Logo
শিরোনাম

করোনা: বিশ্বজুড়ে কমেছে প্রাণহানি, শনাক্ত ৬ লাখ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চলমান করোনা মহামারিতে বিশ্বজুড়ে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। একইসঙ্গে আগের দিনের তুলনায় কমেছে নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন প্রায় দেড় হাজার মানুষ। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা নেমে এসেছে পৌনে ৬ লাখের নিচে।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ৪৯২ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে দুই শতাধিক। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৬২ লাখ ৮২ হাজার ৬২ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৭১ হাজার ১০২ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে প্রায় ২০ হাজার। এতে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫১ কোটি ৯০ লাখ ৪ হাজার ৭০৪ জনে।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর



প্রাথমিক শিক্ষক পদে নিয়োগ পেতে কোন লেনদেন না করার আহবান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ পেতে প্রতারক চক্রের প্রলোভনে প্রলুব্ধ হয়ে কোন প্রকার অর্থ লেনদেন না করতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। আজ মন্ত্রণালয়ের এক সতর্কিকরণ বিজ্ঞপ্তিতে এই আহ্বান জানানো হয়।

এতে বলা হয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে কোন ধরণের অবৈধ হস্তক্ষেপের সুযোগ নেই। এমতাবস্থায় দালাল বা প্রতারক চক্রের প্রলোভনে প্রলুব্ধ হয়ে কোন প্রকার অর্থ লেনদেন না করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ করা হল। অর্থ লেনদেন বা অন্য কোন অনৈতিক উপায়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ পাওয়ার কোন সুযোগ নেই।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতেই চাকুরি হবে। কেউ অর্থের বিনিময়ে চাকুরি দেয়ার প্রলোভন দেখালে তাকে নিকটস্থ থানায় সোপর্দ করা অথবা থানা বা গোয়েন্দা সংস্থাকে অবহিত করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ ২০২০-এর দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপের লিখিত পরীক্ষা আগামী ২০ মে এবং ৩ জুন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন জেলায় অনুষ্ঠিত হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম নিয়োগ বিধি অনুসরণ করে সম্পূর্ণ স্বচ্ছতা ও নিরপেক্ষতার সাথে সম্পন্ন করা হয়। প্রার্থীদের রোল নম্বর, আসন বিন্যাস, প্রশ্নপত্র প্রেরণ ও মুদ্রণ, উত্তরপত্র মূল্যায়ন, ফলাফল প্রস্তুতসহ যাবতীয় কাজ সফটওয়ারের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে করা হয়। এছাড়া জেলা প্রসাশন ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় পরীক্ষা কেন্দ্রের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে এবং গোয়েন্দা তৎপরতা জোরদার করা হয়েছে বলে এতে উল্লেখ করা হয়।


আরও খবর



নিবন্ধিত হলেও ৬৫ বছরের বেশি বয়সীরা হজে যেতে পারবেন না

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৫১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আগে নিবন্ধিত হলেও ৬৫ বছরের বেশি বয়সীরা এবার হজে যেতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান। সোমবার (২৫ এপ্রিল) সচিবালয়ে এক আলোচনা সভায় এ কথা জানান তিনি। 

মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস নগদইসলামিক অর্থ ব্যবস্থাপনায় ডিজিটাল লেনদেন শীর্ষক এই আলোচনা সভায়  এ কথা জানানো হয়। সেখানে বলা হয় আগে নিবন্ধিত হলেও ৬৫ বছরের বেশি বয়সীলা হজে যেতে পারবেন না।

যারা আগে নিবন্ধন করেছেন কিন্তু বয়স ৬৫ বছরের বেশি তারা এবার হজে যেতে পারবেন কিনা- জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী বলেন, না, তারা যেতে পারবেন না। ইন্টারন্যাশনালি বিশ্বের সঙ্গে একই সিস্টেমে চলছে। ৬৫ বছরের বেশি যাদের বয়স হয়েছে, তারা যেতে পারবেন না।

চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে ৫৭ হাজার ৮৫৬ জন হজে যেতে পারবেন বলে ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে। এর আগে দু বছর করোনার কারণে বাইরের দেশের কেউ হজে অংশ নিতে পারেনি।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিগত দুটি বছর পবিত্র হজ পালন করা সম্ভব হয়নি। আল্লাহর অশেষ রহমতে এ বছর আমরা হজ করতে যাচ্ছি। সৌদি আরবের সঙ্গে যে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি সেটাও হয়ে যাবে।

অন্যান্য বছর হজের প্রক্রিয়া শেষ করতে ৪-৬ মাস সময় পাওয়া যায় উল্লেখ করে তিনি বলেন, এবার সময় মাত্রা ৩৪ দিন। ৩৪ দিনে এই কর্মযজ্ঞ আল্লাহ তায়ালা যদি পরিত্রাণ দেওয়ার ব্যবস্থা করেন, এছাড়া করার কোনো উপায় নেই। আমরা শুক্র ও শনিবারও অফিস খোলা রেখে কাজ করেছি।


আরও খবর



আজকের রাশিফল

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ১০৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

৬ মে ২০২২ শুক্রবার, চাকরি থেকে ব্যবসা, স্বাস্থ্য থেকে পরিবার, কেমন যাবে আপনার আজকের দিন? জানুন শুক্রবারের রাশিফল।

মেষ রাশি: আজ মেষ রাশির জাতকদের পারিবারিক জীবন উত্থান-পতনে পূর্ণ হবে। আপনার কঠোর পরিশ্রম এবং বোঝাপড়া আপনাকে জীবনকে সুখী করতে সাহায্য করবে। কর্মক্ষেত্রে আপনার কাজের প্রশংসা করা হবে। আপনার কর্মক্ষেত্রে বড় পরিবর্তন হতে পারে। পরিবারের পক্ষ থেকে আপনি চিন্তামুক্ত থাকবেন। আজকের শুরুটা ভালো হতে চলেছে। বন্ধু বা পরিবারের সঙ্গে আপনার একটি ভালো ভ্রমণ হবে।

বৃষ রাশি: আজকের দিনটি বৃষ রাশির জাতকদের জন্য পূর্ণ চটপটে থাকবে। কঠোর পরিশ্রমের ফল আজ অবশ্যই পাওয়া যাবে। কোনও বিশেষ ব্যক্তির সঙ্গে সাক্ষাৎ স্মরণীয় হয়ে থাকবে। কোনও বিবাহ অনুষ্ঠান বা মাঙ্গলিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন। মনের মধ্যে সুখ থাকবে। এই দিনে, আপনি আপনার গুরুজন এবং ভদ্রলোকদের সম্মান করার ক্ষেত্রে এগিয়ে থাকবেন। প্রেমের সম্পর্কের ক্ষেত্রে সাফল্য আসবে।

মিথুন রাশি: মিথুন রাশির জাতকরা আজ কর্মক্ষেত্রে সাফল্য পাবেন। একটি নতুন ব্যবসা শুরু করার আইডিয়া মনে আসতে পারে বা এটি একটি বাস্তব রূপ নিতে পারে। আজ ভাগ্য আপনার সহায় হবে। পারিবারিক সুখ ভালো হতে চলেছে, আজ আপনি সুখী হবেন এবং এই দিনটি হাসি-আনন্দে কাটাবেন। আজ আপনি ভালো লোকেদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করবেন, যারা আপনাকে কাজে সাফল্য পেতে সহায়তা করবে এবং গাইড করবে।

কর্কট রাশি: কর্কট রাশির জাতকদের মন আজ খুশি থাকবে। পরিবারের সঙ্গে ভালো সময় কাটবে, ভ্রমণ উপভোগ করবেন ইত্যাদি। ব্যবসায় ভালো লাভ হবে। আজকের দিনটি আপনার জন্য একটি ভালো শুরু হতে চলেছে। পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে সুখ এবং সমর্থন পাবেন। আপনি যে কাজটি আপনার হাতে নেবেন তাতে আপনি সফল হবেন।

সিংহ রাশি: সিংহ রাশির জাতকদের ভাগ্য আজ তাঁদের সঙ্গে আছে। আজ কর্মক্ষেত্রে আপনার কর্মক্ষমতা ভালো হতে চলেছে। আপনার কথা বলার সুন্দর ধরণ আপনাকে যে কোনও ক্ষেত্রে সাফল্যের শিখরে নিয়ে যেতে সহায়ক হবে। কাজে সফলতা পাবেন। আপনি আজ একটি নতুন কাজ পেতে পারেন। এছাড়াও আজ আপনার মানসিক অলসতা শেষ হবে এবং আপনি চারদিক থেকে সুসংবাদ পাবেন।

কন্যা রাশি: কন্যা রাশির জাতকদের মন আজ উৎসাহে পরিপূর্ণ দেখাবে, ভাগ্য আপনার সঙ্গে আছে, কাজে উৎসাহ থাকবে। শিক্ষার্থীরা প্রতিযোগিতার ক্ষেত্রে সাফল্য পাবে। আপনি আপনার ইচ্ছা অনুযায়ী আপনার কাজের পরিকল্পনা সম্পূর্ণ করবেন। পারিবারিক সুখ ভালো থাকবে। আপনি আজ আপনার বন্ধু বা পরিচিতের সঙ্গে দেখা করবেন, যার কারণে আপনার মুখে খুশি প্রতিফলিত হবে।

তুলা রাশি: তুলা রাশির জাতক জাতিকারা সারাদিন সতেজ থাকবেন, সেই সঙ্গে আপনি আপনার কাজে সাফল্য পাবেন। ব্যবসায় অর্থ উপার্জনেরও পূর্ণ সম্ভাবনা রয়েছে। পারিবারিক কলহের অবসান হবে। আজ আপনি আপনার শত্রুদের আপনার উপর কর্তৃত্ব করতে দেবেন না, তবে আপনি তাদের পরাজিত করতে সফল হবেন। আপনি অবশ্যই পরিবারের সমর্থন পাবেন, তাই সাহস হারাবেন না এবং সামনে কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হোন। আজ ভাগ্য আপনার সঙ্গে যাচ্ছে।

বৃশ্চিক রাশি: বৃশ্চিক রাশির জাতকদের ভাগ্য আপনার সঙ্গে আছে, আপনি শুভ কাজে অংশ নেবেন। আপনার কথাবার্তা মিষ্টি হবে, যার কারণে আপনি অন্যকে আপনার দিকে আকৃষ্ট করবেন। আপনি আপনার চতুরতা এবং বুদ্ধিমত্তা দিয়ে আপনার কাজ সফল করবেন। কর্মক্ষেত্রে ভালো আর্থিক লাভ হবে। এছাড়াও আপনি টাকা সংরক্ষণ করতে পারেন। কর্মক্ষেত্রে প্রত্যাশিত সাফল্য অর্জিত হবে।

ধনু রাশি: ধনু রাশির জাতক জাতিকারা এই দিনে মাঠে আসা সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। আপনার সমস্ত কাজ সফল হবে। আজ ব্যবসায় উন্নতির সম্ভাবনা রয়েছে এবং স্বাস্থ্য সাধারণত ভাল থাকবে। অনেকদিন পর কারো সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পাবেন। আজ আপনি কিছু নতুন কাজ শুরু করতে পারেন, এটি আপনার জন্য উপকারী হবে। আপনার পরামর্শ অন্যদের জন্য দরকারী হবে। আপনি বিনোদনের মাধ্যমগুলিতে আগ্রহী হবেন।

মকর রাশি: আজকের দিনটি মকর রাশির জাতকদের জন্য খুব একটা ভালো যাবে না, তাদের একটি সংঘাতময় পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে। এমন সময়ে আপনি অবশ্যই পরিবারের সমর্থন পাবেন, তাই সাহস হারাবেন না এবং দৃঢ় থাকুন। আসন্ন কঠিন পরিস্থিতির মোকাবিলা করুন আজ কর্মক্ষেত্রে আপনার কর্মক্ষমতা ভালো হতে চলেছে। কর্মক্ষেত্রে আজকের দিনটি উপকারী প্রমাণিত হবে।

কুম্ভ রাশি: কুম্ভ রাশির জাতক জাতিকার দিনের শুরুটা ভালো যাচ্ছে। কাজ বা পারিবারিক সুখের জন্য আজকের দিনটি ভালো যাচ্ছে। আজ আপনি ভালো লোকেদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করবেন, যারা আপনাকে কাজে সাফল্য পেতে সহায়তা করবেন এবং গাইড করবেন। আজ ব্যবসায়ী শ্রেণী বিশেষ ভাবে ভালো ফল পাবেন, যার কারণে অর্থ ও লাভের যোগ হবে।

মীন রাশি: মীন রাশির জাতকদের জন্য আজকের দিনটি স্মরণীয় হবে। মিষ্টি কথাবার্তা এবং আপনার চতুরতার সাহায্যে আপনি কাজে সাফল্য পাবেন। আজ আপনি আপনার চতুরতার প্রমাণ দিয়ে কাজে সফল হবেন। যারা ভালো কাজ করছেন তারাও সিনিয়রদের দ্বারা প্রশংসিত হবেন। পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে সম্ভাব্য সব ধরনের সহযোগিতা পাওয়া যাবে।


আরও খবর



চীনে আটতলা ভবন ধসে নিখোঁজ ৩৯

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চীনের হুনান প্রদেশে আটতলা ভবন ধসে কমপক্ষে ২৩ জন আটকা পড়েছেন। নিখোঁজ রয়েছেন আরও ৩৯ জন। ঘটনাস্থলে অভিযান চালাচ্ছে জরুরি উদ্ধারকারী দল। এ খবর জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান।

স্থানীয় সময় শুক্রবার বিকেলে হুনানের চাংশা শহরে এই ঘটনা ঘটে। ভবনটি হোটেল, অ্যাপার্টমেন্ট ও সিনেমার হল হিসেবে ব্যবহার হতো। শনিবার সিটি কর্তৃপক্ষ ভবন ধসের বিস্তারিত তুলে ধরেন। কর্তৃপক্ষ বলছে, এখন পর্যন্ত পাঁচজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, ভবনের রড ও কংক্রিটের স্ল্যাব কেটে সেখানে শব্দ করছেন উদ্ধারকর্মীরা। কেউ আটকে আছেন কি না, তা নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করছেন। এখন পর্যন্ত ভবন ধসের কারণ নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

চীনে প্রায় সময় ভবন ধসে মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। দুর্বল অবকাঠামোর কারণেই এ ধরনের ঘটনা ঘটছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

নিউজ ট্যাগ: ভবন ধসে নিখোঁজ

আরও খবর



ঐতিহ্য হারাচ্ছে সিরাজগঞ্জের প্রাচীন জয়সাগর দীঘি

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৫১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাগরের কথা উঠলে চোখ বন্ধ করে শোনা যায় তীরে আছড়ে পড়া ঢেউয়ের শোঁ শোঁ আওয়াজ। উত্তাল ঢেউ, নিম্ন চাপের প্রভাবে গর্জে ওঠা। জলোচ্ছ্বাসের ভয় এসবের কোনটাই নেই সিরাজগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী জয়সাগরে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা দর্শনার্থী তবু ভিড় করছেন জয়সাগরের পাড়ে। জয়সাগর তো সাগর নয়। বিশাল এক দিঘি। বিশাল এ দীঘিটির স্বচ্ছ জল নিমিষেই ক্লান্তি দূর করে দেয় দর্শনার্থীদের।

সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলার সোনাখাড়া ইউনিয়নের নিমগাছি ও গোতিথা দুই মৌজার মধ্যে অবস্থিত এই জয়সাগর। নিত্যদিন দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে এই দীঘির পাড়ে আসেন অসংখ্য দর্শনার্থী। পথিকরা পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় দীঘির পাড়ে বসে ক্লান্তি দূর করে।

ঐতিহাসিক ও প্রাচীন এই দীঘিটি বেশ বিশালাকার। প্রাচীনকালে দীঘিটির দৈর্ঘ্য ছিল আধা মাইল, প্রস্থ ছিল আধা মাইল এর কিছু কম, অর্থাৎ আয়তন প্রায় ৫৮ একর ছিল। এই দিঘীটি নিয়ে অনেক লোককথা প্রচলিত আছে। সেন বংশীয় রাজা অচ্যূত সেন গৌড়াধিপতি ফিরোজ শাহর করদ রাজা ছিলেন। তার রাজধানী ছিল কমলাপুর।

জানা যায়, ফিরোজ শাহের পুত্র বাহাদুর শাহ অচ্যূত সেন রাজার কন্যা অপরূপ সুন্দরী ভদ্রাবতীকে দেখে মুগ্ধ হন। তিনি তাকে বিয়ে করার প্রস্তাব দেন। কিন্তু রাজা অচ্যূত সেন সম্মত না হওয়ায় বাহাদুর শাহ কমলাপুর আক্রমণ করে ভদ্রাবতীকে অপহরণ করে নিমগাছিতে নিয়ে যান। রাজা অচ্যূত সেন তাঁর সৈন্যবাহিনীসহ বাহাদুর শাহকে আক্রমণ করেন। নিমগাছি প্রান্তরে ব্যাপক যুদ্ধ হয়। বাহাদুর শাহের মুষ্টিমেয় সৈন্য সেনরাজের বিরাট সৈন্যবাহিনীর কাছে যুদ্ধে (১৫৩২-৩৪ খ্রি.) পরাজিত হন। এ বিজয় গৌরবের স্মৃতি হিসেবে এবং পরকালের কল্যাণের জন্য তিনি নিমগাছির কাছে জয়সাগার’ নামে এক দিঘি খনন করান।

যুদ্ধজয়ের কারণেই দিঘিটির নাম হয় জয়সাগর। ৪ পারে ২৮টি বাধা ঘাট দিয়ে জয়সাগর দীঘি তৈরি করা হলেও, বর্তমানে এ ঘাটের কোনো চিহ্ন নেই। বিশাল দীঘিটির ভিতরে রয়েছে ছোট ছোট কয়েকটি দীঘি। অতীতের জয়সাগরের জৌলুস আগের মতো আর নেই। সংস্কারের অভাবে দীঘির পাড় বিলীন হয়ে যাচ্ছে। দীঘি এলাকায় অবাধে গবাদি পশু চড়ানোয় এবং যত্রতত্র পশুর মলত্যাগে নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ। ঐতিহ্য রক্ষায় দীঘিটির সংস্কার বা উন্নয়নে কোন পদক্ষেপ না নেয়ায় দর্শনার্থীরা মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে এদিক থেকে। জয়সাগরের পূর্ব পাশে দর্শনার্থীদের বসার জন্য সিমেন্টের চেয়ার এবং টয়লেট রয়েছে। কিন্তু অযত্মের কারণে ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। দর্শনার্থীদের জন্য কোন সুযোগ সুবিধা না থাকায় দিন দিন ঐতিহ্য হারাচ্ছে প্রাচীন এ দর্শনীয় স্থান।

বিগত বছরগুলোতে শীত মৌসুমে বিভিন্ন প্রজাতির পাখী জয়সাগরে ভিড় করত। কিন্তু পরিবেশ বিপর্যয় ও শিকারিদের উৎপাতে অতিথি পাখীরা আর আসে না এখানে। এক সময় হাজার হাজার পাখির কলকাকলিতে মুখরিত থাকত, কয়েক বছর ধরে সেখানে বিরানভাব বিরাজ করছে।

জেলার উল্লেখযোগ্য পর্যটন স্থান হওয়া সত্ত্বেও আজ পর্যন্ত এ দীঘিটির উন্নয়ন ও রক্ষণাবেক্ষণের তেমন কোন উদ্যোগ নেয়া হয়নি। কয়েক শত বছরের ঐতিহ্যবাহী এ দীঘিটির সংস্কার ও উন্নয়নে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়া হলে জয়সাগর তার হারানো জৌলুস ফিরে পেয়ে হয়ে উঠতে পারে জেলার অন্যতম দর্শনীয় স্থান।

নিউজ ট্যাগ: জয়সাগর দীঘি

আরও খবর