Logo
শিরোনাম

ফের বাড়লো তেল-চিনির দাম

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সয়াবিন তেলের দাম লিটারপ্রতি ১২ টাকা বাড়িয়ে ১৯০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। একইসঙ্গে কেজিতে চিনির দাম ১২ টাকা বাড়িয়ে ১০৭ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) থেকে এ দাম কার্যকর হবে। 

দুপুরে শীর্ষস্থানীয় ভোজ্যতেল বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান সিটি গ্রুপের পরিচালক বিশ্বজিৎ সাহা গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় তেলের দাম লিটারে ১২ টাকা ও চিনির দাম কেজিতে ১২ টাকা বাড়িয়েছে। আমাদের মৌখিকভাবে বিষয়টি মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার থেকেই এ দাম কার্যকর হবে।

বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ভোজ্যতেলের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে হ্রাস বা বৃদ্ধি (সমন্বয়) করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১ নভেম্বর আমরা আমাদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিয়ে মূল্য সমন্বয়ের আবেদন করি। পরে দুই দফায় বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশনের কাছে মূল্য সমন্বয়ের যৌক্তিকতা তুলে ধরি। মূল্য সমন্বয়ের বিষয়ে বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশন আমাদের সঙ্গে একমত পোষণ করেছে, যা বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) থেকে কার্যকর হবে।

নতুন দাম অনুযায়ী, এক লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ১৯০ টাকা, পাঁচ লিটারের দাম ৯২৫ টাকা, খোলা প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের দাম ১৭২ টাকা এবং প্রতি লিটার পাম ওয়েলের দাম ১২১ টাকা। 

গত ১ নভেম্বর বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব বরাবর বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের পাঠানো চিঠিতে ভোজ্যতেলের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে ভোজ্য তেলের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য সমন্বয় সংক্রান্ত বিষয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে প্রতিবেদন পাঠাতে ট্যারিফ কমিশনের চেয়ারম্যানকে চিঠি দেয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।  

নিউজ ট্যাগ: তেল-চিনির দাম

আরও খবর

আরেক দফা বাড়ল এলপিজির দাম

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




এইচএসসিতে প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীরা পাবেন অতিরিক্ত ২০ মিনিট

প্রকাশিত:রবিবার ০৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৮০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

যশোর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এ বছর এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন (প্রতিবন্ধী) ৪৪ শিক্ষার্থী। আর এসব শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে নির্ধারিত সময়ের বাইরেও তাদের জন্য অতিরিক্ত আরও ২০ মিনিট সময় বরাদ্দ করেছে শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

যশোর শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আহসান হাবিব এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

যশোর শিক্ষা বোর্ডের তথ্য মতে, ২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় খুলনা জেলা থেকে ১৪ জন, সাতক্ষীরা জেলা থেকে ৯ জন, যশোর জেলা থেকে ৮ জন, কুষ্টিয়া জেলা থেকে ৫ জন, ঝিনাইদহ ও বাগেরহাট জেলা থেকে ৩ জন, চুয়াডাঙ্গা জেলা থেকে দুইজন প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী পরীক্ষা অংশ নিচ্ছেন। সুষ্ঠুভাবে তাদের পরীক্ষা সম্পন্ন করতে অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় বরাদ্দ করা হয়েছে।

অধ্যাপক ড. আহসান হাবিব জানান, শারীরিক ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ৪৪ জন শিক্ষার্থীর জন্য বোর্ড কর্তৃপক্ষ অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় বরাদ্দ করেছে। সেইসঙ্গে বিষয়টি নিশ্চিত করতে কেন্দ্র সচিবদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। গত ২ নভেম্বর এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

এ বছর যশোর শিক্ষাবোর্ডের অধীনে ১ লাখ ৭০৯ জন পরীক্ষার্থী ২২৮টি কেন্দ্রে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেবেন। রোববার (৬ নভেম্বর) থেকে পরীক্ষা শুরু হবে।


আরও খবর



নিজের জন্য পাত্র চাইলেন স্বস্তিকা

প্রকাশিত:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

টলিউড অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখার্জির বয়স ৪১ বছর। এখনও গ্ল্যামার ধরে রেখেছেন তিনি। তাকে নিয়ে সর্বদাই সরগরম সোশ্যাল মিডিয়া। সম্প্রতি নববধূর লুকে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন স্বস্তিকা, যে ভিডিওতে শরীরী সৌন্দর্য ফুটে উঠেছে তার। সবাইকে চমকে দিয়ে নিজের জন্য পাত্র চাইলেন স্বস্তিকা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পাত্র চাই লিখে বিজ্ঞাপন দিলেন তিনি।

পাত্রের বিবরণও জানিয়ে দিলেন। অভিনেত্রীর পছন্দ আর অপছন্দের কথা জেনে তো রীতিমতো নড়েচড়ে বসেছেন ভক্তরা।

পাত্রের বিষয়ে স্বস্তিকা লিখেছেন, গায়ের রঙ শ্যামবর্ণ হলেও চলবে। ফর্সা হতে হবে না। এইটুকুতেই স্বস্তিকা বুঝিয়ে দিলেন কেন ব্যতিক্রম তিনি। পাত্রকে অতি অবশ্যই বই পড়তে ভালোবাসতে হবে। গান শুনতে ভালবাসতে হবে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, বেড়াতে যেতে ভালোবাসতে হবে। ইংরেজি ব্যবহার না করে বাংলা ভাষায় পুরো ১০ মিনিট টানা কথা বলতে পারলেই হবে।

এখানেই শেষ নয়, প্রাণীর প্রতি পাত্রের ভালোবাসা থাকতে হবে। স্বস্তিকার স্পষ্ট বার্তা, আমায় না ভালোবাসলেও চলবে, কিন্তু কুকুরদের মাথায় করে রাখতে হবে। এই সব গুণ থাকলে যোগাযোগ করবেন, বাকি যা যা পারেন না সেগুলো আমি সামলে নেবো।

স্বস্তিকার এমন বিজ্ঞাপনের পর পুরুষ অনুরাগীরা ভিড় জমাচ্ছেন অভিনেত্রীর পোস্টে। একের পর এক মন্তব্যে জমজমাট হয়ে ওঠেছে অভিনেত্রীর বিজ্ঞাপন।


আরও খবর



উত্তেজনাপূর্ণ প্রথমার্ধে সুইসদের বিপক্ষে ২-২ সমতায় সার্বিয়া

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্বকাপের নক আউট রাউন্ডে যেতে হলে এই ম্যাচ জিততেই হবে সার্বিয়াকে। অন্যদিকে ড্র করলেও সুবিধাজনক অবস্থায় থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠে যাবে সুইজারল্যান্ড। এমন অবস্থায় গ্রুপ পর্বের সর্বশেষ পর্যায়ের ম্যাচে উত্তেজনাপূর্ণ লড়াইয়ে ২-২ ব্যবধানে সমতায় থেকে বিরতিতে যায় দুই দল। সুইসদের পক্ষে গোল করেন শাকিরি ও এমবোলো এবং সার্বিয়ার হয়ে গোলের খাতা খোলেন ভালেহোভিচ ও মিত্রোভিচ।

ম্যাচের প্রথম থেকেই সার্বিয়ার মুহুর্মুহু আক্রমণে দিশেহারা হয়ে পড়ে সুইজারল্যান্ড। সুইস ডি বক্সের ভেতর বল নিয়ে বারবার ঢুকলেও গোল পাচ্ছিল না সার্বিয়া। উল্টো ২১ মিনিটে স্রোতের বিপরীতে গোল খেয়ে বসে সার্বিয়া। কাউন্টার এটাক থেকে শাকিরির বা পায়ের দারুণ শট গোলের দেখা পায়।

গোল হজম করে আরও মরিয়া হয়ে ওঠে সার্বিয়া৷ ২৭ মিনিটেই সমতায় ফেরে সার্বিয়া। বাঁ পাশ থেকে ট্যাডিচের দারুণ ক্রসে দুর্দান্ত হেডে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান ফুলহ্যামের স্ট্রাইকার মিত্রোভিচ।

শেষ ৭ ম্যাচে এটি তার ৮ম গোল। ম্যাচের ৩৬ মিনিটে আবারো সেই ট্যাডিচ যাদু। এবার তার বাড়ানো ক্রস থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন দুসান ভালেহোভিচ।

তবে সার্বিয়ার এই আনন্দ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। ম্যাচ শেষ হওয়ার ২ মিনিট আগে সুইসদের হয়ে এবারের বিশ্বকাপে দ্বিতীয় গোলটি করেন এমবোলো। তার গোলেই সমতায় থেকে বিরততে যায় দুই দল।


আরও খবর

রোনালদোকে টপকে গেলেন মেসি

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




চিপ উৎপাদনে আরো এক ধাপ এগোল ইউরোপ

প্রকাশিত:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৩২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চিপ বা সেমিকন্ডাক্টর নিয়ে বর্তমানে বিশ্বে বিভিন্ন ধরনের টানাপোড়েন চলছে। চীনকে পেছনে ফেলতে যুক্তরাষ্ট্র সব ধরনের প্রযুক্তি ও যন্ত্রাংশ সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে। অন্যদিকে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে পশ্চিমা দেশগুলো নিজস্ব উৎপাদন বাড়াতে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে। চীন ও তাইওয়ানের মধ্যেও বিরোধ চলমান। এর অংশ হিসেবে অনেক দেশই এশিয়ানির্ভরতা কমাতে নিজ অঞ্চলে সেমিকন্ডাক্টর উৎপাদনে ঝুঁকছে। সর্বশেষ নিজ অঞ্চলে সেমিকন্ডাক্টর উৎপাদনে ৪ হাজার ৪ কোটি ডলারের প্রকল্প পরিচালনায় সম্মতি দিয়েছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ)। এর মাধ্যমে ইইউর অন্তর্গত ২৭টি দেশ সেমিকন্ডাক্টরের জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও এশিয়ার ওপর নির্ভরতা কমাবে।

পরিকল্পনাটিকে আইনে পরিণত করার আগে ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টে বিতর্কের জন্য ডিসেম্বরে বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে ইইউর অন্তর্ভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে একটি চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে। যেখানে নিজ অঞ্চলে চিপ উৎপাদনে ৪ হাজার ৪০০ কোটি ডলার বা ৪ হাজার ৩০০ কোটি ইউরো তহবিল বরাদ্দের কথা জানানো হয়।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স প্রকাশিত প্রতিবেদনের তথ্যানুযায়ী, বিভিন্ন রাষ্ট্রদূত এরই মধ্যে ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছে। ফলে অঞ্চলটি চিপ উৎপাদনের জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও এশিয়ার চীনের ওপর কম নির্ভরশীল হবে। এছাড়া কোনো জরুরি অবস্থা তৈরি হলে ও সরবরাহ চেইনে সমস্যা হলে নিজস্ব উৎপাদনের মাধ্যমে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা যাবে বলেও উল্লেখ করা হয়। প্রকল্পটি কার্যকরে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের মন্ত্রীরা আগামী ১ ডিসেম্বর বৈঠকে বসবেন। তবে আইনে পরিণত হতে হলে আগামী বছর ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টে এ বিষয়ে বিতর্ক অনুষ্ঠিত হতে হবে। বিশ্বজুড়ে চিপের সংকট তৈরি হলে এতে গাড়ি উৎপাদনকারী থেকে শুরু করে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী ও টেলিযোগাযোগ পরিষেবা প্রতিষ্ঠানগুলোর কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হয়। সে সময়ই এ প্রকল্পের প্রস্তাব দেয়া হয়। আট বছরের মধ্যে বৈশ্বিক চিপ উৎপাদন সক্ষমতার ২০ শতাংশ অর্জনের ব্যাপারে আশাবাদী ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ)। চলতি বছরের শুরুতে এ কারণে ইইউ চিপ অ্যাক্ট চালু করেছে। যার অধীনে সেমিকন্ডাক্টর শিল্পের বিকাশে বিনিয়োগ করা হবে। গবেষণা ও উৎপাদন দুই খাতেই এ অর্থ ব্যয় করা হবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের কিছু সদস্য বরাদ্দের যে পরিকল্পনার সেখানে তহবিলের ব্যবহার নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। সম্প্রতি ব্লুমবার্গ প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ইইউর সদস্যরা সেমিকন্ডাক্টরের গবেষণায় নির্ধারিত ৪০ কোটি ডলার পুনর্বরাদ্দে সম্মতি দিয়েছে। প্রতিবেদনের তথ্যানুযায়ী, এ বিনিয়োগের কারণে জার্মানির মতো দেশ লাভবান হবে। কেননা এসব দেশ সেমিকন্ডাক্টর খাতে ভালো অবস্থানে আছে। নতুন প্রকল্পটি এখনো চূড়ান্ত হয়নি এবং আগামী বছরের আগে কার্যকর হবে না। কিন্তু তার আগেই অনেক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এরই মধ্যে একাধিক নতুন সেমিকন্ডাক্টর কারখানায় উৎপাদন শুরুর ঘোষণা দিয়েছে। এদের মধ্যে ইনটেল, গ্লোবাল ফাউন্ড্রিজ, এসটিমাইক্রোইলেকট্রনিকস ও ইনফিনিওন টেকনোলজিসের মতো প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

অন্যদিকে চলতি বছরের মাঝামাঝি সময়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) চিপ শিল্পে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে তাইওয়ান। এর মধ্য দিয়ে ব্লকটির সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারের ইচ্ছা পোষণ করেছে অঞ্চলটি। তথ্য বলছে, চীনের সার্বভৌমত্ব মেনে নিতে দেশটি রাজনৈতিক ও সামরিকভাবে তাইওয়ানকে অব্যাহত চাপের মুখে রেখেছে। এ পরিস্থিতিতে কাগজে-কলমে কূটনৈতিক সম্পর্কের অনুপস্থিতিতেই বিভিন্ন গণতান্ত্রিক দেশের সঙ্গে সম্পর্ক দৃঢ় করার প্রতি বেশি মনোযোগী তাইপে। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যেভাবে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরি করেছে, ঠিক তেমনিভাবেই ইইউর সঙ্গেও মৈত্রী স্থাপন করতে চায় তাইপে। দেশের চিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো অঞ্চলটিতে বিনিয়োগ করলে দুই পক্ষের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নের পথ অনেকটাই সহজ হবে।


আরও খবর

হাইড্রোজেন দিয়ে উড়বে উড়োজাহাজ

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২

পুরোনো টুইট আর্কাইভ করবেন যেভাবে

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




পাসের হারে এগিয়ে যশোর, সবচেয়ে কম সিলেটে

প্রকাশিত:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ১১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

এসএসসি ও সমমানের এবারের পরীক্ষায় সবচেয়ে বেশি ৯৫ দশমিক ১৭ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে যশোর বোর্ডে। অন্যদিকে সিলেট বোর্ডে সবচেয়ে কম ৭৮ দশমিক ৮২ শতাংশ শিক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে।

রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে সোমবার ফলের বিস্তারিত তুলে ধরার সময় এসব তথ্য জানান শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

যশোর বোর্ডে অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থী ১ লাখ ৬৯ হাজার ৫০১ জন। তাদের মধ্যে উত্তীর্ণ হয় ১ লাখ ৬১ হাজার ৩১৪ জন; জিপিএ ফাইভ পায় ৩০ হাজার ৮৯২ জন।

সিলেট বোর্ড থেকে এসএসসিতে অংশ নেয় ১ লাখ ১৫ হাজার ৩৯১ শিক্ষার্থী, যাদের মধ্যে উত্তীর্ণ হয় ৯০ হাজার ৯৪৮ জন। জিপিএ ফাইভ পায় ৭ হাজার ৫৬৫ জন।

শিক্ষামন্ত্রী সিলেট বোর্ডের এমন ফলের কারণ হিসেবে বন্যার বিষয়টি তুলে ধরেছেন। তিনি বলেন, এবার সেখানে বন্যা একটা বড় কারণ ছিল। এ ছাড়া প্রতি বছর কোনো না কোনো বোর্ডে পাসের হার ওঠানামা করে।’

চলতি বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস করেছে ৮৭ দশমিক ৪৪ শতাংশ শিক্ষার্থী। গতবার পাসের হার ছিল ৯৩ দশমিক ৫৮ শতাংশ। সে হিসাবে পাস কমেছে ৬ দশমিক ১৪ শতাংশ।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের চামেলী হলে সোমবার সরকারপ্রধানের কাছে ফলের অনুলিপি ও পরিসংখ্যান প্রতিবেদন তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। পরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে ফলের বিস্তারিত তুলে ধরেন তিনি।


আরও খবর