Logo
শিরোনাম

গাজীপুরে উড়াল সেতুর ওপর প্রকাশ্যে মাদক সেবন ও দেহব্যবসা

প্রকাশিত:রবিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ১২২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভার মাওনা চৌরাস্তা এলাকায় উড়াল সেতুর ওপর দিনে দুপুরে চলছে প্রকাশ্যে মাদক সেবন। রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সেতুর ওপর মাদকসেবী ও মাদক কারবারিদের দৌরাত্ম্য বেড়ে যায়, চলে দেহব্যবসাও। প্রশাসনের যথাযথ নজরদারি না থাকায় দিনের পর দিন বেড়ে চলছে এ সকল অনৈতিক কার্যকলাপের মাত্রা।

অথচ সেতুর ঠিক নিচেই রয়েছে হাইওয়ে পুলিশ ও জেলা পুলিশের দুটি পুলিশ বক্স। প্রশাসনের দাবি এ ধরনের কাজ বিচ্ছিন্ন ভাবে হয়ে থাকে। স্থানীয় বাসিন্দারা বলছে, প্রশাসনের কঠোর নজরদারির মাধ্যমে উড়াল সেতুর ওপর ও নিচ থেকে মাদকসেবী এবং যৌন কর্মীদের তাড়িয়ে এলাকায় স্বাভাবিক সুন্দর পরিবেশ ফিরিয়ে আনার এখনই সময়।

সরেজমিনে সেতুর উপড়ে দেখা যায়, প্রকাশ্যে ব্যস্ততম সেতুর একপাশে বসে মাদক সেবন করছে দুজন। একজন মাদক সেবন করতে করতে ঝিমোচ্ছে। পাশ দিয়ে চলাচল করছে দ্রুত গতির বিভিন্ন পরিবহন। একজনকে মাতলামি করতে করতে রাস্তার মাঝখানেও যেতে দেখা যায়। মোটরসাইকেলের চালক ও বাইসাইকেল চালকেরা ভয়ে ভয়ে সেতু দিয়ে চলাচল করছে।

এদিকে স্থানীয়রা অভিযোগ করছে, সেতুর নিচে দক্ষিণ পাশে রাত একটার পর শুরু হয় যৌন ব্যবসা। মাওনা চৌরাস্তা এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা জামাল উদ্দিন  বলেন, উড়াল সেতুর ওপর রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আনাগোনা শুরু হয় মাদক কারবারি ও মাদক সেবিদের। আর মাওনা হাইওয়ে উড়াল সেতুর নিচে বসে পতিতা হাট। এই হাঁটে প্রতিদিন অসংখ্য বিভিন্ন বয়সী তরুণদের আনাগোনা থাকে।

এ বিষয়ে মাওনা হাইওয়ে থানার দায়িত্বে থাকা উপপরিদর্শক (এসআই) মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, দিনে দুপুরে প্রকাশ্যে মাদকসেবন দুঃখজনক। এ ধরনের চিত্র আমাদের চোখে ধরা পড়ে খুবই কম। তবে উড়াল সেতুর ওপরে টিকটকের ভিডিও ধারণ করতে দেখা যায় অনেক তরুণকে। তাদের আমরা নিয়মিত সাবধান করে থাকি। আর উড়াল সেতুর নিচে পতিতা বিষয়টি খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে। টহল পুলিশ সব সময় চোখ কান খোলা রেখে দায়িত্ব পালন করে থাকে।

শ্রীপুর থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, বিষয়গুলো সম্পর্কে খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে। গুরুতর এ সকল জনবহুল স্থানে কোনো ধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ করতে দেওয়া হবে না।


আরও খবর

জাল সনদে ১১ বছর শিক্ষকতা

বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২




বাংলাদেশকে বিনামূল্যে ট্রানজিট দেবে ভারত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৬১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পণ্য রপ্তানিতে বাংলাদেশকে বিনামূল্যে ট্রানজিট দিতে চেয়েছে ভারত। বাংলাদেশ ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে ভারতের পক্ষ থেকে এই প্রস্তাব করা হয়েছে বলে দুই দেশের যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মধ্যে পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার এ বৈঠকের বিষয়ে যৌথ বিবৃতি সংবাদমাধ্যমে পাঠায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

যৌথ বিবৃতি অনুযায়ী, ভারত এ ট্রানজিট বিনামূল্যে বাংলাদেশকে দিতে চায়। যাতে বাংলাদেশ তার রপ্তানি পণ্য তৃতীয় কোনো দেশে পাঠাতে পারে। এ জন্য সুনির্দিষ্ট স্থলবন্দর, বিমানবন্দর এবং সমুদ্র বন্দর নির্দিষ্ট দেওয়া হবে। এ সময়ে ভারত বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের ট্রান্সশিপমেন্টের জন্য ভারতের বন্দর ব্যবহারের আমন্ত্রণ জানিয়েছে। এ ছাড়া ভুটান ও নেপালে ভারতের ওপর দিয়ে পণ্য পরিবহনের জন্য বাংলাদেশকে বিনামূল্যে ট্রানজিট দিচ্ছে ভারত।

দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রুট ব্যবহার করে বাংলাদেশ পক্ষ ভুটানের সঙ্গে রেল সংযোগের জন্য অনুরোধ করেছে। ভারত এ অনুরোধ সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের মাধ্যমে বিবেচনায় নিতে রাজি হয়েছে। আর সীমান্ত রেল সংযোগ কার্যকর করতে চিলাহাটি-হলদিবাড়ি ক্রসিংয়ের ভারতের রেল চলাচলের জন্য বাংলাদেশকে বন্দর বাধা দূর করতে অনুরোধ করেছে ভারত।

চট্টগ্রাম ও মংলা বন্দর চুক্তির আওতায় বন্দর ব্যবহার করে পরীক্ষামূলক পণ্যের চালান যাওয়া নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী। উপকূলীয় জাহাজ চলাচল চুক্তির আওতায় তৃতীয় দেশের পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্র বাড়াতে ভারতের পক্ষ থেকে আবারও বৈঠকে অনুরোধ জানানো হয়। সেই সঙ্গে দুই দেশের সরাসরি জাহাজ চলাচল নিয়ে দ্রুত কাজ করতে দুই পক্ষই একমত হয়েছে।

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার অভ্যন্তরীণ নদীপথ ব্যবহার করে ট্রানজিট চুক্তি পিআইডব্লিউটিটি’র আওতায় রুট ৫ ও ৬ এবং ৯ ও ১০ বাস্তবায়নের সিদ্ধান্তের বিষয়ে একমত হয়েছে দুই দেশ। ফেনী নদীর ওপর মৈত্রি সেতু দিয়ে ত্রিপুরায় পণ্য পরিবহনের জন্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো, ইমিগ্রেশন এবং কাস্টমস সুবিধা চালু করার জন্য বাংলাদেশকে অনুরোধ করেছে ভারত।

এ ছাড়া বিবিআইএন মোটরযান চুক্তি দ্রুত বাস্তবায়নের মাধ্যমে বৈঠকে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী দ্বিপক্ষীয় ও উপাঞ্চলিক সংযোগ চালু করার বিষয়ে একমত হয়েছেন। এ জন্য মহাসড়ক তৈরিসহ এ সংক্রান্ত প্রকল্পগুলো নিতে বাংলাদেশকে অনুরোধ করেছে ভারত। বাংলাদেশও একইভাবে ভারত-মিয়ানমার-থাইল্যান্ড তৃপক্ষীয় মহাসড়কে অংশীদার হতে ভারতকে ফের অনুরোধ করেছে।


আরও খবর



ভুটানকে ৮-০ গোলে উড়িয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম সেমিফাইনালে আজ শুক্রবার মাঠে নামে বাংলাদেশ ও ভুটান। সেমিতে অপেক্ষাকৃত সহজ প্রতিপক্ষ ভুটানকে রীতিমতো উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। ভুটানকে ৮-০ গোলে হারিয়ে প্রথম দল হিসেবে ফাইনালে উঠেছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।

ফাইনালে বাংলাদেশ প্রতিপক্ষ হিসেবে কাকে পাবে সেটা জানা জানে আজ সন্ধ্যায়। সন্ধ্যায় দ্বিতীয় সেমিফাইনালে লড়বে ভারত ও নেপাল। জয়ী দল আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর ফাইনালে বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে।

কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেডিয়ামে শুক্রবার দুপুর সোয়া ১টায় মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ-ভুটান। ম্যাচের শুরু থেকেই গোল উৎসবে মাতে বাংলাদেশের মেয়েরা। ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটে সিরাত জাহান স্বপ্নার গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। বক্সের বাইর বল পেয়ে গোলরক্ষককে কাটিয়ে জালে বল জড়ান তিনি।

ম্যাচের ১৭তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন অধিনায়ক সাবিনা খাতুন। আর তৃতীয় গোলটি আসে ২৯ মিনিটে। বক্সের বাইরে থেকে আসা ক্রসে হেডে গোল করেন কৃষ্ণা রানী সরকার। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগে ভুটানের জালে বল জড়িয়ে ব্যবধান ৪-০ করেন ঋতু পর্ণা চাকমা।

দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে ভুটানের জালে আরও ৪ বার বল জড়ায় গোলাম রাব্বানি ছোটনের শিষ্যরা। ৫৪ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলের দেখা পান সাবিনা। এর তিন মিনিট পর সাবিনার নেওয়া ফ্রি কিক গোলরক্ষকের হাত থেকে ফসকে যায়। জটলার মধ্যে দাঁড়িয়ে থেকে গোল করেন মাসুরা পারভীন।

শেষ সময়ে তহুরা খাতুন গোল করে ব্যবধান ৭-০ করেন। আর অতিরিক্ত সময়ে গোল করে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন সাবিনা। এতে ৮-০ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো সাফের ফাইনালে উঠল বাংলাদেশের মেয়েরা। এর আগে ২০১৬ সালে ভারতের শিলিগুড়িতে প্রথমবারের মতো সাফের ফাইনালে খেলেছিল লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।


আরও খবর

হার দিয়ে সিরিজ শুরু বাংলাদেশের

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২

১৬৮ রানের লক্ষ্য পেল বাংলাদেশ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




কক্সবাজার সৈকতে প্রতিমা বিসর্জন দিতে মানুষের ঢল

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৩৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হচ্ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। প্রতিমা বিসর্জন দিতে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে জড়ো হয়েছেন ভক্ত, পূজারী, পর্যটক, দর্শনার্থীসহ হাজারো মানুষ। বুধবার (৫ অক্টোবর) বিকেল ৩টা থেকে সৈকতে মানুষের ঢল নেমেছে।

এর আগে দুপুরের পর বিভিন্ন মণ্ডপ থেকে ট্রাক ও পিকআপ ভ্যানে করে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের পাড়ে একে একে প্রতিমা নিয়ে আসা হয়। শোভাযাত্রা সহকারেও অনেকে প্রতিমা নিয়ে এসেছেন।

কক্সবাজার দুর্গাপূজা উদযাপন কমিটির সহ-সভাপতি দীপুক শার্মা দীপু বলেন, এ বছর কক্সবাজারের ৩০৫টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা হয়েছে। কক্সবাজার সৈকতে প্রতিমা বিসর্জন দিতে যেন কোনো অসুবিধা না হয়, সেজন্য আমাদের কয়েকশ স্বেচ্ছাসেবী কাজ করছে। বাংলাদেশ সব বিপদ থেকে রক্ষা পাক- মা দুর্গার কাছে এটাই চাওয়া।

সুনীল শার্মা নামে এক পূজারী বলেন, প্রতিমা বিসর্জনের জন্য কক্সবাজার সৈকতের লাবণী পয়েন্ট খুব সুন্দর আয়োজন করা হয়েছে। মায়ের কাছে একটা চাওয়া পৃথিবীর সবাই যেন সুখে থাকে।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মামুনুর রশীদ বলেন, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রতিমা বিসর্জন উপলক্ষে বিশ্বের দীর্ঘতম কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে পুজারীদের ঢল নেমেছে। তাদের নিরাপত্তার জন্য সমুদ্র সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে। পুলিশের পাশাপাশি জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তরাও কাজ করছে।

কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের পুলিশ সুপার জিল্লুর রহমান বলেন, পর্যটকদের নিরাপত্তার জন্য ট্যুরিস্ট পুলিশ সবসময় প্রস্তুত। প্রতিটি পয়েন্ট সাদা পোশাকে কাজ করছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। পর্যটকদের সুবিদার জন্য সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে ট্যুরিস্ট পুলিশের হেল্পডেস্ক বসানো হয়েছে।


আরও খবর



খারকিভে বেসামরিক গাড়িবহরে হামলা, নিহত ২৪

প্রকাশিত:রবিবার ০২ অক্টোবর 2০২2 | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ | ১৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইউক্রেনে আবারও বেসামরিক গাড়িবহরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে ২৪ জন নিহত হয়েছেন। ইউক্রেনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বেসামরিক নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার একটি কনভয়ে রুশ বাহিনী গোলাবর্ষণ করলে প্রাণহানির এই ঘটনা ঘটে বলে ইউক্রেনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

মস্কো ইউক্রেনের ভূখণ্ডের একটি অংশ দখল করার পরে দেশটিতে বোমা হামলা আরও তীব্র হয়েছে। শনিবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা।

খারকিভের গভর্নর ওলেগ সিনেগুবভ টেলিগ্রাম মেসেঞ্জার সাইটে বলেছেন, কুপিয়ানস্ক জেলায় বেসামরিক লোকদের গাড়িবহরে গোলাবর্ষণের খবর পাওয়া গেছে। প্রাথমিক তথ্য অনুসারে, সেখানে ২০ জন মারা গেছেন।

পরে সিনেগুবভ বলেন, হামলায় একজন গর্ভবতী নারী ও ১৩ শিশুসহ ২৪ জন নিহত হয়েছেন। সিনেগুবভ বলেছেন, রাশিয়া বেসামরিকদের ওপর খুব কাছ থেকে গোলাবর্ষণ করে। (তারা) এমন সব বেসামরিক লোকদের ওপর আক্রমণ করে যারা গোলাগুলি থেকে বাঁচার চেষ্টা করছিলেন। এটি এমন নিষ্ঠুরতা যার কোনো যৌক্তিকতা নেই।

অফিসিয়াল চ্যানেলগুলোতে শেয়ার করা একটি অনলাইন ভিডিওতে কুপিয়ানস্ক ডিপার্টমেন্ট অব ইমার্জেন্সি মেডিকেল কেয়ারের একজন সিনিয়র প্যারামেডিক প্রাণহানির এই সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন।

রাশিয়া অবশ্য তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার বিষয়ে দায় স্বীকার বা মন্তব্য করেনি। তবে গত ২ দিনের মধ্যে ইউক্রেনের কোনো মানবিক কনভয়ে এটি দ্বিতীয় হামলা। এর আগে গত শুক্রবার জাপোরিঝিয়া অঞ্চলে বেসামরিক যানবাহনের একটি বহরে গোলাবর্ষণে শিশুসহ অন্তত ৩০ জন নিহত হয়। সে ঘটনায় আরও বহু মানুষ আহত হয় বলে ইউক্রেন জানিয়েছে।


আরও খবর

‘হাসি’ মানুষের সবচেয়ে ভালো ওষুধ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




রপ্তানি বৃদ্ধি করতে ৪৩ পণ্যে নগদ প্রণোদনার নির্দেশ

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চলতি অর্থবছরে বস্ত্রখাতের ৫টি উপখাতসহ মোট ৪৩টি পণ্য রপ্তানিতে সর্বোচ্চ ২০ শতাংশ হারে নগদ সহায়তা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

আজ সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের এক সার্কুলারে এ ঘোষণা জানিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন ঘোষণায় বলা হয়, চলতি অর্থবছরে শতভাগ হালাল মাংস ও হালাল উপায়ে প্রক্রিয়াকৃত মাংসজাত পণ্য ১০ শতাংশ হারে নগদ সহায়তা দেওয়া হবে। এ ছাড়া সফটওয়্যার ও আইটিএস সেবা রপ্তানির সঙ্গে জড়িত ফ্রিল্যান্সাররা ৪ শতাংশ হারে নগদ সহায়তা পাবেন।

বস্ত্রখাতে যুক্তরাজ্যে রপ্তানি বাজার বাড়াতে এ সহায়তা দেওয়া হবে না। তবে গত বছরের মতো চলতি বছরেও বেজা, বেপজা ও হাইটেক পার্কে অবস্থিত প্রতিষ্ঠানগুলো পণ্যখাতের নগদ সহায়তা পাবে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ঘোষিত নগদ সহায়তা পণ্যগুলোর রপ্তানি বাজার বাড়াতে সহায়তা করবে।


আরও খবর

৩১ ডিসেম্বরের পর পাম অয়েল বিক্রি বন্ধ

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২