Logo
শিরোনাম
আজ হাসি দিবস

‘হাসি’ মানুষের সবচেয়ে ভালো ওষুধ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

একটি দিন সুন্দর করতে হাসির কোনো বিকল্প নেই। কখনো আমরা নিজে থেকে হাসি, কখনো অন্যের হাসি দেখে হাসি, আবার কখনো আনন্দে হাসি। যেভাবেই হাসি না কেন পৃথিবীতে নানা রকম হাসি আছে। 

যাই হোক কত হাসির খবর দিতে না পারলেও তোমাদের আজ একটি খবর দিতে পারবো। আর তা হলো আজ বিশ্ব হাসি দিবস। অবাক হচ্ছো? ভাবছ হাসির আবার দিবস হয় নাকি? তবে, তুমি যা ভাব না কেন আজ হাসি দিবস। প্রতিবছর অক্টোবরের প্রথম শুক্রবার বিশ্ব হাসি দিবস উদযাপন করা হয়।

যেহেতু আজ হাসি দিবস তাই দিনটি অন্যের মুখে হাসি ফোটানোর উপযুক্ত দিন। তুমি চাইলে স্কুলের গোমড়ামুখো বন্ধুটির মুখেও আজ হাসি ফোটাতে পারো। কিন্তু, কীভাবে হাসি ফোটাবে। এই প্রশ্নের উত্তর খুব সহজ- দুর্দান্ত একটি কৌতুক বলে তাকে হাসাতে পারো। না হলে গোপল ভাঁড়ের কোনো ভিডিও দেখিয়ে হাসাতে পারো। আরও অনেকভাবে হাসানো যায়, একটু ভাবলেই তুমি অনেক উপায় পেয়ে যাবে। হাসি দিবসে তোমার হাসিমুখটাও যেন থাকে। অন্তত আজকের দিনটার জন্য হলেও মুখ ভার করে থেক না। পরিবারের সবার সঙ্গেও হাসিমুখে কথা বল, ব্যস হয়ে যাবে তোমার হসি দিবস উদযাপন।

বিশ্ব হাসি দিবসে সারাবিশ্বে এমন অনেক ঘটনা ঘটে, যার সবগুলোই মানুষকে ভালো রাখতে ও অন্যদের সঙ্গে দারুণ কিছু মুহূর্ত ভাগ করে নেওয়ার পরিকল্পনা থেকে করা হয়। এর মধ্যে আছে- সুন্দর বার্তা পাঠানো এবং যাদের প্রয়োজন তাদের খাবার দেওয়া।

এখন জেনে নাও বিশ্ব হাসি দিবস নিয়ে কিছু মজার ও অবাক করা তথ্য। তুমি কি জান, ১৯৯৯ সালে ইন্টারনেট ইমোটিকনের জন্য ৪৭০টি স্মাইলি নকশা করা হয়েছিল? ভাবো তো কতগুলো স্মাইলি মুখ!

স্মাইলি মুখটি শুধু আনন্দ নিয়ে আসেনি, এটি প্রচুর অর্থ উপার্জন করছে! আর অর্থও কিন্তু মানুষের মুখে হাসি আনে। স্মাইলি কোম্পানির অফিস কত টাকা আয় করে তা জেনে তোমরাও হয়তো খুশি হবে। এটি প্রতি বছর ৫৫ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি আয় করে।

তোমরা কি জান, জীবনের জন্য হাসি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা যখন হাসি তখন এন্ডোরফিন তৈরি হয়। এগুলো হলো নিউরোট্রান্সমিটার যা আনন্দের অনুভূতি সৃষ্টি করে। তোমাদের আরেকটি তথ্য দিচ্ছি- আচ্ছা বলোতো, হাসিমুখের জন্য হলুদ রঙ কেন ব্যবহার করা হয়েছিল? হয়তো তুমি কিছুটা হলেও অনুমান করতে পেরেছ! হলুদ হলো প্রফুল্লতার প্রতীক, তাই হাসিমুখের জন্য এর চেয়ে ভাল রঙ আর কী হতে পারে?

অনেক তো কথা হলো এবার একটু হাসি দিবসের ইতিহাস থেকে ঘুরে আসি। শোনো- ২টি বিন্দু দিয়ে চোখ, একটি উল্টানো বক্ররেখার মুখ, আর তার সঙ্গে একটি বৃত্ত। এটি এঁকেছিলেন হার্ভি বল। যা বিশ্বের সবচেয়ে আইকনিক প্রতীকগুলোর একটি। পরে এটি দ্রুত গ্রাফিতি থেকে আধুনিক দিনের ইমোজিকে পাল্লা দিতে পেরেছিল। আর এটিকে বলা হয় স্মাইলি ইমোজি।

এতক্ষণ যা বললাম তা কিন্তু স্মাইলি ইমোজি বা মুখ নিয়ে বলেছি। অনেকের দাবি এটিই বিশ্বের প্রথম ইমোজি। সেই দাবির পক্ষে-বিপক্ষে অনেক যুক্তি আছে। তবে, হার্ভি বলের উদ্বেগ ছিল- তার ছোট্ট ইমোজির বাণিজ্যিকীকরণ এটিকে তার মূল লক্ষ্য থেকে বিচ্যুত করবে। এই উদ্বেগের কারণেই তিনি বিশ্ব হাসি দিবসের প্রচলন করেন। হার্ভির উদ্দেশ্য ছিল- এই দিনে জাতি, লিঙ্গ বা ভৌগলিক অবস্থান নির্বিশেষে সবার মাঝে আনন্দ ও ভালোবাসা ছড়িয়ে দেওয়া।

হার্ভি ২০০১ সালে এই পৃথিবী থেকে চলে যান। কিন্তু তিনি যে ফাউন্ডেশনটি প্রতিষ্ঠায় সহায়তা করেছিলেন সেটি হলো- হার্ভে বল ওয়ার্ল্ড স্মাইল ফাউন্ডেশন। এই ফাউন্ডেশটি প্রতি বছর বিশ্ব হাসি দিবসের পৃষ্ঠপোষকতা করে।


আরও খবর



৪৫তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হতে পারে আজ

প্রকাশিত:বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ২৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

৪৫তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে যাচ্ছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। বুধবার (৩০ নভেম্বর) এ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হতে পারে বলে জানা গেছে।

পিএসসির একাধিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বুধবার দুপুরে পিএসসিতে বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হবে। সে সভাতেই ৪৫তম বিসিএসের ক্যাডার ও ননক্যাডার পদের সংখ্যা নির্দিষ্ট করা হবে।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ৪৫তম বিসিএসে ২৩টি ক্যাডারে মোট ২ হাজার ৩০৯ জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। সবচেয়ে বেশি নিয়োগ দেওয়া হবে স্বাস্থ্য ক্যাডারে। এতে নিয়োগ পাবেন ৫৩৯ জন। এরমধ্যে সহকারী সার্জন পদে ৪৫০ জন ও ডেন্টাল সার্জন পদে ৮৯ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

এছাড়া শিক্ষা ক্যাডারে ৪৩৭ জন, প্রশাসনে ২৭৪ জন, পুলিশে ৮০ জন, কাস্টমসে ৫৪ জন, আনসারে ২৫ জন, কর ক্যাডারে ৩০ জন এবং পররাষ্ট্র, বন, রেল, কৃষি, মৎস্যসহ অন্যান্য ক্যাডারে ৮৭০ জনকে নিয়োগ দেবে সরকার।

পিএসসি সূত্র জানায়, ক্যাডার পদের পাশাপাশি এই বিসিএসে প্রথমবারের মতো নন-ক্যাডার পদের সংখ্যা উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ক্যাডার পদে যেমন পছন্দ নির্দিষ্ট করে দেওয়া যায়, তেমনই নন-ক্যাডার পদেও পছন্দের তালিকা নির্দিষ্ট করে দিতে পারবেন প্রার্থী।

এজন্য পিএসসি আগেই এবার ক্যাডার পদের পাশাপাশি নন-ক্যাডারের চাহিদাপত্র নির্দিষ্ট করে দিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেয়। সেই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় এবার ক্যাডার পদের পাশাপাশি নন-ক্যাডার পদও নির্দিষ্ট করার উদ্যোগ নিয়েছে।


আরও খবর



ইউক্রেনে তাপমাত্রা মাইনাস ৬ ডিগ্রি, ঘর গরম করতে গিয়ে নিহত ৯

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৩৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রুশ আগ্রাসনের পর  প্রথমবার শীতের মুখোমুখি ইউক্রেন। ইতোমধ্যেই রাশিয়ান ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে দেশটির সিংহভাগ বৈদ্যুতিক স্থাপনা ধ্বংস হয়ে গেছে। এমন পরিস্থিতিতে শীতের প্রকোপ থেকে বাঁচতে বাসা গরম করার সময় দেশটিতে আগুনে পুড়ে অন্তত ৯ জন মারা গেছেন। বুধবার (৩০ নভেম্বর) ইউক্রেনের রাষ্ট্রীয় জরুরি পরিষেবা সংস্থা এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানায়।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসকারীরা বলেছেন, রাজধানী কিয়েভের তাপমাত্রা রাতারাতি মাইনাস ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে (২১ ডিগ্রি ফারেনহাইট) নেমে যাবে এবং দ্রুতই তা আরও কমবে।

এক বিবৃতিতে সংস্থাটি বলেছে, কেবল গত ২৪ ঘণ্টায় ইউক্রেনে ১৩১টি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে ১০৬টি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা আবাসিক এলাকায় রেকর্ড করা হয়েছে। এতে ৯ জন মারা গেছেন এবং দগ্ধ হয়েছেন আরও ৮ জন। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাসা-বাড়ির বারান্দায় জেনারেটর, বাসায় গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার, মোমবাতি জ্বালানো অগ্নি নিরাপত্তা বিধি লঙ্ঘন করে যেনতেন পণ্যের ব্যবহার করার কারণে বহুতল ও আবাসিক ভবনে আগুন এবং বিস্ফোরণের ঘটনা আরও ঘন ঘন হয়ে উঠেছে। উল্লেখ্য, শীত মৌসুম শুরু হওয়ার সাথে সাথে ইউক্রেনে বিদ্যুতের ব্যবহার বেড়েছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসকারীরা বলেছেন, রাজধানী কিয়েভের তাপমাত্রা রাতারাতি মাইনাস ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে (২১ ডিগ্রি ফারেনহাইট) নেমে যাবে এবং দ্রুতই তা আরও কমবে।


আরও খবর



মশা মারতে বিমানবন্দরে বসবে ফ্রান্সের ফাঁদ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৪৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মশার উপদ্রব থেকে রক্ষা পেতে নানামুখী পদক্ষেপ নিচ্ছে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে রাসায়নিক ওষুধ প্রয়োগের বাইরেও মশা তাড়াতে প্রাকৃতিক পদ্ধতি অনুসরণ করা হচ্ছে। গাঁদা, লেমন গ্রাস ও তুলসি গাছের মতো মশা নিরোধক চারা বিমানবন্দর এলাকায় লাগানো হয়েছে। বিমানবন্দরে এয়ার ও ল্যান্ড সাইডের বিভিন্ন খাল ও পুকুরে গাপ্পি মাছ ছাড়া হয়েছে। এবার বিমানবন্দরে ফ্রান্সের প্রযুক্তির মশা মারার ফাঁদ বসানোর উদ্যোগ নিচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, ফ্রান্সের QISTA কোম্পানির তৈরি মসকিটো ট্র্যাপ মেশিন পরীক্ষামূলকভাবে উত্তরায় ব্যবহার করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। এ মেশিনটি আশপাশের মশাকে আকৃষ্ট করে ফাঁদে আটকাতে সক্ষম। কৃত্রিমভাবে মানুষের ঘামের গন্ধ ও কার্বন-ডাই অক্সাইড ব্যবহার করে এই ফাঁদ মশাদের আকৃষ্ট করে। এরপর মশা ফাঁদে আটকা পড়ে।


আরও খবর



পরীমনির বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন র‌্যাব কর্মকর্তা

প্রকাশিত:সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 | ২৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় চিত্রনায়িকা পরীমনিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে আরও একজন সাক্ষ্য দিয়েছেন। র‍্যাবের উপপরিদর্শক (এসআই) আবু হেনা মোস্তফা কামাল এই মামলায় সাক্ষ্য দেন।

ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-১০-এর বিচারক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম আজ সোমবার মামলার পরবর্তী শুনানির দিন আগামী ১৫ ডিসেম্বর ঠিক করেছেন।

 ওই আদালতের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) মাহাবুব এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এই মামলায় গত ৫ জানুয়ারি পরীমনিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। মামলায় অভিযুক্ত তিন আসামি হলেন—পরীমনি, আশরাফুল ইসলাম ও কবির হোসেন। সাক্ষ্য গ্রহণ শুনানির সময় আশরাফুল ও কবির আদালতে হাজির ছিলেন। আর পরীমনির পক্ষে তাঁর আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত হাজিরা দেন।

গত বছরের ৪ আগস্ট রাজধানীর বনানীতে পরীমনির বাসায় অভিযান চালায় র‍্যাব। পরে রাজধানীর বনানী থানায় করা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

আদালতে সাক্ষ্য দিয়ে মামলার বাদী র‍্যাব-১-এর ডিএডি মজিবর রহমান বলেন, গত বছরের ৪ আগস্ট দায়িত্বপালনের সময় জানতে পারেন, বনানীর লেকভিউ এলাকার বাসায় বিপুল মাদক মজুত রয়েছে। পরে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।

তাঁদের নির্দেশনা মোতাবেক বাসায় অভিযান পরিচালনা করেন। পরীমনির শয়নকক্ষের দেয়ালের কাঠের ফ্রেম থেকে ১৯ বোতল বিদেশি মদ, ৪ গ্রাম আইস ও ১ ব্লট এলএসডি উদ্ধার করেন। পরে বাসা থেকে পরীমনি ও আশরাফুলকে গ্রেপ্তার করেন। র‍্যাব-১-এর প্রধান কার্যালয়ে পরীমনি ও আশরাফুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

তাঁদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী নজরুল ইসলামের নাম প্রকাশ পায়। পরে নজরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়। জেরার জবাবে র‍্যাবের ডিএডি মজিবর রহমান আদালতে বলেন, সেদিন অভিযান পরিচালনাকালে র‍্যাবের দুটি দল দায়িত্বে ছিল। একটি দল ইউনিফর্ম পরা ছিল। তাঁর দলের সদস্য ছিলেন পাঁচজন।

পরীমনির বাসায় প্রবেশের আগে সিভিল লোকজন দিয়ে তল্লাশি চালানো হয়। বাসার নিরাপত্তাপ্রহরী তাঁর দেহ তল্লাশি করেন। অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, পরীমনির বাসা থেকে জব্দ মাদকদ্রব্যের বৈধ কোনো কাগজপত্র ছিল না। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে লিখিতভাবে সিআইডিকে জানানো হয়, ২০১৯-২০ অর্থবছরে পরীমনির নামে মদজাতীয় পানীয় সেবনের লাইসেন্স দেওয়া হয়েছিল।

২০২১ সালের ৩০ জুন ওই লাইসেন্সের মেয়াদ শেষ হয়। মামলার দুই আসামি আশরাফুল ও কবিরের মাধ্যমে পরীমনি বিভিন্ন স্থান থেকে অবৈধ মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে বাসায় মজুত রেখেছিলেন। মাদকদ্রব্য রাখার বিষয়ে তিনি কোনো সন্তোষজনক জবাব দিতে পারেননি। পরীমনি তাঁর গাড়িটি মাদকদ্রব্য বহনের কাজে ব্যবহার করতেন।

নিউজ ট্যাগ: পরীমনি

আরও খবর



হবিগঞ্জে নারীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৩০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে তহুরা বেগম (৫৫) নামে এক নারীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে নবীগঞ্জ পৌর এলাকার চরগাও গ্রাম থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। নিহত তহুরা বেগম ওই গ্রামের ঝারু মিয়ার স্ত্রী।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। পুলিশ জানায়, সকালে তহুরা বেগমের মরদেহ তার নিজ ঘরের বিছানায় গলাকাটা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন স্বজনরা। এসময় তারা চিৎকার শুরু করলে আশপাশের স্বজনরা এগিয়ে আসে।

পরে তারা বিষয়টি নবীগঞ্জ থানা পুলিশকে অবগত করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে। খবর পেয়ে নবীগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) আবুল খয়েরসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ডালিম আহমেদ জানান, কে বা কারা এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে তা এখনও স্পষ্ট নয়। পুলিশ রহস্য উদঘাটনে কাজ করছে। এ ঘটনায় ওই নারীর স্বামী ঝারু মিয়া, ছেলে মঞ্জিল মিয়া ও রমজান মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, আশাকরি দ্রুত এ হত্যাকাণ্ডের রহস্য উৎঘাটন করা হবে।


আরও খবর