Logo
শিরোনাম

করোনা: চট্টগ্রামে একদিনে রেকর্ড ১৫ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চট্টগ্রাম জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে গত এক দিনে আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে, যা সংক্রমণ শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ। সিভিল সার্জন কার্যালয় জানিয়েছে,  মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া এই ১৫ জনের মধ্যে ১০ জন চট্টগ্রাম মহগানগরী এলাকার এবং বাকি পাঁচজন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা ছিলেন।

এর আগে গত ১১ জুলাই চট্টগ্রাম জেলায় এক দিনে সর্বোচ্চ ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল। সেদিন ৭০৯ জনের মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছিল।

সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি জানান, চট্টগ্রামের ১২টি ল্যাবে ২৫৩৭টি নমুনা পরীক্ষা করে গত এক দিনে আরও ৯২৫ জনের করোনাভাইরাস পজিটিভি এসেছে। নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ৩৬ দশমিক ৪৬ শতাংশ।

নতুন রোগীদের মধ্যে ৫৫৩ জন মহানগরী এলাকার এবং বাকি ৩৭২ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। উপজেলাগুলোর মধ্যে রাউজানে ৮০ জন, হাটহাজারীতে ৬৮ জন এবং ফটিকছড়ি উপজেলায় ৪৭ জনের মধ্যে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এর আগে সোমবারে চট্টগ্রামে ৭৬৫ জনের মধ্যে সংক্রমণ ধরা পড়েছিল, মৃত্যু হয়েছিল ছয় জনের।

মহামারী শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত চট্টগ্রামে মোট ৭২ হাজার ৫৯২ জন কোভিড রোগী শনাক্ত হয়েছে; তাদের মধ্যে মারা গেছেন ৮৫৬ জন।


আরও খবর



কাঁচাবাজার এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয়ের সময়

প্রকাশিত:বুধবার ৩০ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৯৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সারাদেশে কেবল বিধিনিষেধ নয়, কঠোর বিধিনিষেধ পালনের প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার। এই বিধিনিষেধে শর্ত সাপেক্ষে কাঁচাবাজার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয়ের সময় নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার।

প্রজ্ঞাপনের ১২ নম্বর শর্তে স্পষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়েছে, কাঁচাবাজার এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে। সংশ্লিষ্ট বাণিজ্য সংগঠন/বাজার কর্তৃপক্ষ/স্থানীয় প্রশাসন বিষয়টি নিশ্চিত করবে।

এবারের কঠোর বিধিনিষেধের সামগ্রিক চিত্র আগের যেকোনো বিধিনিষেধের চেয়ে ভিন্নতর। জারি করা প্রজ্ঞাপন বাস্তবায়নে মাঠে নামানো হচ্ছে- সেনাবাহিনী, পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি। মাঠে থাকছে মোবাইল কোর্ট।

আজ এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। বলা হচ্ছে, আগামীকাল ১ জুলাই (বৃহস্পতিবার) ভোর ৬টা থেকে সারাদেশে ৭ দিনের জন্য জনসাধারণ ও যানবাহন চলাচল এবং বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান পরিচালনা বন্ধ থাকবে। কেবল জরুরি নয়, খুব জরুরি হলেই বের হওয়ার বৈধতার সুযোগ থাকছে নাগরিকদের।


আরও খবর



কঠোর লকডাউন দেখতে এসে আটক ১০০

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ১০১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

লকডাউনের প্রথমদিন কেমন যাচ্ছে, তা দেখতে অকারণে বাইরে বের হওয়ায় মিরপুর এলাকা থেকে শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া একই সময় অর্ধশতাধিক যানবাহনকে মামলা দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিরপুর বিভাগের উপ কমিশনার (ডিসি) আ স ম মাহাতাব উদ্দিন বলেন, আমাদের প্রতিটি থানার পুলিশ সদস্যরা মিরপুরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করছেন। কোনো যৌক্তিক কারণ ছাড়া ঘরের বাইরে আসায় শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

এছাড়া, কিছু যানবাহন আটকানো হয়েছে। সরকারের নির্দেশনা বাস্তবায়নে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত মিরপুর, গাবতলী, টেকনিক্যাল, শাহআলী, পল্লবী, মিরপুর, কাফরুলসহ বিভিন্ন এলাকায় দুজন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে এ অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।


আরও খবর

মতিঝিলে গাড়ির গ্যারেজে আগুন

রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১




থাইল্যান্ডে করোনা নিয়ন্ত্রণে কারফিউ জারি

প্রকাশিত:সোমবার ১২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ জুলাই ২০২১ | ৪২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনা নিয়ন্ত্রণে থাইল্যান্ড সোমবার রাজধানী ব্যাংককে কারফিউ জারি সহ নানা ধরনের কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এর ফলে এক কোটিরও বেশি লোককে কঠোর বিধি নিষেধের আওতায় পড়তে হচ্ছে।

করোনার উচ্চ সংক্রমণের ধরণ আলফা ও ডেল্টার কারণে দেশটিতে করোনা রোগী দ্রুতই বাড়ছে।

থাইল্যান্ডে এ পর্যন্ত তিন লাখ ২৬ হাজার ৩শরও বেশি লোক করোনায় আক্রান্ত এবং দুই হাজার ৭১১ জন মারা গেছে। তবে বেশিরভাগ সংক্রমণ ও মৃত্যু এপ্রিলে নতুন দফায় শুরু হওয়া করোনার কারণে হয়েছে।

রাজধানী ব্যাংককে রাত ৯টা থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত কারফিউ জারি ছাড়াও আরো নয়টি প্রদেশে কঠোর বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। 

একসাথে পাঁচজনের বেশি লোক একত্রিত হতে পারবে না। গণপরিবহন নেটওয়ার্কও রাত নয়টা থেকে বন্ধ থাকবে। সুপারমার্কেট, রেস্টুরেন্ট, ব্যাংক, ফার্মেসি ও ইলেকট্রনিক ছাড়া সকল দোকানপাট বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।



আরও খবর



ভূমিহীন মুক্তিযোদ্ধা এক মাসের ভাতার টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৭১জন দেখেছেন
Image

লালমনিরহাট প্রতিনিধি :

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাহার আলী (৮৯) করোনা পরিস্থিতে কর্মহীন ও অসহায় মানুষের কষ্ট দেখে তাঁর ১ মাসের মুক্তিযোদ্ধার ভাতার টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রান তহবিলে দান করেছেন।

আজ মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০ টায় মুক্তিযোদ্ধা আজাহার আলী এ সহায়তার টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দেওয়ার জন্য পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাইফুর রহমানের হাতে তুলে দেন।

পাটগ্রাম উপজেলার জোংড়া ইউনিয়নের জোংড়া গ্রামের ৫ নং ওয়ার্ডে বাড়ি। তিনি মৃত্যু তমকিন মোহাম্মদের ছেলে।

তিনি একজন ভূমিহীন মুক্তিযোদ্ধা তাঁর নিজস্ব কোনো জমি-জমা নেই। তাঁর রয়েছে স্ত্রী , চার ছেলে ও এক মেয়ে। ছেলে-মেয়েদের বিয়ে দিয়েছেন। বার্ধক্যের কারণে এখন ঠিকমতো চলাফেরা করতে পারেন না। অভাব অনটন নিত্যদিনের সঙ্গী। তিনি তাঁর অভাবের সংসারে টাকা ব্যয় না করে করোনায় কর্মহীন ও অসহায় ব্যক্তিদের খাদ্যসহায়তার জন্য ১২ হাজার টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দিয়েছেন।

এ বিষয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাহার আলী বলেন, করোনায় কর্মহীন ও অসহায় মানুষের জন্য আমি আমার সামর্থ অনুযায়ি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ত্রাণ তহবিলে সহায়তা করেছি। যাতে করে আমার দেখে সমাজের বৃত্তবানরা  করোনা পরিস্থিতে অসহায় মানুষের পাশে দাড়ায়। প্রধানমন্ত্রী দেশের সকল মানুষের মঙ্গলের জন্য দিন-রাত কাজ করছেন। এজন্য আমি প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করি মহান আল্লাহ তায়ালা তাঁকে যেন সুস্থ রাখে ও দীর্ঘায়ু দান করে।

পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাইফুর রহমান বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাহার আলী মহনুভবতার পরিচয় দিয়েছেন। তার উদারতায় আমরা অনুপ্রাণিত। তাঁর এই মহৎ উদ্যোগ দেখে যাতে করে সমাজের বৃত্তবানরা গরীব-অসহায়দের সহায়তায় এগিয়ে আসবে সেটাই আমার প্রত্যাশা।


আরও খবর



বৃষ্টির মধ্যে সেলফি তুলতে গিয়ে বজ্রপাতে ১১ জন নিহত

প্রকাশিত:সোমবার ১২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের রাজস্থানের রাজধানী জয়পুরে সেলফি তোলার সময় বজ্রপাতে ১১ জন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

জয়পুরের কাছাকাছি আমের প্যালেসের সামনে বজ্রপাতে তাদের মৃত্যু হয়।

বৃষ্টির মধ্যে ওয়াচ টাওয়ারে যখন তারা সেলফি তোলায় ব্যস্ত এমন সময় বজ্রপাত হয়। বজ্রপাতের সময় ২০ জনের মতো মানুষ ওয়াচ টাওয়ারে ছিলেন। ভয়ে ওয়াচ টাওয়ার থেকে লাফ দেওয়ার কারণে আহত হয়েছেন অনেকে।

রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলত নিহত প্রত্যেকের পরিবারকে পাঁচ লাখ রুপি করে অর্থ সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দেন।

এ ঘটনা ছাড়াও রাজ্যে রোববার বজ্রপাতে আরও ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে সাতজন শিশু। এ ঘটনায় শোক জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

রবিবার রাজস্থানের বিভিন্ন এলাকায় ভারি বৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে সোমবারও বৃষ্টি হতে পারে বলে জানানো হয়েছে।


আরও খবর