Logo
শিরোনাম

জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে আকিজ গ্রুপ

প্রকাশিত:রবিবার ২১ মার্চ 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৯৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে আকিজ গ্রুপ। প্রতিষ্ঠানটিতে কাস্টমার সাপোর্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ পদে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

পদের নাম: কাস্টমার সাপোর্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ।

পদসংখ্যা: মোট ১৫ জন।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা

স্বীকৃত যেকোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে যেকোনো বিষয়ে স্নাতক পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীর এক বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। তবে অভিজ্ঞতা ছাড়াও আবেদন করা যাবে। ইংরেজিতে কথা বলার দক্ষতা থাকতে হবে। ভিডিও কলে কথা বলার মনোবল ও আত্মবিশ্বাস থাকতে হবে। ২২ থেকে অনূর্ধ্ব ৩০ বছর বয়স পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। শুধু নারী প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

কর্মস্থল: ঢাকা।

বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে।

আবেদনের পদ্ধতি: আগ্রহী প্রার্থীরা বিডিজবস অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন অথবা সিভি ই-মেইল করতে পারবেন ([email protected]) এই ঠিকানায়।

আবেদনের শেষ তারিখ: ৩১ মার্চ, ২০২১।

সূত্র : বিডিজবস

নিউজ ট্যাগ: আকিজ গ্রুপ

আরও খবর

সারা দেশে নিয়োগ দেবে কাজী ফার্মস

মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১




বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ১৩ কোটি ৪৫ লক্ষাধিক

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৬১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ১৩ কোটি ৪৫ লাখ আট হাজার ৫৩২ জন। প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২৯ লাখ ১৪ হাজার ৭৭৪ জনের।

বিশ্বে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছে ১০ কোটি ৮৩ লাখ চার হাজার ১১২ জন এবং বর্তমানে আক্রান্ত অবস্থায় রয়েছে দুই কোটি ৩২ লাখ ৮৯ হাজার ৬৪৬ জন।

সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার হার ৯৭ শতাংশ এবং মারা যাওয়ার হার ৩ শতাংশ। বিশ্বে বর্তমানে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় রয়েছে এক লাখ এক হাজার ৬১৯ জন এবং বাকিদের অবস্থা স্থিতিশীল।

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় সবার ওপরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে তিন কোটি ১৭ লাখ ১৭ হাজার ৪০৪ জন এবং মারা গেছে পাঁচ লাখ ৭৩ হাজার ৮৫৬ জন।

বিশ্বে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের পর যথাক্রমে রয়েছেব্রাজিল, ভারত, ফ্রান্স, রাশিয়া, ব্রিটেন, ইতালি, তুরস্ক, স্পেন ও জার্মানি।

ব্রাজিলে আক্রান্ত হয়েছে এক কোটি ৩২ লাখ ৮৬ হাজার ৩২৪ জন এবং মারা গেছে তিন লাখ ৪৫ হাজার ২৮৭ জন। ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এক কোটি ৩০ লাখ ৫৭ হাজার ৯৫৪ জন এবং মারা গেছে এক লাখ ৬৭ হাজার ৬৯৪ জন।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর

মিয়ানমারে সেনা অভিযানে নিহত ৮২

রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১




শালাকে অস্ত্র দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে কারাগারে দুলাভাই

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৯ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে শালাকে ফাঁসাতে গিয়ে কারাগারে গেলেন সহযোগীসহ দুলাভাই। বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) গভীর রাতে গাংনীর দেবীপুর গ্রাম থেকে গ্রেফতার করে সকালে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এরা হচ্ছেন, মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার মুন্দা গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে রাহেদুল ইসলাম (২২) ও একই গ্রামের জাকিরুল ইসলামের ছেলে মুসতাকিন (১৮)।

জানা গেছে, রাহেদুল ইসলামের সঙ্গে গাংনীর দেবীপুরের খোরশেদ আলমের বোনের বিয়ে হয় সাত বছর আগে। রাহেদুলের সাথে বনিবনা না হলে তিন মাস আগে খোরশেদ আলম তার বোনকে বাড়িতে নিয়ে আসেন। এতে রাগান্বিত হয়ে খোরশেদকে ফাঁসাতে তার ঘরে আগ্নেয়াস্ত্র রেখে পুলিশে খবর দেয় রাহেদুল ও তার সঙ্গী মুসতাকিম।

খোরশেদের ঘরে গাজা রয়েছে বলে পুলিশকে খবর দিলে বামন্দী ক্যাম্প পুলিশের এসআই আবুল খায়ের ও এএসআই শরিফুল বিষয়টি তদন্তে গিয়ে আগ্নেয়াস্ত্র দেখতে পান। বিষয়টি গাংনী থানার ওসিকে জানানো হলে দুই সোর্সকে কৌশলে ডাকতে বলেন তিনি। দুজনকে ধরে জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে ফাঁসানোর কথা স্বীকার করলে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলুর রহমান বলেন, দুই সোর্সকে কৌশলে জিজ্ঞাসাবাদে আগ্নেয়াস্ত্র রাখার বিষয়টি স্বীকার করায় তাদের গ্রেফতার করা হয়। পরে সকালে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্ত্রীর লাঠির আঘাতে স্বামীর মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১ | ৯৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

যশোরের ঝিকরগাছায় স্ত্রীর লাঠির আঘাতে মুস্তাকিন হোসেন সুমন (২৮) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাতে তিনি মারা গেছেন। এ ঘটনায় তার স্ত্রী মিনা খাতুনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত সুমন ঝিকরগাছা উপজেলার মাগুরা ইউনিয়নের ফুলবাড়ি গ্রামের দাউদ হোসেনের ছেলে। আটক মিনা খাতুন দুই সন্তানের জননী। তিনি একই উপজেলার ঘোড়াদহ গ্রামের নিহান শেখের মেয়ে।

নিহতের ভাতিজা ফিরোজ হোসেন জানান, গত ১৪ মার্চ দুপুরে মিনা খাতুনের ভাই বোন ও মা তাদের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। এদিন বিকেলে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মিনা তার স্বামীর মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করলে সে আহত যায়।  এ সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে খুলনা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানকার চিকিৎসক সুমনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার করেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে এ্যাপালো হাসপাতালে ভর্তি করলে বুধবার (১৭ মার্চ) তার মৃত্যু হয়। গভীর রাতে সুমনের মরদেহ যশোর জেনারেল হাসপাতালে আনা হয়।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার (১৭ মার্চ) সকালে সুমনের মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে ঘাতক মিনা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। স্থানীয় মহিলারা তাকে ধরে ঘরের মধ্যে আটকে রেখে পুলিশকে সংবাদ দেয়। পরে পুলিশ তাকে থানায় নিয়ে যায়।

নিহত সুমনের প্রতিবেশিরা জানান, সুমন ও তার মা নাসিমাকে ইতিপূর্বে একাধিকবার মিনা মারপিট করেছে।

ঝিকরগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক জানান, সুমন ও তার স্ত্রীর মধ্যে প্রায় মারামারি হতো। ১৪ মার্চ দুজনের মধ্যে মারামারিকালে লাঠির আঘাতে স্বামী সুমন আহত হয়। 


আরও খবর



কালবৈশাখী ঝড়ের পূর্বাভাস

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৮৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সারাদেশের তাপমাত্রা আগামী ২৫ মার্চ পর্যন্ত আরও বাড়তে পারে। এরপর তাপমাত্রা কমে বৃষ্টিসহ কালবৈশাখী ঝড় হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আগামী ২৫ মার্চ পর্যন্ত তাপপ্রবাহ থাকতে পারে। এরপর থেকে তাপমাত্রা কমতে শুরু করবে। বিশেষ করে ২৭, ২৮ ও ২৯ মার্চ ভালো বৃষ্টি হতে পারে। সারাদেশেই কমবেশি ঝড়বৃষ্টি হতে পারে। কালবৈশাখী ঝড়ও হওয়ার আশঙ্কা আছে। মূলত তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় এ ঝড় হতে পারে।

এর আগে সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগসহ রাজশাহী ও পাবনা অঞ্চল এবং নীলফামারী জেলার উপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

পুর্বাভাসে আরও বলা হয়, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। এরপরের ৩ দিন আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে বলেও আবহাওয়ার পূর্বাভাসে উল্লেখ করা হয়।

এদিকে সোমবার (২২ মার্চ) দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে সীতাকুণ্ডে ৩৮ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ৩৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

নিউজ ট্যাগ: কালবৈশাখী ঝড়

আরও খবর



ছাত্র পেটানো কওমি আলেমের ছয় মাসের কারাদণ্ড

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কওমি মাদ্রাসায় নয় বছর বয়সী শিশুকে বেত্রাঘাতের ঘটনায় মায়ের করা মামলায় এক শিক্ষকের কারাদণ্ড দিয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একটি আদালত।

সম্প্রতি বিভিন্ন মাদ্রাসায় ছাত্র নিপীড়নের অভিযোগ উঠার মধ্যে প্রথম এমন রায় এল।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের কলেজ পাড়ার ক্বারীমীয়া ক্বেরাতুল কোরআন হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক মঈন উদ্দীনকে ছয় মাস থাকতে হবে বন্দি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মুখ্য বিচারিক হাকিম মাসুদ পারভেজ এ রায় দেন।

মামলার বিবরণ অনুযায়ী, ২০১৮ সালের ১১ ও ১৩ আগস্ট দুই দফায় নয় বছর বয়সী মো. ইব্রাহিমকে বেদম মারধর করেন শিক্ষক মঈন উদ্দীন।

পিটুনিতে ছেলেটির অবস্থা সঙ্গীন হয়ে পড়লে তাকে নিজেই হাসপাতালে নিয়ে যান। এ সময় খবর পেয়ে শিশুটির বাবা মা তাকে উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।

ইব্রাহিমের মা হোসনে আরা বেগম ২০১৮ সালের ২৯ আগস্ট আদালতে মামলার আবেদন করেন মঈন উদ্দীনের বিরুদ্ধে। আদালত তার আবেদন গ্রহণ করে পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ দেয়।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করা এপিপি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, সাক্ষ্যপ্রমাণে মঈন উদ্দীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীকে সহায়তা করা আইনজীবী নাছির মিয়া বলেন, ছেলেটিকে পড়া দিয়েছিলেন শিক্ষক মঈন উদ্দিন। সে পড়া না পাড়ায় তাকে বেত দিয়ে উন্মত্তের মতো পেটাতে থাকেন তিনি। এতে ছেলেটির সারা শরীরে দাগ বসে যায়।

রায় ঘোষণার সময় আদালতে শিশুটির বাবা মা ছিলেন না। তার চাচা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

আইনজীবী নাছির মিয়া বলেছেন, বিচারকের রায়ে বাদীপক্ষ সন্তোষ জানিয়েছে।

আসামিপক্ষে আদালতে ছিলেন সৈয়দ তানভীর কাউসার।

তিনি পিটুনি দেয়ার যুক্তি দেখিয়ে বলেন, ছাত্রকে শাসন করতে শিক্ষক হিসেবে তিনি (মঈন উদ্দিন) বেত্রাঘাত করেছিলেন। তবে অবস্থা বেগতিক দেখে কিন্তু নিজেই তার চিকিৎসা করান। আমি মনে করি তিনি ন্যায়বিচার পাননি। আমরা উচ্চ আদালতে আপিল করব।

বাংলাদেশে কওমি মাদ্রাসায় ব্যাপকভাবে ছাত্র পেটানো ও বলাৎকারের অভিযোগ আছে। এসব ঘটনায় প্রায়শই শিক্ষার্থীদের মৃত্যুর খবরও আসে গণমাধ্যমে। যা নিয়ে সম্প্রতি ব্যাপক আলোচনাও হচ্ছে।

গত এক সপ্তাহে চট্টগ্রামের হাটহাজারী, সাতকানিয়া ও রংপুরের গঙ্গাচড়ায় তিনটি ঘটনা সামনে এসেছে।

অভিভাবকদের মধ্যে ইদানীং এসব ঘটনা নিয়ে সচেতনতা বাড়ছে। তারা প্রায়ই মামলা করছেন। যদিও বিচারে সাজার হার বেশ কম।


আরও খবর