Logo
শিরোনাম

ফেসবুকের যে অশ্লীল পেজ ফলো করে হেফাজতের মামুনুল হক!

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ১৬১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
‘পরশমনি’ নামের ওই পেজে সর্বশেষ কয়েকটি পোস্ট মামুনুল হককে নিয়ে হলেও এর আগেকার বেশিভাগ পোস্টই ভাষায় প্রকাশের অযোগ্য সব বিষয় নিয়ে। অশ্লীল এ পেজটিতে বিভিন্ন সময়ে

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক নারায়ণগঞ্জে নারীসহ অবরুদ্ধ হওয়ার পর থেকে তাকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা শেষ হচ্ছে না। গ্রামের চায়ের দোকান থেকে শুরু করে আলোচনা-সমালোচনা চলছে জাতীয় সংসদেও। যদিও শুরু থেকেই ওই নারীকে দ্বিতীয় স্ত্রী দাবি করে আসছিলেন মাওলানা মামুনুল হক। এবার মামুনুল হকের বিরুদ্ধে অশ্লীল পেজ ফলো করার প্রমাণ মিললো।

সোনারগাঁওয়ের রয়াল রিসোর্টে গত শনিবার (৩ এপ্রিল) নারীসহ তাকে অবরুদ্ধ করেছিল স্থানীয় লোকজন। এরপর পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে। মুক্ত হওয়ার পর লাইভে এসে বক্তব্য দেন মাওলানা মামুনুল হক। ফেসবুকে একটি প্রোফাইল থেকে মামুনুল হক লাইভে আসেন। এই আইডি থেকে লাইভে মামুনুল দাবি করেন, আপনাদের ভালোবাসার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। সাংবাদিক ও পুলিশ আমার সঙ্গে কোনো খারাপ আচরণ করেননি। কিছু বাইরের লোক খারাপ আচরণ করেছে। আমি আমার দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে এখানে ঘুরতে এসেছিলাম। মামুনুল হকের দাবি, সঙ্গে থাকা নারীর নাম আমিনা তৈয়বা। তিনি তার দ্বিতীয় স্ত্রী।

প্রায় তিন লাখ ফলোয়ার বিশিষ্ট যে প্রোফাইল থেকে মামুনুল এসব কথা বলেন সে প্রোফাইলটিতে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে পরশমনি নামে একটি পেজে ফলো দেওয়া রয়েছে। পরশমনি নামের ওই পেজে সর্বশেষ কয়েকটি পোস্ট মামুনুল হককে নিয়ে হলেও এর আগেকার বেশিভাগ পোস্টই ভাষায় প্রকাশের অযোগ্য সব বিষয় নিয়ে। অশ্লীল এ পেজটিতে বিভিন্ন সময়ে ধারণকৃত এবং ভাইরাল হওয়া বিভিন্ন ভিডিও প্রকাশ করা হয়ে থাকে। এ ভিডিওগুলোর বেশিরভাগই গোপনে ধারণকৃত।

মামুনুল হক আমেনা তৈয়বা নামে যে নারীকে দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে পরিচয় দেন তার আসল নাম জান্নাত আরা ঝর্ণা। নারায়ণগঞ্জের ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ও গণমাধ্যমে প্রচারের পর এ নিয়ে দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। জান্নাতের বাবার বাড়ি ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায়ও এখন ঝর্ণাকে নিয়েই চলছে আলোচনার ঝড়। তবে জান্নাতের আগে বিয়ে হয়েছে, দুটি সন্তানও আছে, এ কথা সবাই জানলেও দ্বিতীয় বিয়ের কোনো খবরই জানেন না এলাকাবাসী।

সরেজমিনে রবিবার (৪ এপ্রিল) ঝর্ণার গ্রামের বাড়িতে গিয়ে তার বাবা ও মায়ের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তাদের মেয়ে জান্নাত আরা ঝর্ণার নয় বছর বয়সে বিয়ে হয়েছিল হাফেজ শহীদুল ইসলাম ওরফে শহীদুল্লাহ নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে। তার বাড়ি বাগেরহাটের কচুড়িয়া এলাকায়। তাদের আব্দুর রহমান (১৭) ও তামীম (১২) নামে দুজন ছেলে রয়েছে।

পরিবারিক সূত্রে জানা গেছে, পারিবারিক কলহের জেরে আড়াই বছর আগে তাদের ডিভোর্স হয়ে যায়। তারপরে দুবছর আগে পরিবার থেকে পাত্র দেখে মেয়েকে বিয়ে করার কথা বললে ঝর্ণা বলত তার বিয়ে হয়ে গেছে, তাই তার জন্য আর কোনো পাত্র না দেখতে। তবে কার সঙ্গে সে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে, সে কথাটি পরিবারকে জানায়নি কখনো। শুধু একবার ভিডিও কলে তার দ্বিতীয় স্বামী মামুনুল হককে দেখিয়েছিল। কিন্তু তারা বুঝতে পারেনি তিনি ছিলেন মাওলানা মামুনুল হক।

প্রথম স্বামী হাফেজ শহীদুল ইসলাম ওরফে শহীদুল্লাহর সঙ্গে জান্নাত আরা ঝর্ণার পরিবারের কোনো যোগাযোগ আছে কিনা জানতে চাইলে তারা জানান, ডিভোর্সের পরে তার সঙ্গে আর কোনো যোগাযোগ রাখেনি তারা। তাই হাফেজ শহীদুল্লাহর সঙ্গে যোগাযোগের কোনো মাধ্যম না পাওয়ায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।


আরও খবর



ভৈরবে ২২ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ৩

প্রকাশিত:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৪৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে পৃথক অভিযান চালিয়ে ২২ কেজি গাঁজাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে দুজন স্বামী-স্ত্রী।

শনিবার (১০ এপ্রিল) গভীর রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের দুর্জয় মোড় এলাকা ও ভৈরব বাজার থেকে গাঁজাসহ তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- নরসিংদীর বেলাব উপজেলার কাঙ্গালিয়া গ্রামের তানিয়া বেগম (২৬) ও তার স্বামী জসিম উদ্দীন এবং হবিগঞ্জের মাধবপুরের গোয়াছন গ্রামের ছফু মিয়ার পুত্র হৃদয় মিয়া (২২)।

ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহিন এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে পৃথক পৃথক মামলা দায়ের হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: মাদক ব্যবসায়ী

আরও খবর



আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১০

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার কোমরভোগ গ্রামে আধিপত্য বিস্তারে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলা ও বাড়িঘর ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এসময় প্রায় ১০ নারী-পুরুষ ও শিশু আহত হয়েছে।

বুধবার (৭ এপ্রিল) দুপুর ও রাতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাতে সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ মামলায় আমিরুল ইসলাম (৪০), শাহজাহান আলী (৪৫)। এদের শাহজাহান আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে রয়েছেন। অন্যদের নাম জানা যায়নি। জানা গেছে, বুধবার (৭ এপ্রিল) রাতে কোমরভোগ গ্রামের স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা ও ইউপি সদস্য জাবেদ আলী ও নয়নের সহযোগীদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে একপক্ষ প্রতিপক্ষের লোকদের ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এসময় প্রায় ১০ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে শাহজাহানের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ওসমানপুর ইউপি মেম্বার জাবেদ আলী বলেন, মঙ্গলবার রাতে দুই পক্ষের লোকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এসময় প্রতিপক্ষের নেতা লিটন মাস্টার হামলা চালানোর ঘোষণা দেন। বুধবার দুপুরে প্রতিপক্ষের লোকজন জাবেদ আলীর বাড়িতে ইটপাটকেল ছুঁড়তে থাকে। একই রাতে জাবেদ আলীর লোকজন পাল্টা প্রতিপক্ষের ওপর হামলা চালায়।

এই ঘটনার বিষয়ে খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে।


আরও খবর



বৃষ্টির কারণে শেষ টি-টোয়েন্টিতে বিলম্ব

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে আজ বৃহস্পতিবার মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড। সূচি অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় বেলা সাড়ে ১১টায় ম্যাচটিতে টস হওয়ার কথা ছিল, আর খেলা শুরুর কথা ১২টায়। কিন্তু বৃষ্টির কারণে টস মাঠে গড়ানো সম্ভব হয়নি।

বৃষ্টির জন্য অকল্যান্ডের ইডেন পার্ক এখনও কভার দিয়ে ঢাকা। ফলে নির্ধারিত সময়ে খেলা মাঠে গড়ানো নিয়ে শঙ্কা রয়েছে।

এরই মধ্যে এই মাঠে আজ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড নারী দলের টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়ে গেছে।

ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশড হওয়ার পর টি-টোয়েন্টি সিরিজও এর মধ্যে হেরে বসেছে বাংলাদেশ। কোনো ম্যাচেই তেমন লড়াই জমাতে পারেনি বাংলাদেশ। এবার সফরের শেষ ম্যাচে কিছু করতে পারে কি না সেটাই দেখার।

তবে ম্যাচটির আগে বড় দুঃসংবাদ পেল বাংলাদেশ। শেষ ম্যাচে চোটের কারণে ছিটকে গেলেন নিয়মিত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

অধিনায়কের বদলে সফরের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেবেন লিটন দাস। বাংলাদেশের সপ্তম টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে আজ মাঠে নামবেন ডানহাতি এই ওপেনার।

অকল্যান্ডে ম্যাচ শুরুর কিছুক্ষণ আগে খবরটি নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের মিডিয়া বিভাগ। নেপিয়ারে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাঁ-উরুতে টান লাগে মাহমুদউল্লাহর। সে জন্যই শেষ ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ খেলতে পারবেন না বলে জানানো হয়েছে।

এদিকে প্রথম দুই টি-টোয়েন্টিতে চোটের কারণে খেলতে পারেননি দলের অভিজ্ঞ ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম। আজও তাঁর খেলার সম্ভবনা নেই। সিরিজের আগে ছুটি নিয়ে দেশে ফিরেছেন আরেক অভিজ্ঞ ক্রিকেটার তামিম ইকবাল। ছুটিতে আছেন সাকিব আল হাসানও। আর মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা এই ফরম্যাটে আগে থেকেই নেই। ফলে দীর্ঘদিন পর একসঙ্গে পাঁচ সিনিয়র ক্রিকেটারকে ছাড়াই খেলতে নামবে বাংলাদেশ।

পুরোনোদের ছাড়া নতুনদের হাতে এবার  পরিসংখ্যান বদলায় কি না সেটাই দেখার। কারণ কিউইদের মাটিতে এখনও জয়হীন বাংলাদেশ। চলমান সফরেও টানা হারে ব্যাকফুটে লাল-সবুজের দল।

বাংলাদেশ দল : মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, লিটন দাস(অধিনায়ক), আফিফ হোসেন, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ নাঈম, তাসকিন আহমেদ, আল আমিন হোসেন, শরিফুল ইসলাম, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, রুবেল হোসেন, মেহেদী হাসান ও নাসুম আহমেদ।

নিউজিল্যান্ড দল : টিম সাউদি (অধিনায়ক), ফিন অ্যালেন, টড অ্যাস্টল, হামিশ বেনেট, মার্ক চাপম্যান, ডেভন কনওয়ে, লকি ফাগুর্সন, মার্টিস গাপটিল, অ্যাডাম মিল্ন, ড্যারিল মিচেল, গ্লেন ফিলিপস, ইশ সোধি, উইল ইয়াং।


আরও খবর



করোনাভাইরাসে আক্রান্ত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডিজি

প্রকাশিত:শনিবার ২০ মার্চ ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৪১৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ছাড়াও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির লাইন ডিরেক্টর (ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম) ডা. মিজানুর রহমান। গণমাধ্যমকে ডা. মিজানুর রহমান জানান, করোনার উপসর্গ দেখা দেওয়ার পর আমি পরীক্ষা করাই। দুদিন আগে ফলাফল পজিটিভ এসেছে। বাসায় থেকে আমি চিকিৎসা নিচ্ছি। শরীরে অন্য কোনো সমস্যা নেই।

এদিকে দেশে বর্তমানে করোনাভাইরাস (কোভিড ১৯) সংক্রমণের হার দিনদিন বেড়ে চলছে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। করোনা ছড়িয়ে পড়া রোধে তিনটি স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও। গত মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাগুলো সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরে বলেন, আমরা যেখানেই থাকি না কেন, টিকা দেওয়া হোক বা না হোক, তিনটি প্রটোকল আমাদের অনুসরণ করা উচিত অবশ্যই ফেসমাস্ক পরতে হবে, সর্বাধিক সতর্কতা বজায় রাখা উচিত এবং জনসমাগমের স্থান যেমন, বিনোদনমূলক স্থান বা অন্যান্য সামাজিক অনুষ্ঠানগুলোতে উপস্থিতির সংখ্যা সীমিত রাখতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীর প্রতি তাঁর আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করে বলেন, যারা এই জনসমাগমস্থলে যাবে, তাদের স্বাস্থ্য প্রটোকল মেনে চলতে হবে। আমরা মনে করি না যে, আমরা নিরাপদ জোনে আছি। হ্যাঁ, আমরা যথেষ্ট ভালো অবস্থায় রয়েছি, তবে এটি আমাদের নিশ্চিত করে না যে, আমরা নিরাপদ জোনে আছি।

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে আরো বলা হয়, গত কয়েকদিন বিশেষজ্ঞেরা পরামর্শ দিচ্ছেন, এই মুহূর্তে স্বাস্থ্যবিধি শিথিল করা যাবে না, কারণ গত গ্রীষ্মেই সর্বোচ্চ করোনা সংক্রমণ হয়েছে। এটি নিশ্চিত নয় যে, করোনা সংক্রমণ আবার চূড়ায় পৌঁছাবে না। যদিও আমরা সবাই আশঙ্কা করেছিলাম শীতকালে সংক্রমণ চূড়ায় উঠবে। আগামী এপ্রিল, মে ও জুন আমাদের চড়া গ্রীষ্ম এবং সে কারণেই আমাদের বিশেষজ্ঞেরা পরামর্শ দিয়েছেন, এই মাসগুলোতে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।


আরও খবর



করোনায় আজও ২৬ মৃত্যু, শনাক্ত ১৭১৯

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১ | ৭৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে করোনা শনাক্তের এক বছর পার হওয়ার পর দুই মাসের ব্যবধানে গত বুধবার আবারও হাজারের ঘরে পৌঁছায় শনাক্তের সংখ্যা। এরপর থেকে করোনা শনাক্তের সংখ্যা হাজারের নিচে নামেনি। রবিবার (১৪ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদফতর এক হাজার ১৫৯ জনের করোনা শনাক্তের কথা জানিয়েছিল। গতকাল সোমবার (১৫ মার্চ) শনাক্ত হয়েছিল এক হাজার ৭৭৩ জন। এটি ছিল গত ৩ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত। তবে মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) শনাক্তের সংখ্যা কিছুটা কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৭১৯ জনে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছে এক হাজার ৭১৯ জন এবং মারা গেছেন ২৬ জন। আর এখন পর্যন্ত শনাক্ত পাঁচ লাখ ৬০ হাজার ৮৮৭ জন। আর মৃত্যু হয়েছে আট হাজার ৫৯৭ জনের।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২০ হাজার ৯৩৬টি, অ্যান্টিজেন টেস্টসহ নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২০ হাজার ৭৪৮টি। এখন পর্যন্ত ৪৩ লাখ ৩ হাজার ৯৯৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৩৫২ জন, এখন পর্যন্ত সুস্থ পাঁচ লাখ ১৪ হাজার ৪৭৯ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর আরও জানায়, শনাক্ত বিবেচনায় গত ২৪ ঘণ্টায় প্রতি ১০০ নমুনায় ৮ দশমিক ২৯ শতাংশ এবং এখন পর্যন্ত ১৩ দশমিক ৩ শতাংশ শনাক্ত হয়েছে। শনাক্ত বিবেচনায় প্রতি ১০০ জনে সুস্থ হয়েছে ৯১ দশমিক ৭৩ শতাংশ এবং মারা গেছে ১ দশমিক ৫৩ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ১৭ জন পুরুষ এবং নারী ৯ জন। এখন পর্যন্ত ছয় হাজার ৫০১ জন পুরুষ এবং দুই হাজার ৯৬ জন নারী মারা গেছেন। বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায় যায়, ৬০ ঊর্ধ্ব ১৫ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আট জন এবং ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে তিন জন মারা গেছেন। বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগেই মারা গেছেন ১২ জন, চট্টগ্রামে পাঁচ জন, খুলনায় তিন জন, বরিশালে তিন জন, সিলেটে একজন এবং রংপুরে দুই জন মারা গেছেন। ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ২৬ জন।


আরও খবর