Logo
শিরোনাম

ইসির আর্থিক-প্রযুক্তিগত সক্ষমতা বাড়ানোসহ একগুচ্ছ প্রস্তাব আ’লীগের

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ১২১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতির সংলাপে অংশ নিয়ে কমিশনের আর্থিক ও প্রযুক্তিগত সক্ষমতা বাড়ানোসহ একগুচ্ছ প্রস্তাব দিয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ।সোমবার (১৭ জানুয়ারি) বিকেলে দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন ১০ সদস্যের প্রতিনিধি দল রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপে এসব প্রস্তাব দেয়।

পরে দলটির কার্যালয়ে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, বৈঠকে রাষ্ট্রপতির কাছে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে একটা প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে। এতে ইসি শক্তিশালীকরণ, ইসির আর্থিক ও প্রযুক্তিগত সক্ষমতা বাড়ানো ও নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রস্তাব দেওয়া হয়।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য কমিশনারদের নিয়োগের বিষয়েও কয়েকটি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। তাদের নিয়োগের জন্য একটি আইন প্রয়োজন বলেও মনে করে আওয়ামী লীগ।

এর আগে বিকেল ৩টা ৫৫ মিনিটে প্রতিনিধি দল নিয়ে বঙ্গভবনে পৌঁছান আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৫টা ১০ মিনিটে বৈঠক শেষে বের হন তারা।

নিউজ ট্যাগ: আওয়ামী লীগ

আরও খবর



৪-৩ গোলে ম্যানচেস্টার সিটির জয়

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৫২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পুরো ম্যাচ গোল দেখেছে ৭টা, তবে হতে পারতো কমপক্ষে আরও তিন গোল। সেসব হয়ে গেলে হয়তো ম্যাচ শেষে ম্যানচেস্টার সিটি কোচ পেপ গার্দিওলার চিন্তিত চেহারার দেখাটা মিলত না। সেটা হতে হতে হয়নি সিটি আক্রমণভাগের দোষে। তাই রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সেমিফাইনালে প্রথম লেগের 'থ্রিলারে' সিটির জয়টা এল মোটে এক গোলের ব্যবধানে। ৪-৩ গোলে হেরেও রিয়াল মাদ্রিদ তাই টিকে রইল ভালোভাবেই।

সাত গোলের থ্রিলারের প্রথমটা যখন এলো, সিটির মাঠ এতিহাদে তখন হয়তো দর্শকরা ধাতস্থ হয়ে ঠিকঠাক বসতেও পারেননি। ম্যাচের বয়স যখন মোটে ৯৩ সেকেন্ড, ঠিক তখন রিয়াদ মাহরেজ ডান প্রান্তে পেয়ে যান বল; গোটা দুই চ্যালেঞ্জ এড়িয়ে ক্রস বাড়ান বক্সে, সেটাই রিয়াল বিপদসীমায় 'লেট রান' নেওয়া কেভিন ডি ব্রুইনা পেয়ে যান ফাঁকায়, নিচু হেডারে বলটাকে আছড়ে ফেলেন জালে। দ্বিতীয় মিনিটেই নিঁখুত শুরু পেয়ে যায় সিটি।

প্রথম গোলে ডি ব্রুইনার মুন্সিয়ানা যেমন ছিল, তেমনি ছিল রিয়াল রক্ষণের ভুলও। দানি কারভাহালের নাগালেই যে ছিল বলটা! তেমন এক ভুল ১১ মিনিটে আবার করল রিয়াল রক্ষণ, এবার খলনায়ক ডেভিড আলাবা, চোটের কারণে যার ম্যাচ খেলা নিয়েই ছিল শঙ্কা। বাম প্রান্ত থেকে করা ডি ব্রুইনার ক্রস বিপদমুক্ত করতে পারেননি সাবেক বায়ার্ন মিউনিখ ডিফেন্ডার, তা গিয়ে পড়ে গ্যাব্রিয়েল জেসুসের পায়ে। আগের লিগ ম্যাচে চার গোল করা ব্রাজিলিয়ান এই স্ট্রাইকার চকিতেই ঘুরে গিয়ে রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়াকে ধোঁকা দিতে ভুল করেননি। ১২ মিনিট না যেতেই ২ গোলে এগিয়ে গিয়ে সিটি যেন তখন রীতিমতো পা রেখে ফেলেছিল স্বপ্নের জগতেই!

এ পর্যন্ত রিয়াল হজম করেছিল দুই গোল, তবে রিয়ালের রক্ষণ যেমন অস্তিত্বহীনতায় ভুগছিল, তাতে সফরকারী শিবিরে আরও বড় কিছুর শঙ্কাও উঁকি দিয়ে যাচ্ছিল ভালোমতোই। ২৬ আর ২৯ মিনিটে মাহরেজ আর ফিল ফোডেন দুটো মোক্ষম সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে হয়তো সেটা হয়েও যেত। তবে রিয়ালের সৌভাগ্য, সুযোগ দুটো বেরিয়ে গেছে কানের পাশ দিয়ে।

দুটো মিসের পরই ক্যামেরা সরে গিয়েছিল ডাগ আউটে। তীব্র আক্রোশে তখন ফেটে পড়ছিলেন কোচ গার্দিওলা। কেন ফেটে পড়ছিলেন সেটা বোঝা গেল একটু পরই। ৩৩ মিনিটে বাম প্রান্ত থেকে ফেরলান্দ মেন্দির ক্রসে দারুণ এক গোল করে বসেন কারিম বেনজেমা। সেই গোল স্কোরলাইন করল ২-১, আর রিয়ালকে দিলো ম্যাচে ফেরার সঞ্জীবনী সুধা।

বিরতির পরই দারুণ একটা সুযোগ এসেছিল সিটির সামনে। গোলের খোঁজে হন্যে হয়ে আক্রমণে ওঠা রিয়ালকে প্রতি আক্রমণে প্রায় বিপদে ফেলেই দিচ্ছিলেন রিয়াদ মাহরেজ৷ তবে তার শটটা গিয়ে কাঁপায় বাম প্রান্তের পোস্টটা, ফিরতি সুযোগে ফোডেনের শট গোললাইন থেকে ফেরান কারভাহাল, সে যাত্রায় বিপদ থেকে মুক্তি মেলে রিয়ালের।

সে 'মুক্তির' স্থায়িত্ব অবশ্য ছিল কেবল মিনিট পাঁচেক। আগের আক্রমণে গোলবঞ্চিত ফোডেন ফের্নান্দিনিওর ক্রসে মাথা ছুঁইয়ে করেন দারুণ এক গোল। রিয়ালও জবাব দিল ১২০ সেকেন্ডের কম সময়ে। রক্ষণ থেকে আসা পাস থেকে দারুণ এক ডামিতে মার্কার ফের্নান্দিনিওকে ছিটকে দেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র, তার গতির কাছে হার মানে সিটির 'হাইলাইন' মানা রক্ষণ; সিটি বিপদসীমায় উঠে এসে ঠাণ্ডা মাথায় জালে জড়ান ব্রাজিলিয়ান এই স্ট্রাইকার। ৫৫ মিনিটে ৩-২ স্কোরলাইন তখন অপেক্ষায় আরও গোলের।

মিনিট বিশেকের মধ্যে সে অপেক্ষা ফুরোলোও। বক্সের বাইরে ওলেক্সান্দ্র জিনচেঙ্কো ফাউলের শিকার হয়েছিলেন; রিয়াল রক্ষণ তো বটেই, সিটির খেলোয়াড়রাও তখন ভাবছিলেন ফ্রি কিকের কথা। তবে সেই সুযোগটাই নেন বার্নার্ডো সিলভা, বক্সের বাইরে থেকে বল নিয়ে ঢুকে করে বসেন দারুণ একটা গোল, থিবো কোর্তোয়াসহ রিয়ালের রক্ষণকে তখন মনে হচ্ছিল রীতিমতো 'অস্তিত্বহীন'।

রিয়াল এর পরও হাল ছাড়েনি। ৮২ মিনিটে ফল পায় দলটি। বক্সে ভেসে আসা ক্রসে ভুলে হাত ছুঁইয়ে বসেন রুবেন ডিয়াজ। পেনাল্টি থেকে পানেনকা শটে বল জালে জড়ান বেনজেমা। যার ফলে শুরুটা যাচ্ছেতাই হলেও শেষটা ৪-৩ স্কোরলাইন নিয়ে করতে পারে রিয়াল। শেষ চারের বৈতরণী পেরোনোর আশাটাও টিকে রইলো ভালোভাবেই।

তবে ৪-৩ গোলের এই জয় সিটিকে খানিকটা কৌলিন্যের স্বাদও এনে দিয়েছে বৈকি। বায়ার্ন মিউনিখ আর জুভেন্তাসের পর ইতিহাসে মাত্র তৃতীয় দল হিসেবে টানা তিন ইউরোপীয় লড়াইয়ে হারিয়েছে রিয়ালকে। ফিরতি লেগের আগে পেপ গার্দিওলার দলকে খানিকটা সুখানিভূতি দেবে যা। 


আরও খবর



ফিলিস্তিনি মেয়ের ক্রিকেটার হয়ে ওঠার গল্প

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

যুদ্ধ ও আগ্রাসনের ভেতর হারিয়ে যেতে পারতেন তিনি। এমন অনেকেই স্বপ্ন দেখতে দেখতে হারিয়ে গেছেন। তাঁর পিতৃভূমিতে বেঁচে থাকাটাই যে অলৌকিক কোনো গল্প। তবে সেই দুর্ভাগ্য সঙ্গী হয়নি মরিয়ম ওমরের। ফিলিস্তিন তাঁর দেশ হলেও জন্ম ও বেড়ে ওঠা কুয়েতে। বর্তমানে মেলবোর্নে বাস করলেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মরিয়ম প্রতিনিধিত্বও করছেন কুয়েতকে। তবে এই পথচলাটুকুও মোটেই সহজ ছিল না তাঁর।

এই মুহূর্তে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ফেয়ারব্রেকে খেলতে দুবাইয়ে আছেন মরিয়ম। যেখানে সাউথ কোস্ট সাপফায়ার্‌সের হয়ে খেলছেন ২৯ বছর বয়সী নারী ক্রিকেটার। এই টুর্নামেন্টে আছেন বাংলাদেশের দুই প্রতিনিধি রুমানা আহমেদ ও জাহানারা আলম। রুমানা-জাহানারাদের মতো পরিচিত মুখের পাশাপাশি আছেন মরিয়মের মতো অপরিচিত সম্ভাবনাময় মুখও।

ক্রিকেটের পথে মরিয়মের যাত্রা অন্য দশ নারী ক্রিকেটারের মতো নয়। তাঁর পরিবার ক্রিকেট নিয়ে মোটেই আগ্রহী ছিল না। মেয়েদের ক্রিকেট খেলা নিয়ে সমাজের নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি তো আছেই। যেখানে ধর্মীয় ও সামাজিক বিধিনিষেধের সঙ্গেও বোঝাপড়া করে নিতে হয়েছে তাঁকে। এর মধ্যে ছিল হিজাব পরে ক্রিকেট খেলা।

হিজাব পরে ক্রিকেট খেলাটা মোটেই সহজ ছিল না। হিজাবকে কীভাবে ক্রিকেটের উপযোগী করে তোলেন, সেটি জানাতে গিয়ে মরিয়ম আরব আমিরাতের দ্য ন্যাশনালকে বলেছেন, খেলার জন্য আমি এটাকে কিছুটা শক্ত করে বেঁধে রাখি। যেন আমি দৌড়াতে পারি এবং ডাইভ দিতে পারি। এতে অন্য কাজগুলোও ঠিকঠাক করতে পারি। শ্বাস-প্রশ্বাস ভালোভাবে নেওয়া যায়, এটি অনেক বেশি গরমও হয় না। তিনি আরও যোগ করেছেন, হিজাবের ভিত্তি ধর্ম। কোনো কোনো মেয়ে এটাকে নিজেরাই বেছে নেয়। ১৫ বছর বয়সে আমি এটি পরার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম এবং আমার বাবা-মা বেশ সমর্থন দিয়েছিল।

কুয়েতের যে আবহাওয়া, তাতে হিজাব পরে ক্রিকেট খেলাটা মোটেই সহজ না। মরিয়ম বলছিলেন, আমাকে আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিতে হয়েছে। কুয়েতে বেশ গরম এবং আমাদের মাঠে খেলতে হয়। এখনো ইনডোর অনুশীলনের কোনো সুযোগ-সুবিধা নেই। আমি এই তাপমাত্রায় খেলার অভ্যাস গড়ে তুলছি। আমার শক্তি ও শরীরে তরলের মাত্রা ঠিক রাখার কাজ করছি। হিজাব পরে খেলার অবশ্য সুবিধাও আছে। একটি ইতিবাচক ব্যাপার হলো হিজাবে আমি রোদে পুড়ে যাওয়া থেকে বাঁচতে পারি’—যোগ করেন মরিয়ম।

২০১০ সালে ১৭ বছর বয়সে প্রথম ক্রিকেটে আসেন মরিয়ম। সে সময় কুয়েতের জাতীয় ক্রিকেট বোর্ড স্কুলে গিয়ে মেয়েদের ক্রিকেটে আনার চেষ্টা চালাচ্ছিল। ক্রিকেটার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়ার স্মৃতি মনে করে মরিয়ম বলেন, যখন আমাদের স্কুলের ক্রীড়াশিক্ষক আমার কাছে এসে বলেন, ‘‘কুয়েত ক্রিকেট অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ খেলতে মেয়ে ক্রিকেটার খুঁজছে। তখন তাঁকে জিজ্ঞেস করেছিলাম, ক্রিকেট কী জিনিস?

ক্রিকেট সম্পর্কে কোনো ধারণা না থাকলেও অন্য খেলাগুলো অবশ্য ভালোই খেলতেন মরিয়ম। খেলতেনবাস্কেটবল, সাঁতার ও মার্শাল আর্টস। ক্রিকেট সম্পর্কে জানার পর তাঁর মা উৎসাহ দিয়ে বলেন, কেন নয়? হয়তো একদিন তুমি জাতীয় দলেও খেলতে পার।

এভাবেই খেলাটাকে ভালোবাসতে শুরু করলেন এবং আর পেছনে ফিরে তাকাননি মরিয়ম। এখনই থামতে চান না মরিয়ম। খেলতে চান বিগ ব্যাশের মতো বড় টুর্নামেন্টে। পরিশ্রম ও একাগ্রতা থাকলে অসম্ভবও যে সম্ভব, সেটির প্রমাণ তো তিনি নিজেই।


আরও খবর



মেসির জাদুকরি গোলে পিএসজির রেকর্ড

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৮৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দৃশ্যটা কি এর চেয়ে ভালো হতে পারত লিওনেল মেসির? পুরো মৌসুম গোলের হাপিত্যেশে কেটেছে তার। চিরকাল নায়ক হয়ে থাকা স্বভাব যার, সেই মেসি পিএসজিতে এসে বনে গিয়েছিলেন পার্শ্বনায়ক। তবে লিগ জেতার দিনে আর পার্শ্বনায়ক থাকলেন না। চলে এলেন পাদপ্রদীপের আলোয়।

লেঁসের বিপক্ষে পিএসজির ম্যাচে করলেন জাদুকরি এক গোল। পরে এক গোল হজম করলেও সেই এক গোলই এক মৌসুম পর লিগ শিরোপা ফিরিয়ে দিয়েছে পিএসজিকে।

গত মৌসুমে লিলের কাছে শিরোপা হারানো পিএসজি আবার ফিরে পেল মুকুট। ফ্রান্সের শীর্ষ লিগে পেশাদার যুগে সাঁত এতিয়েনের সবচেয়ে বেশি ১০ শিরোপা জয়ের রেকর্ডও স্পর্শ করল তারা। অপেশাদার যুগে একটিসহ সমান সংখ্যক শিরোপা জিতেছে মার্সেইও।

অথচ আগের ম্যাচেও হিসেব কষে বলাবলি হচ্ছিল, লিগ শিরোপার উদযাপনেও বুঝি থাকতে পারবেন না মেসি। অ্যাকিলিস টেন্ডনে প্রদাহের জন্য খেলতে পারেননি আগের ম্যাচে। তবে সেই গেমউইকে মার্শেই নিজেদের ম্যাচে জিতে যাওয়ায় শিরোপাটা তখনই নিশ্চিত করে ফেলেনি।

ফলে পিএসজির সামনে আজকের ম্যাচে সমীকরণটা দাঁড়িয়েছিল এক পয়েন্টের। লেঁসের বিপক্ষে এমন সমীকরণ সামনে রেখেই মাঠে নামে পিএসজি। চোট কাটিয়ে একাদশে ফেরেন মেসি।

শুরুর অর্ধে অবশ্য খুব একটা সুবিধে করতে পারেনি দলটি। পায়নি গোলের দেখা, বিরতিতে যায় ০-০ স্কোরলাইন নিয়ে। তবে বিরতির কিছু পরই লেঁসের ডিফেন্ডার কেভিন ডানসোর লাল কার্ডে কাজটা সহজ হয়ে আসে পিএসজির।

তবু অবশ্য পিএসজিকে গোলের জন্য বেশ কাঠখড়ই পোড়াতে হয়েছে। দুই স্তরের রক্ষণ নিয়ে যে মেসি, নেইমার ও এমবাপেকে সামলাচ্ছিল লেঁস। তবে তা স্থায়ী হলো কেবল ৬৮ মিনিট পর্যন্ত। ম্যাচের ৬৮ মিনিটে মেসি বক্সের বাইরে বল পান নেইমারের কাছ থেকে। শট করার স্পেস পেয়েই আর ভুল করেননি। আগুনে এক শটে লেঁস গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন। তাতেই শিরোপার সুবাস পেতে শুরু করে পিএসজি।

শেষে গোল একটা হজম করে ড্র করেছে ম্যাচটা। দশ জনের দলকে হারাতে না পারার আফসোস তাতে কিছুটা সঙ্গী হয়েছিল পিএসজির, তবে লিগ ফিরে পাওয়ার আনন্দের কাছে সে আফসোস তো নস্যি! মেসির গোলের পরও ১-১ ড্র করা পিএসজি তাতে ম্যাচ শেষে লিগের উদযাপনে মেতেছে ঠিকই, আর আর্জেন্টাইন মহাতারকা পেয়ে গেছেন তার ক্যারিয়ারের ৩৯তম শিরোপার দেখা।


আরও খবর



ঈদ উপলক্ষে বাড়তি নিরাপত্তা জাতীয় চিড়িয়াখানায়

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঈদুল ফিতরের ছুটিতে বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে নেওয়া হয়েছে নানা ধরনের ব্যবস্থা। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, চিড়িয়াখানায় অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা। 

সোমবার দুপুরে জাতীয় চিড়িয়াখানার কিউরেটর (ভারপ্রাপ্ত পরিচালক) মো. মজিবুর রহমান গণমাধ্যমকে জানান, এবারের ঈদে দর্শনার্থী বেশি আসবে চিড়িয়াখানায়। বিষয়টি মাথায় রেখে দর্শনার্থীদের নিরাপত্তার বিষয়ে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। এজন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে জানানো হয়েছে। চিড়িয়াখানায় টহলে থাকবে পুলিশ ও র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। ঈদকে সামনে রেখে চিড়িয়াখানায় চিন্তায় পকেটমার ও ইভটিজিংয়ের ঘটনা এড়াতে ২৮টি স্থানে লাগানো আছে সিসি ক্যামেরা। সার্বক্ষণিক মনিটরিং করা হবে।

তিনি বলেন, গরমে প্রাণীগুলোর পানিশূন্যতা এড়াতে ইলেক্ট্রোলাইয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ও স্ট্রেস বা চাপ কমাতে ভিটামিন সি'র ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রাণীগুলোর জন্য চৌবাচ্চায় পানি দিয়ে গোসলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এবারের গরমের মৌসুমে এখন পর্যন্ত চিড়িয়াখানার কোনো পশু-পাখির কোন সমস্যা হয়নি। ঈদে চিড়িয়াখানা খোলা থাকছে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৬টা পর্যন্ত।


আরও খবর



কিশোরগঞ্জে সরকারি ৬৮১ বস্তা চালসহ একজন আটক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৭৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে সরকারি ৬৮১ বস্তা চালসহ আবুল কাশেম খান (৫৮) নামে এক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব। গত মঙ্গলবার গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

র‌্যাব সূত্র জানায়, তাড়াইল-সাচাইল সদর ইউনিয়নের ৫ নং পংপাচিহা এলাকায় এক অসাধু ব্যবসায়ী অবৈধভাবে সরকারি চাল গুদামজাত করে রেখেছেন মর্মে জানতে পারে র‌্যাব। এর পরিপ্রেক্ষিতে র‌্যাবের কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মো. শাহরিয়ার মাহমুদ খানের নেতৃত্বে মঙ্গলবার গভীর রাতে অভিযান চালায় একটি দল। তখন কিশোরগঞ্জ টু তাড়াইলগামী পং পাচিহা এলাকায় পাকা রাস্তার দক্ষিণ পাশের একটি টিনসেড গুদাম থেকে ৬৮১ বস্তা সরকারি চালসহ গুদামের মালিক আবুল কাশেম খানকে আটক করে। তিনি তাড়াইল উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে।

র‌্যাবের  কোম্পানী অধিনায়ক মেজর মো. শাহরিয়ার মাহমুদ খান আজ বুধবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক আবুল কাশেম খান ওই চাল কেনা-বেচার জন্য তার কাছে কোনোপ্রকার বৈধ কাগজপত্র নেই বলে স্বীকার করেন। অধিক লাভের আশায় তিনি চালগুলো কিনেছেন বলে জানান। তাছাড়া চাল মজুদ ও বিক্রির জন্য তিনি কোনো প্রকার ট্রেড লাইসেন্সও দেখাতে পারেননি। এ ব্যাপারে আইনানুগ প্রক্রিয়া চলছে বলে র‌্যাব  জানায়।

নিউজ ট্যাগ: সরকারি চাল জব্দ

আরও খবর