Logo
শিরোনাম

‘হাফ ভাড়ার বিষয়ে শিগগিরই যৌক্তিক সিদ্ধান্ত’

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ২৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার বিষয়ে শিগগিরই যৌক্তিক সিদ্ধান্ত আসবে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভা ও কাউন্সিল অধিবেশনে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, আজ (বৃহস্পতিবার) বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) প্রধান কার্যালয়ে একটি সভা অনুষ্ঠিত হবে। তাতে সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন। আশা করছি, সভা থেকে এ বিষয়ে একটি যৌক্তিক সিদ্ধান্ত আসবে। পাশাপাশি শনিবার (২৭ নভেম্বর) বিআরটিএর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বাস মালিকদের সঙ্গে বসে এ ব্যাপারে যৌক্তিক সিদ্ধান্ত নেবেন বলে আমি আশা রাখি।

তিনি বলেন, বিআরটিসির বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া চালুর বিষয়ে আমরা চিন্তাভাবনা করছি। শুধু সরকারি বাসে নয়, বেসরকারি বাসেও শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া চালুর বিষয়ে আমি সংশ্লিষ্টদের কাছে সহযোগিতা কামনা করবো।


আরও খবর



পানের ভাঁজে করে ইয়াবা পাচার : আটক ৩

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | ৩৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পানের ভাঁজে করে ইয়াবা পাচারকালে তিন মাদক বিক্রেতাকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

রাজধানীর শ্যামপুর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতদের কাছ থেকে ৬৫ হাজার ১০৫ পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বিকাল সাড়ে ৩টায় কারওয়ানবাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে।

নিউজ ট্যাগ: ইয়াবা পাচার

আরও খবর



মাগুরায় বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে দুইজন নিহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৯২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
মাগুরা সদরের সাইত্রিশ বাজার এলাকায় ঝিনাইদাহগামী বাসকে মাগুরাগামী সবজিবোঝাই ট্রাক সামনের থেকে ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে

মাগুরা-ঝিনাইদাহ মহাসড়কে বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই বাসযাত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় নারী ও পুরুষসহ আহত হয়েছে অন্তত ২৫ জন। আজ শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে মাগুরা-ঝিনাইদাহ সড়কের সাইত্রিশ বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন নড়াইলের মাঝপাড়ার বিমল দাস (৭৫) ও মাগুরা সদর উপজেলার হাজরাপুর গ্রামের কাশেম মোল্যা (৫০)। দুর্ঘটনায় আহত রেহেনা (৩৫), শামীমা (৩০), অমিত (৩২), মিঠুন (৩২), অঞ্জলী বালা (২৫) আজমীর (৪০), বাদশা (৩০), ইব্রাহীম (১৮) ও আবুল কাশেমকে (৪৩) মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মাগুরা ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক মাসুদ সর্দার বলেন, মাগুরা সদরের সাইত্রিশ বাজার এলাকায় ঝিনাইদাহগামী বাসকে মাগুরাগামী সবজিবোঝাই ট্রাক সামনের থেকে ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি টিম কাজ করছি। ঘটনাস্থলে এক ব্যক্তি এবং অপর একজন হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান। গুরুতর আহত অবস্থায় ২৫ জনকে আমরা মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠিয়েছি।’

নিউজ ট্যাগ: মাগুরা

আরও খবর

যাত্রীবাহী বাস খাদে, নিহত ৪

রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১




দৌলতদিয়ায় পারের অপেক্ষায় শত শত পণ্যবাহী ট্রাক

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে আটকা পড়েছে বিভিন্ন ধরনের যানবাহনসহ শত শত পণ্যবাহী ট্রাক। যানবাহনের চাপ ও ফেরি কম থাকায় দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় চালক-হেলপার ও যাত্রীরা ভোগান্তিতে পড়ছেন।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) সকালে দৌলতদিয়‌ার ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক ও গোয়ালন্দ মোড়ের রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের প্রায় ৯ কিলোমিটার সড়কে যানজট দেখা যায়।

চালক ও যাত্রীদের অভিযোগ, যাত্রীবাহী যানবাহন ও পচনশীল পণ্যবাহী ট্রাক অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পারাপার করলেও অপচনশীল পণ্যবাহী ট্রাকগুলো দীর্ঘ সময় পদ্মাপারের অপেক্ষায় থাকতে হয়। দিনে পর দিন অপেক্ষায় থাকা ভোগান্তিতে পড়ছেন চালক ও সহযোগীরা।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়‌াঘাট ব‌্যবস্থাপক শিহাব উদ্দিন জানান, গাড়ির চাপ সব সময় এক রকম থাকে না। বর্তমানে দক্ষিণঞ্চলের যানবাহনের সঙ্গে শিমুলিয়া বাড়তি যানবাহনের চাপ পড়েছে। এ রুটের ছোট-বড় ১৭ ফেরি চলাচল করছে।

 

নিউজ ট্যাগ: পণ্যবাহী ট্রাক

আরও খবর

আজকের ভালো মন্দ

বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১

ঘনকুয়াশার কারণে ফেরি চলাচল বন্ধ

বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১




যৌন কেলেঙ্কারিতে উত্তাল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৯ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | ২৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটে নতুন বিতর্ক। যৌন কেলেঙ্কারিতে উত্তাল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট। এর জেরে পদত্যাগ করলেন টেস্ট দলের অধিনায়ক টিম পেন। তাঁর বিরুদ্ধেই যাবতীয় অভিযোগ করেছেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার এক মহিলা কর্মী। বিষয়টি অস্ট্রেলিয়ার মানবাধিকার কমিশনেও গিয়েছে।

শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলন করে নিজেই পদত্যাগের কথা জানান পেন। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে তিনি পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার ত্রিকেট বোর্ড তা মেনে নিয়েছে।

ঘটনাটি ২০১৭ সালে ব্রিসবেনের গাব্বায় অ্যাশেজের প্রথম টেস্টের দিন এবং তার আগের দিনের। অস্ট্রেলিয়ার হেরাল্ড সান সংবাদপত্রের খবর অনুযায়ী, পেন এক মহিলা কর্মীকে নিজের কিছু অশ্লীল ছবি পাঠান। যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার জন্য প্রকাশের অযোগ্য কিছু ভাষায় ম্যাসেজ পাঠান।

২০১৮ সালের জুন মাসে ওই মহিলা বিষয়টি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে জানান, পেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনেন। অস্ট্রেলিয়ার মানবাধিকার কমিশনেও পেনের বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ আনেন এই মহিলা। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তদন্ত শুরু করে।

শুক্রবার নিজের অপরাধ স্বীকার করে পেন অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলের অধিনায়কের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন। পরিবারের কাছেও ক্ষমা চেয়ে নেন তিনি।

লিখিত বিবৃতিতে পেন জানান, অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়কের পদ থেকে আমি সরে যাচ্ছি। খুব কঠিন সিদ্ধান্ত। কিন্তু নিজের, পরিবার ও ক্রিকেটের জন্য এটাই সঠিক সিদ্ধান্ত।

পরিবারের সঙ্গে কথা বলে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জানিয়ে পেন লেখেন, প্রায় চার বছর আগের ঘটনা এটা। তখন থেকে আজ পর্যন্ত এর জন্য আমার আক্ষেপের শেষ নেই। তখনই স্ত্রী এবং পরিবারের সঙ্গে কথা বলেছিলাম। ওরা আমার পাশে রয়েছে। আমাকে ক্ষমা করেছে। তার জন্য আমি ওদের কাছে কৃতজ্ঞ। আমরা ভেবেছিলাম, বিষয়টি মিটে গিয়েছে। ফলে গত তিন-চার বছর ধরে আমি সম্পূর্ণ ভাবে ক্রিকেটে মন দিয়েছিলাম। কিন্তু এখন দেখলাম বিষয়টি জনসমক্ষে এসেছে। তখন যা করেছি, সেটা অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট দলের অধিনায়কের পক্ষে কখনোই করা উচিত নয়। তা ছাড়া স্ত্রী, পরিবারকেও আঘাত দিয়েছি।

এটা পড়ার পরেই কেঁদে ফেলেন পেন। বলেন, অস্ট্রেলিয়ার অসংখ্য ক্রিকেটপ্রেমীর কাছে আমি ক্ষমাপ্রার্থী। সামনেই অ্যাশেজ সিরিজ আছে। অস্ট্রেলিয়া দলের একজন সদস্য হিসেবে নিজের পুরোটা দেব।

২০১৮ সালে আর এক বিতর্কের জেরে পেনকে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক করা হয়েছিল। সে বার দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে বল বিকৃতির অভিযোগে তৎকালীন অধিনায়ক স্টিভ স্মিথকে দু বছরের জন্য নির্বাসিত করা হয়। এরপর আরও এক বিতর্ক। আরও এক নতুন অধিনায়ক পাবে অস্ট্রেলিয়া।


আরও খবর



‘স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করল বাংলাদেশ’

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৪০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে সর্বসম্মতিক্রমে স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) ক্যাটাগরি থেকে চূড়ান্তভাবে বাংলাদেশের উত্তরণের রেজল্যুশন গৃহীত হয়েছে। রেজল্যুশনটি গ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশ এলডিসি ক্যাটাগরি থেকে পরবর্তী ধাপে উত্তরণের সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে। জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর জানিয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এটি বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় একটি যুগান্তকারী অর্জন, যা এমন এক সময়ে অর্জিত হলো, যখন আমরা বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্‌যাপন করছি।

রেজল্যুশনটি গৃহীত হওয়ার পর বাংলাদেশের পক্ষে বক্তব্য দেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা। প্রদত্ত বক্তব্যে তিনি রেজল্যুশনটি গ্রহণের ক্ষেত্রে ঐক্যমতে পৌঁছাতে সহায়তার জন্য সব সদস্য দেশ, বিশেষ করে বাংলাদেশের উন্নয়ন অংশীদারদের ধন্যবাদ জানান।

রাবাব ফাতিমা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি মধ্যম আয়ের দেশে এবং এবং ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত সমৃদ্ধ দেশে রূপান্তরের স্বপ্ন দেখেছেন। কোভিড-১৯ অতিমারির ভয়াবহতম সময়েও সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে তিনি বাংলাদেশের এ অদম্য অগ্রযাত্রায় সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। যার ফলে আজ রূপকল্প-২০২১ পূর্ণতা পেল।

স্বল্পোন্নত দেশের ক্যাটাগরি থেকে উত্তরিত (স্নাতক) হওয়া কেবল সুনির্দিষ্ট একটি দেশেরই সাফল্য নয়, এটি জাতিসংঘের নেতৃত্বে বহুপাক্ষীয় অংশীদারত্বের শক্তির প্রমাণও বটে উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা বলেন, উত্তরণ কোনোভাবেই শাস্তি হতে পারে না। এটি হতে পারে পুরস্কার।

এ প্রসঙ্গে রাবাব ফাতিমা এলডিসি ক্যাটাগরি থেকে উত্তরিত ও উত্তরণের পথে থাকা দেশগুলোর জন্য প্রণোদনাভিত্তিক আন্তর্জাতিক সহায়তা কাঠামো নিশ্চিত করার গুরুত্ব তুলে ধরেন।

এ ছাড়া উত্তরণ চ্যালেঞ্জের প্রতিটি দিক বিশেষ করে উত্তরণ পরবর্তী আন্তর্জাতিক সহায়তা ব্যবস্থা, বাধাহীন উত্তরণ এবং এসডিজি বাস্তবায়নের জন্য অর্থায়ন ইত্যাদি চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার উপযোগী এবং লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য স্পষ্ট রোডম্যাপ তৈরিরও আহ্বান জানান রাষ্ট্রদূত ফাতিমা।

কাতারের দোহায় অনুষ্ঠেয় আসন্ন পঞ্চম জাতিসংঘ স্বল্পোন্নত দেশগুলোর সম্মেলন (এলডিসি-৫) প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি বলেন, পরবর্তী দশকে এলডিসির দেশগুলোর জন্য একটি রূপান্তরধর্মী কর্মসূচি নিয়ে আসার ক্ষেত্রে সম্মেলনটি উন্নয়ন সহযোগীদের চমৎকার একটি সুযোগ এনে দিবে।

দোহা প্রোগ্রাম অব অ্যাকশন স্বল্পোন্নত দেশগুলোর উত্তরণের বিষয়টিকে এর অগ্রাধিকার ক্ষেত্রগুলোর একটি হিসেবে চিহ্নিত করেছে। ২০৩১ সালের মধ্যে যাতে আরও ১৫টি এলডিসিভুক্ত দেশকে উত্তরণের মানদণ্ড পূরণে সক্ষম করে তোলা যায়, খসড়া দোহা প্রোগ্রাম অব অ্যাকশনে সে লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। এ উচ্চাভিলাষী লক্ষ্যের সাফল্য নির্ভর করছে মূলত উন্নয়ন অংশীদারদের সংহতি এবং বাড়তি সহায়তা প্রদানের প্রতিশ্রুতির ওপর।

জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা ও কানাডার স্থায়ী প্রতিনিধি রর্বাট রে এলডিসি-৫ সম্মেলনের প্রস্তুতিমূলক কমিটিতে যৌথভাবে সভাপতিত্ব করছেন।


নিউজ ট্যাগ: জাতিসংঘ

আরও খবর