Logo
শিরোনাম

কোথায় কখন ঈদের জামাত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনা মহামারির কারণে গেল বছরের মতো এ বছরও জাতীয় ঈদগাহে ঈদের জামাত হবে না। তবে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে ঈদুল আজহার পাঁচটি জামাত হবে। রাজশাহীতে প্রধান জামাত হবে সকাল সাড়ে ৭টায় মাদ্রাসা ময়দানসংলগ্ন হজরত শাহ্ মখদুম (র.) কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে। খুলনায় টাউন জামে মসজিদে তিনটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। সিলেটের ঐতিহ্যবাহী শাহী ঈদগাহ ময়দানে এবার হচ্ছে না ঈদের জামাত। হজরত শাহজালাল (রহ.) মাজার মসজিদে জামাত হবে সকাল ৮টায়। ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ১২ জুলাই জারি করা বিজ্ঞপ্তি অনুসরণ করে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে এসব জামাতে অংশ নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

ঢাকা: ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সকাল ৭টায় বায়তুল মোকাররম মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে প্রথম জামাত। ইমামতি করবেন জ্যেষ্ঠ পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান। হাফেজ মুফতি মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভীর ইমামতিতে দ্বিতীয় জামাত হবে সকাল ৮টায়। তৃতীয় জামাত সকাল ৯টায়, ইমাম?তি করবেন হাফেজ মাওলানা এহসানুল হক। সকাল ১০টায় চতুর্থ জামাতে ইমাম থাকবেন হাফেজ মাওলানা মুহিউদ্দীন কাসেম। পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল পৌনে ১১টায়। এতে ইমামতি করবেন হাফেজ মাওলানা ওয়ালিয়ূর রহমান খান। এদিকে রাজধানীর গুলশান সেন্টাল মসজিদের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রথম জামাত হবে সকাল ৬টায়। দ্বিতীয়টি সকাল সাড়ে ৭টায় এবং তৃতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৯টায়।

রাজশাহী: শাহ মখদুম (রহ.) দরগার সুপারিনটেনডেন্ট মো. মুস্তাফিজুর রহমান জানান, এবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদগাহ ময়দানেই জামাত অনুষ্ঠিত হবে। সকাল সাড়ে ৭টায় ওই জামাতে ইমামতি করবেন জামেয়া ইসলামিয়া শাহ্ মখদুম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি মাওলানা শাহাদাত আলী। এখানে একটিই জামাত হবে। তবে বৃষ্টি হলে তা হবে না। তখন শাহ মখদুম (রহ.) দরগা মসজিদে দুটি জামাত হবে। প্রথম জামাতটি সকাল সাড়ে ৭টায়। পরেরটি ৮টায়।

খুলনা: জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, টাউন জামে মসজিদে প্রধান ও প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায়। ইমামতি করবেন খতিব মাওলানা মোহাম্মদ সালেহ। দ্বিতীয় জামাত সকাল ৯টায় এবং তৃতীয় ও শেষ জামাত সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে খুলনা সিটি করপোরেশন পরিচালিত বায়তুন নূর জামে মসজিদ কমপ্লেক্সে সকাল ৮টা ১৫ মিনিটে প্রথম ও সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হবে। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে সকাল ৭টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুয়েট) জামাত সকাল সাড়ে ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে। সরকারি বিএল কলেজ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায় জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

সিলেট: সিলেটের কোনো খোলা মাঠেই এবার ঈদের জামাত হবে না। রবিবার জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। এ তথ্য জানিয়েছেন সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। নির্ধারিত স্থানে পশু কোরবানি দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, রাস্তাঘাটে কোরবানির ময়লা আবর্জনা বা পশুর চামড়া ফেলে রাখবেন না। পশুর চামড়া বাসা-বাড়িতে রাখুন। প্রয়োজনে পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা সংগ্রহ করবে। কোনো অবস্থাতেই রাস্তায়, ড্রেনে, খাল বা ছড়ায় ফেলে দেবেন না।

সিলেটের হজরত শাহজালাল (রহ.) মাজার মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায়। একই সময়ে হজরত শাহপরান (রহ.) মাজার মসজিদ ও গাজী বুরহান উদ্দিন (রহ.) মাজার মসজিদে ঈদের জামাত হবে। বন্দর বাজারের কুদরত উল্লাহ জামে মসজিদে সকাল ৭টা, ৮টা ও ৯টায় জামাত অনুষ্ঠিত হবে। একই এলাকার কালেক্টরেট জামে মসজিদে ঈদের জামাত সকাল ৭টায়, ৮টায়, ৯টায় ৩টি ঈদ জামাত হওয়ার কথা রয়েছে। এছাড়া সিলেটের বন্দরবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, তাঁতীপাড়া হাজী আব্দুল মুকিত জামে মসজিদ, হাওয়াপাড়া জামে মসজিদে সকাল ৮টায় ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর



করোনা: মৌলভীবাজারে শনাক্ত হার ১০০ শতাংশ

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ জুলাই ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগে ৫৯৫টি নমুনা পরীক্ষায় ২২৮ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে ১৩৬ জন সিলেট জেলার

মৌলভীবাজারে গত ২৪ ঘণ্টায় ২১ জনের করোনা নমুনা পরীক্ষায় সবারই রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। অর্থাৎ জেলাটিতে পরীক্ষা বিবেচনায় করোনাভাইরাসের শনাক্ত হার ১০০ শতাংশ।

রবিবার (৪ জুলাই) সন্ধ্যায় মৌলভীবাজার সিভিল সার্জন ডা. চৌধুরী জালাল উদ্দিন মুরশেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তবে পুরো সিলেট বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হার ৩৮.৩২ শতাংশ। এছাড়া বিভাগের ৪ জেলার মধ্যে মৌলভীবাজারেই সবচেয়ে কম নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এদিকে সিলেট জেলায় শনাক্ত হার ৩৫.৩৭ শতাংশ, সুনামগঞ্জে ৪১.৪৬ শতাংশ ও হবিগঞ্জে ৩৭.৯৩ শতাংশ।

জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগে ৫৯৫টি নমুনা পরীক্ষায় ২২৮ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে ১৩৬ জন সিলেট জেলার। সুনামগঞ্জ জেলার ১৭ জন, হবিগঞ্জের ২২ জন ও মৌলভীবাজারের ২১ জন। পাশাপাশি সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৩২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেটে করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে সিলেটে মোট মৃত্যু বেড়ে ৪৮৩ জন হয়েছে। সর্বমোট সিলেটে ২৬ হাজার ৭১৪ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে, যার মধ্যে ২৩ হাজার ৯৮০ জন সুস্থ হয়েছেন।

নিউজ ট্যাগ: মৌলভীবাজার

আরও খবর

বিরল প্রজাতির ২টি ‘ধুম কাছিম’ অবমুক্ত

মঙ্গলবার ০৫ জানুয়ারী ২০২১




খুলনার তিন হাসপাতালে প্রাণ গেল আরও ১৭ জনের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

খুলনায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে করোনায় ১৩ জন এবং উপসর্গে চারজন মারা গেছেন। এরমধ্যে খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে ৮ জন, গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চারজন ও জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মুখপাত্র ডা. সুহাস হালদার জানান, হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে করোনায় চারজন ও উপসর্গে চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

করোনায় মৃতরা হলেন- খুলনা মহানগরীর চানমারী এলাকার মমতাজ বেগম (৫৫), খালিশপুরের রহিমা পারভীন, সোনাডাঙ্গার মনোয়ারা বেগম (৫০) ও বাগেরহাটের ফকিরহাটের সুব্রত পাল (৪৫)। হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১৮০ জন।

গাজী মেডিকেল হাসপাতালের স্বত্বাধিকারী ডা. গাজী মিজানুর রহমান জানান, ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতরা হলেন, নগরীর বড় বয়রা এলাকার নোভা দাশ (৭৫), ডুমুরিয়ার নজরুল ইসলাম (৬৮), পাইকগাছার কপিলমুনির শোভা সাহা (৭৫) এবং বাগেরহাট সদরের মাহমুদা বেগম (৫৫)। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও ১৩৪ জন।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।

মৃতরা হলেন, নগরীর খালিশপুরের জিল্লু মিয়া(৬৫), রহিম নগরের আমির হোসেন (৬৫), রূপসার নন্দনপুরের শরিফুল ইসলাম (৫২), বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার শারমিন বেগম (৪৫) ও একই উপজেলার মারিয়া (৩৯)। এছাড়া চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৭০ জন।

খুলনার শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মুখপাত্র ডা. প্রকাশ দেবনাথ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে কোনো মৃত্যু হয়নি। করোনা শনাক্ত হওয়া ৪৫ জন রোগী ভর্তি রয়েছে। যার মধ্যে আইসিইউতে রয়েছেন ১০ জন। 



আরও খবর



প্রেমের জালে ফেলে আপত্তিকর ভিডিও ধারন : স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর বাসাবো এলাকা থেকে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার (৪ জুলাই) রাত আটটার দিকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত শিক্ষার্থীর ফুপা জানান, বাসাবো এলাকার এক কিশোর ওই স্কুলছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে। পরে সেই ভিডিও প্রচারের ভয় দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে মেয়েটিকে ব্ল্যাকমেল করে অনেক টাকা আদায় করে।

সম্প্রতি আরও টাকা দাবি করে কিন্তু মেয়েটি টাকা না দিতে পারায় ওই কিশোর আপত্তিকর ভিডিও এলাকায় ছড়িয়ে দেয়। আর বিষয়টি মেয়ের মা-বাবা জানতে পেরে তাকে বকাঝকা করেন। রবিবার রাতে ওই কিশোরী নানীর বাসায় গলায় ফাঁস দেয়। দরজা ভেঙে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। কিশোরীকে আত্মহত্যায় প্ররোচনার জন্য ওই কিশোরকে গ্রেপ্তারের দাবি জানান নিহত শিক্ষার্থীর ফুপা।

সবুজবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রবীন্দ্র নাথ সরকার বলেন, ওই শিক্ষার্থীর বাবা পরিবারের অন্য সদস্যদের নিয়ে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় থাকেন। নিহত শিক্ষার্থী বাসাবোতে তার নানীর বাসায় থেকে লেখাপড়া করত। কী কারণে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে, সেটি জানতে তদন্ত চলছে। নিহত শিক্ষার্থীর মরদেহ ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। নিহতের পরিবার অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরও খবর

মতিঝিলে গাড়ির গ্যারেজে আগুন

রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১




ঈদের ২য় দিনে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে যাত্রী ও যানবাহনের চাপ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৪৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঈদের দ্বিতীয় দিনে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে শিমুলিয়া ঘাটে বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) সকাল থেকে যাত্রী চাপ রয়েছে। শিমুলিয়া ঘাট দিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গ হতে বাংলাবাজার ঘাট দিয়ে ঢাকাগামী যাত্রী চাপও রয়েছে।

ঈদের ছুটিতে গ্রামের বাড়ি যাচ্ছেন অপরদিকে ঈদসহ বিভিন্ন কারণে দক্ষিণবঙ্গে যাওয়া যাত্রীরাও ফিরছেন ঢাকা। শিমুলিয়া ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে প্রায় সাড়ে তিন শতাধিক যানবাহন। এছাড়া, লঞ্চগুলোতে ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রীবহন করতে দেখা গেছে। তবে কোথাও মানা হচ্ছেনা স্বাস্থ্যবিধি।

এ বিষয়ে বিআইডাব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক মোঃ মাহাবুবুর রহমান বলেন, সকাল থেকে এ নৌরুটে ১৪টি ফেরি চলাচল করছে। সকাল থেকে যাত্রীর পাশাপাশি বেড়েছে যানবাহনের চাপ।


আরও খবর



কুষ্টিয়ায় সর্বোচ্চ শনাক্ত ১৯৫, মৃত্যু ৫

প্রকাশিত:রবিবার ২৭ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ১০০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কুষ্টিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৭৭ নমুনা পরীক্ষা করে ১৯৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। জেলায় এটিই এখন পর্যন্ত এক দিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত। এ সময়ে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ হাজার ১৮৫ জন এবং মারা গেছেন ১৮৫ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ হাজার ২৮০ জন। শনিবার (২৭ জুন) রাতে কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসকের অফিস এ তথ্য জানিয়েছে।

নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৩৪ দশমিক ৬৩ শতাংশ। নতুন করে শনাক্ত হওয়া ১৯৫ জনের মধ্যে কুষ্টিয়া সদরের ৬৩ জন, দৌলতপুরের ২৪ জন, কুমারখালীর ৩৬ জন, ভেড়ামারার ২৯ জন, মিরপুরের ২২ জন ও খোকসার ২১ জন রয়েছেন। মৃত পাঁচজনের মধ্যে দুজন কুমারখালী উপজেলার, একজন করে মিরপুর, খোকসা ও সদর উপজেলার বাসিন্দা।

এ পর্যন্ত জেলায় ৫৯ হাজার ৭৯৮ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য নেওয়া হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন পাওয়া গেছে ৫৮ হাজার ৩০৩ জনের। বাকিরা নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদনের অপেক্ষায়।

বর্তমানে কুষ্টিয়ায় সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ৭২০ জন। তাদের মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১৬৪ জন এবং হোম আইসোলেশনে আছেন ১ হাজার ৫৫৬ জন।

গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সবধরনের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান, শিল্প-কারখানা, শপিংমল, দোকান, রেস্টুরেন্ট ও চায়ের দোকান বন্ধ থাকবে। তবে কাঁচাবাজার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান সকাল ৭টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা রাখা যাবে। পর্যটনকেন্দ্র, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার ও বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ থাকবে। আন্তঃজেলা ও দূরপাল্লার সবধরনের পরিবহন বন্ধ থাকবে।

এদিকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালকে করোনাভাইরাস ডেডিকেটেড হাসপাতাল হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। জেনারেল হাসপাতালে শুধু করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসা দেওয়া হবে। তবে প্রসূতি ও নবজাতকদের জন্য স্ক্যান ও গুরুতর রোগীদের জন্য সিসিইউ ওয়ার্ড চালু থাকবে। এ ছাড়া ২৪ ঘণ্টা হাসপাতালে জরুরি সেবা খোলা থাকবে। তবে এ সময় বহির্বিভাগ বন্ধ থাকবে।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. তাপস কুমার সরকার বলেন, কুষ্টিয়ায় হু হু করে বাড়ছে করোনা। করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে যাওয়ায় চাপ সামাল দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। হাসপাতালের দোতলার সবকটি ওয়ার্ডে করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য ২০০ শয্যা স্থাপন করা হয়েছে।


আরও খবর