Logo
শিরোনাম

জেনে নিন কাঁচা আমের শরবত তৈরির সহজ রেসিপি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গরমে এমন কিছু যা প্রশান্তি আনবে দেহ ও মনে।এক গ্লাস কাঁচা আমের শরবত বানিয়ে খেতে পারেন। এখন কাঁচা আম পাওয়া যাচ্ছে বাজারে।  জেনে নিন কীভাবে আমের শরবত বানাবেন। 

উপকরণ:

কাঁচা আমের টুকরো- ১ কাপ

চিনি- স্বাদ মতো

পুদিনা পাতা- ১০টি

ধনেপাতা কুচি- ২ চা চামচ

কাঁচা মরিচ- ১টি (কুচি)

ভাজা জিরার গুঁড়া- আধা চা চামচ

বিট লবণ- ১ চা চামচ

লেবুর রস- ১ চা চামচ

লবণ- সামান্য

প্রস্তুত প্রণালি:

ব্লেন্ডারে ১ গ্লাস পানি ও অন্যান্য সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর আরও দুই গ্লাস পানি মিশিয়ে ব্লেন্ড করুন। ঠাণ্ডা পানি মেশাতে পারেন সঙ্গে সঙ্গে পরিবেশন করতে চাইলে। পুদিনা পাতা ও লেবুর টুকরো দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন কাঁচা আমের শরবত।    


আরও খবর



জয়পুরহাটে ট্রাকচাপায় মাদ্রাসার শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ১৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জয়পুরহাটে ট্রাকচাপায় জয় হোসেন (২০) নামে এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় তার বন্ধু তাহমিদ (২২) গুরুতর আহত হয়েছেন। সোমবার (১৬ মে) রাতে জয়পুরহাট-মঙ্গলবাড়ী সড়কের বোর্ড ঘর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর জাহান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জয়ের বাড়ি ধামইরহাট উপজেলার ফাঁসিপাড়া গ্রামে। তার বাবার নাম আতোয়ার হোসেন। তিনি ধামইরহাট সিদ্দিকীয়া ফাজিল মাদ্রাসার আলিম প্রথম বর্ষের ছাত্র। আহত তাহমিদ একই গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে। তিনি জয়পুরহাট সরকারি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র।

ওসি জানান, দুই বন্ধু জয়পুরহাট শহরে একটি রেস্টুরেন্ট থেকে খাবার খেয়ে বৃষ্টির মধ্যে মোটরসাইকেলে করে নিজ বাড়িতে ফিরছিলেন। পথে বোর্ড ঘর এলাকায় পৌঁছালে একটি দ্রুতগ্রামী ট্রাক চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই জয়  মারা যান। আহত হন তার বন্ধু। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন।


আরও খবর



এবার জম্মু-কাশ্মিরের স্কুলে হিজাব নিষিদ্ধ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের জম্মু-কাশ্মিরের উত্তরে অবস্থিত একটি স্কুল কর্তৃপক্ষ স্কুল চলাকালীন শিক্ষিকাদের হিজাব না পরতে নির্দেশনা দিয়েছে। তবে নিকাব শব্দের পরিবর্তে অনিচ্ছাকৃতভাবে হিজাব লেখা হয়েছে বলে দাবি করেছে দেশটির সেনাবাহিনী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, চলতি মাসের গত ২৫ এপ্রিল ওই নির্দেশনা জারি করে ডাগর পরিবার নামে ওই স্কুল কর্তৃপক্ষ। পুনের একটি এনজিও এবং দেশটির সেনাবাহিনী বিশেষভাবে সক্ষম শিশুদের জন্য স্কুলটি পরিচালনা করে।

শিশুদের মনের মধ্যে যেন ভয়ের সঞ্চার না হয়, তারা যাতে সংশয়ে না থাকে এবং অনেক বেশি নিরাপদ অনুভব করে, সেজন্য স্কুল চলাকালীন হিজাব না পরতে নির্দেশ দেওয়া হয় বলে নির্দেশনায় উল্লেখ রয়েছে।

তবে হিজাব শব্দটি অনিচ্ছাকৃতভাবে উল্লেখ হয়েছে বলে দাবি করেছে দেশটির সেনাবাহিনী।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে ভারতীয় সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেরন মুসাভির বলেন,নির্দেশনায় অসতর্কতাবশত হিজাব শব্দের উল্লেখ করা হয়েছে। মূলত নিকাব (এটির মাধ্যমে চোখ ছাড়া মুখ ঢেকে রাখা হয়) নিষিদ্ধের নির্দেশ ছিল। কারণ স্কুলটি বিশেষ শিক্ষার্থীদের জন্য পরিচালিত হয়। এসব শিক্ষার্থীর অনেকে কানে শুনতে পায় না। তাদেরকে মুখের বিভিন্ন অঙ্গভঙ্গির মাধ্যমে ধ্বনিবিষয়ক শিক্ষা দিতে হয়।

মুখপাত্র আরও বলেন, ‘‘একজন শিক্ষিকা নিকাব পরলে কীভাবে তিনি শিক্ষার্থীদের শিক্ষা দিবেন। নিকাবের কারণে শিক্ষার্থীরা শিক্ষিকার মুখের অবয়ব দেখতে পান না। ফলে তাদের স্বাভাবিক পড়াশোনা বাধাগ্রস্ত হয়। এ কারণে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আর এই নির্দেশনা শুধুমাত্র শিক্ষিকাদের জন্য প্রযোজ্য।’’

স্কুল কর্তৃপক্ষের ওই নির্দেশনাকে ঘিরে রাজ্যে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। রাজনীতিবিদরা এ ঘটনাকে কর্ণাটক রাজ্যে হিজাব নিষিদ্ধের ঘটনার সঙ্গে তুলনা করছেন। তারা প্রত্যেক নাগরিকের ধর্মীয় স্বাধীনতা নিশ্চিতের দাবি জানান।


আরও খবর



সরকারি সিদ্ধান্ত ছাড়াই বেড়ে গেছে ভোজ্যতেলের দাম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৭৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইন্দোনেশিয়া সরকার পাম অয়েল রফতানি বন্ধ ঘোষণার পর দেশের বাজারে ভোজ্যতেলে দাম বেড়ে গেছে। যদিও দাম বাড়ার বিষয়ে সরকারিভাবে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। বিভিন্ন বাজারে খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, একদিনের ব্যবধানে সয়াবিনের দাম প্রতি লিটারে ২০ টাকা এবং পাম অয়েলে ২৫ টাকা বেড়েছে। কমে গেছে সয়াবিন তেলের সরবরাহ।

ইন্দোনেশিয়া নিজেদের বাজারে ভোজ্যতেলের দাম কমাতে ও জোগান বাড়াতে শনিবার (২৩ এপ্রিল) পাম অয়েল রফতানি বন্ধের ঘোষণা দেয়। এ সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) থেকে কার্যকর হবে। এখন যেসব তেল রফতানির জন্য জাহাজীকরণের পাইপলাইনে রয়েছে, সেগুলো রফতানি করা যাবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। এরপর থেকে আর তেল রফতানি করা যাবে না। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে। বাংলাদেশের ব্যাংকগুলোর সূত্র জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত ইন্দোনেশিয়া থেকে যেসব পাম অয়েল আমদানির এলসি খোলা হয়েছে, সেগুলোর মধ্যে যেসব এলসির অর্থ পরিশোধ করা তা দেশে আনার জন্য ব্যবসায়ীরা যোগাযোগ করছেন। তবে এখন আর নতুন এলসি খোলা হচ্ছে না। একই সঙ্গে নতুন করে এলসির অর্থ পরিশোধও বন্ধ রাখা হয়েছে।

বিশ্বব্যাপী পাম অয়েলের ৩৯ শতাংশই রফতানি করে ইন্দোনেশিয়া। মালয়েশিয়া করে ২৭ শতাংশ। বাকি পাম অয়েল রফতানি করে অন্যান্য দেশ। তবে মালয়েশিয়া এখনো পাম অয়েল রফতানি বন্ধ করেনি। দুটি দেশই পাম অয়েল উৎপাদন সোয়া ৫ শতাংশ বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে। এর মধ্যে ইন্দোনেশিয়া উৎপাদন করবে ৪ কোটি ৭১ লাখ টন এবং মালয়েশিয়া করবে ১ কোটি ৮৯ লাখ টন।

ইন্দোনেশিয়ার পাম অয়েল রফতানি বন্ধ করার ঘোষণার পরপরই দেশের বাজারে খোলা সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ২০ টাকা বেড়ে ১৮০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে। অথচ সরকার নির্ধারিত মূল্য হচ্ছে ১৩৬ টাকা। কোথাও এই দরে তেল পাওয়া যাচ্ছে না। বাড়তি মুনাফার আশায় ব্যবসায়ীরা বাজার থেকে সয়াবিন তেল উধাও করে ফেলেছেন। তারা মনে করছেন একদিনে আটকে রাখতে পারলেই দাম বেশি পাওয়া যাবে। অন্যদিকে সরকার প্রতি লিটার খোলা পাম অয়েলের দাম ১৩০ টাকা নির্ধারণ করে। কিন্তু ওই দামে বাজারে পাম অয়েল পাওয়া যায়নি। এক মাস আগে ছিল ১৪০ টাকা লিটার। এক সপ্তাহ আগে ছিল ১৫০ টাকা। দুই দিন আগে ছিল ১৬০ টাকা। রোববার বাজারে প্রতি লিটার পাম অয়েল বিক্রি হয়েছে ১৭৫ টাকা।

বাজার তদারকি সংস্থা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, তেল নিয়ে যাতে ঈদের আগে নতুন করে নৈরাজ্য না হয়, সেদিকে লক্ষ রাখা হচ্ছে। ইতোমধ্যে দাম বেড়ে যাওয়ার তথ্য আমাদের কাছে এসেছে। আমরা ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করব। কোনো দেশ এখন যদি রফতানি বন্ধ করে, এতে দেশের বাজারে এখনই দাম বেড়ে যাওয়ার কথা নয়। কারণ এই প্রভাব বাজারে পড়তে সময় লাগবে। আমরা তা খতিয়ে দেখছি। পাশাপাশি ভোজ্যতেল নিয়ে যাতে কোনো ধরনের কারসাজি বা কৃত্রিম সংকট না করতে পারে, সেজন্য পর্যাপ্ত নজরদারি করা হচ্ছে। মিল থেকে শুরু করে পাইকারি ও খুচরা পর্যায়ে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। মিলে কী পরিমানে মজুত আছে, সে হিসাব নেওয়া হচ্ছে। কী দরে আমদানি করা হয়েছে, সেদিকে লক্ষ রাখা হচ্ছে। এছাড়া ব্যবসায়ীরা তেলের দাম বাড়াতে প্রস্তাব দিয়েছে। ঈদের পর সভা করে দাম বাড়ানো হবে কি না, এ বিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত দেবে। পরিস্থিতি যা হোক, তেল নিয়ে আর নৈরাজ্য হতে দেওয়া হবে না।

বাংলাদেশ পাইকারি ভোজ্যতেল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ গোলাম মাওলা বলেন, ইন্দোনেশিয়ার এ নিষেজ্ঞার কারণে সব ধরনের ভোজ্যতেলের দাম বাড়বে। এরই মধ্যে বাজারে ভোজ্যতেলের দাম বেড়েছে, সামনে আরও বাড়বে।

সূত্র জানায়, দেশে বছরে শিল্প ও খাদ্য মিলে সাড়ে ২৪ লাখ টন ভোজ্যতেলের চাহিদা রয়েছে। এর মধ্যে ২০ লাখ টন ব্যবহৃত হয় খাদ্য হিসাবে। বাকি ৪ লাখ টনের বেশি ব্যবহৃত হয় শিল্প খাতে। দেশে মোট চাহিদার ৬৭ শতাংশই পাম অয়েল দিয়ে মেটানো হয়। এর মধ্যে খাদ্যের চাহিদা ৫৮ শতাংশ। ৩৭ শতাংশ মেটানো হয় সয়াবিন তেল এবং বাকি ৫ শতাংশ অন্যান্য তেল দিয়ে। সয়াবিনের চেয়ে পাম অয়েলের আমদানি বেশি হলেও বাজারে বেশি পাওয়া যায় সয়াবিন তেল। অনেক সময় সয়াবিনের নামে পাম অয়েল বিক্রি করার অভিযোগ পাওয়া যায়।


আরও খবর



আমদানি বন্ধ থাকলেও বাড়েনি পেঁয়াজের দাম

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশীয় কৃষকের স্বার্থ বিবেচনা করে আমদানি বন্ধ রাখা হলেও খুচরা বাজারে এখনও দাম বাড়েনি পেঁয়াজের। তবে পেঁয়াজের দাম বাড়ার আশঙ্কা প্রকাশ করছেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা। রাজধানীর মিরপুর ১১, ১২ নম্বর এলাকা ও কালশী বাজার ঘুরে এমন তথ্য জানা যায়।

কালশী বাজার এলাকার আল-মদিনা জেনারেল স্টোরের মালিক মো. রহিম বলেন, আমি ৩৫ টাকায় পেঁয়াজের কেজি বিক্রি করছি। তিনদিন আগে দোকানের জন্য ১৭ কেজি পেঁয়াজ কিনেছিলাম। আগে কিনেছি বলেই কম দামে বিক্রি করছি। বাজার থেকে নতুন করে পেঁয়াজ কিনলে বুঝতে পারবো দাম বাড়ছে কিনা।

মিরপুর ১১ নম্বর এলাকার পাটোয়ারী জেনারেল স্টোরের মালিক আবু বক্কর সিদ্দিক পিন্টু বলেন, আমি আগের দামে পেঁয়াজ বিক্রি করছি। পেঁয়াজের আমদানি বন্ধ থাকলেও এখনও বাজারে প্রভাব পড়েনি। আমার মনে হয় ৩-৪ দিনের মধ্যে এর প্রভাব পড়বে। পেঁয়াজের দাম আবার বাড়তে পারে।

মিরপুর ১২ নম্বর এলাকার ডেইলি মার্ট জেনারেল স্টোরের মালিক শাহাদাত হোসেন বলেন, পাইকারি বাজারে পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে বাড়তি দামে কিনতে হচ্ছে। যে পেঁয়াজ কেজি ২৩ টাকা দিয়ে কিনেছি তা কিনতে হয়েছে ২৭ টাকায়। আর দোকানে বিক্রি করছি ৩৫ টাকায়। এছাড়াও উন্নতমানের পেঁয়াজ কিনছি ৩২ থেকে ৩৫ টাকায়, বিক্রি করছি ৪০ টাকায়। কিছু মানুষ অকারণে পাইকারি বাজারে গিয়ে বেশি বেশি পেঁয়াজ কিনছেন। এর ফলে বাজারে পেঁয়াজের সংকট সৃষ্টি হতে পারে। বাড়তে পারে দামও।

এর আগে দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম ৪০ টাকার উপরে উঠলে আবারও ভারত থেকে ইমপোর্ট পারমিটের (আইপি) অনুমোদন দেওয়া হবে বলে জানান বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও ডিজিটাল কমার্স সেলের প্রধান এএইচএম সফিকুজ্জামান। একইসঙ্গে আইপি বন্ধে পেঁয়াজের দামে কোনো প্রভাব পড়বে না বলে জানান তিনি।

নিউজ ট্যাগ: পেঁয়াজের দাম

আরও খবর



করোনা শনাক্ত ৩৩ জনের, মৃত্যু নেই

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা যাননি। এই সময়ে ৩৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। রবিবার (১৫ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ৫৩ হাজার ১২ জনে। শনাক্তের হার শূন্য দশমিক ৮৬ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে কারো মৃত্যু হয়নি। ফলে মোট মারা যাওয়ার সংখ্যা ২৯ হাজার ১২৭ জন অপরিবর্তিত রয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২৬৯ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৮ লাখ ৯৯ হাজার ৪১৯ জন।

২৪ ঘণ্টায় ৩ হাজার ৮৮৪টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ৩ হাজার ৮১৮টি নমুনা। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার শূন্য দশমিক ৮৬ শতাংশ। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৯০ শতাংশ।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। গেল বছরের ৫ ও ১০ আগস্ট দুদিন সর্বাধিক ২৬৪ জন করে মারা যান।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর