Logo
শিরোনাম

হাজারো রকেট ছুড়লে ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার আছে: বাইডেন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ২৩৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইসরায়েলি ও ফিলিস্তিনিদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘাত শিগগির বন্ধ হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ইসরায়েলের প্রেসিডেন্ট বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে স্থানীয় সময় গতকাল বুধবার ফোনালাপে বাইডেন বলেছেন, ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এমনটি জানিয়েছে। হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের সামনে বাইডেন বলেন, আশা করি যত দ্রুত সম্ভব সংঘাত বন্ধ হবে, তবে ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে।

সহসাই সংঘাত বন্ধের আশাবাদের কোনো ব্যাখ্যা দেননি বাইডেন। তবে তিনি জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা বাহিনী ইসরায়েল, মিসর, সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে।

বাইডেন-নেতানিয়াহু ফোনালাপ সম্পর্কে হোয়াইট হাউসের বিবৃতিতে বলা হয়, বাইডেন হামাসসহ অন্যান্য গোষ্ঠীর ইসরায়েলে রকেট হামলার নিন্দা এবং ইসরায়েলের সুরক্ষা ও আত্মরক্ষার অধিকারের প্রতি সংহতি জানিয়েছেন।

নেতানিয়াহুকে বাইডেন বলেছেন, বিশ্ববাসীর কাছে ধর্মীয়ভাবে গুরুত্বপূর্ণ জেরুজালেমের পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণ থাকা জরুরি।

ফোনালাপে বাইডেন ও নেতানিয়াহু আগামী দিনগুলোতে আরও নিবিড় যোগাযোগের মধ্যে থাকবেন বলে একমত হন।

অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিনকেন বুধবার ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন। ফোনালাপে হামাসের রকেট হামলার নিন্দা জানান ব্লিনকেন।

ইসরায়েলের ইহুদি দখলদারদের দ্বারা ফিলিস্তিনিদের ভিটেমাটি ছাড়া করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। গত শুক্রবার জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদে বিপুল ফিলিস্তিনি মুসল্লি রমজানের শেষ জুমার নামাজে অংশ নিতে এলে ইসরায়েলি বাহিনী তাদের ওপর চড়াও হয়। গত সোমবার এই সংঘাত আরও বেড়ে যায়।

সাম্প্রতিক সহিংসতার কারণ

পূর্ব জেরুজালেমে পাহাড়ের ওপর পবিত্র একটি স্থানে ফিলিস্তিনি ও ইসরায়েলি পুলিশের মধ্যে কয়েক দিন ধরে সহিংসতা বৃদ্ধির জেরে ইসরায়েলি সেনা ও হামাসের মধ্যে এই সংঘাত শুরু হয়।

এই স্থানটি মুসলিম ও ইহুদিদুই ধর্মের মানুষের কাছেই পবিত্র। মুসলিমদের কাছে এটি হারাম আল-শরিফ এবং ইহুদিদের কাছে এটি টেম্পল মাউন্ট।

হামাসের দাবি ইসরায়েল সেখান থেকে এবং নিকটবর্তী আরব অধ্যুষিত শেখ জারাহ থেকে পুলিশ সরিয়ে নিক। সেখান থেকে ইহুদি বসতিস্থাপনকারীরা ফিলিস্তিনি পরিবারগুলোকে উচ্ছেদ করতে চায়।

হামাস এই পদক্ষেপ বন্ধ করার যে আলটিমেটাম দিয়েছিল, ইসরায়েল তা উপেক্ষা করলে হামাস রকেট নিক্ষেপ করতে শুরু করে।

পূর্ব জেরুজালেমে পুলিশের সঙ্গে ফিলিস্তিনিদের মধ্যে চলা উপর্যুপরি সংঘাতের ফলে ফিলিস্তিনিদের মধ্যে ক্ষোভ ও উত্তেজনা ক্রমেই বাড়ছিল। এপ্রিলের মাঝামাঝি রমজান শুরু হওয়ার সময় থেকেই এই উত্তেজনা শুরু হয়। এরপর শেখ জারাহর কয়েকটি ফিলিস্তিনি পরিবারের ভাগ্য নিয়ে আদালতের প্রত্যাশিত রায় এই ক্ষোভের আগুনে ইন্ধন যোগায়।


নিউজ ট্যাগ: জো বাইডেন

আরও খবর



বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড়ের আভাস

প্রকাশিত:শুক্রবার ২১ মে 20২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৬ জুন ২০২১ | ১১১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বঙ্গোপসাগরে একটি ঘূর্ণিঝড়ের আভাস দেখা দিয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যে বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ তৈরি হয়ে তা দ্রুত ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। আর বিভিন্ন আবহাওয়া দপ্তরের এই পূর্বাভাস ঠিক হলে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বাগেরহাট, খুলনা ও সাতক্ষীরা জেলা আক্রান্ত হতে পারে।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রাথমিক লক্ষণ হিসেবে বঙ্গোপসাগরের আন্দামান দ্বীপপুঞ্জের কাছে বায়ুর চাপ তৈরি হয়েছে। ওই এলাকাসহ বঙ্গোপসাগরের বাংলাদেশ অংশের তাপমাত্রা অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে গেছে। এ ধরনের পরিস্থিতির কারণে আগামী পরশু বা ২৩ মের মধ্যে বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ তৈরি হবে। তা দ্রুত নিম্নচাপ হয়ে ২৬ মের মধ্যে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, উত্তর আন্দামান সাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। এটি পরবর্তীতে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে এবং ২৬ মে নাগাদ ভারতের ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের খুলনা উপকূলে পৌঁছাতে পারে।

এ ছাড়া আজকের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশের ঢাকা, রাজশাহী, সিলেট ও রংপুর বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং কুষ্টিয়া, কুমিল্লা অঞ্চলে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।


আরও খবর



স্বল্প সুদে ১০০ কোটি টাকা ঋণ পাবেন বাস মালিকরা

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ মে ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৮৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ক‌রোনা সংক্রমণ রোধে সরকার ঘো‌ষিত বিধিনিষেধে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বাস মালিকরা। তাই তাদের স্বল্প সুদে সহজ শর্তে ঋণ দেয়ার জন্য ১০০ কোটি টাকার বিশেষ পুনঃঅর্থায়ন স্কিম গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

রবিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের বোর্ড সভায় এ বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। শিগগিরই এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবিরের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি গভর্নর আমেদ জামাল, কাজী ছাইদুর রহমান, একেএম সাজেদুর রহমান খান, আবু ফরাহ মো. নাসের, বোর্ড সচিব মাসুদ বিশ্বাস ও সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তারা।

জানা গেছে, পুনঃঅর্থায়ন স্কিমের আওতায় ব্যাংকগুলো বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে ২ শতাংশ সুদে তহবিল গ্রহণ করবে এবং বাস মালিকদের সর্বোচ্চ ৬ শতাংশ সুদে বিতরণ করবে।

করোনায় বিধিনিষেধ চলাকালেৌ গণপরিবহণ বন্ধ থাকায় মালিকদের যানবাহন মেরামত, কর্মচারী ও শ্রমিকের বেতন, ভাতা, ঈদ বোনাস ইত্যাদি দেয়ার জন্য নামমাত্র সুদে ও সহজ শর্তে ৫ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনার দাবি করে আসছে তারা।

বোর্ড সভায় সরকারি ৬ ব্যাংকের ২০২০ সালভিত্তিক ক্যামেল রেটিং ও অফ-সাইট সুপারভিশন নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

এছাড়া কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ২০১৯-২০ অর্থবছরের শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান ও সোনালী ব্যাংকের চিফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার (সিএফও) পদে কর্মরত বাংলাদেশ ব্যাংকের যুগ্ম পরিচালক সুভাস চন্দ্র দাসের মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়ে আলোচনা হয়।

সভায় কৃষি ব্যাংকের মাধ্যমে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে কৃষকদের মধ্যে বিতরণ করা ঋণের রাষ্ট্রীয় গ্যারান্টি পরিশোধের সময় বৃদ্ধি এবং পুনঃঅর্থায়ন ঋণের টাকা পরিশোধের সময়সীমা বাড়ানোর বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।


নিউজ ট্যাগ: বাস মালিক

আরও খবর



সাতক্ষীরায় ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ৬৪ দশমিক ২০ শতাংশ

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাতক্ষীরায় দ্বিতীয় দফায় লকডাউন চলছে। আজ রোববার সকাল থেকে ব্যারিকেড বসিয়ে জনসমাগম ও যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করছে পুলিশ। তবে লকডাউনে খানিকটা ঢিলেঢালাভাব দেখা গেছে। জরুরি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান খোলা রয়েছে। এ ছাড়া খুলনা ও যশোর থেকে সাতক্ষীরায় প্রবেশের পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, সাতক্ষীরায় করোনা সংক্রমণের হার আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। আজ রোববার সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরায় ৮১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫২ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে। শনাক্তের হার ৬৪ দশমিক ২০ শতাংশ।

সাতক্ষীরায় পর্যাপ্ত চিকিৎসক ও শয্যা সংকটে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগ। বর্তমানে জেলায় ৬৮৩ জন কোভিড রোগী রয়েছে। তাদের মধ্যে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৫০ জন ও সদর হাসপাতালে ৩৫ জন চিকিৎসাধীন। অন্য রোগীরা প্রাতিষ্ঠানিক ও পারিবারিক কোয়ারেন্টিনে রয়েছে।

সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়েত জানান, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কোভিড রোগীদের জন্য আটটি আইসোলেশন ও ১৩৫টি শয্যা ছাড়াও আট শয্যার নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) রয়েছে। এ ছাড়া সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে শয্যা রয়েছে মাত্র ৩৫টি। আরও শয্যা ও জনবল না থাকায় চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসকেরা।


আরও খবর



কার কত আয় সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ?

প্রকাশিত:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৭০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অভিনয় ছাড়াও তারকারা এখন যুক্ত হচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন মাধ্যমে। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নানা প্ল্যাটফর্মগুলো তারকাদের আয়ের অন্যতম উৎস হয়ে উঠেছে। বলিউডের অনেক তারকাই প্রচুর টাকা আয় করেন এসব মাধ্যম থেকে। সে তালিকায় আছেন অমিতাভ, শাহরুখ, প্রিয়াঙ্কার মতো বড় তারকারা।

৭৮ বছর বয়সেও সোশ্যাল মিডিয়া দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছেন কিংবদন্তি অমিতাভ বচ্চন। ২৬ দশমিক ৭ মিলিয়ন ফলোয়ার থাকা তার ফেসবুক প্রোফাইল থেকে প্রত্যেকটি পোস্টের জন্য ৫০ লাখ রুপি নিয়ে থাকেন তিনি।

বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের নাম তো এরপরেই চলে আসে। কিং খান তার ইনস্টাগ্রামে প্রত্যেকটি বিজ্ঞাপন পোস্টের জন্য ৮০ লাখ থেকে ১ কোটি রুপি নিয়ে থাকেন। কিং খানের প্রায় সমপরিমাণ অর্থ ইনস্টাগ্রাম থেকে আয় করেন আলিয়া ভাটও।

তবে বলিউড তারকাদের মাঝে সব থেকে বেশি অর্থ পান প্রিয়াঙ্কা। ৬৩ দশমিক ৮ মিলিয়নের বিশাল ফ্যান ফলোয়ারের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিটি বিজ্ঞাপন পোস্টের জন্য ১.৮০ কোটি থেকে ২ কোটি রুপি নিয়ে থাকেন তিনি। মূলত হলিউডের সিনেমা করার পর থেকেই প্রিয়াঙ্কার জনপ্রিয়তা পৃথিবী জুড়ে। জাতিসংঘের শান্তি দূত থেকে শুরু করে নানা সামাজিক কার্যক্রমে ব্যস্ত থাকা এই তারকার চাহিদাটাও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক বেশি।

অভিনয় ছাড়াও তারকারা তাদের আর্থিক আয়ের ভাণ্ডার খুলে বসেছেন সোশ্যল প্ল্যাটফর্মগুলোতে। এতে তারা যেমন জয়প্রিয়তা পাচ্ছেন তেমন হচ্ছে বাড়তি উপার্জনও।



আরও খবর



‘করোনা’ বিধিনিষেধে যুক্ত হলো নতুন নির্দেশনা

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব সরকারি–বেসরকারি অফিস খোলা থাকবে। আর ঝুঁকিপূর্ণ জেলাগুলোতে স্থানীয় জেলা প্রশাসক জনপ্রতিনিধিদের

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আগামী ১৫ জুলাই পর্যন্ত চলবে বিধিনিষেধ। আগের ঘোষণা অনুযায়ী চলমান বিধিনিষেধ আজ মধ্যরাতে শেষ হওয়ার কথা ছিল।

আজ বুধবার (১৬ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

এবার বিধিনিষেধে নতুন কিছু শর্ত যুক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব সরকারিবেসরকারি অফিস খোলা থাকবে। আর ঝুঁকিপূর্ণ জেলাগুলোতে স্থানীয় জেলা প্রশাসক জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে মিলে কারিগরি কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে লকডাউনসহ কার্যকর ব্যবস্থা নিতে পারবে।

দেশে করোনার সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ন্ত্রণে এ বছর প্রথমে ৫ এপ্রিল থেকে সাত দিনের জন্য গণপরিবহন চলাচলসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ আরোপ করেছিল সরকার। পরে তা আরও দুই দিন বাড়ানো হয়। পরে পরিস্থিতি বিবেচনায় ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত আরও কঠোর বিধিনিষেধ দিয়ে সর্বাত্মক লকডাউন শুরু হয়। পরে তা আরও সাত দফা বাড়ানো হয়েছিল।


আরও খবর