Logo
শিরোনাম

গণস্বাস্থ্যের হোল্ডিং ট্যাক্স বকেয়া ২৩ বছর, বাফুফের ১৬ বছর

প্রকাশিত:সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ১০৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বকেয়া গৃহকর (হোল্ডিং ট্যাক্স) আদায়ে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) ভবনে অভিযান চালিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার (১১ অক্টোবর) দুপুরে বাফুফে ভবনে এ অভিযান শুরু হয়ে চলে বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

রাজস্ব আদায়ে পরিচালিত এ অভিযানের নেতৃত্ব দেন করপোরেশনের সম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মুনিরুজ্জামান।

অভিযান চালিয়েও বকেয়া আদায় করতে পারেনি ডিএসসিসি। বাফুফে আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সময় নিয়েছে। এ জন্য তারা ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে লিখিত অঙ্গীকার করেছে।

বাফুফে আবেদনে বলেছে, ডিএসসিসির প্রাপ্য বকেয়া গৃহকরের মধ্যে ১০ লাখ টাকা পরিশোধ করা হবে। অভিযানের শুরু থেকে দেনদরবার করতে থাকা বাফুফে কর্তারা দক্ষিণ সিটির ভ্রাম্যমাণ আদালতের অনড় মনোভাবে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে লিখিত এই প্রতিশ্রুতি দেন।

সেখানে উপস্থিত বাফুফে কর্তারা জানান, বাফুফের ব্যয়িত সব অর্থের দস্তখতকারী (সিগনেটরি) তিনজন। এর মধ্যে একজন দস্তখতকারী ঢাকার বাইরে অবস্থান করায় এই মুহূর্তে বকেয়া পরিশোধ করা সম্ভব হচ্ছে না। আমরা আগামী বৃহস্পতিবার ১০ লাখ টাকা দেবো। বাকি টাকা মেয়রের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে কিস্তি হিসেবে পরিশোধের সুযোগ চাইবো।

২০০৫-০৬ অর্থবছরের তৃতীয় কিস্তি থেকে ২০২১-২২ অর্থবছরের চতুর্থ কিস্তি পর্যন্ত বাফুফের কাছে গৃহকর বাবদ দক্ষিণ সিটির ১ কোটি ৫৩ লাখ টাকার বেশি পাওনা রয়েছে।

অভিযান প্রসঙ্গে করপোরেশনের সম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মুনিরুজ্জামান বলেন, করপোরেশনের বকেয়া আদায়ের লক্ষ্যে পরিচালিত অভিযানের অংশ হিসেবে আজ আমরা বাফুফে ভবনে অভিযান পরিচালনা করেছি।

বাফুফের কাছে বিগত ১৬ বছরের গৃহকর বাবদ ১ কোটি ৫৩ লাখ ৯০৪ টাকা বকেয়া পাওনা রয়েছে। অভিযানকালে বাফুফে তাৎক্ষণিকভাবে সমুদয় বকেয়া পরিশোধ না করলেও আংশিক অর্থ এই সপ্তাহে পরিশোধ করা হবে মর্মে লিখিতভাবে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। বাকি অর্থ মেয়র মহোদয়ের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে পরিশোধ করা হবে বলে অবগত করেছেন।

করপোরেশনের প্রাপ্য বকেয়া পরিশোধ করতে গত ৬ জুন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রকে ক্রোকের নোটিশ প্রদান করা হয় এবং গত ১৩ সেপ্টেম্বর তাগিদ পত্র দেওয়া হয়।

অভিযানকালে অন্যান্যের মধ্যে করপোরেশনের অঞ্চল-২ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা সোয়ে মেন জো, করপোরেশনের উপ-প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা শাহজাহান আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর

দেশে ছড়িয়ে পড়ছে ভয়ংকর আইস

মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১




পীরগঞ্জে আরও ১১ জন গ্রেফতার

প্রকাশিত:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রংপুরের পীরগঞ্জে ধর্মীয় অবমাননাকর ছবি ফেসবুকের কমেন্টে পোস্ট করাকে কেন্দ্র করে হিন্দু পল্লী মাঝিপাড়ায় বাড়িঘরে হামলা, লুটপাট, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আরও ১১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর আগে ৪১ জনকে গ্রেফতার করা হয়। বুধবার গ্রেফতারকৃতদের রংপুর আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ফেসবুকে ধর্মীয় অবমাননাকর পোস্ট দেয়ায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলার একমাত্র আসামি পরিতোষ সরকারকেও সোমবার রাতে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলা শহর থেকে গ্রেফতার করা হয়।

জানা গেছে, রবিবার রাতে উপজেলার রামনাথপুর ইউনিয়নের বড়করিমপুর কসবা হিন্দু পল্লী মাঝিপাড়ার প্রশান্ত সরকারের ছেলে পরিতোষ সরকার ফেসবুকে ধর্মীয় অবমাননাকর পোস্ট দেয়। এ ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে রাত ১০ টার পর বিক্ষুব্ধ জনতা কসবা হিন্দু পল্লী মাঝিপাড়ায় পরিতোষ সরকারের বাড়ি ঘেরাও করে। তার আগেই পরিতোষের পরিবার বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়।

এরপর বিক্ষুব্ধ জনতা হিন্দু পল্লীতে বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর, লুটপাটের পর ২৫টি বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়। এ সময় হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ জীবনের ভয়ে বাড়ি ঘর ছেড়ে আশপাশের জঙ্গল, বাঁশঝাড় ও ধানক্ষেতে আশ্রয় নেয়। ওই ঘটনায় পীরগঞ্জ থানার পুলিশ বাদী হয়ে ৫০০ জনকে আসামি করে ২টি মামলা করে। ওই ২ মামলায় ৫২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সাদ্দাম হোসেন বলেন, মামলাটি হওয়ার পরই অভিযান চালিয়ে একমাত্র আসামি পরিতোষকে গ্রেফতার করা হয়েছে।


আরও খবর



গায়ক নোবেলকে ডিভোর্স দিলেন স্ত্রী সালসাবিল

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ১২২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সমালোচিত গায়ক মঈনুল আহসান নোবেলকে ডিভোর্স লেটার (তালাকের নোটিশ) পাঠিয়েছেন তার স্ত্রী মেহরুবা সালসাবিল। গত ১১ সেপ্টেম্বর নোবেলের ঠিকানায় এ তালাকনামা পাঠানো হয়েছে।

বুধবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন মেহরুবা সালসাবিল।

তিনি বলেন, নোবেল মানসিকভাবে অসুস্থ, চরম মাদকাসক্ত, নারীনেশাসহ আমাকে নানাভাবে নির্যাতন করত। সবকিছুর প্রমাণ আমার কাছে আছে। এসব কারণে আমি তাকে ডিভোর্সের সিদ্ধাান্ত নিয়েছি।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুক পেজে মঈনুল আহসান নোবেল বিচ্ছেদের কথা জানিয়েছেন। এক স্ট্যাটাসে নোবেল লেখেন, ডিভোর্স

২০১৯ সালে ভারতের জি বাংলা টেলিভিশনের রিয়েলিটি শো সা রে গা মা পা-তে অংশ নিয়ে আলোচনায় আসা নোবেল। একই বছরের ১৫ নভেম্বর মেহরুবা সালসাবিলকে বিয়ে করেন নোবেল।


আরও খবর

অবশেষে জামিন পেলেন শাহরুখপুত্র

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

আজ ফের হাইকোর্টে আরিয়ানের জামিন শুনানি

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




ছাত্রলীগ হোক আর যেই হোক, বিচার হবে: আইনমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৫১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনায় অপরাধী ছাত্রলীগ হোক বা আর যে দলেরই হোক তার বিচার হবে বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। রবিবার বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে এক প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনায় এক ছাত্রলীগ নেতার নাম আসা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, ছাত্রলীগ বা অন্য লীগ বা অন্য দল, এসব না। যারা অপরাধ করবে তাদের বিচার হবে। সে যেই দলেরই হোক যে গোষ্ঠীরই হোক যে জাতিরই হোক। কিন্তু অপরাধী অপরাধীই, তার বিচার হবে।

আওয়ামী লীগ অবশ্যই অসম্প্রাদায়িক রাজনীতি বিশ্বাস করে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের মানুষকেও সে দীক্ষাই দীক্ষিত করেছেন বলে জনগণ সাম্প্রদায়িক রাজনীতির দিকে ঝুঁকে না। সেক্ষেত্রে কেউ যদি ব্যক্তিস্বার্থে অন্যায় করে সেটাও অন্যায় এবং তাকে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।


আরও খবর



আরও ৩৫ লাখ ফাইজারের টিকা উপহার দিল যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ২৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশকে আরও ৩৫ লাখ ডোজ ফাইজার কোভিড-১৯ টিকা উপহার দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।  এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র এখন পর্যন্ত বাংলাদেশকে মোট ১ কোটি ৫০ লাখ ডোজ টিকা উপহার দিয়েছে।

বুধবার বিকালে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চলতি বছরের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিট্রেশন) ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের মধ্যে জরুরি প্রয়োজনে ব্যবহারের জন্য ফাইজার-বায়োটেক করোনা টিকা অনুমোদন করেছে। মানিকগঞ্জে পরীক্ষামূলকভাবে ব্যবহারের পর যুক্তরাষ্ট্রের অনুদান দেওয়া টিকাগুলো বাংলাদেশ সরকারকে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী বাংলাদেশিদের টিকাদানে সক্ষম করবে।

ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলার বলেছেন, বাংলাদেশকে আরও ৩৫ লাখ ডোজ টিকা অনুদান দিতে পেরে যুক্তরাষ্ট্র আনন্দিত। এছাড়াও আমরা বাংলাদেশি শত শত স্বাস্থ্যকর্মীদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দিয়েছি যাতে তারা ফাইজারের এই টিকাগুলো ১২ ও তদুর্ধ্ব বয়সী শিশুদের নিরাপদে দিতে পারে। আমরা আশা করি, এই টিকা তরুণ বয়সী বাংলাদেশিদের বিশেষ করে শিক্ষার্থীদের কোভিড-১৯ থেকে সুরক্ষা পেতে সহায়তা করবে। তারা পরিপূর্ণভাবে তাদের লেখাপড়া ও সামাজিক কর্মকাণ্ড শুরু করতে পারবে।

বাংলাদেশকে দেওয়া ফাইজার টিকার এই অনুদান করোনাভাইরাস মোকাবিলার বৈশ্বিক প্রচেষ্টাকে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্ব এগিয়ে নিতে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের প্রতিশ্রুত ২০২২ সাল জুড়ে বিনামূল্যে বিশ্বব্যাপী ১০০ কোটি ডোজ ফাইজার টিকা সরবরাহের অংশ।

টিকা অনুদান দেওয়া ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের জাতীয় কোভিড-১৯ টিকাদান প্রচারাভিযান এবং মহামারি মোকাবিলায় সরকারের গৃহীত কার্যক্রম জোরদারকরণে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করে যাচ্ছে।


আরও খবর



বিএনপি মহাসচিবের বাকচাতুর্য কল্পনাকেও হার মানায়: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বাকচাতুর্য কল্পনাকেও হার মানায় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রতিদিনই নতুন নতুন তথ্য উপস্থাপন করেন। শনিবার সকালে নিজ বাসভবনে এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

বিএনপির জনসমর্থনের জোয়ারে সরকারের হৃদকম্প শুরু হয়েছে-বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে ওবায়দুল কাদের বলেন, এসব সৃজনশীল কথামালার চাতুরীতে ফখরুল ইসলাম আলমগীর আত্মতৃপ্তি বোধ করতে পারেন, কর্মীদের রোষানল থেকে নিজেদের সুরক্ষার জন্য কল্পনার ফানুস উড়াতে পারেন। কিন্তু বাস্তবের সঙ্গে তাদের বক্তব্যে বিপরীত তা দেশের মানুষ ঠিকই জানে।

পরবর্তী জাতীয় নির্বাচনে ভরাডুবির আশঙ্কা বিএনপিকে আগেই পেয়ে বসেছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাই তাদেরই হৃদয়ে হৃদকম্পন শুরু হয়েছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ভয়ে কাঁপে না, চ্যালেঞ্জ আর লক্ষ্য অর্জনের পথে বাধা অতিক্রম করে এগিয়ে যাওয়াই বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি, আর সেই রাজনীতিই আওয়ামী লীগ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে করে যাচ্ছে।

এদেশের রাজপথ আওয়ামী লীগের আন্দোলন-সংগ্রামের বীরত্বগাথা আর সমৃদ্ধ ইতিহাস জানে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, জনগণ জানে বিএনপির হঠকারিতা, গণতন্ত্র হত্যা, ষড়যন্ত্র, লুটপাট আর সুবিধাবাদী রাজনীতির কথা।

বিএনপির জোয়ার এখন ভাটায় পরিণত হয়েছে বলেও মনে করেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, বিএনপির জনসমর্থনের জোয়ারতো গত তের বছরে কোনো নির্বাচনে দেখা যায়নি। তারা ভরাডুবির ভয়ে এখন নির্বাচন বিমুখ। তাই রাজপথ আর ভোটের ময়দান ছেড়ে গণমাধ্যম এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় রাজনীতিকে সীমাবদ্ধ করে রেখেছে।

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের যে অপচেষ্টা করছেন তা আমাদের অজানা নেই। শেখ হাসিনা সরকার ও আওয়ামী লীগকে হুমকি ধামকি দিয়ে লাভ নেই।

বিএনপির সবকিছুতেই শর্ত এবং মামার বাড়ির আবদার উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, নিরপেক্ষ তত্বাবধায়ক সরকার গঠন করলে নাকি তারা নির্বাচনে অংশ নিবেন, আসলে বিএনপি ভালো করেই জানে তত্বাবধায়ক সরকারের বিষয়টি একটি মীমাংসিত বিষয়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের প্রশ্ন রেখে বলেন তত্বাবধায়ক সরকার বাতিল কে করেছে?

উচ্চ আদালতের রায়ের আলোকে তত্বাবধায়ক সরকার বাতিল হয়েছে। এ পদ্ধতি ছিলো একটি অন্তর্বর্তীকালীন ব্যবস্থা, দীর্ঘ মেয়াদে তত্বাবধায়ক সরকার চলতে পারে না।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশের গণতন্ত্র যখন এগিয়ে যায় তখন সরকার ও নির্বাচন ব্যবস্থার ওপর আস্থা ফিরতে শুরু করে। নির্বাচন কমিশন একটি সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান। এ প্রতিষ্ঠানের ওপর সরকারের কোনো হস্তক্ষেপ নেই।

যারা বহুদলীয় গণতন্ত্রের নামে বহুদলীয় তামাশা আর সুবিধাবাদ চালু করেছিল, যাদের দলের অভ্যন্তরে নেই গণতন্ত্রের চর্চা, আজ তারাই গণতন্ত্র নিয়ে কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বিএনপি মহাসচিবকে প্রশ্ন করে বলেন আপনি নির্বাচিত হয়েও কেন সংসদে গেলেন না? এটা কোন গণতন্ত্র? ভোটাধিকার নিয়েতো আপনারাই ছিনিমিনি খেলে ছিলেন।

কারা হ্যাঁ-না ভোটের প্রহসন করেছিল? কারা সেনাপ্রধান পদ থেকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করেছিল? কারা ১৫ ফেব্রুয়ারির ভোটারবিহীন নির্বাচন করেছিল? কারা ১ কোটি ২৭ লাখ ভুয়া ভোটার সৃষ্টি করে জনগণের অধিকার হরণ করতে চেয়েছিল? আশা করি এসব প্রশ্নের জবাব বিএনপি মহাসচিব দেবেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, পৃথিবীর অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশে যেভাবে নির্বাচন হয়, বাংলাদেশেও সময় মতো সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি মীমাংসিত বিষয় নিয়ে অযথা মাঠ গরম না করতে বিএনপি নেতাদের প্রতি আহবান জানান।

স্থানীয় সরকার নির্বাচনে ভরাডুবির আশংকায় বিএনপি সরে দাঁড়িয়েছে বলে মনে করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বিএনপিসহ সকল নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের আহবান জানান।

নির্বাচন কমিশন অবাধ ও সুষ্ঠু ভোট গ্রহণে বদ্ধপরিকর উল্লেখ করে কাদের বলেন, সরকার সুষ্ঠু ভোট গ্রহণে নির্বাচন কমিশনকে সব ধরনের সহযোগিতা করবে।

আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ফরম সংগ্রহের আহবান

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ নির্বাচন কমিশন ঘোষিত বিভিন্ন পর্যায়ের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেতে আগ্রহী প্রার্থীদের জন্য আগামী ২ অক্টোবর থেকে ৬ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়নের আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা প্রদানের তারিখ নির্ধারণ করেছে।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে আগ্রহী প্রার্থীদের ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে দলীয় মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা প্রদান করতে হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি মেনে এবং কোনো ধরনের লোকসমাগম ছাড়া প্রার্থী নিজে অথবা প্রার্থীর একজন প্রতিনিধির মাধ্যমে আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা প্রদান করতে হবে।

আবেদনপত্র সংগ্রহের সময় সকল প্রার্থীকে অবশ্যই জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি সঙ্গে আনতে হবে এবং আগামী ৬ অক্টোবর বিকাল ৫টার মধ্যে মনোনয়ন ফরম জমা দিতে হবে।

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশে তিনি বলেন, নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে মদদ ও প্রচারণা থেকে বিরত থাকতে হবে।

তিনি দলের মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে সবাইকে একযোগে কাজ করারও আহবান জানান।


আরও খবর