Logo
শিরোনাম

গাজীপুরের সেফহোম থেকে ১৪ নিবাসীর পলায়ন, উদ্ধার ৭

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ১০৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গাজীপুরের ভোগড়া এলাকার মহিলা, শিশু ও কিশোরী হেফাজতিদের নিরাপদ আবাসন কেন্দ্র থেকে ১৪ নিবাসী পালিয়ে গেছে। গতকাল বুধবার গভীর রাতে তারা পালিয়ে যায়। পলাতক হেফাজতিদের বয়স আনুমানিক ১৫ থেকে ২৫ বছর। এরপর পুলিশ রাতেই জয়দেবপুর রেল স্টেশন এলাকা থেকে সাতজনকে উদ্ধার করেছে।

গাজীপুর মহানগর পুলিশের (জিএমপি) কোনাবাড়ী ও সদর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার থোয়াই অংপ্রু মারমা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গাজীপুরের ভোগড়া এলাকার মহিলা, শিশু ও কিশোরী হেফাজতিদের নিরাপদ আবাসন কেন্দ্রের মূল ভবনের তৃতীয় তলার স্টোর রুমের জানালার গ্রিল কেটে পালিয়ে যায় ১৪ হেফাজতি। খবর পেয়ে বুধবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে জয়দেবপুর রেল স্টেশন এলাকায় অভিযান চালিয়ে জিএমপি সদর থানা পুলিশ সাতজনকে উদ্ধার করেছে। বাকিদের উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

এর আগে ২০১৮ সালে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মোগরখাল এলাকায় হেফাজতিদের নিরাপদ আবাসন কেন্দ্র থেকে ১৭ নিবাসী পালিয়ে গিয়েছিল। ঘটনার পর অভিযান চালিয়ে গাজীপুর ও মির্জাপুর থেকে ১২ জনকে আটক করা হয়।


আরও খবর



বন্ধ হচ্ছে সব রুটের বিমান চলাচল

প্রকাশিত:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৪৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে চলমান লকডাউনে বেশ উদাসীন জনগণ। একদিকে করোনার তীব্রতা, অন্যদিকে জনগণের উদাসীনতার কথা মাথায় রেখে আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর লকডাউনে যাচ্ছে সরকার। এসময় বন্ধ থাকবে সব ধরনের যানবাহন।

এমন পরিস্থিতিতে এক সপ্তাহের জন্য (১৪ এপ্রিল-২০ এপ্রিল) অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক সব ফ্লাইট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। রোববার (১১ এপ্রিল) গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বেবিচক।

বেবিচক চেয়ারম্যান এম মফিদুর রহমান বলেন, লকডাউনের কারণে সব ডমেস্টিক ও ইন্টারন্যাশনাল ফ্লাইট এক সপ্তাহ বন্ধ থাকবে। তবে কার্গো প্লেন চালু থাকবে। বিশেষ বিবেচনায় কোনো বিশেষ ফ্লাইট থাকলে সেটা পরিচালনা করা হবে।

নিউজ ট্যাগ: বিমান চলাচল

আরও খবর



রক্ত জমাট বাঁধছে জনসনের করোনা টিকাতেও

প্রকাশিত:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৬১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ৫০ লাখ মানুষকে জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা দেয়া হয়েছে। জনসন অ্যান্ড জনসন, অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও স্পুটনিক ভি টিকার ক্ষেত্রে অ্যাডেনোভাইরাস প্রযুক্তি অনুসরণ করা হয়েছে

এবার রক্ত জমাট বাঁধার ঘটনা ঘটেছে জনসন অ্যান্ড জনসনের তৈরি এক ডোজের করোনা টিকাতেও। ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইউরোপিয়ান মেডিসিনস এজেন্সি (ইএমএ) এ তথ্য জানিয়েছে। এর আগে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ক্ষেত্রে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছিল।

ইএমএ বলছে, জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা নেয়ার পর চারজনের রক্ত জমাট বাঁধার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার শিকার একজন ইউরোপের। অপর তিনজন যুক্তরাষ্ট্রের। এ সমস্যার শিকার তিনজনের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এর আগে ইউরোপে এই টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের সময় একজনে রক্ত জমাট বেঁধে গিয়েছিল। তখন অবশ্য জনসন অ্যান্ড জনসন জানিয়েছিল, এর সঙ্গে টিকার কোনও সম্পর্ক নেই। তবে সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রেও একই সমস্যা হওয়ায় নড়েচড়ে বসেছে ইইউ। এখন ইএমএকে টিকার যাবতীয় তথ্য পুনঃমূল্যায়ন করতে বলেছে তারা।

যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ৫০ লাখ মানুষকে জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা দেয়া হয়েছে। জনসন অ্যান্ড জনসন, অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও স্পুটনিক ভি টিকার ক্ষেত্রে অ্যাডেনোভাইরাস প্রযুক্তি অনুসরণ করা হয়েছে বলে জানান ব্লুমবার্গের ইন্টেলিজেন্স শাখার বিশ্লেষক স্যাম ফাজেলি। এ কারণে এই বিরল পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিচ্ছে বলে মনে করেন তিনি।

এদিকে ইএমএ জানিয়েছে, জরুরি ব্যবহারের জন্য ইউরোপে এই টিকার অনুমোদন দেয়া হলেও এটির প্রয়োগ শুরু হবে চলতি মাসের শেষদিকে। পাশাপাশি যথাযথ পর্যালোচনার পর রাশিয়ার টিকাও ইউরোপের বাজারে অনুমোদন দেয়ার বিষয়টি বিবেচনা করছে ইইউ।


আরও খবর

মিয়ানমারে সেনা অভিযানে নিহত ৮২

রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১




আ.লীগ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা কাদের মির্জার

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১ | ৯৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা দল থেকে পদত্যাগ করেছেন।

বুধবার দুপুর ১২টার দিকে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে লাইভে এসে তিনি এ ঘোষণা দেন।

কাদের মির্জা কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য পদে ছিলেন। এই পদে তিনি আর থাকবেন না বলে জানিয়েছেন।

পদত্যাগের ঘোষণায় বসুরহার পৌরসভার মেয়র কাদের মির্জা বলেন, অতীতে যে প্রতিশ্রুতিগুলো দিয়েছি তা রক্ষা করে আমি বিদায় নিতে চাই। আমি আর প্রশ্নবিদ্ধ হতে চাই না, আমি দল থেকে বিদায় নিচ্ছি। এতদিন আ.লীগের মির্জা ছিলাম। আওয়ামী লীগের মির্জা আজ থেকে আমি নেই। কোনো শক্তি আমাকে আর আ.লীগের মির্জা বানাতে পারবে না। তবে তিনি নিজের ঘোষিত উপজেলা আ.লীগের কমিটিকে দূর থেকে সহযোগিতা করবেন বলে জানান।

দলে সম্মান না পাওয়ার অভিযোগ করে ওবায়দুল কাদেরে ভাই বলেন, আমি সব অনিয়মকারীদের বিরুদ্ধে কথা বলে এখন সবার কাছে খারাপ হয়ে গেছি। যে দলে সম্মান নাই সেখানে আমি থাকবো না। আমি বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সদস্য হয়েছি সেখানে থেকেই কাজ করবো।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনি একসঙ্গে না পারলেও ধীরে ধীরে দলের দুর্নীতিবাজদের লাগাম টেনে ধরুন। যারা বেশি অনিয়মকারী তাদেরকে দল থেকে বের করে দিন।

তিনি আরও বলেন, দিনের বেলা আলাদা রাজনীতি করলেও রাতের বেলা আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি মিলে হোটেলে একসঙ্গে হয়ে যায়। এরা জাতীয় অপকর্ম পার্টি গঠন করেছে।

বড় ভাই ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশে তিনি বলেন, তিনি পদপদবীর জন্য অপশক্তিদের কাছে মাথা নত করেছেন।

উল্লেখ্য, কাদের মির্জা নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়নে মেয়র নির্বাচিত হন।  তিনি দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত।  মেয়র নির্বাচনের আগে থেকে মির্জা কাদের দলের কিছু নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হন।  তিনি কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতাদের বিরেুদ্ধে সরাসরি অবস্থান নেন।  গণমাধ্যমে তাদের সমালোচনা করে বক্তব্য দিয়ে আসছিলেন।  ক্ষমতাসীন দলের নেতা হয়েও তিনি নানা ইস্যুতে অবরোধ হরতাল করে আসছিলেন। তাকে নিয়ে দল বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছে বলেও বহু নেতা অভিযোগ করেন। অবশেষে আওয়ামী লীগের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা দিলেন মির্জা কাদের।


আরও খবর



কার্টুনিস্ট কিশোরের করা মামলাটি পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ এপ্রিল ২০২১ | ৬৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় জামিনে মুক্ত কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের করা হেফাজতে নিবারণ আইনের মামলা গ্রহণ করেছেন আদালত। একই সঙ্গে মামলাটি তদন্তের জন্য পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আজ রোববার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক কে এম ইমরুল কায়েশ এই আদেশ দেন বলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আটকের পর নির্যাতন করা হয়েছে এমন অভিযোগ এনে গত ১০ মার্চ এই মামলার আবেদন করেছিলেন কার্টুনিস্ট কিশোর। এতে তিনি অভিযোগ করেন, নির্যাতনে তাঁর কানের পর্দা ফেটে গেছে। আদালত সেদিন তাঁর জবাবন্দি গ্রহণ করে আদেশের জন্য আজকের দিন রেখেছিলেন। এদিকে গতকাল কিশোরের ডান কানে অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। সেখানে একটি যন্ত্র বসানো হয়েছে। এই যন্ত্র তাঁকে ভালভাবে শুনতে সাহায্য করবে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

আদালতের পিপি তাপস কুমার পাল বলেন, বিচারক আদেশে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে তিন সদস্যের একটি বোর্ড গঠন করে কার্টুনিস্ট কিশোরের নাক, কান, গলা কতটুকু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং অন্যান্য জখমের বিষয়ে যথাযথ অনুসন্ধান করে তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে।

আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী, মামলাটি তদন্ত করবে পিবিআই। সংস্থার একজন পুলিশ সুপার (এসপি) পদমর্যাদার কর্মকর্তাকে অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে আগামী ১৫ এপ্রিল আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনজীবী।

গত বছরের ৫ মে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৩-এর ওয়ারেন্ট অফিসার আবু বকর সিদ্দিক রমনা থানায় কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এ পেজের অ্যাডমিন সায়ের জুলকারনাইন, কিশোর, আশিক ইমরান, ফিলিপ শুমাখার, স্বপন ওয়াহিদ ও কারা হেফাজতে মৃত লেখক মুশতাক আহমেদ।

মামলার এজাহারে বলা হয়, আসামিরা আই অ্যাম বাংলাদেশি নামের ফেসবুক পেজে রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি বা সুনাম ক্ষুন্ন করতে বা বিভ্রান্তি ছড়ানোর উদ্দেশে অপপ্রচার বা গুজবসহ বিভিন্ন ধরনের পোস্ট দিয়েছেন। যা জনগণের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি এবং আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটায়।

সায়ের জুলকারনাইন সম্প্রতি আল জাজিরায় প্রচারিত তথ্যচিত্র অল দ্য প্রাইম মিনিস্টারস মেন-এর সামি বলে জানা গেছে। গত বছরের মে মাসে কিশোর, মুশতাক ও দিদারুলকে লালমাটিয়া ও কাকরাইলের নিজ নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। এরপর তাঁদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়। এর মধ্যে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি গাজীপুরের কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কারাগারে মারা যান মুশতাক। দিদারুল জামিনে আছেন।

গত ৩ মার্চ হাইকোর্টের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ কার্টুনিস্ট কিশোরের ছয় মাসের জামিন মঞ্জুর করেন। পরের দিন ৪ মার্চ কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি। মুক্তি পাওয়ার পর তিনি বাসায় না ফিরে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হন।


আরও খবর



ফেসবুক লাইভে এসে আত্মহত্যার হুমকি দিলেন কাদের মির্জা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৯০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

এবার আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা। আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টায় ফেসবুক লাইভে এসে তিনি এই হুমকি দেন।

এ সময় কাদের মির্জা বলেন, আমি বিশ্বস্ত সূত্রে খবর পেয়েছি, গত সংসদ নির্বাচনে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে যেভাবে রাতের অন্ধকারে তাঁর বাসা থেকে সিএমএইচে নিয়ে গেছে, অনুরূপ কিছু করার জন্য আজ আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন ওবায়দুল কাদের সাহেব, ওনার স্ত্রীর প্ররোচনায়। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমি দেশবাসীকে জানিয়ে দিচ্ছি, এ ধরনের ঘটনা ঘটলে আমি সঙ্গে সঙ্গে আত্মহত্যা করব। আমার ওপর যদি কিছু ঘটাতে আসেন, আমি বলে দিচ্ছি আমি আত্মহত্যা করব। আমি কোনো অসত্যের কাছে মাথা নত করব না।

কাদের মির্জা বলেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের মৃত্যুতে একটি শোকসভার আয়োজন করেছিলাম। ডিআইজির নির্দেশে পুলিশ তা করতে দেয়নি। ৭২-এ সংবিধান প্রণেতা ড. কামাল হোসেনের সহযোগী ছিলেন তিনি। যে মানুষটি বলেছিলেন ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের পর যদি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ফিরে না আসতেন, তাহলে মিত্রবাহিনী কখনো ভারতে ফিরে যেত না।

তিনি আরো বলেন, আমার ছেলেদের জামিন হয় না, আর তারা জামিন নিয়ে এসে আমার ছেলেদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি দিচ্ছে। আজকে কোথায় মানবাধিকার সংস্থা?

তিনি সেতুমন্ত্রীকে ইঙ্গিত করে বলেন, কেউ কেউ বলেন কেউ যদি অধম হয়, আমি কেন উত্তম হবো না; শরম যদি লাগে গো ঘোমটা দিয়া হাঁট গো। আমার সঙ্গে আল্লাহ, দলের ত্যাগী কর্মী ও সাধারণ মানুষ ছাড়া আর কেউ নেই। তবে আমি হতাশ নই, আমি তো আগেই বলেছি—‘যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে তবে একলা চলো রে


আরও খবর