটি ৩৭ লাখ ৮ হাজার ১৮৯ জন এবং এ রোগে মারা গেছেন মোট ৪৯ লাখ ৫২ হাজার ৮৫৬ জন।

এছাড়া, মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন মোট ২২ কোটি ৮ লাখ ৩৭ হাজার ৪০৮ জন।

বর্তমানে বিশ্বে সক্রিয় করোনারোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৭৯ লাখ ১৭ হাজার ৯২৫ জন। আক্রান্ত এই রোগীদের মধ্যে মধ্যে করোনার মৃদু উপসর্গ বহন করছেন ১ কোটি ৭৮ লাখ ৪১ হাজার ৬৭৬ জন এবং গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় আছেন ৭৬ হাজার ২৪৯ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে বিশ্বের প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। করোনায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনাটিও ঘটেছিল চীনে।

তারপর অত্যন্ত দ্রুতগতিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসটি। পরিস্থিতি সামাল দিতে ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

কিন্তু তাতেও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় অবশেষে ওই বছরের ১১ মার্চ করোনাকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে ডব্লিউএইচও।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর

আরও ১৭৩ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

করোনায় মৃত্যু কমেছে, শনাক্ত বেড়েছে

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




বিমানবন্দরে ১০ কোটি টাকার স্বর্ণ জব্দ

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৮১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুবাই থেকে আসা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট থেকে প্রায় ১০ কোটি টাকা মূল্যের ১২০টি স্বর্ণের বার (প্রায় ১৩.৯২ কেজি) জব্দ করেছে কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট বিমানবন্দরে অবতরণ করলে তল্লাশি চালিয়ে এসব স্বর্ণের বার জব্দ করা হয়। সহকারি পরিচালক আবু হানিফ মোহাম্মদ আবদুল আহাদের নেতৃত্বে অভিযান চালানো হয়।

১২০টি স্বর্ণের বার জব্দের বিষয়ে বুধবার (০৬ অক্টোবর) সকাল ১১টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিস্তারিত জানাবে কর্তৃপক্ষ।


আরও খবর

দেশে ছড়িয়ে পড়ছে ভয়ংকর আইস

মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১




চুল কাটার প্রমাণ মিলেছে, সেই শিক্ষিকার শাস্তির সুপারিশ

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সম্প্রতি দেশজুড়ে আলোচিত সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেওয়ার ঘটনার প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি। এজন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনকে অভিযুক্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সুপারিশ করেছে কমিটি।

ওই তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২৬ সেপ্টেম্বর সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের পরীক্ষা ছিল। পরীক্ষার হলে প্রবেশপথে অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন নিজ হাতে ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেন।

ওই ঘটনার প্রতিবাদে ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষার্থীরা সব পরীক্ষা বন্ধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন। ৩০ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ফারহানাকে সাময়িক বরখাস্ত করে। এ ঘটনা তদন্তের জন্য রবীন্দ্র অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান লায়লা ফেরদৌসকে চেয়ারম্যান করে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। কমিটি সরেজমিনে তদন্ত করে বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার সোহরাব আলীর কাছে প্রতিবেদন জমা দেয়।

তদন্ত প্রতিবেদনের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার সোহরাব আলী বলেন, তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন পেয়ে শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সিন্ডিকেট সভা ডাকা হয়েছিল। সেখানে আইনগত বিষয়গুলো পর্যালোচনার জন্য ১০ কার্যদিবস সময় নিয়ে সভা মুলতবি করা হয়। বুধবার (২৭ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) একটি তদন্ত দল বিষয়টি তদন্ত করতে ক্যাম্পাসে আসবে। তারপর এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এদিকে শিক্ষক ফারহানাকে স্থায়ীভাবে বরখাস্তের দাবিতে আবারো উত্তাল হয়ে উঠেছে রবি ক্যাম্পাস। ২৪ অক্টোবর সকালে সিরাজগঞ্জ পৌর শহরের বিসিক মোড় এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাসের একাডেমিক ভবন ও কান্দাপাড়া এলাকায় প্রশাসনিক ভবনে তালা দিয়ে বাইরে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা। এতে দুপুর ২টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে রেজিস্ট্রারসহ ৩০ জন শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী একাডেমিক ভবন-১-এ অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন।

দুপুরের দিকে আন্দোলনরত সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র শামীম হোসেন বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। তাকে শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদিকে একই বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র আবিদ হাসান নামের আরেক ছাত্র ব্লেড দিয়ে হাত কেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করলে অন্যরা তাকে নিবৃত্ত করেন।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের বিষয়ে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের রুটিন দায়িত্বে থাকা কোষাধ্যক্ষ আবদুল লতিফ বলেন, রেজিস্ট্রার শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সার্বিক বিষয় নিয়ে কথা বলছেন। আমরা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনার চেষ্টা করছি।


আরও খবর

বেগমগঞ্জে আ’লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যুঝুঁকি ‘অর্ধেকে নামাতে পারে’ কোভিডবিরোধী ট্যাবলেট

প্রকাশিত:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ | ৭৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনায় আক্রান্ত হয়ে অসুস্থদের জন্য তৈরি একটি ট্যাবলেটের পরীক্ষামূলক ব্যবহারে ব্যাপক সাফল্যের আভাস মিলেছে। মোলনুপিরাভির নামের ওই ট্যাবলেটের অন্তবর্তীকালীন ক্লিনিক্যাল পরীক্ষায় দেখা গেছে, এটি ব্যবহারে করোনায় আক্রান্তদের হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যুঝুঁকি অর্ধেকে নেমে আসছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এমনটি জানানো হয়েছে। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে কোভিডে আক্রান্তদের দিনে দুবার করে ট্যাবলেটটি খাওয়ানো হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান মার্ক ট্যাবলেটটি তৈরি করেছে। তারা বলছে, মনিটরের বাইরে বাস্তবেই বেশ ইতিবাচক ফল পাওয়া গেছে। অথচ, শুরুর দিকে ওষুধটির ট্রায়াল বন্ধ করতে বলা হয়েছিল। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে জরুরি ব্যবহারের অনুমোদনের জন্য আবেদন করার কথা জানিয়েছে কোম্পানিটি।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রধান চিকিৎসা বিষয়ক উপদেষ্টা ড. অ্যান্থনি ফসি বলেছেন, ফলাফলের ব্যাপারটি খুবই ভালো খবর।’” তবে, তিনি এসব তথ্যের বিষয়ে মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা-এফডিএর পর্যবেক্ষণের আগপর্যন্ত সতর্ক থাকার কথা বলেছেন।

প্রথম খাওয়ার ওষুধ

এফডিএ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাসহ (ডব্লিউএইচও) অন্যান্য নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠানগুলোর অনুমোদন পেলে এই মোলনুপিরাভির হতে যাচ্ছে কোভিড-১৯ ভাইরাসের বিরুদ্ধে মুখে সেবনযোগ্য প্রথম কোনো ওষুধ।

ট্রায়ালের ফল

মূলত ইনফ্লুয়েঞ্জার চিকিৎসার জন্য তৈরি ওষুধটিকে কোভিড ভাইরাসের জেনেটিক কোডের ভুলগুলোকে চিনিয়ে দেওয়া হয়েছে, যাতে করে শরীরে এটি ছড়িয়ে পড়তে না পারে।

৭৭৫ জন রোগীর তথ্যে যা পাওয়া গেছে

মোলনুপিরাভির খাওয়া রোগীদের ৭ দশমিক ৩ শতাংশকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে। কিন্তু, যাদের প্লাসবো (নিষ্ক্রিয় ওষুধ বিশেষ) ট্যাবলেট দেওয়া হয়েছে, তাদের মধ্যে ১৪ দশমিক ১ শতাংশকে হাসপাতালে নিতে হয়েছে।

মোলনুপিরাভির গ্রহণকারীদের কারও মৃত্যু হয়নি। তবে, প্লাসবো গ্রহণকারীদের আট জনের কোভিডে মৃত্যু হয়েছে। এসব তথ্য একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে প্রকাশ করেছে ওষুধ প্রস্তুতকারক কোম্পানিটি। তবে, এখনও বিশেষজ্ঞদের দ্বারা পর্যবেক্ষণ-বিশ্লেষণ করা হয়নি।

টিকা তৈরির ক্ষেত্রে সাধারণত ভাইরাসের আবরণের স্পাইক প্রোটিনকে লক্ষ্যবস্তু বানিয়ে এগোনো হয়। অন্যদিকে, এই ওষুধ একটি এনজাইমকে ধরে কাজ করে, যেন ভাইরাস নিজে আরও ভাইরাস উৎপাদন করতে না পারে।

অন্যান্য ভ্যারিয়্যান্টের বিরুদ্ধেও ট্যাবলেটের কার্যকারিতার ব্যাপারেও আশাবাদী ওষুধ কোম্পানিটি।

মার্ক-এর সংক্রমণ রোগ বিষয়ক আবিষ্কার বিভাগের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ডারিয়া হাজুডা বিবিসিকে বলেন, যারা এখনও টিকা নেয়নি, অথবা টিকা নেওয়ার পরেও যাদের শরীরে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা ততটা তৈরি হচ্ছে না, তাদের জন্য এই ভাইরাসবিরোধী ওষুধের চিকিৎসা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। মহামারি দূর করতে সাহায্য করতে পারে এই মোলনুপিরাভির।

ট্রায়ালের ফলাফল বলছে, করোনা সংক্রমণের পর উপসর্গগুলো দেখা দিতে শুরু করলে প্রথম দিকেই মোলনুপিরাভির নিতে হবে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় এরই মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে, এমন রোগীর বেলায় মোলনুপিরাভির ট্যাবলেটের ট্রায়ালে ভাল ফলাফল না আসায় ওই ট্রায়াল বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ব্যবহারের অনুমোদন কবে?

কোভিড চিকিৎসায় ট্যাবলেটের ট্রায়ালের ফলাফল পাওয়া প্রথম কোম্পানি মার্ক। কিন্তু, কয়েকটি কোম্পানি করোনার চিকিৎসা নিয়ে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের আরেক প্রতিষ্ঠান ফাইজার ভাইরাসবিরোধী পৃথক দুটি ট্যাবলেটের শেষ পর্যায়ের ট্রায়ালে রয়েছে। অপরদিকে, সুইজারল্যান্ডের কোম্পানি রোশ একই ধরনের ওষুধ তৈরিতে কাজ করছে।

২০২১ সালের শেষ নাগাদ এক কোটি রোগীর জন্য মোলনুপিরাভির উৎপাদন করতে পারবে বলে আশা প্রকাশ করেছে মার্ক।

এফডিএর অনুমোদন পেলে যুক্তরাষ্ট্র সরকার ১২০ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের মোলনুপিরাভির কিনতে সম্মত হয়েছে।

সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞ যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক পিটার হরবি বিবিসিকে বলেন, নিরাপদ, সাশ্রয়ী ও কার্যকর একটি ওষুধ কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ব্যাপক অগ্রগতি হিসেবে গণ্য হবে।

অধ্যাপক পিটার হরবি বলেন, গবেষণাগারে মোলনুপিরাভিরের ফল আশাব্যঞ্জক। কিন্তু আসল পরীক্ষা হচ্ছে, মানুষের কতটা কাজে লাগছে। প্রচুর ওষুধ এই পর্যায়ে এসে ব্যর্থ হয়। অন্তবর্তীকালীন ফলাফল ব্যাপকমাত্রায় আশাব্যঞ্জক।




আরও খবর

আরও ১৭৩ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

করোনায় মৃত্যু কমেছে, শনাক্ত বেড়েছে

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১