Logo
শিরোনাম

ফেসবুক পাসওয়ার্ড চুরি করছে চার শতাধিক অ্যাপ

প্রকাশিত:সোমবার ১০ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৯২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ক্ষতিকর এমন চার শতাধিক অ্যাপস রয়েছে যেগুলো ব্যবহারে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ইউজার নেম-পাসওয়ার্ড চুরি হতে পারে। এই অ্যাপগুলো সম্পর্কে ব্যবহারকারীদের সতর্ক করেছে ফেসবুক। আজ শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে এনডিটিভি।

গতকাল শুক্রবার মেটা জানায়, তারা এই বছর অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস-এ ৪০০টিরও বেশি ক্ষতিকর অ্যাপস শনাক্ত করেছে। এই অ্যাপগুলো ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের লগইন তথ্য চুরি করে। নিরাপত্তার স্বার্থে ক্ষতিকর অ্যাপগুলো ডাউনলোড না করতে ব্যবহারকারীদের সতর্ক করা হয়েছে। অ্যাপল এবং গুগলকেও অ্যাপগুলো সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে জানানো হয়েছে।

অ্যাপল জানায়, ৪০০টি ক্ষতিকর অ্যাপসের মধ্যে ৪৫টি তাদের অ্যাপ স্টোরে ছিল, সেগুলো সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, ক্ষতিকর অ্যাপগুলো গুগলও সরিয়ে নিয়েছে।

এই ক্ষতিকর অ্যাপগুলোর মধ্যে বিভিন্ন ফটো এডিটর, মোবাইল গেমস ও হেলথ ট্র্যাকার অ্যাপ রয়েছে।

মেটার থ্রেট ডিসরাপশন ডিরেক্টর ডেভিড আগ্রানোভিচ বলেছেন, এ ধরনের অ্যাপগুলো কতটা জনপ্রিয় সেটি সাইবার অপরাধীরা জানে। তারা একই ধরনের থিম ব্যবহার করে ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট ও তথ্য চুরি করে থাকে।

এ ধরনের অ্যাপগুলো ডাউনলোড করার পর ফেসবুকে লগইন করতে বলা হয়। এভাবে তারা ফাঁদে ফেলে ব্যবহারকারীদের ইউজার নেম ও পাসওয়ার্ডের তথ্য চুরি করে।


আরও খবর



পোকা দমনের কীটনাশক খেয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন

Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়াতে ধান খেতে পোকা দমনের কীটনাশক খেয়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। নিহত মো.কামাল উদ্দিন (৬৫) উপজেলার নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ডের আদর্শ গ্রামে  মৃত সেরাজুল হকের ছেলে। 

বুধবার (১৬ নভেম্বর) সকালের দিকে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। এর আগে, গতকাল মঙ্গলবার ১৫ নভেম্বর রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নের আদর্শ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃদ্ধ কামাল দীর্ঘ দিন ধরে পেটেরব্যাথায় ভুগছিলেন। পেটব্যাথায় অতিষ্ঠ হয়ে পরিবারের সদস্যদের অজান্তে গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তার নিজের ঘরে ধান খেতে পোকা দমনের কীটনাশক পান করেন। এতে অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিবারের সদস্যরা তাকে হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৩টার দিকে মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

হাতিয়া থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শফিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, এ ঘটনায় আইনগত বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও খবর



প্রথমার্ধে ব্রাজিলকে আটকে রাখলো সার্বিয়া

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রক্ষণ থেকে আক্রমণ; সবখানেই দাপট দেখালো ব্রাজিল। বল দখলেও থাকলো এগিয়ে। তৈরি করল বেশ কয়েকটি দারুণ সুযোগ। কিন্তু ফিনিশিংয়ের অভাবে সার্বিয়ার জাল ভেদ করতে পারলেন না নেইমার-ভিনিসিয়ুসরা। ফলে গোলশূন্য ড্র নিয়ে বিরতিতে গেল তিতের দল।

লুসাইল স্টেডিয়ামে ২০২২ বিশ্বকাপের গ্রুপ 'জি'-এর ম্যাচে আজ মুখোমুখি হয়েছে ব্রাজিল ও সার্বিয়া। ২০ বছরের শিরোপা খরা ঘোচানোর লক্ষ্যে মাঠে নেমেছে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। আক্রমণে বাড়তি জোর দিয়ে আজ ৪-২-৩-১ ফরম্যাশনে দল সাজিয়েছেন ব্রাজিল কোচ তিতে। আক্রমণভাগে রাফিনিয়া, ভিনিসিয়ুস জুনিয়র ও নেইমারকে রেখে স্ট্রাইকিং পজিশনে রিচার্লিশনকে রেখেছেন তিনি। রক্ষণে দানিলো মার্কুইনোস, থিয়াগো সিলভা এবং আলেক্স সান্দ্রো। মাঝমাঠ সামলানোর দায়িত্বে লুকাস পাকেতা ও কাসেমিরো। অন্যদিকে মাঝমাঠের শক্তিতে জোর দিয়ে ৩-৫-১-১ ফরম্যাশনে নেমেছে সার্বিয়ানরা। 

ব্রাজিলের জার্সিতে আজ মাঠে নেমে রেকর্ডের খাতায় নাম লিখিয়েছেন থিয়াগো সিলভা। অধিনায়কের আর্মব্যান্ড পরে মাঠে নেমেই ব্রাজিলের জার্সিতে সবচেয়ে বেশি বয়সে বিশ্বকাপ খেলার রেকর্ড গড়েছেন তিনি। সার্বিয়া ম্যাচে মাঠে নামার সময় চেলসি সেন্টার-ব্যাকের বয়স ৩৮ বছর ৬৩ দিন। এর আগে ১৯৬৬ বিশ্বকাপ খেলতে নামার সময় ব্রাজিলের সাবেক ফুটবলার দালমা সান্তোসের বয়স ছিল ৩৭ বছর ১৩৮ দিন। 

ম্যাচের শুরু থেকে সার্বিয়ার রক্ষণে হানা দেয় ব্রাজিল। চতুর্থ মিনিটে রাফিনিয়া সার্বিয়ার ডিফেন্ডার স্ত্রাহিনিয়া পাভলোভিচকে কাটিয়ে নিচু ক্রস নিয়েছিলেন। কিন্তু কাছের পোস্ট থেকে বল ক্লিয়ার করা হয়। সপ্তম মিনিটে আক্রমণে ওঠে আসা নেইমারকে ঠেকাতে গিয়ে ফাউল করেন পাভলোভিচ। সঙ্গে সঙ্গে হলুদ কার্ড দেখান রেফারি। নবম মিনিটে কাসেমিরোর দারুণ পাসে বক্সের ভেতরে বল পেয়ে যান নেইমার। নিয়ন্ত্রণে নিলেও সার্বিয়ান ডিফেন্ডাররা ঘিরে ধরেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডকে। ফলে শট নিতে পারেননি তিনি।

ত্রয়োদশ মিনিটে কর্নার কিকে বল গোলমুখে পাঠান নেইমার। কিন্তু সার্বিয়ার গোলরক্ষক ভানিয়া মিলিনকোভিচ-সাভিচ ফের কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান সেই শট। দ্বিতীয় কর্নার কিকে মাথা ছোঁয়াতে পারেননি মার্কিনিয়োস। বরং তার আগেই দুই হাতে বল ধরে ফেলেন সার্বিয়ার গোলরক্ষক। ২১তম মিনিটে কাসেমিরো দূরপাল্লার শট নিয়েছিলেন। কিন্তু সহজেই বল গ্লাভসবন্দি করেন সার্বিয়ান গোলরক্ষক। অন্যদিকে প্রথম ২৫ মিনিটে বল দখলে টক্কর দিলেও মাত্র একবার ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক আলিসনকে সেভাবে পরীক্ষার মুখে ফেলতে পারে সার্বিয়া। অনেকটা দূর থেকে বক্সে ঢুকে পড়া মিত্রোভিচকে লক্ষ্য করে ক্রস দেন তাদিচ। কিন্তু ব্রাজিল গোলরক্ষক লাফিয়ে বল গ্লাভসবন্দি করেন।

২৮তম মিনিটে সত্যিকারের সুযোগ আসে ব্রাজিলের সামনে। সিলভার থ্রো বল বক্সে পেয়ে যায় ভিনিসিয়ুস। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদ ফরোয়ার্ড শট নেওয়ার আগেই ডাইভ দিয়ে তার পায়ের কাছ থেকে বল কেড়ে নেন সার্বিয়ার গোলরক্ষক। পরের মিনিটেই বাঁ প্রান্তে ফ্রি-কিক পায় ব্রাজিল। তা থেকে বল পেয়ে বক্সের কাছে ঢুকে ক্রস পাঠান রিচার্লিশন। কিন্তু সার্বিয়ার রক্ষণের জটলায় সফল হতে পারেননি তিনি। বল উড়ে যায় গ্যালারিতে। ৩৫তম মিনিটে গোলরক্ষককে একা পেয়েও দুর্বল শটে বল তার হাতেই তুলে দেন রাফিনিয়া। ৪১তম মিনিটে সবচেয়ে ভালো সুযোগটা নষ্ট করেন ভিনিসিয়ুস। কাসেমিরোর লং বল খুঁজে নেয় রিয়াল তারকাকে। কিন্তু সেখানে সার্বিয়ার ডিফেন্ডার মিলেনকোভিচ বল দখলে নেন। তবে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজের বুকেই মারেন তিনি। বল নেমে পাশেই দৌড়াতে থাকা ভিনিসিয়ুসের পায়ে পৌঁছে যায়। কিন্তু একদম কাছ থেকে তার নেওয়া শট পোস্টের বাইরে দিয়ে বেরিয়ে যায়। ফলে প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্য ড্রয়ে।


আরও খবর

রোনালদোকে টপকে গেলেন মেসি

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে ধাক্কা, নিহত ৪

প্রকাশিত:রবিবার ০৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৭৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে ধাক্কা লেগে চার জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছে ১০ জন। রবিবার (৬ নভেম্বর) ভোরে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ভাঙ্গা উপজেলার মাধবপুর নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেনআব্দুল রউফ হাওলাদার (৫০), হুমায়ুন কবির (৪৮), মেরিনা আক্তার (৩২) ও জুনায়েদ (০৩)। আহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। তাদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তৈমুর ইসলাম বলেন, ভাঙ্গার মাধবপুর নামক স্থানে সাকুরা পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের গাছে ধাক্কা দেয়। এতে বাসটি দুমড়ে-মুচড়ে ঘটনাস্থলেই দুই জনের মৃত্যু হয়। আহতদের উদ্ধার করে ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নেওয়া হলে সেখানে আরও দুই জন মারা যান।

দুর্ঘটনাকবলিত বাস ও লাশ উদ্ধার করে থানায় রাখা হয়েছে। নিহতদের স্বজনরা আসলে আইনি প্রক্রিয়া শেষে লাশ হস্তান্তর করা হবে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান ওসি।


আরও খবর



বাতের ব্যথা এড়াতে যে নিয়ম মানা জরুরি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাতের ব্যথা বা আর্থ্রিাইটিসের সমস্যায় শুধু বয়স্করাই নয়, কমবয়সীদের মধ্যেও অনেকেই এ সমস্যা ভোগেন। আর্থ্রাইটিস হলো এক বা একাধিক জয়েন্টের প্রদাহ। যার ফলে শরীরের বিভিন্ন স্থানে ব্যথা, ফুলে যাওয়া, শক্ত হয়ে যাওয়ার সমসা হয়। আর্থ্রাইটিস সাধারণত হাঁটু, নিতম্ব, মেরুদণ্ড ও হাতকে প্রভাবিত করে। জয়েন্ট কার্টিলেজ একবার ক্ষতিগ্রস্ত হলে, পরিবর্তন অপরিবর্তনীয়। তাই অল্প বয়স থেকেই বাতের ব্যথা এড়াতে এখন থেকেই মেনে চলুন কয়েকটি নিয়ম। বাতের ঝুঁকি প্রতিরোধে যে নিয়মগুলো মানা জরুরি-

স্বাস্থ্যকর ওজন বজায় রাখুন: অতিরিক্ত ওজনের কারণে জয়েন্টগুলোতে ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে, ফলে সেগুলো ক্ষয় হতে পারে। শরীরের প্রতিটি অতিরিক্ত কিলো ওজন হাঁটু জয়েন্টের উপর চার থেকে ছয় কিলো অতিরিক্ত লোড রাখে। এছাড়া অতিরিক্ত চর্বিযুক্ত টিস্যু নির্দিষ্ট রাসায়নিক নিঃসৃত করে জয়েন্টের ক্ষতি করে যা তরুণাস্থি ধ্বংস করে। একটি সুস্থ শরীরের ওজনের বডি মাস ইনডেক্স (বিএমআই) ১৮.৫-২৪.৯ এর মধ্যে থাকে।

ধূমপান এড়িয়ে চলুন: ধূমপানের ফলে হাড়ের স্বাস্থ্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ অভ্যাসের কারণে আর্থ্রাইটিসের সমস্যা গুরুতর হয় ও অস্ত্রোপচারের জটিলতা বাড়ায়। ধূমপান ত্যাগ করার মাধ্যমে আর্থ্রাইটিস প্রতিরোধ সম্ভব।

নিয়মিত ব্যায়াম করুন: ব্যায়াম শুধু আর্থ্রাইটিস নয় বরং সব রোগ প্রতিরোধেই সাহায্য করে। দৈনিক আধা ঘণ্টা বা সপ্তাহে ৩-৪ দিন ব্যায়াম করা জরুরি সবার জন্যই। অল্পবয়সী ও সুস্থদের জন্য দৌড়ানো একটি ভাল ব্যায়াম। আপনার যদি আগে থেকেই হাঁটুর ব্যথা বা বাত থাকে, তাহলে দৌড়াবেন না।

স্বাস্থ্যকর ভঙ্গি বজায় রাখুন: দীর্ঘ সময় ধরে বসা বা শোয়ার ভুল ভঙ্গিমার কারণেও জয়েন্টের প্রদাহ বাড়ে। এক্ষেত্রে জয়েন্টগুলোতে অতিরিক্ত চাপ পড়ে ও দ্রুত ক্ষয় হয়ে যায়। এ কারণে স্বাস্থ্যকর ভঙ্গিমা বজায় রাখুন। বিশেষ করে চেয়ারে বসার সময় মেরুদণ্ড সোজা রেখে বসার চেষ্টা করুন।

হাই হিল এড়িয়ে চলুন: নারীদের মধ্যে যারা নিয়মিত উঁচু হিল পরেন তাদের মধ্যে আর্থ্রাইটিসের সমস্যা বেশি দেখা দেয়। এজন্য হাই হিল এড়িয়ে চলাই ভালো। এক্ষেত্রে পায়ের গোড়ালি, নিতম্ব ও মেরুদণ্ডের জয়েন্টগুলোতে আরও চাপ সৃষ্টি করে। দীর্ঘ সময় ধরে হাই হিল পরলে জয়েন্টে ব্যথা হতে পারে।

স্বাস্থ্যকর ও সুষম খাদ্য খান: স্বাস্থ্যকর শরীরের ওজন বজায় রাখতে খাদ্যের ক্যালোরি নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। খাদ্যতালিকায় আদা, রসুন, মাছ, বাদাম, বেরি, রঙিন ফল ও শাক-সবজির রাখুন। কারণ এগুলো আর্থ্রাইটিসের বিরুদ্ধে সহায়ক ও এসবে প্রদাহরোধী প্রভাব আছে। অতিরিক্ত লবণ, চিনি, প্রক্রিয়াজাত ও পরিশোধিত খাবারসহ স্যাচুরেটেড ফ্যাট এড়িয়ে চলুন। এসব খাবার শরীরে প্রদাহ বাড়ায়। এর পাশাপাশি ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখুন, কারণ ডায়াবেটিস অস্টিওআর্থারাইটিসের ঝুঁকি বাড়ায়।

নিউজ ট্যাগ: বাতের ব্যথা

আরও খবর



শুক্রাণুর হার কমছে, সন্তান জন্মদানে সংকটে পড়তে পারে মানবজাতি : গবেষণা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্বজুড়ে পুরুষের শুক্রাণুর হার অর্ধেকের বেশি কমেছে। সম্প্রতি এ নিয়ে একটি গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক একটি সাময়িকীতে। সেখানেই একদল গবেষক বিষয়টি তুলে ধরেছেন। তাঁরা বলেছেন, পুরুষের শুক্রাণুর হার কমা রোধে এখনই পদক্ষেপ নেওয়া না হলে মানবজাতি সন্তান জন্মদানে সংকটে পড়তে পারে।

হিউম্যান রিপ্রোডাকশন আপডেট নামে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সাময়িকীতে গবেষণা নিবন্ধটি প্রকাশিত হয়েছে। নিজেদের শুক্রাণু উৎপাদনক্ষমতার বিষয়টি নিয়ে সচেতন ছিলেন না, এমন ১৫৩ জন পুরুষের শুক্রাণু নিয়ে গবেষণাটি করা হয়েছে। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

গবেষণায় দেখা গেছে, ১৯৭৩ সালের ২০১৮ সালে শুক্রাণুর ঘনত্ব গড়ে ৫১ দশমিক ৬ শতাংশ কমেছে। এ ছাড়া এই সময়ের মধ্যে (৪৫ বছর) শুক্রাণুর হার কমেছে ৬২ দশমিক ৩ শতাংশ।

২০১৭ সালে এই গবেষকেরাই শুক্রাণুর হার নিয়ে একটি গবেষণা করেছিলেন। ওই গবেষণায় দেখা যায়, গত চার দশকে পুরুষের শুক্রাণুর হার কমে অর্ধেকে নেমে এসেছে। তবে বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলের তথ্যউপাত্ত না থাকায় ওই গবেষণাটির ফল শুধু ইউরোপ, উত্তর আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়ার ওপর ভিত্তি করে তৈরি বলে সেবার সমালোচিত হয়েছিল।

তবে এবার গবেষকেরা ৫৩টি দেশের পুরুষদের শুক্রাণু নিয়ে গবেষণা করেছেন। ইউরোপ, উত্তর আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া ছাড়াও মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকা, আফ্রিকা ও এশিয়ার দেশগুলোর পুরুষদের শুক্রাণু কমার বিষয়টি এবার উঠে এসেছে।

১৯৭২ সাল থেকে সব মহাদেশ থেকে সংগৃহীত তথ্যউপাত্ত বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, এই সময়ে শুক্রাণু উৎপাদন হ্রাস পাওয়ার হার বেড়ে চলেছে। গবেষকেরা দেখতে পেয়েছেন প্রতিবছর পুরুষের শুক্রাণুর হার কমেছে ১ দশমিক ১৬ শতাংশ করে।

তবে এ শতাব্দীতে শুক্রাণুর হার কমছে বেশি। কারণ, ২০০০ সালের পরের তথ্যউপাত্তে দেখা যায় যে এই সময়ে প্রতিবছর পুরুষের শুক্রাণুর হার গড়ে ২ দশমিক ৬৪ শতাংশ কমেছে।

গবেষণা নিবন্ধটির অন্যতম লেখক জেরুজালেমের হিব্রু বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হাগাই লেভিন বলেন, আমি মনে করি, বিশ্ব যে ভুল পথে আছে, তার আরও একটি ইঙ্গিত এই গবেষণা। আমাদের এটা নিয়ে কিছু করতে হবে। এটা একটা সংকট। চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছানোর আগে এখনই এই সংকট মোকাবিলায় আমাদের পদক্ষেপ নিতে হবে।

তবে এই গবেষণার কিছু সীমাবদ্ধতা আছে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের মতে, এখানে পুরুষের বয়স, বীর্যপাত না হওয়ার সময়সীমা, শুক্রাণু উৎপাদনের ক্ষমতা কম থাকার মতো বিষয়গুলো বিবেচনায় নেওয়া হলেও শুক্রাণুর মান যাচাইয়ের অন্য বিষয়গুলো বিবেচনা করা হয়নি।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ধূমপান, মদ্যপান, স্থূলতা ও পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ খাবার না খাওয়ায় পুরুষের শুক্রাণুর হার কমতে পারে। স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন শুক্রাণুর উৎপাদনক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করতে পারে।


আরও খবর