Logo
শিরোনাম

হেফাজতের গোপন কর্মকাণ্ড খতিয়ে দেখা হচ্ছে

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

হেফাজতের নানা গোপনীয় কর্মকাণ্ড নিরাপত্তা বাহিনী খতিয়ে দেখছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, হেফাজতে ইসলামের গঠনতন্ত্রে পরিষ্কার লেখা আছে তারা কোনো রাজনৈতিক ইস্যুতে অংশগ্রহণ করবে না এবং তারা রাজনীতির ঊর্ধ্বে থাকবে। কিন্তু আমরা লক্ষ করেছি রাজনৈতিক বেড়াজালের মধ্যে আটকে বিভিন্ন অপকৌশলে চিহ্নিত জঙ্গি, চিহ্নিত সন্ত্রাসী এবং রাষ্ট্রের অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করে তাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে যায় মাঝে মাঝেই আমরা দেখেছি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ভূমি অফিসে জমির সব ধরনের কাগজপত্র থাকে সেখানে হেফাজত অগ্নিসংযোগ করে। এর পেছনে নিশ্চয়ই কোনো উদ্দেশ্য ছিল। এলাকাতে অশান্তি সৃষ্টি করা। তারা ডিসির বাংলোয় অ্যাটাক করেছে, তারা পুলিশের বাংলো অ্যাটাক করেছে এবং পুলিশ ফাঁড়িতে অগ্নিসংযোগ করেছে। এমনকি তারা ওস্তাদ আলাউদ্দিন খান ইনস্টিটিউটেও ভাঙচুর চালিয়েছে। এই শব্দগুলো একসঙ্গে মূল্যায়ন করলে তাদের মূল উদ্দেশ্য বের হয়ে আসবে। তাদের অবশ্যই রাজনৈতিক অভিলাষ ছিল।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ২০১৩ সালে মতিঝিলের শাপলা চত্বরে এমন ঘটনা আবারও ঘটানো যায় কি না, সেই উদ্দেশ্যে তারা সহিংসতা চালিয়েছিল বলে আমাদের তদন্তে চলে আসছে।

তিনি আরো বলেন, হেফাজতের অর্থায়ন যারা করেছে তাদের বিষয়ে গোয়েন্দা সংস্থারা কাজ করছে। কিছু কিছু উপাদান পাচ্ছি, তবে এখনই বলতে চাই না। আরও কিছুদিন তদন্ত করে তারপর বলব। কার অ্যাকাউন্টে কোথা থেকে কত টাকা আসছে তদন্তে বের হয়ে আসবে। 


আরও খবর



২৮ এপ্রিলের পরে আর থাকছে না ‘লকডাউন’

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ মে ২০২১ | ৮১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে আগামী ২৮ এপ্রিলের পর আর লকডাউন থাকছে না। চালু হবে গণপরিবহন, সীমিত পরিসরে খুলবে সরকারি-বেসরকারি অফিস।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) বিকেলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, চলমান লকডাউন ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত অব্যাহত থাকছে। জীবন ও জীবিকার কথা বিবেচনায় রেখে দোকানপাট ও শপিংমলে দেওয়া হচ্ছে। কেউ যেন মাস্ক ছাড়া কেনাকাটা না করে সে বিষয়টি অবশ্যই নিশ্চিত করা হবে।

দোকানপাট ও শপিংমল খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হলেও গণপরিবহন কবে চলবে- জানতে চাইলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২৮ এপ্রিল থেকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানা যাবে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, মাস্ক পরেই আমাদের চলতে হবে। কেউ যেন মাস্ক ছাড়া না বের হয়। সমাজের উচ্চবিত্ত থেকে নিম্নবিত্ত সবাই যেন মাস্ক পরে। নো মাস্ক নো সার্ভিস- এ বিষয়টি কঠোরভাবে বাস্তবায়ন করা হবে।

করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গত ১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর লকডাউন শুরু হলে অফিস-আদালত, গণপরিবহন এবং দোকানপাট ও শপিংমল বন্ধ করে দেওয়া হয়। শুক্রবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এক নির্দেশনায় ২৫ এপ্রিল থেকে দোকানপাট ও শপিংমল খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।

এর আগে গত ১৮ এপ্রিল রাজধানীর নিউমার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি ২২ এপ্রিল থেকে দোকান ও শপিংমল খুলে দেওয়ার দাবি জানায়।

দোকানপাট শপিংমল খোলার অনুমতি দেওয়ার পর পরিবহন মালিকরা আগামী ২৯ এপ্রিল থেকে বাস চালুর দাবি জানিয়েছে। ২৮ এপ্রিলের পর স্বাস্থ্যবিধি মেনে ট্রেন চলাচল শুরু হবে বলে রেলপথ মন্ত্রণালয় থেকেও আভাস পাওয়া গেছে।


আরও খবর

ঈদ মোবারক

শুক্রবার ১৪ মে ২০২১




শ্রীরামকাঠী ইউপি চেয়ারম্যান কোটিপতি উত্তম মৈত্রের অর্থের উৎস কি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ৫৪৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
নৈলতলা গ্রামের জ্যোতি প্রকাশ বেপারীর বাড়ির নিকট আয়রন ব্রিজ মেরামত বাবদ ২ লক্ষ টাকা, খেজুরতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন আয়রন ব্রিজ মেরামত বাবদ ১লক্ষ ৬০ হাজার টাকা ইউনিয়ন পরিষদ কতৃক বরাদ্দ করে কোন কাজ না করে

পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার ৮নং শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান উত্তম মৈত্রের বিরুদ্ধে পরিষদের কার্যক্রমে ব্যপক অনিয়ম, দুর্নীতি, অর্থ আৎসাত, ভুমি দখল, পরিষদ থেকে পরিচয়পত্র, ওয়ারিশ সনদ পত্র, জন্ম নিবন্ধন গ্রহন করায় সাধারণ জনগণের কাছ থেকে উৎকোচ গ্রহণের বিস্তর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অত্র ইউনিয়নের ৬ বার জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত জনপ্রিয় চেয়ারম্যন আ. মালেক বেপারী ২০১৭ সালের ১৪ নভেম্বর মৃত্যুবরণ করায় উক্ত ইউনিয়নটি শুন্য হয়। এনজিওর চাকুরী ছেড়ে দিয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় না থেকে ও হিন্দু অধ্যুষিত এলাকা হিসেবে এই ইউনিয়নটি চিহ্নিত হওয়ায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে নৌকা প্রতিকে ২০১৮ সালের ১৬ এপ্রিলে অনুষ্ঠিত উপনির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন এই উত্তম কুমার মৈত্র। চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে তার ভাগ্য বদলে যায়, ফিরে তাকাতে হয়নি আর পিছনের দিকে।

একের পর এক অনিয়ম, দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাত, ভুমি দখল করে এক বছর যেতে না যেতেই তিনি শ্রীরামকাঠী বন্দর সংলগ্ন ভীমকাঠীতে গড়ে তোলেন কোটি টাকা ব্যয়ে তিন তলা সুদৃশ্য পাকা ভবন। অথচ নির্বাচন কালীন সময় কর্মী খরচ না দিতে পারায় কর্মীদের হাতে লাঞ্চিত হতে হয়েছে তার বড় ভাইকে। অবৈধ ভাবে অর্থ আৎসাত করে বিত্তবান হওয়ার অহংকারে এমনকি তার নির্মম নির্যাতনের শিকার তার জন্মদাতা পিতা, আপন বোন ও বোন জামাই। ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে এই চেয়ারম্যান নাজিরপুর উপজেলার একটি ঐতিহ্যবাহী ইউনিয়নকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিয়েছে। চেয়ারম্যানের অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে পরিষদের ১২ জন ইউপি সদস্যের মধ্যে ১১জন সদস্য জেলা প্রশাসক বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন।

লিখিত অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, নৈলতলা গ্রামের জ্যোতি প্রকাশ বেপারীর বাড়ির নিকট আয়রন ব্রিজ মেরামত বাবদ ২ লক্ষ টাকা, খেজুরতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন আয়রন ব্রিজ মেরামত বাবদ ১লক্ষ ৬০ হাজার টাকা ইউনিয়ন পরিষদ কতৃক বরাদ্দ করে কোন কাজ না করে পুরো টাকা আত্মসাত করে। এলজিএসপির-৩ এর আওতায় প্রতি বছর বরাদ্দকৃত ২০ লক্ষ টাকা ইউপি সদস্যদের সাথে কোন আলাপ আলোচনা ছাড়াই নিজের খেয়াল খুশি মত প্রকল্প দেখিয়ে আৎসাত করে।

মধুরাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিকট আয়রন ব্রিজ মেরামতের প্রকল্প দেখিয়ে কোন কাজ না করে পুরো টাকা নিজেই আৎসাত করে। ইউনিয়নের উন্নয়ন মুলক কাজ টিআর-কাবিখা বাস্তবায়নের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ থেকে ইউপি সদস্যদের ৩০ ভাগ অর্থ উৎকোচ হিসেবে চেয়ারম্যানকে দিতে হয়। বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, পঙ্গু ভাতা, হরিজন ভাতা, মৎস্য ভিজিএফ কার্যক্রম, দুস্থদের সাহায্যের তালিকা, গভীর নলকুপ, ওয়ারিশ সনদপত্র প্রদানে তার বিরুদ্ধে রয়েছে বিপুল পরিমান অর্থ বানিজ্যের অভিযোগ। এ ছাড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন শালিস বৈঠক থেকে হাতিয়ে নিয়েছে লক্ষ লক্ষ টাকা। ভুক্তভোগীরা ইউনিয়নের সচেতন মহলের নিকট অভিযোগ করেও কোন সমাধান পায়নি।

চেয়ারম্যান উত্তম মৈত্রের পিতা প্রফুল রঞ্জন মৈত্র ফেইজবুক লাইভে এসে পুত্রের অনিয়ম ও দুর্নীতির চিত্র জন সম্মুখে তুলে ধরেন এবং বলেন আমার স্ত্রী মারা যাবার পর এই উত্তম আলমারী ভেংগে ৭ লক্ষ টাকা ও চাকুরীর প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র, জায়গা জমির দলিল সব নিয়ে যায়। তিনি বর্তমানে খুব অসহায় অবস্থায় জীবন যাপন করছে। চেয়ারম্যান পুত্রের এহেন অপরাধের জন্য প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট তিনি বিচার প্রার্থনা করছেন।

মধ্য জয়পুর গ্রামের মো. মশিউর রহমান জানান, এই চেয়ারম্যান ওয়ারিশ সনদ বাবদ আমার নিকট থেকে তিন হাজার টাকা গ্রহন করেন। দক্ষিণ জয়পুর গ্রামের অনুপ সিকদার জানান, চেয়ারম্যানের বাসার পিছনে আমার ক্রয়কৃত তিন কাঠা জমি দখল করে জমির সমস্ত মাটি কেটে নিয়ে যায় এবং লোকের কাছে বলে উক্ত জায়গা আমি ক্রয় করেছি। এ ব্যপারে আমি থানায় অভিযোগ করেছি। এহেন দুর্নীতিবাজ চেয়ারম্যানের হাত থেকে রক্ষা পেতে ইউনিয়নবাসী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করছে।


আরও খবর



ঈদের ছুটির সঙ্গে বাড়তি ছুটিতে নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ৮১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সরকারি ছুটি তিন দিন। এ তিন দিনের সঙ্গে কোনো প্রতিষ্ঠান নিজস্ব উদ্যোগে অতিরিক্ত ছুটি দিতে পারবে না। এ সিদ্ধান্ত সরকারি ও বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হবে।

সোমবার (৩ মে) সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদ বৈঠকে আলোচনার পর এ সিদ্ধান্ত হয় বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

সকাল সাড়ে ১০টায় ভার্চুয়াল মাধ্যমে শুরু হয় সরকারের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের এই বৈঠক। এতে গণভবন থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে সভাপতিত্ব করেন সরকারপ্রধান শেখ হাসিনা। সচিবালয় থেকে অংশ নেন মন্ত্রিসভার সদস্যরা।

বৈঠকে বেশ কয়েকটি আইনের খসড়া ও নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, সংক্রমণ রোধে চলমান বিধি-নিষেধ বহাল রাখতে হবে অন্তত ১৬ মে পর্যন্ত। এ সময় দেশে বিপণিবিতান খোলা থাকলেও স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করলে সেসব তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

এছাড়া সর্বত্র মাস্ক ব্যবহার না করলে প্রশাসনিকভাবে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়েও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানান খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

তিনি বলেন, সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, অতিরিক্ত কোনো বন্ধ দেওয়া যাবে না। সরকারি বন্ধ এমনি তিন দিন। তিন দিনের দুদিন শুক্র ও শনিবার পড়ছে। আরেক দিন বৃহস্পতিবার।

বেসরকারি খাতের কোনো প্রতিষ্ঠান এবং শিল্পকারখানাও এ তিন দিনের বাইরে বন্ধ দিতে পারবে না। সরকারের এ সিদ্ধান্তের ফলে তিন দিন বন্ধ থাকবে পোশাকশিল্প খাত।

দেশে করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যে গত ১৪ এপ্রিল এক সপ্তাহের জন্য কঠোর লকডাউন দেয় সরকার। এরপর এক সপ্তাহ করে বিধিনিষেধের সময়সীমা বাড়ানো হয়। বর্তমানে তৃতীয় সপ্তাহ চলছে। আগামী বুধবার (৫ মে) চলমান বিধিনিষেধ শেষ হওয়ার কথা।

নিউজ ট্যাগ: ঈদের ছুটি

আরও খবর

ঈদ মোবারক

শুক্রবার ১৪ মে ২০২১




দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটার ব্যবহারে হতে পারে মারাত্মক বিপদ

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

তথ্য প্রযুক্তির এ যুগে প্রায় সব ধরনের পেশা ও লেখাপড়ার কাজে কম্পিউটার ব্যবহার করতে হয়। তবে মাত্রাতিরিক্ত কম্পিউটার ব্যবহারে অনেক রকম শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। আর দীর্ঘ সময় কম্পিউটার ব্যবহার করলে চোখের মারাত্মক বিপদ হতে পারে। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা বলছেন, কম্পিউটার ও মোবাইল ফোনের ব্যবহারে চোখের পানি শুকিয়ে যেতে পারে।

চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, চোখের দুইপাশে দুইটা গ্ল্যান্ড আছে। সেখান থেকে প্রতিনিয়ত পানি সিক্রেশন হচ্ছে। সিক্রেশন হয়ে আমাদের চোখে দুইটা নালি আছে, সেখান থেকে নাক দিয়ে চলে যায়। এই পানিটা সব সময় আসছে এবং পানিটাকে ধরে রাখার জন্য বাইরে থেকে একটা তৈলাক্ত সিক্রেশন হচ্ছে। এ সবকিছু মিলে যে একটা কম্পনেন্ট আছে সেটা চোখটাকে ভেজা ভেজা রাখছে। এটা একটা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া।

কিন্তু ডিজিটাল যুগে আমাদের বেশির ভাগ সময়ই ল্যাপটপ, কম্পিউটার, স্মার্ট ফোন ব্যবহার করতে হয়। এটাও চোখ শুকিয়ে যাওয়ার একটা বড় কারণ হিসেবে দেখছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই ল্যাপটপ, কম্পিউটার স্মার্টফোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে ২০ মিনিট করে ব্যবহার করার পরামর্শ দিচ্ছেন তারা।

এক্ষেতে ২০ মিনিট ব্যবহার করার পর ২০ সেকেন্ড বা এক মিনিটের জন্য অন্যদিকে একটু দূরে বা একটু সবুজের দিকে তাকালে ভালো। আর এক থেকে দুই মিনিট চোখকে বিশ্রাম দিতে হবে।

এছাড়া ল্যাপটপ, কম্পিউটার ব্যবহার করার সময় বসার লেভেল এবং কম্পিউটার রাখার লেভেলটা যেন ঠিক থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। পাশাপাশি পরিবেশটা খেয়াল রাখতে হবে। শুধু তাই নয়, সেন্ট্রাল এসিতে থাকা বা নরমাল পরিবেশে বসে কাজ করলে সেটিও দেখার রাখতে হবে। কারণ সেন্ট্রাল এসিতে থাকার ফলে চোখটা শুকনা হয়ে যায়। সবকিছু মেনে সর্তকতা অবলম্বন করতে হবে।


আরও খবর



করোনার টিকা উৎপাদনে রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তি বাংলাদেশের

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ মে ২০২১ | ৪৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, করোনা টিকা উৎপাদনে রাশিয়ার সঙ্গে বাংলাদেশ সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। এছাড়া চীন বাংলাদেশকে পাঁচ লাখ টিকা উপহার দেবে।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

সাংবাদিকদের জানান, বাংলাদেশ ও রাশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মধ্যে টিকা উৎপাদনে সই হয়েছে।

সে অনুযায়ী আমরা বাংলাদেশে যৌথভাবে টিকা উৎপাদন করতে পারবো। তবে যে কোম্পানি টিকা উৎপাদন করবে, তাকে ফর্মূলা গোপন রাখতে হবে।

তিনি বলেন, টিকা নিয়ে চীনের সঙ্গেও আলোচনা চলছে। চীন আমাদের ৫ লাখ টিকা উপহার দেবে।

বাংলাদেশে চীনা শিক্ষার্থী ও চীনের সঙ্গে যারা ব্যবসা করেন, তারা অনেকেই চীনা টিকা নিতে আগ্রহী। এর আগে রূপপুর পাওয়ার প্লান্টে কর্মরত রাশিয়ানরা রাশিয়ার টিকা নিয়েছেন বলেও জানান মন্ত্রী।

ড. মোমেন বলেন, ভারত বলেনি যে টিকা তারা দেবে না। আমরা অপেক্ষায় আছি।


আরও খবর

ঈদ মোবারক

শুক্রবার ১৪ মে ২০২১