Logo
শিরোনাম

ইতিহাসের এই দিনে: ৩০ আগস্ট

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৬১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আজ ৩০ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার। ১৫ ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ। গ্রেগরিয়ান বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ২৪২ তম (অধিবর্ষে ২৪৩ তম) দিন।

এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

১৫৭৪ - গুরু রাম দাস চতুর্থ শিখ গুরুর দায়িত্ব পান।

১৭২১ - লিস্টাভ-এর শান্তি চুক্তি সম্পাদিত।

১৭৯০ - জার্মানীর বিজ্ঞানী নিকালা কন্টে পেন্সিল আবিস্কার করেন।

১৮৩০ - বুলগেরিয়ার রাজপুত্র ওথো গ্রিসের রাজা নির্বাচিত হন।

১৮৩৫ - অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নকে শহর হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

১৮৫০ - হনুলুলু শহরের মর্যাদা পায়।

১৮৬০ - ব্রিটেনে প্রথম ট্রাম চালু হয়।

১৯০৭ - রাশিয়া ও বৃটিশ উপনিবেশবাদী সরকার এক চুক্তির মাধ্যমে ইরানকে তিন অংশে বিভক্ত করে।

১৯১৪ - প্রথম জার্মান বিমান প্যারিসে বোমাবর্ষণ করে।

১৯৩৩ - এয়ার ফ্রান্স গঠিত হয়।

১৯৪১ - জার্মান বাহিনী লেনিনগ্রাদ অবরোধ করে।

১৯৪৫ - হংকং বৃটিশ বাহিনীর সহায়তায় জাপানের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভ করে।

১৯৫৬ - সোভিয়েত ইউনিয়ন পারমাণবিক পরীক্ষা করে।

১৯৫৭ - যুক্তরাষ্ট্র পারমাণবিক পরীক্ষা করে।

১৯৭১ - দিল্লীতে বাংলাদেশ মিশনের উদ্বোধন।

১৯৯১ - আযারবাইজান প্রজাতন্ত্র সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে আলাদা হয়ে স্বাধীনতা ঘোষণা করে।

১৯৯৭ - বসনিয়ায় মুসলিম ক্রোয়েট চুক্তি স্বাক্ষর।

১৯৯৯ - পূর্ব তিমুর ইন্দোনেশিয়া থেকে স্বাধীনতার পক্ষে ভোট দেয়।

জন্ম:

১৫৬৯ - মোগল সম্রাট জাহাঙ্গীর।

১৭৯৭ - ফ্রাঙ্কেনস্টাইন’ গ্রন্থের লেখিকা ও কবি শেলির স্ত্রী মেরি ওলস্টোনক্র্যাফট শেলি।

১৮৪৪ - শিক্ষাবিদ, সাহিত্যিক ও সমাজসেবী চন্দ্রনাথ বসু।

১৮৭১ - নিউ জিল্যান্ড বংশদ্ভোত বৃটিশ পদার্থবিদ, নোবেলজয়ী বিজ্ঞানী আর্নেস্ট রাদারফোর্ড।

১৯১৭ - ব্রিটিশ রাজনীতিক ডেনিস হিলি।

১৯৩০ - ওয়ারেন বাফেট।

১৯৭২ - চেক প্রাজন্ত্রের ফুটবলার ও সাবেক অধিনায়ক পাভেল নেদভেদ।

১৯৭২ - ক্যামেরন ডাইজ অভিনেত্রী ও ফ্যাশন মডেল।

১৯৮২ - এন্ডি রডিক আমেরিকান টেনিস তারকা।

মৃত্যু:

১৪৮৩ - ফ্রান্সের রাজা একাদশ লুই।

১৬৫৯ - আওরঙ্গজেবের ঘাতকের হাতে দারা শিকোহ।

১৮৭৭ - তরুণ দত্ত ভারতীয় কবি

১৯১১ - বহু ভাষাবিদ মনীষী ও প্রথম ভারতীয় আইসিএস হরিনাথ।

১৯২৮ - জার্মান পদার্থবিদ ভিলহেল্ম ভিন।

১৯৮১ - ইরানের রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আল রাজাই ও প্রধানমন্ত্রী মোহম্মদ জাভেদ বাহোনার পিপলস মোজাহিদিন অব ইরানের বোমা হামলায় নিহত হন।

১৯৮১ - শিক্ষক, গবেষক ও ঐতিহাসিক ড. নীহার রঞ্জন রায়।

১৯৮৭ - ফিলিস্তিনের খ্যাতনামা কার্টুনিষ্ট নাজিউল আলী লন্ডনে ইহুদীবাদী ইসরাইলের গুপ্তচর সংস্থা মোসাদের হাতে নিহত হন।

২০০১ - বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি আফম আহসান উদ্দিন চৌধুরী।

২০০৬ - নোবেলজয়ী মিশরীয় সাহিত্যিক নগিব মাহফুজ।


আরও খবর

৩০ সেপ্টেম্বর: ইতিহাসে আজকের এই দিনে

শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২

ইতিহাসে আজকের এই দিনে: ২৮ সেপ্টেম্বর

বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২




দিনাজপুর বোর্ডের আরও দুই পরীক্ষার প্রশ্ন বাতিল

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীন চলমান এসএসসি পরীক্ষার আরও দুই বিষয়ের প্রশ্নপত্র বাতিল করা হয়েছে। বিষয় দুটি হলো জীববিজ্ঞান ও উচ্চতর গণিত। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. কামরুল ইসলামের সই করা বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

এতে বলা হয়, চলমান এসএসসি পরীক্ষার স্থগিত চার বিষয় যথাক্রমে গণিত (আবশ্যিক), পদার্থবিজ্ঞান, কৃষি শিক্ষা, রসায়ন এবং আরও ২টি বিষয় জীববিজ্ঞান ও উচ্চতর গণিতসহ মোট ৬টি বিষয়ের ইতোপূর্বে সরবরাহকৃত প্রশ্নপত্র বাতিল করা হলো।

আরও বলা হয়, আগামী ২৪ সেপ্টেম্বরের মধ্যে মধ্যে উক্ত বাতিলকৃত প্রশ্নপত্রসমূহ ট্রেজারি অফিসগুলোকে কঠোর নিরাপত্তার সাথে আলাদা করে পৃথক ট্রাঙ্কে সংরক্ষণের জন্য অনুরোধ করা হলো।


আরও খবর



‘ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্কে অবিশ্বাসের দেয়াল তুলেছে বিএনপি’

প্রকাশিত:শনিবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৫৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরকে কেন্দ্র করে অপপ্রচার আর গুজব না ছড়িয়ে বরং আয়নায় নিজেদের শাসনামলে ভারত সফরের প্রাপ্তি কি ছিল তা দেখতে বিএনপি নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শনিবার নিজ বাসভবনে ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, বিএনপি নেতারা যদি হাতের তালু দিয়ে চোখ ঢেকে রাখে তাহলে প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের কোন অর্জন দেখতে না পাওয়ারই কথা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে দেশবাসীর প্রত্যাশা পূরণ হলেও বিএনপির প্রত্যাশা পূরণ হয়নি, কারণ তারা চায় প্রতিবেশীর সঙ্গে বৈরী সম্পর্ক, বিশেষ করে ভারতের সঙ্গে, বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী কাদের।

প্রকাশ্যে বৈরিতা দেখিয়ে আবার দূতাবাসের দরজায় ফুল আর মিষ্টি নিয়ে অপেক্ষার প্রহর গুনতে থাকাই বিএনপির রাজনীতি উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারা দু-দেশের মধ্যে গড়ে তুলেছে সংশয় ও অবিশ্বাসের দেয়াল, ছড়িয়েছে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প।

বিএনপি তাদের শাসনামলে দ্বিপাক্ষিক কোনো সমস্যার সমাধান করতে পারেনি দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা সংশয় ও অবিশ্বাসের দেয়াল ভেঙে রচনা করেছেন উভয় দেশের মধ্যে সেতুবন্ধন। তারই ধারাবাহিকতায় এবারের সফরও পারস্পরিক বন্ধুত্ব এবং উন্নয়নের পথরেখায় সম্ভাবনার নতুন আলো ছড়িয়েছে।

শেখ হাসিনার ভারত সফরে এক কথায় বলেন বৈশ্বিক সংকটের প্রেক্ষিতে দেশের বর্তমান বাস্তবতায় জনগণের বেঁচে থাকার জন্য যা যা প্রয়োজন তার সবকিছুই দিয়েছে ভারত।

বিএনপি সন্ত্রাসে বিশ্বাস করে না, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রকৃতপক্ষে দেশের মানুষ জানে বিএনপির বসবাস সন্ত্রাস আর ষড়যন্ত্রের সাথে। বন্দুকের নলের মুখেই তো বিএনপির জন্ম।

আন্দোলনের নামে জীবন্ত মানুষকে আগুনে পুড়িয়ে মারা, পেট্রোল বোমা আর সন্ত্রাস কাদের সৃষ্টি প্রশ্ন রেখে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, সন্ত্রাস, সাম্প্রদায়িকতা আর ষড়যন্ত্র এই তিনটি নিয়েই বিএনপির রাজনীতি।

বিএনপির টার্গেট লুটপাট আর দুর্নীতি এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, এ দেশের রাজনীতিতে মামলা-হামলা-ষড়যন্ত্র আর সন্ত্রাস-নৈরাজ্যকে লালন করছে বিএনপি, যা এখনো করছে।” জনগণের প্রতি বিএনপির কোনো কমিটমেন্ট নেই, আগেও ছিল না বলে মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।


আরও খবর



তিনি বেঁচে আছেন মনের মণিকোঠায়

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার মাটি ও মানুষের পরম প্রিয়জন আলহাজ শেখ আবুল বাশারের ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী আজ। তিনি ২০১৮ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর রাজধানীর বেসরকারি এক হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। তার মৃত্যুতে সেদিন নাজিরপুরে শোকের ছায়া নেমে এসেছিল। তার প্রয়াণে জন্মদাত্রী নাজিরপুর হারিয়েছিল তার প্রিয় সন্তানটিকে। সেদিন এই কৃতীসন্তানের শোকে আকাশ-বাতাস ভারী হয়ে ওঠে। সাধারণ মানুষের গগণবিদারী আহাজারিতে বাকরুদ্ধ হয়েছিল আপামর জনতা।

আলহাজ শেখ আবুল বাশার ছিলেন একজন জনপ্রিয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, বীর মুক্তিযোদ্ধা। তিনি ছিলেন গণমানুষের অতি কাছের এবং গরিব-দুঃখী, মেহনতি মানুষের পরম বন্ধু। আলহাজ শেখ আবুল বাশার আমৃত্যু নাজিরপুরের মানুষের জন্য নিজেকে উজাড় করে দিয়ে গেছেন। নীতি-নৈতিকতা ছিল তার অনন্য সম্পদ। সাধারণ জনগণ ছিল তার পরম আত্মার আত্মীয়। তিনি জয় করেছেন তাদের মন। বাঙালির সম্মান, গৌরব ও আত্মমর্যাদা বৃদ্ধিতে যেসব রাজনীতিবিদ নিজেকে উৎসর্গ করেছেন তাদের অন্যতম আলহাজ শেখ আবুল বাশার। বিভিন্ন সময় নাজিরপুরে আন্দোলন-সংগ্রামের পুরোধা ছিলেন তিনি।

তিনি নাজিরপুর উপজেলা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। ৭৫-এর ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিপারে নির্মমভাবে হত্যার পর ওইদিনই তার নেতৃত্বে নাজিরপুরে প্রতিবাদ মিছিল হয়েছিলো। আর এ কারণে তাকে মামলা-হামলার শিকারও হতে হয়েছিলো। এছাড়া ৭৫-পরবর্তী নাজিরপুরে আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করতে তার গুরুত্বপূর্ণ অবদান ছিল। পাশাপাশি নাজিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ছিলেন। সবশেষ মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা অন্যতম সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করে গেছেন।

একজন সৎ ও আদর্শবান রাজনীতিক ও সমাজসেবকের যেসব গুণ থাকা উচিত তার সবই আলহাজ শেখ আবুল বাশারের মধ্যে ছিল। তিনি ছিলেন আপাদমস্তক একজন দেশপ্রেমিক, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার পথের একজন দক্ষকর্মী। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জননেত্রী শেখ হাসিনার সোনার বাংলা বিনির্মাণ ছিল তার একমাত্র লক্ষ্য।

দেশ ও মানবকল্যাণে নিরলস ও নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে যাওয়ার মাধ্যমে মানুষ তার স্বীয় মহিমার বহিঃপ্রকাশ ঘটায় ও চিরস্মরণীয় হয়ে থাকে। ত্যাগের মাধ্যমেই মানুষ ধরণীর বুকে অমরত্ব লাভ করে। ত্যাগই আলোকিত মানুষের চরিত্রের সর্বোচ্চ আদর্শ। একমাত্র ত্যাগের মাধ্যমেই মানবজীবনকে সার্থক করা সম্ভব। মানুষ যদি অন্যের কল্যাণে নিজেকে সম্পূর্ণভাবে উজাড় করে দেয়, তাতেই তার চরিত্রে মহত্ত্বের প্রকাশ ঘটে। আর এমনই একজন সজ্জন ত্যাগী ব্যক্তি ছিলেন আলহাজ শেখ আবুল বাশার।

কোনো ধরনের পদ-পদবির লোভ-লালসা তাকে আকৃষ্ট করতে পারেনি। তিনি আমাদের মাঝে বেঁচে আছেন তার কর্মের মধ্য দিয়ে।

আলহাজ শেখ আবুল বাশার রাজনৈতিক জীবনের পাশাপাশি পারিবারিক ও সমাজ জীবনে আচার-আচরণ ছিল অনুকরণীয়। তার কাছে রাজনীতি ছিল বৃহত্তর মানবকল্যাণের মাধ্যম। মমত্ববোধ, মৈত্রী ও সমঝোতার অন্বেষণে তার প্রয়াস ছিল অক্লান্ত। সাংঘর্ষিক ও সহিংস রাজনীতির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ছিল দৃঢ়, অথচ নম্র ও শান্ত। আজ তিনি আমাদের মাঝে নেই, তবুও তিনি আমাদের অন্তরে চিরজাগ্রত। আজ আমরা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করি, তার স্মৃতি, অর্থপূর্ণ জীবন ও মূল্যবোধ। তার আদর্শ অন্তরে ধারণ করে প্রতিনিয়ত শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একটি আধুনিক ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমাদের পথ চলতে হবে। তার মতো ত্যাগী নেতার আজ বড়ই প্রয়োজন। তিনি সারাজীবন বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে লালন করে গেছেন।

তার সঞ্চয় ছিল সাধারণ মানুষের ভালোবাসা। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত লোভ-লালসার ঊর্ধ্বে থেকে গণমানুষের জন্য কাজ করে গেছেন তিনি। সেবার দ্বারা ও মহৎ কর্মের মাধ্যমে আলোর প্রদীপ হাতে নিয়ে যে মানুষটি অবদান রেখেছিলেন সংগ্রাম-আন্দোলনে, সে মানুষটি আজ তার নিজগ্রামে চিরনিদ্রায় শায়িত। আলহাজ শেখ আবুল বাশার প্রমাণ করেছেন মানুষকে ভালোবাসলে, তাদের জন্য কাজ করলে মানুষ ভালোবাসার প্রতিদান দেয়। তাই তো মৃত্যুর পরও তিনি বেঁচে আছেন আমাদের মনের মণিকোঠায়। তিনি আজ আরো দীপ্তিময়, আরো বেশি জনপ্রিয়। কিছু ব্যক্তি আছেন যারা মরে গেলেও কর্মময় জীবন তাদের অমরত্ব দান করে। পৃথিবী ও সভ্যতা যাদের দানে হয় সমৃদ্ধ তেমন একজন ক্ষণজন্মা ছিলেন আলহাজ শেখ আবুল বাশার।


আরও খবর



এবার বলিউডের মুখ রাখল রণবীর-আলিয়ার ‘ব্রহ্মাস্ত্র’

প্রকাশিত:রবিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

একদিকে নিন্দার ঝড়, অন্যদিকে সিনেমা বয়কট করার আহ্বান। বেশ কিছুদিন ধরেই বক্স অফিসে কুপোকাত হচ্ছে বলিউড। তবে এবার বলিউডের মুখ রাখল রণবীর কাপুর এবং আলিয়া ভাট অভিনীত ব্রহ্মাস্ত্র’। আয়ান মুখোপাধ্যায় পরিচালিত সিনেমাটি প্রথম দিনেই বিশ্বব্যাপী আয় করেছে ৭৫ কোটি রুপি, বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ৮৮ কোটি ৭৭ লাখ টাকা। মন্দার বাজারে বক্স অফিসের এই সংগ্রহ তাই নতুন নজির সৃষ্টি করেছে।

সমালোচকরা বলছেন, ক্রমাগত অপমান আর ভরাডুবির হাত থেকে হিন্দি সিনেমাকে বাঁচিয়েছে ব্রহ্মাস্ত্র। প্রায় ৪০০ কোটি টাকা বাজেটের সিনেমাটি যে প্রথম দিনেই ৭৫ কোটি রুপি তুলে নেবে, এমনটা আশা করেননি অনেকে। যদিও অগ্রিম টিকিট বিক্রির সম্ভাবনা মাথায় রেখে বাণিজ্য বিশ্লেষক তরণ আদর্শ এ ধরনের ফলের আশা দিয়েছিলেন দু’সপ্তাহ আগেই।

শুধু তাই নয়,পরিচালক আয়ানকে এ বিষয়ে আশ্বস্ত করেছিলেন সিনেমাটির প্রযোজক করণ জোহর। তিনি বলেন, সিনেমা ব্যবসা করতে পারুক বা না করুক, আগেই আমরা জিতে গিয়েছি।’ আসলে পরিচালক-প্রযোজকের জোরটা ছিল সাধনায়, শ্রমে।

পরিচালক আয়ানের প্রায় পাঁচ বছরের নিরন্তর সাধনার ফল ব্রহ্মাস্ত্র’। পুরাণ-ফ্যান্টাসির মিশেলে এ সিনেমাকে সাজিয়েছেন আয়ান। হিন্দি সিনেমায় এত উন্নত মানের ভিএফএক্সের ব্যবহারও এই প্রথম। যার নেপথ্যে রয়েছেন ভিএফএক্স জিনিয়াস’ নমিত মালহোত্রা। নমিতের সংস্থা হলিউডের সাড়া জাগানো সিনেমা ইনসেপশন’ ও ইন্টারস্টেলার’-এর গ্রাফিক্স এবং অ্যানিমেশন করেছে। তাই অনেকে মনে করছেন, ভিএফএক্স-এর কেরামতিতে ঢাকা পড়ে যাচ্ছে চিত্রনাট্যের ফাঁক।

যদিও ব্রহ্মাস্ত্র’ দেখে পরিচালক-প্রযোজককে তুলোধনা করেছেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। তিনি বলেন, ৪০০ কোটি টাকাই পানিতে ফেলে দিয়েছেন পরিচালক আয়ান। আর চিত্রনাট্যে মন নেই প্রযোজক করণের। অন্যের যৌনজীবন নিয়েই বেশি আগ্রহ তার। সব মিলিয়ে ব্রহ্মাস্ত্রকে একটি বড়সড় বিপর্যয়’ হিসেবেই দেখছেন কঙ্গনা।


আরও খবর

দুরন্তপনার ৫ বছর

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




সাজেকে পাহাড়ধস: যান চলাচল স্বাভাবিক

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ২৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাঙ্গামাটির সাজেকে যাওয়ার পথে নন্দারাম এলাকায় পাহাড়ধসের ঘটনায় সাড়ে ছয় ঘণ্টা পর যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। সেনাবাহিনীর সহায়তায় এই যান চলাচল স্বাভাবিক হয় বলে জানান বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুমানা আকতার।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পাহাড়ধসের এ ঘটনায় রাস্তার দুইপাশে প্রায় পাঁচ হাজার পর্যটক আটকা পড়েন। গতকাল রাতে ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে এই পাহাড়ধসের ঘটনা ঘটে। মাটি সরাতে আজ বুধবার সকাল থেকেই সেনাবাহিনী কাজ করে।

সাজেক কটেজ মালিক সমিতির সভাপতি সুপর্ন দেব বর্মন বলেন, সাজেক এলাকায় প্রায় ছোট-বড় মিলে ২০০ গাড়ি রয়েছে, যা গতকাল এসেছিল। আজ সকালে অনেকের চলে যাওয়ারও কথা ছিল, কিন্তু গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকায় এখন সবাই আটকে আছেন। এখান মোট ১১২টি কটেজে প্রায় চার হাজার পর্যটক থাকতে পারেন।

বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুমনা আক্তার বলেন, মঙ্গলবার রাতে ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে সড়ক পরিষ্কারের জন্য সেনাদস্যরা কাজ শুরু করেছে। বর্তমানে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।


আরও খবর