Logo
শিরোনাম

কুমিল্লায় বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি, মানতে হবে ১০ শর্ত

প্রকাশিত:বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ১৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

১০ শর্তে আগামী ২৬ নভেম্বর কুমিল্লা টাউন হল মাঠে বিএনপিকে বিভাগীয় সমাবেশের অনুমতি দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) কুমিল্লা জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের পক্ষে সিনিয়র সহকারী কমিশনার রাজিব চৌধুরীর সই করা অনুমতিপত্র প্রদান করা হয়।

বুধবার (২৩ নভেম্বর) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সদস্য সচিব জসিম উদ্দিন এবং বিএনপির ত্রাণ ও পূণর্বাসন সম্পাদক হাজী আমিনুর রশিদ ইয়াছিন।

সমাবেশের শর্তগুলো হলোদেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও সামাজিক ধর্মীয় মূল্যবোধ, রাষ্ট্রীয় ভাবমূর্তি ও জাতীয় নিরাপত্তা বিঘ্নিত হয় এমন বক্তব্য রাখা যাবে না; ব্যানার-ফেস্টুন ইত্যাদি ব্যবহার সীমিত করতে হবে; ব্যানার-ফেস্টুন, পতাকা স্ট্যান্ড হিসেবে কোনও লাঠি ব্যবহার করা যাবে না; সমাবেশ বিকাল সাড়ে ৪টার মধ্যে শেষ করতে হবে; মাইকের ব্যবহার সীমিত রাখতে হবে; উচ্চ শব্দে মাইক ব্যবহার করা যাবে না; যানবাহন শহরের ভেতরে প্রবেশ করানো যাবে না; রাস্তা বন্ধ করে সমাবেশের কর্মসূচি পালন থেকে বিরত থাকতে হবে; মোটর শোভাযাত্রা ও মিছিল করা যাবে না; সমাবেশে অংশগ্রহণের উদ্দেশ্যে নেতাকর্মীদের আসা-যাওয়ার পথে কোনও প্রকার নাশকতাপূর্ণ কর্মকাণ্ড, তথা আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে এমন কর্মকাণ্ড করা যাবে না; সমাগত নেতাকর্মীরা যাতে কোনও প্রকার বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারেন, দায়িত্বশীল নেতৃবৃন্দ তথা আয়োজকদের সেই দায়িত্ব নিতে হবে এবং স্টেজ তৈরির সাথে যারা জড়িত তারা ছাড়া অন্য কেউ সমাবেশ শুরুর আগে সমাবেশস্থলে প্রবেশ কিংবা অবস্থান করতে পারবে না।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক (কুমিল্লা বিভাগ) মোস্তাক মিয়া জানান, পরিবেশ পরিস্থিতিতে অনেক কিছুই করতে হয়। এত শর্ত মেনে বিশাল একটি সমাবেশ করা সম্ভব না। তবে আমরা সুশৃঙ্খল ও শান্তিপূর্ণভাবে এ সমাবেশ সফল করতে আমরা সাংগঠনিকভাবে ব্যাপক পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি।

বিএনপির ত্রাণ ও পূনর্বাসন সম্পাদক হাজী আমিনুর রশিদ ইয়াছিন বলেন, ‌শান্তিপূর্ণ সমাবেশ চাই। বিএনপি শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করবে এটাই সবশেষ কথা। আসার পথে আমাদের নেতাকর্মীদের যেন বাধা না দেওয়া হয়।


আরও খবর



অনলাইনে পাওয়া যাবে নিম্ন আদালতের রায়

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অনলাইনে নিম্ন আদালতের রায় প্রকাশসহ ছয়টি কোর্ট প্রযুক্তির প্রবর্তন করেছে বিচার বিভাগ। মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) সুপ্রিম কোর্ট জাজেস মিলনায়তনে সুপ্রিম কোর্টের উদ্ভাবিত ছয়টি কোর্ট প্রযুক্তির উদ্বোধন করেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

এসময় প্রধান বিচারপতি বলেন, তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট তথা বিচার বিভাগ আজ এক নতুন দিগন্তে পদার্পণ করতে যাচ্ছে। একবিংশ শতকের পরিবর্তিত প্রেক্ষাপটে ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনের ধারায় বিচার বিভাগে আজ তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর একগুচ্ছ পরিষেবার সার্থক প্রবর্তন হতে যাচ্ছে।

উদ্ভাবিত ৬টি প্রযুক্তির বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, প্রথমটি অধস্তন আদালতের জন্য গঠিত মনিটরিং কমিটির প্রস্তুতকরা ছক অনুসারে অধস্তন আদালত থেকে মামলার পরিসংখ্যান পাঠানোর প্রক্রিয়াকে সহজীকরণসহ তথ্য-উপাত্ত দ্রুততার সাথে বিশ্লেষণ করে ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণের ক্ষেত্রে সাহায্য করবে। এই সফটওয়ার মনিটরিং কমিটির কাজকে আরও গতিশীল করবে, সর্বোপরি মামলাজট নিরসনে সহায়তা করবে।

দ্বিতীয় প্রযুক্তিটির মাধ্যমে অধস্তন আদালতের বিচারকরা অতি সহজেই তাদের দেওয়া রায় ও আদেশ প্রস্তুতকৃত প্ল্যাটফর্মে আপলোড করতে পারবেন যা বিচারপ্রার্থী জনগণ সহজেই দেখতে পারবেন।

তৃতীয়টি হলো আপিল বিভাগের প্রবেশ পাস, যার মাধ্যমে আপিল বিভাগের এজলাস সংশ্লিষ্ট এলাকায় জনচলাচল নিয়ন্ত্রণ করা যাবে এবং যেসব বিচারপ্রার্থী আপিল বিভাগে প্রবেশ করবে তাদের তথ্য কোর্ট প্রশাসনের কাছে সংরক্ষিত থাকবে।

চতুর্থটি বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট অ্যাপস। বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের বিভিন্ন অনলাইন পরিষেবা ও তথ্য সহজ করার প্রয়োজনকে বিবেচনায় রেখে এটি প্রস্তুত করা হয়েছে। এতে সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে থাকা সকল তথ্য অতিসহজে পাওয়া যাবে। গুগল প্লে স্টোরে এই অ্যাপ উন্মুক্ত করা হবে।

পঞ্চমটি, সুপ্রিম কোর্ট স্পেশাল কমিটি ফর চাইল্ড রাইটস্-এর জন্য প্রস্তুতকৃত একটি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম। যার মাধ্যমে দেশের শিশু আদালতের মামলার পরিসংখ্যান এবং আইনের সাথে সংঘাতে আসা শিশুদের বিষয়ে নেওয়া ব্যবস্থাসহ অন্যান্য পরিসংখ্যান কমিটির নিকট অতিসহজে এবং দ্রুততার সাথে পাঠানো সম্ভব হবে।

ষষ্টটি, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের অনুলিপি শাখার কার্যক্রম গতিশীল, স্বচ্ছ ও জনবান্ধব করে তুলতে একটি সফটওয়্যার প্রস্তুত করা হয়েছে। যার মাধ্যমে আপিল বিভাগের রায় ও আদেশের অনুলিপি অতিসহজ প্রক্রিয়ায় সরবরাহ করা হবে। এতে একদিকে জনসাধারণ

যেমন উপকৃত হবে, অপরদিকে অনুলিপি শাখার কার্যক্রম আরও সহজে তত্ত্বাবধান করা যাবে।

প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী বলেন, যে ছয়টি প্রযুক্তিনির্ভর টুলস আজ এখানে যুক্ত হবে সেগুলো বিচার বিভাগকে একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রযুক্তিনির্ভর করার প্রাথমিক পদক্ষেপ মাত্র। আজ উন্মুক্ত হওয়া সফটওয়ার, অ্যাপস ও ওয়েব অ্যাপ্লিকেশনগুলোর প্রত্যেকটি স্বতন্ত্র উপযোগিতায় সমৃদ্ধ। যে কাজগুলোর জন্য আগে ঘণ্টার পর ঘণ্টা পরিশ্রম করতে হতো সেগুলো কয়েকটি ক্লিকে নিমিষেই সম্পাদিত হবে।

সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল গোলাম রব্বানীর সঞ্চালনায় আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি, অ্যাটর্নি জেনারেল, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সম্পাদক এবং সুপ্রিম কোর্টের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



মায়ের হাত-পা বেঁধে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ২৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাতের আধারে ঘরে ঢুকে গলায় চাকু ধরে মাকে জিম্মি করে হাত-পা বেঁধে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলায়।

এ ঘটনায় নির্যাতনের শিকার স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে গতকাল মঙ্গলবার রাতে প্রধান অভিযুক্ত ও তার সহযোগীকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। মামলার পরে রাতেই প্রধান অভিযুক্ত মো. আলী হোসেন মোল্লাকে (২৭) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আলী হোসেন মোল্লা উপজেলার ছোট কৈবর্তখালী গ্রামের মৃত আনেচ মোল্লার ছেলে। তার সহযোগী আসামি মো. ফুহাত মীর (২২) পলাতক রয়েছে। ফুহাত উপজেলার বড় কৈবর্তখালী গ্রামের মো. শাহ আলম মীরার ছেলে।

জানা যায়, ওই ছাত্রী স্কুলে যাওয়া-আসার পথে একই এলাকার আলী হোসেন কুপ্রস্তাব দিতেন। তার সঙ্গে থাকতেন আলীর সহযোগী ফুহাত মীরা। ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের পরে কয়েকদিন ভুক্তভোগীর বাড়িসহ ওই এলাকা বিদ্যুৎহীন ছিল। গত ২৮ অক্টোবর দিবাগত রাত ২টার দিকে আলী হোসেন ও ফুহাত ভুক্তভোগী পরিবারের বসতবাড়ির জানালার কাঠের শিক ভেঙে ভিতরে ঢুকে ধারালো চাকুর ভয় দেখিয়ে ছাত্রীর মায়ের হাত-পা বেঁধে ফেলে। পরে আলী হোসেন ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন। তখন ফুহাত পাহারায় ছিলেন। ধর্ষণ শেষে টর্চ লাইটের আলোতে অভিযুক্তরা তাদের চেহারা দেখিয়ে ঘটনা প্রকাশ না করতে ভুক্তভোগী পরিবারকে হুমকি দিয়ে চলে যান। সকালে ভুক্তভোগী পরিবারটি কাউকে কিছু না বলে আলী হোসেন ও ফুহাতের ভয়ে এলাকা থেকে পালিয়ে যান। পরে পুলিশের সহায়তায় ভুক্তভোগী পরিবার এলাকায় এসে মঙ্গলবার রাতে আলী হোসেন ও তার সহযোগী ফুহাতকে আসামি করে মামলা করেন। ওই মামলার প্রধান আসামি আলী হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রাজাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ পুলক চন্দ্র রায় বলেন, মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করে আজ বুধবার সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ভুক্তভোগী ছাত্রীর জবানবন্দি রেকর্ড করতে আদালতে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদে চাকরি নেওয়ায় যুবকের ১৭ বছরের কারাদণ্ড

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৩৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নোয়াখালীতে বাবার মুক্তিযোদ্ধা পরিচয়ের ভুয়া সনদ দিয়ে পুলিশে চাকরি নেওয়ার দায়ে এক পুলিশ কনস্টেবলকে ১৭ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৩ লাখ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অনাদায়ে আরও ২ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২১ নভেম্বর) দুপুরে নোয়াখালী স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক এ এন এম মোর্শেদ খান এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত মো.আরিফুল ইসলাম (৩২) চাটখিল উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের নুরুল হকের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, দণ্ডপ্রাপ্ত আরিফুল ইসলাম ২০১২ সালে পুলিশের কনস্টেবল পদে নিয়োগের সময় নিজের বাবাকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে দাবি করে ভুয়া সনদ দেন। এরপর তিনি মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকরি পান এবং রাষ্ট্রীয়ভাবে সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে থাকেন। নিয়োগের কিছু দিন পর বিষয়টি জানাজানি হয়। তদন্তে মুক্তিযোদ্ধার ভুয়া সনদের বিষয়টি প্রমাণিত হয়।

এরপর ২০১৩ সালে পুলিশ লাইনের তৎকালীন রিজার্ভ অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শরীফুল ইসলাম বাদী হয়ে চাটখিল থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা করেন। সর্বশেষ মামলার তদন্তভার পায় দুদক। দুদকের নোয়াখালী সমন্বিত জেলা কার্যালয় তদন্ত শেষে বরখাস্তকৃত পুলিশ কনস্টেবল আরিফুল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

নোয়াখালী জেলা দুদকের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট আবুল কাশেম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, দুপুরে মামলার শুনানি শেষে বিচারক এ এন এম মোর্শেদ খান অভিযুক্তকে ৪০৯, ৪২০, ৪৬৭, ৪৬৮ ও ৪৭১ ধারায় ১৭ বছরের কারাদণ্ড ও চার ধারায় ৩ লাখ ৭০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন। সব সাজা একসঙ্গে কার্যকর হওয়ায় আসামিকে ৫ বছর সাজা খাটতে হবে। তবে দণ্ডপ্রাপ্ত আরিফুল ইসলাম এখন পর্যন্ত পলাতক রয়েছেন।


আরও খবর



কখন, কোথায় দেখবেন উদ্বোধনী অনুষ্ঠান, কারা থাকছেন

প্রকাশিত:রবিবার ২০ নভেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে ফুটবল বিশ্বকাপ। অপেক্ষা আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার। তার পরেই প্রায় এক মাস ব্যপী ফুটবল যুদ্ধে নামবে ৩২টি দেশ। লিয়োনেল মেসি, ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো, নেইমার নাকি অন্য কেউ, কে জিতবে এই বিশ্বকাপ তাই নিয়ে জোর তর্ক শুরু হয়ে গিয়েছে। পাড়ায় পাড়ায় শুরু হয়ে উত্তেজনা। তার মাঝে রয়েছে কাতারে বিশ্বকাপ আয়োজন নিয়ে বিতর্কও। তবে সব ভুলে হাজার হাজার মানুষ হাজির হয়েছেন কাতারে। হতে চলেছে জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। সেখানে কারা থাকবেন, কখন শুরু সব নিয়ে আলোচনা করল

কখন শুরু উদ্বোধনী অনুষ্ঠান?

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার কথা বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায়।

প্রথম দিন কোন দুই দেশ খেলবে?

আয়োজক দেশ কাতার এবং ইকুয়েডর ম্যাচের মাধ্যমে শুরু হবে বিশ্বকাপ। ম্যাচ শুরু ১০টায়।

কোথায় হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান?

দোহার আল বায়েত স্টেডিয়ামে। ৬০ হাজার দর্শক এই অনুষ্ঠান দেখতে পারবেন। অনুষ্ঠান ঘিরে ইতিমধ্যেই সাজো সাজো রব দোহায়।

কারা থাকবেন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে?

ফিফা এখনও কোনও তালিকা জানায়নি। তবে দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যান্ড বিটিএস-এর প্রধান গায়ক জানকুকের থাকার কথা রয়েছে। এ ছাড়া ব্ল্যাক আইড পিস, রবি উইলিয়ামস এবং ভারতের বলিউডি তারকা নোরা ফতেহির থাকার কথা। ব্রিটেনের গায়িকা ডুয়া লিপা এবং কলম্বিয়ার গায়িকা শাকিরা অনুষ্ঠানে থাকবেন না বলে জানা গিয়েছে। এ ছাড়া গৃহযুদ্ধের কারণে ইকুয়েডরের প্রেসিডেন্টও থাকতে পারবেন না বলে জানা গিয়েছে।


আরও খবর

রোনালদোকে টপকে গেলেন মেসি

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




উত্তরায় বস্তিতে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৬ ইউনিট

প্রকাশিত:শনিবার ১৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৫৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধনীর উত্তরার ৮ নম্বর সেক্টরের একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিট কাজ করছে।

শনিবার (১৯ নভেম্বর) বিকাল ৫টার দিকে আগুনের সূত্রপাত হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার রোজিনা আক্তার।

তিনি বলেন, উত্তরা-৮ নম্বর সেক্টরে রেললাইনের পাশে বস্তিতে আগুন লাগার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিট কাজ করছে।

প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ ও হতাহতের কোনো খবর জানাতে পারেননি ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তা।


আরও খবর