Logo
শিরোনাম

কোরবানি নিয়ে কোন ধরনের অব্যবস্থাপনা মেনে নেওয়া হবে না

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৩৯৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
পবিত্র ঈদুল আযহা বাঙালিসহ বিশ্বের অন্যান্য মুসলমানদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পর্ব। তবে কোরবানি উদযাপন করতে গিয়ে যাতে আমরা বিপদ ডেকে না আনি সেটা খেয়াল রাখতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল পদ্ধতিতে কোরবানির পশু ক্রয়-বিক্রয়কে উৎসাহিত করছেন। সেটি বাস্তবায়নে আমরা সবাই মিলে কাজ করছি

আসন্ন ঈদুল আযহায় কোরবানি নিয়ে কোন ধরনের অব্যবস্থাপনা মেনে নেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি।

বুধবার (১৪ জুলাই) রাজধানীর সচিবালয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষ্যে কোরবানির পশুর বিপণনে বিকল্প বাজার ব্যবস্থাপনা এবং প্রাণিজ পণ্যের বিপণন বিষয়ে মন্ত্রণালয় আয়োজিত এক ভার্চুয়াল সভায় সভাপতির বক্তব্যে মন্ত্রী একথা জানান।

এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, পবিত্র ঈদুল আযহা বাঙালিসহ বিশ্বের অন্যান্য মুসলমানদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পর্ব। তবে কোরবানি উদযাপন করতে গিয়ে যাতে আমরা বিপদ ডেকে না আনি সেটা খেয়াল রাখতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল পদ্ধতিতে কোরবানির পশু ক্রয়-বিক্রয়কে উৎসাহিত করছেন। সেটি বাস্তবায়নে আমরা সবাই মিলে কাজ করছি। সে কাজের প্রক্রিয়ায় যদি কেউ বাধা সৃষ্টি করে তাহলে ধরে নেওয়া হবে করোনাকালে মানুষের সমাগম এড়িয়ে সুন্দরভাবে কাজ করার প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্ত করা হচ্ছে। এটা আমরা কঠোরভাবে নেবো। কোরবানির ডিজিটাল ব্যবস্থাকে ব্যাহত করার কর্মকান্ডে কেউ সম্পৃক্ত হলে তাদের তাৎক্ষণিকভাবে আইনের আওতায় আনা হবে।

এ বিষয়ে তিনি আরো যোগ করেন, অনলাইন পদ্ধতিতে বিক্রি হওয়া কোরবানির পশু পরিবহনের ক্ষেত্রে যাদের প্রমাণাদি আছে তাদেরকে যাতে পথে হয়রানি করা না হয় সে বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। হয়রানি করলে সেটা চাঁদাবাজি হবে, ফৌজদারি অপরাধ হবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশ ব্যবস্থা নেবে। বাজারের নির্ধারিত এলাকার বাইরে পশু পরিবহন ও বিক্রয়ের ক্ষেত্রে কোনভাবেই হাসিল আদায় করা যাবে না। এটা নিশ্চিত করতে হবে। শেখ হাসিনা সরকার সকল প্রকার সহযোগিতা দিতে মানুষের পাশে আছে।

কোরবানির হাট-বাজারে যাতে চাঁদাবাজি বা ডাকাতি না হয় এজন্য স্থানীয় প্রশাসন ও আইন প্রয়োগে সম্পৃক্তদের নজরদারি বাড়ানোর জন্য এসময় নির্দেশনা দেন মন্ত্রী। ক্রেতা-বিক্রেতাদেরও এ বিষয়ে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান তিনি। সরকার এ বিষয়ে সহায়তা করবে বলেও আশ্বস্ত করেন তিনি।

প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাদের উদ্দেশে এসময় মন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে আপনাদের কাছ থেকে সর্বোচ্চ পরিশ্রম আশা করি। আমাদের কাজের জায়গা কোনভাবেই স্থবির করা যাবে না। তবে সবাইকে স্বাস্থাবিধি অনুসরণ করে কাজ করতে হবে। কোরবানি স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার সকল প্রস্তুতি নিতে হবে। বাজারে যাতে অসুস্থ বা রুগন্ পশু বিক্রয় না হয় সে বিষয়ে ভেটেরিনারি সার্জনরা কাজ করবে।

এসময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বরেন আমরা চাই কোরবানির জন্য প্রস্তুতকৃত ১ কোটি ১৯ লাখ গবাদিপশুর একটিও অবশিষ্ট থাকবে না। অনলাইনে ২৫ শতাংশ গবাদিপশু বিক্রয় হবে বলে আমরা আশা করছি।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব রওনক মাহমুদ, অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার, সুবোল বোস মনি ও মোঃ তৌফিকুল আরিফসহ মন্ত্রণালয়ের ঊধ্বর্তন কর্মকর্তাগণ সভায় অংশগ্রহণ করেন। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. খন্দকার আজিজুল ইসলাম, স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব দীপক চক্রবর্তী, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডাঃ শেখ আজিজুর রহমান, বিভাগীয় কমিশনারগণ, জেলা প্রশাসকবৃন্দ, বিভাগীয় মৎস্য দপ্তর ও প্রাণিসম্পদ দপ্তরের প্রধানগণ, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-এর সভাপতি শমী কায়সার, জেলা ও উপজেলা মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাগণ, গবাদিপশু ব্যবসায়ী সমিতির প্রতিনিধি, বাংলাদেশ ডেইরি ফারমার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধি প্রমুখ সভায় ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করেন।

এদিন সকালে মন্ত্রী নিজ নির্বাচনী এলাকা পিরোজপুরের নাজিরপুরে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে করোনা মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবহন শ্রমিকদের প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে মানবিক সহায়তা বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।


আরও খবর



লকডাউন নিয়ে নতুন নির্দেশনায় যা আছে

প্রকাশিত:রবিবার ২৭ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৭৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
সরকারি-বেসরকারি অফিস প্রতিষ্ঠানগুলো শুধুমাত্র প্রয়োজনীয় সংখ্যক কর্মকর্তা ও কর্মচারীর উপস্থিতি নিশ্চিত করতে নিজ নিজ অফিসের ব্যবস্থাপনায় তাদের আনা-নেওয়া করতে হবে

আগামীকাল সোমবার (২৮ জুন) সকাল ছয়টা থেকে ১ জুলাই সকাল ছয়টা পর্যন্ত সীমিত পরিসরে লকডাউনের ঘোষণা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। রবিবার (২৭ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

আগামী ৩ দিনের জন্য নতুন কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে প্রজ্ঞাপনে-

১. সারাদেশে পণ্যবাহী যানবাহন ও রিকশা ছাড়া সব গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী থেকে নিয়মিত টহলের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।

২. সব শপিংমল, মার্কেট, পর্যটনকেন্দ্র, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার ও বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ থাকবে।

৩. খাবারের দোকান, হোটেল-রেস্তোরাঁ সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খাবার বিক্রয় (শুধুমাত্র অনলাইন/টেক ওয়ে) করতে পারবে।

৪. সরকারি-বেসরকারি অফিস প্রতিষ্ঠানগুলো শুধুমাত্র প্রয়োজনীয় সংখ্যক কর্মকর্তা ও কর্মচারীর উপস্থিতি নিশ্চিত করতে নিজ নিজ অফিসের ব্যবস্থাপনায় তাদের আনা-নেওয়া করতে হবে।

৫. জনসাধারণকে মাস্ক পরার জন্য আরো প্রচার-প্রচারণা চালাতে হবে এবং প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।


আরও খবর



অনলাইনে মিলছে না ট্রেনের টিকিট

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

লকডাউন শিথিলের ঘোষণার পর সারাদেশে বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) থেকে ৩৮টি আন্তঃনগর, ১৯টি মেইল ও কমিউটার ট্রেন চলাচল করবে বলে জানায় বাংলাদেশ রেলওয়ে। রেলওয়ের এর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এবার টিকিট শুধু অনলাইনে পাওয়া যাবে কাউন্টারে বিক্রি করা হবে না।

মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) বিকেল থেকে অনলাইনে টিকিট পাওয়া যাবে এমন তথ্য জানানো হয়েছিল। কিন্তু বার বার চেষ্টা করেও যাত্রীরা অনলাইনে টিকিট সংগ্রহ করতে পারেননি। মঙ্গলবার রাতে রেলওয়ের পক্ষ থেকে আবার বলা হয়, বুধবার (১৪ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে অনলাইনে টিকিট পাওয়া যাবে। অনেক টিকেট প্রত্যাশী আজ সকাল ৮টা থেকে বার বার চেষ্টা করেও টিকিট সংগ্রহ করতে পারছেন না বলে অভিযোগ করেছেন।

ভুক্তভোগী ফহিম জানান, মঙ্গলবার বিকাল ৫টার পর থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত টিকিটের জন্য নির্ধারিত ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপসে প্রবেশের পর নো ট্রেন ফাউন্ড দেখতে পান। সন্ধ্যা ৭টার পর ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপসে গ্রাহকরা প্রবেশ করতে পারছিলেন না। এদিকে রাত পৌনে ৮টার দিকে ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপসে প্রবেশ করা সম্ভব হলেও নো ট্রেন ফাউন্ড লেখা দেখতে পান টিকিট প্রত্যাশী গ্রাহকরা। আরেক ভুক্তভোগী জানান, বুধবার (১৪ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে চেষ্টা করেও ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপসে প্রবেশ করতে পারেননি।

এর আগে, রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, ঈদকে সামনে আগামী ১৫ জুলাই থেকে সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে ২২ জুলাই পর্যন্ত ট্রেন চলাচল করবে। এক্ষেত্রে টিকেট শুধুমাত্র অনলাইনে পাওয়া যাবে। কাউন্টারে কোন টিকেট বিক্রি হবে না।


আরও খবর



দেশে করোনায় আরও ২২০ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ১২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত মোট ১৬ হাজার ৬৩৯ জনের মৃত্যু হলো।

সোমবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ১৩ হাজার ৭৬৮ জন, যা এক দিনে সর্বোচ্চ। জন। এ নিয়ে মোট শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ৩৪ হাজার ৯৫৭ জনে।

এ নিয়ে দেশে টানা ১৬ দিন করোনায় আক্রান্ত হয়ে শতাধিক ব্যক্তির মৃত্যু দেখল বাংলাদেশ। রোববার (১১ জুলাই) ২৩০ জনের মৃত্যু হয়। যা এখন পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।


আরও খবর



যুদ্ধবিরতি ভঙ্গ করে গাজায় ফের ইসরায়েলের বিমান হামলা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ জুলাই 2০২1 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ১০৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পশ্চিম তীরে অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে ফের বিমান হামলা চালিয়েছে দখলদার ইসরায়েল। আজ শুক্রবার (২ জুলাই) ভোরে এ হামলা চালানো হয়। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গাজায় হামাসের অবস্থান লক্ষ্য করে শুক্রবার ভোরের দিকে ইসরায়েল এই বিমান হামলা চালিয়েছে।

ইসরাইল ডিফেন্স ফোর্স (আইডিএফ) এক বার্তায় জানায়, গাজা থেকে বিস্ফোরকভর্তি বেলুন পাঠানোর জবাবে হামাসের অস্ত্রাগারে হামলা চালানো হয়েছে। সেখানে অস্ত্র সম্পর্কিত গবেষণা ও উন্নয়নের কাজ চলছিলো।

এ হামলার বিষয়ে হামাস এখনও কোনো মন্তব্য করেনি বলে জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।

এর আগে ১০ মে গাজা উপত্যকায় বিমান হামলা শুরু করে ইসরায়েল। এরপর থেকে ২১ মে পর্যন্ত ইসরায়েলি বিমান হামলায় গাজায় ২৮৯ ফিলিস্তিনি নিহত হন। অপরদিকে হামাসের ছোড়া রকেটে নিহত হন ইসরায়েলের ১৩ জন। পরে মিসরের মধ্যস্থতায় ২১ মে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হলে শান্ত হয় পরিস্থিতি। কিন্তু এ যুদ্ধবিরতিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে গাজায় বিমান হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েল বলে অভিযোগ হামাসের।


আরও খবর



‘মডার্নার আরও ৩৫ লাখ টিকা আসছে সোমবার’

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৫১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মার্কিন ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি মডার্নার তৈরি করোনা টিকার আরও ৩৫ লাখ ডোজ বাংলাদেশে আসছে। সোমবার ওই টিকার ডোজ দেশে পৌঁছাবে। শুক্রবার হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এমনটাই জানিয়েছেন। আন্তর্জাতিক টিকা বণ্টন কর্মসূচি কোভ্যাক্সের আওতায় এই টিকা পাচ্ছে বাংলাদেশ।

মার্কিন ওই কর্মকর্তা বলেছেন, এই কর্মসূচির আওতায় ইউক্রেনকেও মডার্নার টিকা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে পূর্ব ইউরোপীয় দেশটিতে এই টিকার ২০ লাখ ডোজ পাঠানো হয়েছে।

বিশ্বের অন্য দেশগুলোর সঙ্গে করোনা টিকা ভাগাভাগি করতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবেই বাংলাদেশ ও ইউক্রেনে এসব টিকা পাঠানো হচ্ছে বলেও জানান তিনি। ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, বিজ্ঞানীদের দল এবং উভয় দেশের নীতিনির্ধারণী কর্তৃপক্ষ নিরাপদ ও কার্যকর টিকা সরবরাহ নিশ্চিত করতে কাজ করছে।

কোভ্যাক্স কর্মসূচির আওতায় ইতোমধ্যেই মডার্না টিকার ২৫ লাখ ডোজ টিকা পেয়েছে বাংলাদেশ। গত ২ জুলাই রাত ১১টা ২২ মিনিটে মর্ডানার সাড়ে ১২ লাখ ডোজ টিকা দেশে এসে পৌঁছায়। পরদিন সকালে আসে আরও সাড়ে ১২ লাখ ডোজ টিকা। এখন দেশের বিভিন্ন টিকাকেন্দ্রে এই টিকা প্রয়োগ করা হচ্ছে।


আরও খবর