Logo
শিরোনাম

কাদের মির্জাকে বহিষ্কারের ২ ঘণ্টার মধ্যেই আদেশ প্রত্যাহার

প্রকাশিত:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৮৮জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার বিরুদ্ধে আনীত জেলা আওয়ামী লীগের অব্যাহতি ও কেন্দ্রের কাছে বহিষ্কারের সুপারিশ স্থগিত এবং প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে।

শনিবার তাকে দল থেকে চূড়ান্ত বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কাছে সুপারিশ এবং দলীয় সব কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারির ২ ঘণ্টার মধ্যেই সেটি প্রত্যাহার করে নেয় নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ।

নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম বলেন, কাদের মির্জার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে সত্যি; তবে এটি সম্পূর্ণভাবে দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার দায়িত্বে আছে। তার নির্দেশ তো অমান্য করতে পারি না। আমার অনুপস্থিতিতে নোয়াখালী জেলা সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী এমপি আমার বিষয়টি নিয়ে আলাপ করে চিঠিটি তিনি পাঠিয়ে দিয়েছেন। যাই হোক, মির্জা কাদেরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়টি অনিবার্য কারণবশত স্থগিত করলাম এবং এটা প্রত্যাহার করে নিলাম।

এর আগে শনিবার সন্ধ্যার পর নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় প্যাডে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যক্ষ এএইচএম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ একরামুল করিম চৌধুরী এমপির যৌথভাবে স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ সংবাদ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। পরবর্তীতে গণমাধ্যম কর্মীরা নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী এমপির মোবাইলে প্রেস বিজ্ঞপ্তির বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি তা নিশ্চিত করেছিলেন।

কিন্তু এর পরপরই নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম এ বিষয়ে তার বক্তব্য খণ্ডন করে উপরে উল্লেখিত বক্তব্য দিয়েছেন।

Share



আবদুল কাদের মির্জাকে দলীয় কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি

প্রকাশিত:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৬৪জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে সংগঠনের সব কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে। একইসঙ্গে তাকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য পদ থেকে বহিষ্কারের জন্য সুপারিশ করেছে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সংগঠন বিরোধী ও দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ এনে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ এই সুপারিশ করে।

এদিন সন্ধ্যা ৬টায় নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচ এম খায়রুল আলম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী স্বাক্ষরিত দলের প‌্যাডে কাদের মির্জাকে বহিষ্কারের সুপারিশের চিঠি গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে পাঠানো হয়।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী কাদের মির্জাকে দল থেকে বহিষ্কারের সুপারিশের চিঠির সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বিষয়টিকে সেনসিটিভ হিসেবে অবহিত করে এ বিষয়ে আর কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

আবদুল কাদের মির্জাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কারের জন্য সুপারিশ চিঠিতে বলা হয়েছে, বিগত কয়েক সপ্তাহ থেকে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা দলীয় নেতা ও কর্মীদের ওপর সন্ত্রাসী লেলিয়ে দিয়ে কয়েক জনকে গুরুতর আহত করেছেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটি ও জেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের সম্পর্কে বিভিন্ন সভা-সমাবেশে অশালীন বক্তব্য দিয়ে আসছেন।

পরিশেষে বলা হয়, সংগঠন বিরোধী উল্লেখিত কারণ ও দলীয় গঠনতন্ত্র পরিপন্থি কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে আব্দুল কাদের মির্জাকে দলের প্রাথমিক সদস্যপদ থেকে চূড়ান্তভাবে বহিষ্কার করার জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ও কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ সমীপে সুপারিশ পেশ করা হলো।

এ বিষয়ে জানতে আবদুল কাদের মির্জার ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।


Share



চতুর্থ দফায় স্বেচ্ছায় ভাসানচর যাচ্ছেন ৩ হাজার রোহিঙ্গা

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৪২জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চতুর্থ দফায় চলতি সপ্তাহে কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফ শরনার্থী ক্যাম্প থেকে ভাষানচর যাচ্ছেন আরো ৩ হাজার রোহিঙ্গা সদস্য।

রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ও সোমবার তাদের টেকনাফের উখিয়া ট্রানজিট ক্যাম্পে নিয়ে আসা হচ্ছে। সেখান থেকে বাসযোগে সড়ক পথে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামের পতেঙ্গা বিএফ শাহিন কলেজ মাঠের ট্রানজিট ক্যাম্পে নিয়ে আসা হবে। সেখান থেকে বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর ৪টি জাহাজ যোগে তাদের ভাষানচরে নিয়ে যাওয়া হবে।

এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ সামছুর-দ্দৌজা নয়ন।

তিনি জানান, চতুর্থ দফায় যেসব রোহিঙ্গা সদস্য স্বেচ্ছায় ভাষানচর যেতে আগ্রহী তাদের নাম নিবন্ধন করা হয়েছে। চলতি সপ্তাহেই তাদের ভাষানচরে নিয়ে যাওয়া হবে। ইতোমধ্যে আগ্রহী রোহিঙ্গা সদস্যদের উখিয়া ডিগ্রি কলেজ মাঠের অস্থায়ী ট্রানজিক ক্যাম্পে এনে নিবন্ধন করানো হচ্ছে।

কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ঘিঞ্জি এবং অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ থেকে ভাষানচরে উন্নত সুযোগ সুবিধা থাকায় রোহিঙ্গারা ভাষানচরে যেতে আগ্রহী হচ্ছে বলে জানান শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার।

প্রসঙ্গত, গত তিন দফায় স্বেচ্ছায় ভাষানচর গেছেন ৬ হাজার ৭০০ রোহিঙ্গা। চতুর্থ দফায় যাচ্ছেন আরো তিন হাজার। ভাষানচরে যারা গেছেন তারা সেখানে উন্নত জীবন যাপনের সব সুযোগ সুবিধা ভোগ করছেন। তারা আত্মীয়স্বজনকেও ভাষানচর যেতে বার্তা পাঠাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

Share

করোনা টিকা নিলেন শেখ রেহানা

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১




রিজার্ভের অর্থ চুরির ঘটনায় ৬ দেশের ৪০ জন ব্যক্তি শনাক্ত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০২জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পাঁচ বছর আগে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় বাংলাদেশসহ ৬ দেশের ৪০ ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হয়েছে বলে জানান সিআইডির ফিন্যান্সিয়াল ক্রাইমের বিশেষ পুলিশ সুপার মোস্তফা কামাল। পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) চুরির মামলার তদন্ত প্রতিবেদন শেষ পর্যায়ে এখন চার্জশিটের প্রস্তুতি নিয়েছে।

২০১৬ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে (নিউইয়র্ক ফেড) রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের হিসাব থেকে ৮ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার চুরি হয়। যে ৪০ জন শনাক্ত হয়েছেন তাদের ২৫ জন ফিলিপাইনের। তাদের তথ্য যাচাই-বাছাই চলছে।

রিজার্ভ চুরির মামলার সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, তদন্তে ছয়টি দেশের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ, ভারত, চীন, শ্রীলঙ্কা, ফিলিপাইন, ও জাপান। ফিলিপাইন পুলিশের মাধ্যমে তথ্য দিয়েছে। শ্রীলঙ্কা, জাপান দিয়েছে ইন্টারপোলে। ভারত নানাভাবে সহযোগিতা করলেও চীন তথ্য দেয়নি।

৫শ ৬১ কোটি টাকা উদ্ধারে নিউইয়র্কের সাউদার্ন ডিসট্রিক্টের আদালতে একটি মামলা নিষ্পত্তির অপেক্ষা করছে সিআইডি। মামলাটি নিষ্পত্তি হলেই বাংলাদেশ ব্যাংকের দায়ের করা মতিঝিল থানায় সেই রিজার্ভ চুরি মামলার চার্জশিট দেবে।

রিজার্ভ চুরির ঘটনা ঘটিয়েছে আন্তর্জাতিক জালিয়াত চক্র এটি প্রথম থেকেই ধারণা করা হচ্ছে। চুরির ঘটনার পর ফিলিপাইন চক্রের দিকে নজর ছিল বেশি। সিআইডির প্রতিবেদনেও সেটি উল্লেখ করা হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনা পাঁচ বছর হলেও এখন আশার আলো দেখা যাচ্ছে।

নিউইয়র্ক ফেডারেল রিজার্ভ বা নিউইয়র্ক ফেডে রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে ৮ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার চুরি হয় ২০১৬ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি। এর মধ্যে বিভিন্ন সময়ে ফেরত আসে ১ কোটি ৫০ লাখ ডলার। এখনও রয়ে গেছে ৬ কোটি ৬০ লাখ ডলার বা ৫৬১ কোটি টাকা।

Share

মাদক মামলায় পারভিনের ১০টি বই পড়ার দণ্ড

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার এক আসামি গ্রেফতার

মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১




মিথ্যা প্রচারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন নাসির

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৪০জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মিথ্যা প্রচারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) স্ত্রী তামিমা তাম্মিকে সঙ্গে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এমনটি জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিয়ে করেন নাসির। পরে ১৯ ফেব্রুয়ারি হয়েছে বিবাহোত্তর সংবর্ধনা। তবে এরই মধ্যে অভিযোগ উঠেছে আগের স্বামীকে তালাক না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেছেন স্ত্রী তামিমা তাম্মি।

তবে এদিন নাসির বলেন, সংবাদ মাধ্যমে যেসব তথ্য আসছে তা সত্যি নয়। আর যারা মিথ্যে প্রচার করছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নাসিরের বিয়ে নিয়ে তৈরি হয় নতুন সমস্যা। তার স্ত্রী তামিমা তাম্মির এর আগে বিয়ে হয়েছিল রাকিব নামের একজনের সঙ্গে। ১০ বছর আগে রাকিবের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল তামিমার। নিকাহনামায় উল্লেখ করা আছে ২০১১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ৩ লাখ টাকা দেন মোহরে বিয়ে হয় তাদের।

স্বামী মো. রাকিব হাসানকে তালাক না দিয়েই জাতীয় দলের নাসির হোসেনের সঙ্গে বিয়ে করেছেন তামিমা তাম্মি। এ নিয়ে উত্তরা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন রাকিব। সেই ডায়েরিতে উঠে এসেছে নতুন এত তথ্য। তিনি দাবি করেন, রাকিব-নাসির ছাড়াও অন্য একজনের সঙ্গে ছয় মাস সংসার করছেন তমিমা।

উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি জিডি করেন রাকিব। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তারুজ্জামান ইলিয়াস। জিডির নম্বর ১৩/২৬।

সাধারণ ডায়েরি সূত্রে জানা যায়, ২০১১ সালে তামিমা তাম্মিকে বিয়ে করেন রাকিব। দাম্পত্য জীবনে তাদের একটি মেয়ে রয়েছে। এর মধ্যেই তামিমা অন্য এক ছেলের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ায়। ছয় মাস সংসার করার পর ফিরে আসে। পরে রাকিবের সঙ্গে ক্ষমা চেয়ে পার পায়। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি নতুন করে নাসিরের সঙ্গে ছবি ভাইরাল হলে রাকিব জানতে পারেন, তামিমা বিয়ে করেছেন।

জিডি করার কারণ উল্লেখ করে রাকিব বলেন, সংসারজীবনে বিবাদীর কাছে অনেক টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার রাখা আছে। এমনকি আমাকে তালাকও দেননি। টাকা ও অলঙ্কার চাইলে বিবাদী আমাকে ক্ষতি করবে বলে হুমকি দিয়েছেন।

Share

করোনা টিকা নিলেন শেখ রেহানা

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১

৭ কলেজের বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ সন্ধ্যায়

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১




স্পিনারদের দাপটেই কাটলো প্রথম সেশন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৬১জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সবার চোখ যখন খুঁজে বেড়াচ্ছিল সাকিব আল হাসানকে, তখন নড়েচড়ে বসার আগেই দিনের প্রথম উইকেট তুলে নেন তাইজুল ইসলাম। আগেরদিন সাবলীল ব্যাটিং করা এনক্রুমাহ বোনারকে স্লিপে দাঁড়ানো নাজমুল হোসেন শান্তর হাতে ক্যাচে পরিণত করেন তাইজুল ইসলাম। দিনের শুরুতেই আনন্দে ভাসে বাংলাদেশ দল।

সেই ওভারের চতুর্থ বলে কাইল মায়ারসের ব্যাটের কানায় লেগে সুযোগ আসে উইকেটরক্ষক লিটন দাসের কাছে। কিন্তু সেটি গ্লাভসবন্দী করতে পারেননি লিটন। তার কনুইয়ে লেগে বল চলে যায় স্লিপে দাঁড়ানো শান্তর কাছ দিয়ে। শুক্রবার ম্যাচের তৃতীয় দিনের প্রথম সেশনের পুরো চিত্রটাই যেন ফুঁটে ওঠে প্রথম ওভারের এই দুই বলে।

কেননা পুরো সেশনে বাংলাদেশ দল তিন উইকেট যেমন নিয়েছে, তেমনি অন্তত গোটা দুয়েক উইকেটের সুযোগও হাতছাড়া করেছে। তাইজুলের বলে লিটন দাসের ক্যাচ ছাড়ার পর নাঈম হাসানের বলে একটি রিভিউ নেয়নি বাংলাদেশ। এছাড়া ক্লোজ ইন ফিল্ড তথা শর্ট লেগ ও সিলি পয়েন্টেও ওঠে বেশ কিছু ক্যাচ। কিন্তু সেগুলো কাজে লাগাতে পারেনি টাইগাররা। ফলে প্রথম সেশনে আসেনি তিন উইকেটের বেশি।

আগেরদিনে করা ২ উইকেটে ৭৫ রান নিয়ে আজ খেলা শুরু করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। প্রথম সেশনে ৩৩ ওভার খেলে তারা ৩ উইকেট হারালেও, স্কোরবোর্ডে যোগ করেছে ১১৪ রান। বাংলাদেশের করা ৪৩০ রানের চেয়ে তারা পিছিয়ে রয়েছে ২৪১ রানে, হাতে রয়েছে পাঁচ উইকেট। দ্বিতীয় সেশনে খেলতে নামবেন দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান জার্মেইন ব্ল্যাকউড ও জশুয়া ডা সিলভা।

কুঁচকির চোটের কারণে মাঠে নামেননি সাকিব আল হাসান। তাকে ছাড়াই পুরো সেশন খেলেছে বাংলাদেশ দল। তাইজুলের প্রথম বলেই পাওয়া উইকেট দিয়ে শুরু হয় সেশন। আগেরদিনে করা ১৭ রানেই আউট হন বোনার। পরে ক্যারিবীয় অধিনায়ক ক্রেইগ ব্রাথওয়েটকে দারুণ এক টার্নিং ডেলিভারিতে বোকা বানান নাইম। এর আগেই ব্যক্তিগত ফিফটি তুলে নেন ব্রাথওয়েট, আউট হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ১১১ বলে ৭৬ রান।

প্রথম সেশনের প্রথম বলে উইকেট হারালেও, ৩৩ ওভারে যে ১১৪ রান করতে পেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, এর বড় কৃতিত্ব পাবেন অভিষিক্ত কাইল মায়ারস। চাপের মুখে ব্যাট করতে নেমে পাল্টা আক্রমণে রানের চাকা সচল রাখেন তিনি। মোস্তাফিজুর রহমানের ওভারে জোড়া চার দিয়ে শুরু করে নিয়মিতই বাউন্ডারি হাঁকাতে থাকেন মায়ারস। ক্যারিবীয়দের রানও বাড়তে থাকে তরতর করে।

ইনিংসের ৫০তম ওভারে আজ প্রথমবারের মতো আক্রমণে এসেই মায়ারসকে ফেরান মেহেদি হাসান মিরাজ। ওভারের শেষ বলে তার ভেতরে ঢোকা বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন ৭টি চারের মারে ৬৫ বলে ৪০ রান করা অভিষিক্ত মায়ারস। এর আগে ব্রাথওয়েট আউট হওয়ার ওভারেই এজ হয়ে আসা বল চলে যায় লিটনের দুই পায়ের ফাঁক দিয়ে, বেঁচে যান সেশন শেষে ৩৪ রানে অপরাজিত থাকা ব্ল্যাকউড।

এছাড়া একটি লেগ বিফোরের সিদ্ধান্তে রিভিউ নেয়নি বাংলাদেশ। রিপ্লেতে দেখা গেছে, সেই বলে আউট ছিলেন ব্যাটসম্যান। পরে মেহেদি মিরাজের বলে শর্ট লেগে দাঁড়ানো ইয়াসির রাব্বির হাতের কাছ দিয়ে চলে যায় একটি ক্যাচ। ইয়াসির রাব্বি আগেই উঠে দাঁড়ানোয় নাগাল পাননি সেই বলের। যার ফলে প্রথম সেশনে ৩ উইকেটের বেশি নিতে পারেনি বাংলাদেশ।

Share

বিসিবি আমাকে ছাড়লে আইপিএলে খেলব: মোস্তাফিজ

মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১