Logo
শিরোনাম

ফুসফুসকে সুস্থ রাখতে যে খাবারগুলো গুরুত্বপূর্ণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৭৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশব্যাপী আবারো মহামারি আকারে দেখা দিয়েছে করোনাভাইরাস। এ সময়ে শরীরে দ্রুত বাড়াতে হবে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা। শরীরে করোনাভাইরাসের জীবাণু ঢুকলে তা ফুসফুসে আঘাত হানে। এ জন্য ফুসফুস সুস্থ রাখতে বিশেষ যত্ন নেয়া প্রয়োজন। কারণ ফুসফুসের কার্যকারিতা কমে গেলে জীবনের ঝুঁকি বাড়ে শতগুণ।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ফুসফুসকে সুস্থ রাখতে খাবারের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে বয়স বা শ্বাসকষ্টজনিত কারণে যাদের ফুসফুসে আগে থেকে দুর্বল তাদের এ ব্যাপারে বেশি সতর্ক থাকা জরুরি।

ফুসফুস ভালো রাখতে কিছু খাবারের ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। আমেরিকান লাং অ্যাসোসিয়েশন-এর তথ্য অনুযায়ী, সিওপিডি বা যাদের অ্যাজমাজাতীয় অসুখ আছে তাদের কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবারের পরিবর্তে স্বাস্থ্যকর ফ্যাট বেশি পরিমাণে খেতে হবে। তবে বিশেষজ্ঞরা এটাও বলছেন যেহেতু কার্বোহাইড্রেট সুষম খাবারের অঙ্গ তাই এটা একেবারে বাদ দেওয়া যাবে না। বরং কার্বোহাইড্রেটের ধরনটা পাল্টে দিতে হবে।

সাধারণ কার্বোহাইড্রেটের পরিবর্তে কমপ্লেক্স কার্বোহাইড্রেট খেতে হবে। কম স্টার্চ আছে এমন শাকসবজি বেশি করে খেতে হবে।

এ সময় আলু, পোটল, কুমড়া, গাজর ইত্যাদি খাওয়ার পরিমাণ বাড়িয়ে দিতে হবে।

এছাড়া ময়দার পরিবর্তে আটার রুটি, সাদা ভাতের বদলে ব্রাউন ভাত খেলে ফুসফুসের ক্ষতি যেমন কম হবে তেমনি ওজন ও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকবে। এ ছাড়া ফুসফুস ভালো রাখতে পটাশিয়ামসমৃদ্ধ খাবার যেমন- সবুজ শাক, টমেটো, বিট, আলু, কলা এগুলো নিয়মিত খাওয়া উচিত। পাশাপাশি প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার যেমন- মাছ, মাংস, ডিম, দুধ, দই, ডাল, ছোলা ইত্যাদি খাবারও ফুসফুসের জন্য ভালো।

গবেষকদের মতে, নিয়ম মেনে খাওয়া-দাওয়া করার পাশাপাশি কয়েকটি বিশেষ খাবার খেলে ফুসফুসের রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়ে। 

যেমন:

পেঁয়াজ ও রসুন:  এসব উপাদান প্রদাহের প্রবণতা কমায়, সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করার শক্তি জোগায়। জার্নাল অব ক্যানসার এপিডেমিওলজিবায়োমার্কারস অ্যান্ড প্রিভেনশন-এ প্রকাশিত প্রবন্ধে গবেষকরা জানিয়েছেন, যে সব ধূমপায়ী নিয়মিত কাঁচা রসুন খান তাদের ফুসফুসের বিভিন্ন অসুখে ভোগার আশঙ্কা প্রায় ৪০ শতাংশ কমে যায়।

আদা: এতে থাকা অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি উপাদান প্রদাহ কমায়। অল্প করে আদা কুচি নিয়মিত খেলে ফুসফুস ভালো থাকে।

কাঁচা মরিচ : নিয়মিত কাঁচা মরিচ খেলে রক্ত সঞ্চালন ভালো হয়, সংক্রমণের আশঙ্কা কমে।

হলুদ: হলুদে থাকা কারকিউমিন প্রদাহ কমায়।

ফল ও শাকসবজি: আপেল, পেয়ারা, শসা, সফেদা এই সব ফল ফুসফুসের জন্য উপকারী। আপেল ও বাতাবি লেবুতে থাকা ফ্ল্যাভেনয়েড ও ভিটামিন সি ফুসফুসের কার্যকারিতা বাড়ায়।

সবজি: গাজর, কুমড়া, গোলমরিচে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ভিটামিন সি ফুসফুসের কর্মক্ষমতা বাড়ায়।

বিভিন্ন ধরনের শিম ও বীজ: বিভিন্ন ধরনের শিম ও বীজে থাকা ম্যাগনেশিয়াম ফুসফুসের কার্যকারিতা বাড়াতে কার্যকর ভূমিকা আছে। তিসির বীজে থাকা ভিটামিন ই রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

এসব ছাড়া ফুসফুস ভালো রাখতে পর্যাপ্ত পানি পান ও নিয়মিত ব্যায়ামের ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।



আরও খবর

যে ৫ খাবার লিভারের চর্বি দূর করে

বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১




পুলিশের দুই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বরখাস্ত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৫ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১ | ১০৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পুলিশের দুই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে সরকার। র‌্যাব-৫ এর পুলিশ সুপার এসএম ফজলুল হক ও রাজশাহী মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার মো. নাজমুল হাসানকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপ্ত্তা বিভাগ পুলিশ-১ শাখার সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন স্বাক্ষরিত পৃথক দুই প্রজ্ঞাপনে এই বরখাস্তের আদেশ জারি করা হয়।

বিধিবহির্ভূত কাজ করায় তাদের এই সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সাময়িক বরখাস্তকালীন সময়ে তারা পুলিশ অধিদপ্তরে সংযুক্ত থাকবেন এবং বিধি অনুযায়ী খোরপোষ ভাতা প্রাপ্য হবে। জনস্বার্থে এ আদেশ জারি করা হলো।


আরও খবর



কাশ্মীরে দুই পুলিশসহ নিহত চার

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৭৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বেশ কিছুদিন শান্ত থাকার পর ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে জম্মু-কাশ্মীর উপত্যকা। সন্ত্রাসীদের হামলায় আবারও রক্তাক্ত হলো অঞ্চলটি।

শনিবার (১২ জুন) দক্ষিণ কাশ্মীরের সোপোরের আরামপোরায় জম্মু-কাশ্মীর এবং সিআরপিএফ জওয়ানদের একটি চেকপোস্টে হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা।

এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, ঘটনায় দুই পুলিশকর্মী এবং দু-জন সাধারণ মানুষ নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। আহত হয়েছেন আরও দু-জন নিরাপত্তা কর্মকর্তা।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা গেছে, এদিন সোপোরের আরামপোরার একটি বাজারের পাশে চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি চালাচ্ছিল পুলিশ এবং সিআরপিএফের যৌথ বাহিনী। সেসময়ই আচমকা তাদের উদ্দেশে গ্রেনেড ছোড়ে সন্ত্রাসীরা।

গ্রেনেড ছুড়েই ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। তবে নিরাপত্তা বাহিনীর সন্দেহ এখনও ওই এলাকাতেই লুকিয়ে রয়েছে জঙ্গিরা। ইতিমধ্যে তাদের খোঁজে গোটা এলাকায় চিরুনি তল্লাশি চলছে। মোতায়েন করা হয়েছে আরও বেশি সংখ্যক নিরাপত্তা বাহিনী।


আরও খবর



সাইবার হামলার কবলে বিশ্বের বৃহত্তম মাংস সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান

প্রকাশিত:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্বের সবচেয়ে বড় মাংস প্রক্রিয়াজাত ও সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান জেবিএস-এর কম্পিউটার সিস্টেমে সাইবার হামলার ঘটনা ঘটেছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ কথা জানিয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে কম্পিউটার নেটওয়ার্ক হ্যাক হয়েছে বলে জানায় জেবিএস। ফলে যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া ও কানাডায় সাময়িকভাবে জেবিএসের কার্যক্রম স্থগিত হয়ে যায়। কয়েক হাজার শ্রমিক এতে ক্ষতিগ্রস্ত হন।

হামলাকারীরা বড় ধরনের অর্থের বিনিময়ে সব তথ্য দিয়ে দেওয়ার কথা জানিয়েছে।

১৯৫৩ সালে ব্রাজিলে প্রতিষ্ঠিত কোম্পানিটি বর্তমানে পৃথিবীর ১৫টি দেশে কাজ করে। বিশ্বব্যাপী দেড়শটিরও বেশি প্রক্রিয়াজাত কেন্দ্রে দেড় লাখের বেশি মানুষ কাজ করে। ম্যাকডোনাল্ডস-এর মতো ফাস্টফুড চেইনশপ এবং বড় বড় সুপারমার্কেটে মাংস সরবরাহ করে জেবিএস। শুধু গোটা যুক্তরাষ্ট্রের পুরো গোমাংসের চাহিদার প্রায় এক-চতুর্থাংশ এবং পুরো শূকরের মাংসের এক-পঞ্চমাংশের যোগান দেয় জেবিএস।

সাইবার হামলা হয়েছে এমন খবরে যাতে করে খাদ্যের দাম বেড়ে না যায় এ লক্ষ্যে কাজ করছে বলে হোয়াইট হাউসকে জানিয়েছে কোম্পানিটি।

হোয়াইট হাউসের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, কোম্পানিটির ধারণা, সম্ভবত রাশিয়াভিত্তিক কোনো অপরাধী চক্র এই সাইবার হামলা চালিয়েছে।

এ ঘটনা তদন্তে এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই কাজ শুরু করেছে বলেও জানায় হোয়াইট হাউস।

এর আগে গত ৬ মে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় জ্বালানি পাইপলাইনের ব্যবস্থাপনা নেটওয়ার্কে সাইবার হামলার ঘটনা ঘটে। এতে ১০০ গিগাবাইটের মতো জরুরি তথ্য ছিনিয়ে নেয় সাইবার হামলাকারীরা। পরে ৪৪ লাখ মার্কিন ডলারের বিনিময়ে কলোনিয়াল পাইপলাইনের নিয়ন্ত্রণ নেয় যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃপক্ষ।


নিউজ ট্যাগ: জেবিএস

আরও খবর



কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে আজ থেকে পরীক্ষা শুরু

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৭০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

স্বাস্থ্যবিধি মেনে আবারও সশরীরে পরীক্ষা গ্রহণ শুরু করেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়। রবিবার থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু বিভাগের আগেরবারের স্থগিত হওয়া ও অনলাইনে সিলেবাস সম্পন্ন হওয়া কোর্সের ফাইনাল পরীক্ষা এবং কিছু বিভাগে মিডটার্ম পরীক্ষার গ্রহণের মধ্য দিয়ে এ পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের অনুমোদন সাপেক্ষে আজ ১৩ জুন থেকে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু করেছে। এর আগে গত বছরের ডিসেম্বর মাসে স্বাস্থ্যবিধি মেনে একইভাবে পরীক্ষা শুরু করেছিল এ বিশ্ববিদ্যালয়। তবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনাক্রমে তা স্থগিত করা হয়।

অন্যদিকে পরীক্ষা গ্রহণ উপলক্ষে পরীক্ষার হলগুলো জীবাণুমুক্তকরণ ও শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। এসব বিষয়ে গতকাল একাধিক বিজ্ঞপ্তি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্যবিধি পালনে আবশ্য পালনীয় ৭টি নির্দেশনা, পালনীয় বিষয় নিশ্চিত করতে তদারকি কমিটি প্রসঙ্গ উঠে আসে। এছাড়াও পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস চলাচলের সময় সংক্রান্ত বিষয়েও বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়।


আরও খবর



বাজেটে জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ৭.২ শতাংশ নির্ধারণ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৯৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনা পরবর্তী পরিস্থিতি উত্তরণের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে নতুন ২০২১-২২ অর্থবছরে মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) প্রবৃদ্ধির হার ৭ দশমিক ২ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে। এ সময় মূল্যস্ফীতি হবে ৫ দশমিক ৩ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার (৩ জুন) জাতীয় সংসদে ২০২১-২২ অর্থবছরে বাজেট উত্থাপন বক্তৃতায় এ তথ্য জানান অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

অর্থমন্ত্রী বলেন, গত এক দশকে বাংলাদেশের ক্রমাগত উচ্চ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন করোনার প্রভাবে সাময়িক বাধাগ্রস্ত হয়েছে। গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে রেকর্ড ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হলেও ২০১৯-২০ অর্থবছরে করোনার কারণে তা কমে ৫ দশমিক ২ শতাংশে দাঁড়ায়। তবে ২০২০-২১ অর্থবছরে করোনার প্রভাব থেকে অর্থনীতির পুনরুদ্ধার হবে ধরে নিয়ে চলতি অর্থবছরের বাজেটে জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ৮ দশমিক ২০ শতাংশ।

তিনি আরও বলেন, এ মহামারির প্রভাব দীর্ঘতর হওয়া এবং বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ ও পুনরায় লকডাউন ঘোষণার কারণে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড শ্লথ অবস্থা বিরাজমান এবং রফতানি ও আমদানির ক্ষেত্রে কাঙ্ক্ষিত গতি ফিরে পায়নি। তবে প্রবাসী আয়ে কাঙ্ক্ষিত প্রবৃদ্ধি অর্জিত হওয়া এবং অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে সরকার ঘোষিত বৃহৎ প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়নের বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে চলতি অর্থবছরের জিডিপির প্রাক্কলন সংশোধন করে ৬ দশমিক ১ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে।


আরও খবর