Logo
শিরোনাম

কটাক্ষকারীদের সপাটে বোমা ফাটালেন স্বস্তিকা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঘড়িতে রাত ৮টা। বোমা ফাটালেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। বুধবার ফেসবুকে নায়িকার পোস্ট বলুন দুদু, ডুডু নয়। নোংরামো করতে গেলেও শিক্ষা লাগে কাকু।

কিন্তু হঠাৎ কেন এমন কথা নায়িকার? আবার কী ঘটল? কয়েকদিন আগে মুক্তি পেয়েছে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের নতুন ছবির একটি মজার গান। আর তা নিয়েই একটি মন্তব্য দেখে বেজায় চটেছেন নায়িকা। এক বার নয়, একাধিক বার ওই নোংরা মন্তব্য করেছেন এক ব্যক্তি। আর তা দেখেই মাথা গরম অভিনেত্রীর।

স্বস্তিকা লেখেন, দেখছি বার বার লিখছে ডুডু। আমি যত দূর জানি মেয়েদের বুককে মজা করে দুদু বলা হত। এসেছে দুধ থেকে, কারণ শিশুদের জন্য আমাদের বুকের দুধের চেয়ে বেশি পুষ্টিকর খাদ্য এখনও কোনও বিজ্ঞানী আবিষ্কার করতে পারেনি। এই নিয়ে আলাদা চর্চার দরকার নেই, কিন্তু তাই বলে সব সময়ে এমন শুনতে হবে? আর নোংরামি করতে গেলেও একটু শিক্ষা লাগে। দুদু কে ডুডু বললে হয় না কাকু।

নিজস্ব মতামত নিয়ে বরাবরই স্পষ্টবক্তা স্বস্তিকা। এমন নানা বিষয়ে বার বারই সরব হয়েছেন অভিনেত্রী। এ ক্ষেত্রেও তার অন্যথা হয়নি। এ নিয়ে কী বলছে টলিপাড়া? আনন্দবাজার অনলাইন যোগাযোগ করেছিল অভিনেত্রী শ্রুতি দাসের সঙ্গে। স্বস্তিকার সুরেই তিনি বলেন, কিছু কিছু নোংরা মানসিকতার মানুষ আছে। যাদের চরিত্র কোনওদিন বদলাবে না।


আরও খবর

২৭ বছরের সম্পর্কে ইতি টানলেন মীর!

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২

বড় পর্দায় বাম-কংগ্রেস সন্ত্রাস

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২




টেক্সাসে লরির ভেতর থেকে ৪৬ মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 | ৪৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যে একটি লরির ভেতর থেকে অন্তত ৪৬ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার (২৮ জুন) এসব মরদেহ খুঁজে পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে, নিহতরা সবাই অভিবাসনপ্রত্যাশী। স্থানীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, আরও অন্তত ১৬ জনকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার হওয়া ব্যক্তিদের খুব ক্লান্ত বলে মনে হচ্ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, লরির মধ্যে ঠাসাঠাসি করে থাকার কারণে গরমের মধ্যে অসুস্থ হয়ে পড়েন তারা। সান অ্যান্তোনিওতে এখন উষ্ণ আবহাওয়া বিরাজ করছে এবং সোমবার সেখানে তাপমাত্রা ছিল ৩৯ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  সান অ্যান্তোনিও ফায়ার ডিপার্টমেন্টের প্রধান চার্লস হুড বলেন, লরির মধ্যে কোনো পানির ব্যবস্থা কিংবা সেটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ছিল না। রেফ্রিজারেটেড লরি হলেও বোর্ডে ‌কোনো দৃশ্যমান কার্যকরী কুলিং ইউনিট ছিল না।

কেএসএটি টেলিভিশনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গাড়িটি সান অ্যান্তোনিওর দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে রেল সংলগ্ন এলাকায় খুঁজে পাওয়া গেছে। নিউইয়ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘটনার পর থেকে গাড়ির চালক লাপাত্তা। সান অ্যান্তোনিওর পুলিশ কর্মকর্তারা তাকে ধরতে অভিযান শুরু করেছেন। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করার কথা জানিয়েছে পুলিশ।

টেক্সাসের সান অ্যান্তোনিও শহর মার্কিন-মেক্সিকান সীমান্ত থেকে প্রায় ২৫০ কিলোমিটার (১৫০ মাইল) দূরে অবস্থিত। টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট এসব মানুষের মৃত্যুর জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে দায়ী করেছেন। তিনি বলেছেন, বাইডেনের উন্মুক্ত সীমান্ত নীতির ফলাফল এটি।

মেক্সিকোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্সেলো ইব্রার্ড বলেছেন নিহতদের পরিচয় এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। কীভাবে এতোগুলো মানুষ মারা গেলো তা তাৎক্ষণিকভাবে স্পষ্ট নয় এবং স্থানীয় পুলিশ এখনও প্রকাশ্যে কোনো মন্তব্য করেনি।

নিউজ ট্যাগ: যুক্তরাষ্ট্র

আরও খবর



পেইনকিলারের বিকল্প জানালেন বিএসএমএমইউ উপাচার্য

প্রকাশিত:রবিবার ১২ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২ | ৯২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ব্যথা নিরাময়ের জন্য এলোমেলোভাবে ওষধু না খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ। সতর্ক করে তিনি বলেন, খেয়াল-খুশিমতো ব্যথার ওষুধ খেলে কিডনিসহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের ক্ষতি হতে পারে। রবিবার (১২ জুন) সকালে বিএসএমএমইউ-তে লো ব্যাক পেইন শীর্ষক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ব্লক মিলনায়তনে ফিজিক্যাল মেডিসিন, রিউমাটোলজি বিভাগ ও  নিউরো সার্জারি বিভাগ যৌথভাবে এই সেমিনার আয়োজন করে।

ব্যথার ওষুধে অনেক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে উল্লেখ করে উপাচার্য আরও বলেন, নির্দিষ্ট মাত্রায় ওষুধ ছাড়াও ব্যথা নিরাময়ে রেডিয়েশন, হিট থেরাপি দেওয়া যেতে পারে। শেষে অপারেশনের মাধ্যমে এই ব্যথা দূর করা হয়। অর্থাৎ কোমর ব্যথা নিরাময়ে শরীর চর্চা, নির্দিষ্টমাত্রার ওষুধ প্রয়োগ এবং সর্বশেষ অপারেশন করে লো ব্যাক পেইন প্রতিকার করা যায়। তবে নিয়ম-কানুন মেনে ব্যথা নিরাময় বা নিয়ন্ত্রণের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে। তবে এজন্য প্রয়োজনে ফিজিক্যাল মেডিসিন, রিউমাটোলজি ও নিউরো সার্জারির মতো বিশেষজ্ঞদের মতামত নেওয়ার পরামর্শ দেন তিনি। আর প্রয়োজন হলে এমআরআই, সিটিস্ক্যান করে কোন ধরনের চিকিৎসা লাগবে সেটি নির্ধারণ করা যায় বলেও জানান এই চিকিৎসক।

অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, অনেকের হাঁটতে গেলে, চলতে গেলে ব্যথা হয়। কারও পিঠে ব্যথা, কারও কোমরে ব্যথা হয়। কেউ নিচু হয়ে কিছু তুলতে গেলেও এমন ব্যথা হয়; যাতে তাকে সারা দিন শুয়ে থাকতে হয়। ব্যথার কারণে অনেকের মাসখানেক শক্ত বিছানায় শুয়ে থাকতে হয়। চেয়ারে বসে কাজ করতে গেলে অনেকে পিঠে ব্যথা অনুভব করেন।

এসব ব্যথা তিনটি কারণে হয়ে থাকে উল্লেখ করে তিনি বলেন, পিএলআইডি বা লাম্বার ইন্টার ভার্টিব্রাল ডিস্ক প্রল্যাপস, স্পাইনাল স্টোনোসিস, হার্নিয়েশন অব লাম্বার ডিস্কে ইনজুরি হলে এসব মিলে লো ব্যাক পেইন হতে পারে। এছাড়াও কোমরসহ মাসলে আঘাত লাগলেও ব্যথা হতে পারে। এমন ব্যথা নিরাময়ে নিচু হয়ে ভারী কিছু তোলা যাবে না। সেই সঙ্গে শরীরের ওজন যেন বৃদ্ধি না পায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আর শক্ত বিছানায় শোয়ার অভ্যাস করতে হবে। এসব মেনে চললে কোমর ব্যথা থেকে মুক্তি মিলবে।

সেমিনারে জানানো হয়, বেশিরভাগ মানুষের কোমরের ব্যথাই সাধারণ। কোমর ব্যথার শতকরা ৯০ ভাগ রোগীরই বিশ্রাম এবং কায়িক শ্রম করলে ভালো হয়ে যায়। অধিকাংশ কোমর ব্যথা নিয়ম-কানুন মানার মাধ্যমে প্রতিকার করা সম্ভব। এর বাইরে মেডিক্যাল ম্যানেজমেন্ট ও ফিজিক্যাল ম্যানেজমেন্টের মাধ্যমেও অধিকাংশ কোমর ব্যথার প্রতিকার সম্ভব।

ব্যথা নিরাময়ে স্টোরয়েড প্রয়োগ করা থেকেও বিরত থাকতে হবে উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, স্টেরয়েড শরীরের অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের ক্ষতি করতে পারে। উন্নত বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও ক্লুরোসকপি ও আলট্রাসাউন্ড গাইডেড ইন্টারভেনশন করা হয়। এর ফলে অপারেশন এড়ানো যায় এবং রোগীরা আর্থিক দিক থেকেও লাভবান হন।

সেমিনারে কি-নোট স্পিকার হিসেবে নিউরো সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন বলেন, কোমরের ব্যথার সঙ্গে পায়ের ব্যথা থাকলে পায়ের শক্তি কমে যায়, প্রস্রাব-পায়খানা বন্ধ হয়ে যায়; তখন এটিকে বলি আমরা রেড-ব্ল্যাক সাইন। এমন হলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। কোমরের ব্যথার অধিকাংশই ডিস্ক প্রল্যাপসই হয়ে থাকে। এছাড়াও কোমরে আঘাত পাওয়া, টিউমরার বা বয়স্ক লোকদের কোমরে পরিবর্তনসহ বিভিন্ন কারণে কোমরে ব্যথা হতে পার। কোমর ব্যথা নির্ণয়ের জন্য রেডিওলজি বিভাগে এমআরআই, সিটি স্ক্যান করে যদি দেখা যায়, নার্ভে চাপ দিয়ে আছে, স্পাইনাল কডে চাপ দিয়ে আছে, সেটি হলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে নিউরো স্পাইনাল সার্জারি বিভাগে যোগাযোগ করতে হবে। মেরুদণ্ডের যেকোনও ধরনের অপারেশনের জন্য দেশের বাইরে যাওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে এলেই এর সমাধান করা সম্ভব।

সেমিনারে নিউরো সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন, রিউমাটোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. আরিফুল ইসলাম, ফিজিক্যাল মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. তরিকুল ইসলাম মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। সেমিনারে প্যানেল এক্সপার্ট হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (অ্যাকাডেমিক) অধ্যাপক ডা. একেএম মোশররফ হোসেন, ফিজিক্যাল মেডিসিন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. আবু সালেক, নিউরোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী ও সেন্ট্রাল সাব-কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ডা. বেলায়েত হোসেন সিদ্দিক। নিউরোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সবুজ সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন।


আরও খবর

করোনায় ৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২১৮৩

বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২




বিএনপিকে বিদেশ থেকে চিকিৎসক আনার পরামর্শ কাদেরের

প্রকাশিত:শনিবার ১১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 | ৮২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় সরকার কোনো বাধা দিচ্ছে না বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় বিদেশ থেকে চিকিৎসক আনার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

আজ শনিবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বাজেট প্রতিক্রিয়া নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকার কি জন্য দায়-দায়িত্ব নেবে? শেখ হাসিনার উদারতা ও মানবিকতায় খালেদা জিয়া মুক্ত আছেন। বাসায় থাকার অধিকার পেয়েছেন তিনি। চিকিৎসার ব্যাপারে কোনো বাধা নেই। তাঁদের যদি এত ইচ্ছা হয় তাহলে দেশের বাইরে থেকে চিকিৎসক আনুক। এতে অসুবিধাতো নেই।

সরকারি নির্দেশনার পরেও কর্মকর্তাদের বিদেশ সফর ঠেকানো যাচ্ছে না, কর্মকর্তারা সরকারি যানবাহন পারিবারিক কাজে ব্যবহার করছেন। এমন অপচয় রোধে বাজেটে সুনির্দিষ্ট কোনো নির্দেশনা নেই এ বিষয়ে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, এটা বাজেটে কেন? প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়ে সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশে যাওয়া নিষিদ্ধ করে দিয়েছেন। কথায় কথায় চলে যাবে, যার ইচ্ছা সে বিদেশে চলে যাবে, এটা মন্ত্রী হোক বা কর্মকর্তা হোক কারও ব্যাপারে এটা আর উৎসাহিত করা হবে না। আর প্রধানমন্ত্রী নিজেইতো সামারিতে সই করেন, কিন্তু এখন আর সামারিতে সই করছেন না। কাজেই এ ব্যাপারে চিন্তার কোনো কারণ নেই।


আরও খবর



ঘাটাইলে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মাঝে ভেড়া বিতরণ

প্রকাশিত:সোমবার ২০ জুন ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ | ৪৯জন দেখেছেন

Image

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি:

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে সমতল ভূমিতে বসবাসরত ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর আর্থসামাজিক ও জীবন মানোন্নয়নের লক্ষ্যে সমন্বিত প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন প্রকল্প এর আওতায় সুফল ভোগীদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ অনুদান হিসেবে ভেড়া ও গৃহনির্মাণ উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে।

সোমবার (২০ জুন) দুপুরে উপকার ভোগী ১২৮টি পরিবারের মাঝে উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালের উদ্যোগে উপজেলা পরিষদ চত্বরে ২৫৬টি ভেড়া বিতরণ করা হয়। এছাড়াও যারা ভেড়া পেয়েছেন তাদের প্রত্যেককে ভেড়া পালনের জন্য ঘর তৈরীর উপকরণ দানাদার খাবারসহ বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: শহিদুল ইসলাম লেবু, টাঙ্গাইল জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা: রানা মিয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনিয়া চৌধুরী, ঘাটাইল পৌর মেয়র বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রশীদ মিয়া, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা: তোফায়েল আহমদ, ধলাপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মো: এজহারুল ইসলাম মিঠু, সাগরদিঘী ইউপি চেয়ারম্যান হেকমত সিকদার, ট্রাইবাল ওয়েল ফেরার এসোসিয়েশন ঘাটাইল উপজেলা শাখার চেয়ারম্যান স্বপক কুমার কোচ, আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা উপকারভোগী বৃন্দ।


আরও খবর



আবারও আইসিসির মাসসেরা তালিকায় মুশফিক

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ | ৭৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গত বছর মে মাসে প্রথমবারের মতো মনোনয়ন পেয়ে আইসিসির 'প্লেয়ার অব দ্য মান্থ' নির্বাচিত হয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম। এক বছর পর আবারও সেই মে মাসের সেরা ছেলে ক্রিকেটারের লড়াইয়ে সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। বাংলাদেশের এই অভিজ্ঞ তারকা ব্যাটারের বাকি দুই প্রতিদ্বন্দ্বী হলেন শ্রীলঙ্কার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস ও আসিথা ফার্নান্দো।

সোমবার নিজেদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে তিন জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করেছে আইসিসি। গত মাসের পারফরম্যান্সের ওপর ভিত্তি করে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার বিচারে মনোনয়ন পেয়েছেন মুশফিক, ম্যাথিউস ও আসিথা।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঘরের মাটিতে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশ ১-০ ব্যবধানে হারলেও ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে উজ্জ্বল ছিলেন মুশফিক। দুই সেঞ্চুরিসহ তার ব্যাট থেকে আসে মোট ৩০৩ রান। চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত প্রথম টেস্টে ৫ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন তিনি। বাংলাদেশের ব্যাটারদের মধ্যে টেস্টে তিনিই প্রথম এই কীর্তি স্থাপন করেন।

মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় টেস্টে মুশফিকুর সেঞ্চুরিটি ছিল ভীষণ বিপর্যয়ের মাঝে। তিনি যখন উইকেটে যান, তখন বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৩ উইকেটে ১৬ রান। কিছুক্ষণের মধ্যেই রীতিমতো ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয় টাইগাররা। ২৪ রানে পড়ে যায় ৫ উইকেট। এরপর ষষ্ঠ উইকেটে লিটন দাসের সঙ্গে রেকর্ড ২৭২ রানের জুটি গড়েন মুশফিক। বাংলাদেশ ৩৬৫ রানে অলআউট হয়ে গেলেও তিনি অপরাজিত থাকেন ১৭৫ রানে।

উজ্জ্বল পারফরম্যান্সের স্বীকৃতি ইতোমধ্যে আইসিসির টেস্ট ব্যাটিং র‍্যাঙ্কিংয়ে পেয়েছেন মুশফিক। আট ধাপ এগিয়ে তিনি উঠেছেন ১৭ নম্বরে। এবার দ্বিতীয়বারের মতো মাস সেরার লড়াইয়ে সুযোগ পেয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার সিরিজে দুই সেঞ্চুরিসহ সর্বোচ্চ ৩৪৪ রান করেন ম্যাথিউস। প্রথম টেস্টে দুর্ভাগ্যজনকভাবে ১৯৯ রানে আউট হয়ে যান তিনি। পরের টেস্টে ১৪৫ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন তিনি। ওই সিরিজে সর্বোচ্চ ১৩ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব দেখান আসিথা। দ্বিতীয় টেস্টে ক্যারিয়ারসেরা পারফরম্যান্সে ১৪৪ রানে ১০ উইকেট শিকার করেন তিনি।


আরও খবর