Logo
শিরোনাম

লকডাউন : শিক্ষক নিবন্ধন মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

লকডাউনের কারণে চলমান ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধন মৌখিক পরীক্ষা রবিবার (৪ এপ্রিল) থেকে স্থগিত করা হয়েছে। লকডাউন যতদিন থাকবে ততদিন এ পরীক্ষা বন্ধ থাকবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে এনটিআরসিএ সচিব (উপসচিব) ড. এ.টি.এম. মাহবুব-উল করিম বলেন, আজ (শনিবার) মৌখিক পরীক্ষা চলছে। রবিবার যাদের মৌখিক পরীক্ষা ছিল তাদেরটা স্থগিত করা হয়েছে। যতদিন লডডাউন থাকবে ততদিন এ পরীক্ষা স্থগিত থাকবে।

তিনি বলেন, লকডাউনের কারণে শিক্ষক নিবন্ধনের অন্যান্য বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে দুপুরে একটি বৈঠক ডাকা হয়েছে।

জানা গেছে, গত বছর নভেম্বরে ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়। এতে মোট ২২ হাজার ৩৯৮ জন প্রার্থী উত্তীর্ণ হয়। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মৌখিক পরীক্ষা শুরু হয় ২ ডিসেম্বর থেকে। চলতি মাসের মধ্যে এ মৌখিক পরীক্ষা শেষ করে মে মাসের মধ্যে ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা কথা রয়েছে। তবে লকডাউনে দীর্ঘায়িত হলে এ পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল পিছিয়ে যেতে পারে বলে জানা গেছে।


আরও খবর



স্বরূপকাঠিতে জোড়া লাগানো যমজ শিশুর জন্ম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ এপ্রিল ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

স্বরূপকাঠি থেকে হযরত আলী হিরু

পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে বুক থেকে পেট পর্যন্ত জোড়া লাগানো যমজ শিশুর জন্ম হয়েছে। ফারজানা আক্তার নামে এক গৃহবধু জোড়া লাগানো শিশু দুইটির জন্মদাত্রী। সে উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নের বয়া গ্রামের রাসেলের স্ত্রী।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা সদরের এপেক্স ক্লিনিকে সিজারিয়ান অপারেশন মাধ্যমে ওই জোড়া লাগানো যমজ শিশুর জন্ম হয়। এপেক্স ক্লিনিকের চিকিৎসক ডা. অরুন চন্দ্র মন্ডল বলেন, মা কিছুটা সুস্থ আছেন। নবজাতকের অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। জানাগেছে, ফারজানার শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে স্বজনরা মঙ্গলবার  এপেক্স ক্লিনিকে নিয়ে আসে। সেখানে ওই গৃহবধুর সিজারিয়ান অপারেশন জোড়া লাগানো জমজ শিশুর জন্ম হয়। এদিকে জোড়া লাগানো যমজ শিশুর জন্মের খবর ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনতা ক্লিনিকে ভীড় জমায়।



আরও খবর



বিআরটিসির দুটি বাসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৭৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজশাহীতে ট্রাক টার্মিনালে বিআরটিসির দুটি বাসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। আজ রোববার (২৮ মার্চ) সকাল ৬টার দিকে মহানগরীর আমচত্বর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। তবে কে বা কারা বাসে আগুন দিয়েছে তা জানাতে পারেনি পুলিশ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ট্রাক টার্মিনালে পাশাপাশি থাকা দুটি পরিত্যক্ত বাসের একটিতে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। পরে বাসটি পুরোপুরি পুড়ে গিয়ে অন্যটিতেও আগুন ধরে। এতে দ্বিতীয় বাসটি আংশিক পুড়ে গেছে।

নগরীর শাহমখদুম থানার ওসি সাইফুল ইসলাম খান বলেন, হরতালের নামে নাশকতা সৃষ্টি করতেই এই আগুন দেওয়া হয়েছে কিনা তা আমরা নিশ্চিত নই। বাস দুটি ট্রাক টার্মিনালের ভেতর ৯ মাস ধরে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে ছিল।

কীভাবে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটলো সেটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা


আরও খবর

নওগাঁয় পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষ

রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১




লরির সঙ্গে মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে প্রাণ গেল দুই যন্ত্রশিল্পীর

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন দেশের সংগীতাঙ্গনের দুই পরিচিত মুখ প্যাড ও পার্কাসন বাদক হানিফ (৪১) এবং প্যাড বাদক পার্থ গুহ (৫০)। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কনটেইনারবাহী লরি ও মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে দুজনের মৃত্যু হয়। নিহত দুজন মিউজিশিয়ান ছিলেন।

শনিবার (১৩ মার্চ) ভোর ৫টা ২৫ মিনিটে চট্টগ্রামের মীরসরাই উপজেলার সোনাপাহাড় এলাকায় মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

একই দুর্ঘটনায় আরও ছয়জন আহত হয়েছেন। এ ছয়জনের মধ্যে লুৎফর ও বিউটি বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

হাইওয়ে পুলিশের জোরারগঞ্জ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) মো.ইছহাক জানান, চালকসহ ৮ জন নিয়ে ঢাকা থেকে একটি মাইক্রোবাস কক্সবাজার যাচ্ছিল। আর লরি ছিল ঢাকামুখী।

মীরসরাইয়ের সোনাপাহাড় এলাকায় বিশ্বরোডের মুখে ইউটার্নে লরিটি মহাসড়কের ঢাকামুখী অংশ অতিক্রম করে চট্টগ্রামমুখী অংশে ঢুকে যায়। এ সময় চট্টগ্রামমুখী মাইক্রোবাসের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। পুলিশ ও স্থানীয়রা মিলে মাইক্রোবাসের চালকসহ আট যাত্রীকে স্থানীয় মাস্তাননগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

সেখানে পার্থ প্রতীমকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত তিনজনকে চমেক হাসপাতালে নেওয়া হয়।

চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়িতে দায়িত্বরত এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার  জানান, আহত তিনজনের মধ্যে হানিফ আহমেদকে হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বিউটি ও লুৎফর হাসপাতালের ২০ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছেন। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন।

ফায়ার সার্ভিসের মীরসরাই স্টেশন অফিসার জসিম উদ্দিন জানান, লরির ধাক্কায় মাইক্রোবাসটি দুমড়ে-মুচড়ে গেছে। লরি এবং মাইক্রোবাস মহাসড়ক থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

লরিটি পুলিশ আটক করেছে। তবে লরির চালক কাউকে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন হাইওয়ে পুলিশের এসআই ইছহাক।

চট্টগ্রাম মঞ্চ সংগীতশিল্পী সংস্থার সভাপতি আলাউদ্দিন তাহের বলেন, ঢাকা থেকে কক্সবাজারে একটি প্রোগ্রামে অংশ নেয়ার জন্য যাচ্ছিলেন। দুর্ঘটনায় দুজন মারা গেছেন। এদের মধ্যে পার্থ অক্টোপ্যাড বাজাতেন। হানিফ অক্টোপ্যাড-ড্রাম বাজাতেন। আহত হয়েছেন সংগীতশিল্পী বিউটিও।

নিহতদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।


আরও খবর



রান্নার ছোট ছোট ভুল থেকেই মৃত্যুর আশঙ্কা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৫৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কেবল ডায়েট অনুসরণ করার জন্য নয়, ছোট থেকে বড় বড় বিভিন্ন অসুখ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্যও রান্নার সঠিক পদ্ধতি জানা দরকার। রান্নার ছোট ছোট ভুল থেকেই মৃত্যুর দিকে ধেয়ে নিয়ে যাওয়ার মতো রোগের সৃষ্টি হয়ে থাকে। বিশেষজ্ঞদের মতে কোন তেল, ভাজা-পোড়ায় কত তাপমাত্রা, কতক্ষণ খাবার গরম রাখা উচিতসহ অন্যান্য যাবতীয় রান্নায় কিছু সাধারণ নিয়ম মেনে চলা উচিত। সে সবের উপর নির্ভর করে সুস্বাস্থ্য।

রান্নার নিয়ম যেমন হওয়া উচিত : সেদ্ধ খাবার ক্রমশ খেতে থাকলে মুখে উঠবে না। আবার ভুল পদ্ধতিতে রান্না করার জন্য খাবারে কোনো পুষ্টি থাকবে না। শাক-সবজি ও মাংস রান্নার ক্ষেত্রে প্রথমে সেদ্ধ করে তারপর কষানো হলে এতে খাদ্যগুণ বজায় থাকে। এছাড়া কম সময় নিয়ে ঢেকে রান্না করলে পুষ্টি বজায় থাকে। তবে সাবধান, কষানোর সময় খাবারের পানি ফেলে দিলে ভিটামিন-বি, সি ও অন্যান্য উপকারী খনিজ উপাদানের প্রায় ৬০-৭০ শতাংশ বেরিয়ে যাবে। ভাতের ক্ষেত্রে একই রকম এই বিষয়টি। ভাতের মাড় বা ফ্যান ফেলে দিলে এর সঙ্গে পুষ্টি বের হয়ে যায়। তাই ভাত রান্নার সময় পরিমাণ করে পানি দিতে হয় যেন রান্না শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পানিও শেষ হয়। এছাড়া সবজি-মাংস তরকারির ঝুলে ব্যবহার করুন।

কম আঁচে রান্না : কম আঁচে রান্না করতে হয়। ভাপে রান্নার ফলে পুষ্টির প্রায় সবটুকু বজায় থাকে। এতে স্বাদও ঠিক থাকে। কখনো কখনো ভাপের সময় স্বাদ বৃদ্ধি করতে ঢাকনা দিয়ে হালকা করে ঢেকে কষিয়ে নিতে পারেন। এছাড়া যারা মাছ প্রিয় তারা ডিম পোচের মতো মাছও পোচ করে খেতে পারেন। এজন্য গরম কড়াইতে অল্প পানি দিয়ে হালকা লবণ, মরিচ ও লেবু দিয়ে ঢেকে রান্না করলে পুষ্টি বজায় থাকে।

ভাজার সমস্যা ও সমাধান : ছাঁকা তেলে কিছু ভাজলে খাবারের ভিটামিন ও প্রোটিন কমে যায়। এতে অপুষ্টি, ক্যালোরি বৃদ্ধি পায়, ওজন বেড়ে যায় ও ট্রান্স ফ্যাটের সম্ভাবনা থাকে। এছাড়াও অ্যালডিহাইড নামে জৈব রাসায়নিকের জন্য ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও পার্কিনসনিজমের আশঙ্কাও থাকে।

গ্রিলের নিয়ম : গ্রিল করা খাবার খাওয়া ভালো। এই খাবার পুষ্টিকর ও এতে ক্যালোরিও কম। তবে সাবধান, গ্রিলের পোড়া খাবার খাওয়ার ফলে প্যানক্রিয়াস ও ব্রেস্ট ক্যানসারের শঙ্কা থাকে। এছাড়া উচ্চ তাপের জন্য মাংসের ফ্যাট ও প্রোটিনে রাসায়নিক বিক্রিয়া হয়ে বিষাক্ত পদার্থ তৈরির সম্ভাবনা থাকে। যা থেকে হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসের আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়।


আরও খবর



বড় ধসের ঘটনা ঘটেছে দেশের শেয়ার বাজারে

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

এক সপ্তাহের লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। এতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে শেয়ার বাজারের বিনিয়োগকারীরা। আতঙ্কে তারা শেয়ার বিক্রির চাপ বাড়িয়ে দিয়েছেন। যার ফলস্বরূপ দিনের লেনদেন শেষে বড় ধসের ঘটনা ঘটেছে দেশের শেয়ার বাজারে। এই ধসের মধ্যে পড়ে তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর শেয়ার ও ইউনিটের দাম একদিনেই ১৫ হাজার কোটি টাকা হাওয়া হয়ে গেছে।

রবিবার (৪ মার্চ) শেয়ার বাজারে লেনদেন শুরু হওয়ার আগেই দেশজুড়ে এক সপ্তাহের লকডাউনের সংবাদ ছড়িয়ে পড়ে। এতে লেনদেন শুরু হতেই ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ৮৫ পয়েন্ট পড়ে যায়।

শেয়ার বাজারে দেখা দেওয়া এই বড় দরপতনের মধ্যেই এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল ইসলাম জানান, লকডাউনের মধ্যেও শেয়ার বাজারে লেনদেন বন্ধ হবে না। ব্যাংকের লেনদেনের সময়ের সঙ্গে সমন্বয় রেখে শেয়ার বাজারে লেনদেন চলবে।

নিয়ন্ত্রক সংস্থার এমন আশ্বাসও বিনিয়োগকারীদের আতঙ্ক দূর করতে পারেনি। ফলে শুরুর বড় দরপতনের ধারা চলমান থাকে। এর মধ্যেই দুপরে লকডাউন সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। এই প্রজ্ঞাপন জারির পর শেয়ার বাজারে দরপতনের মাত্রা আরও বেড়ে যায়।

আতঙ্কিত বিনিয়োগকারীরা অস্বাভাবিক বিক্রির চাপ বাড়ালে অনেক কোম্পানির ক্রেতা সঙ্কট দেখা দেয়। যার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে সূচকের ওপরে। ফলে দেখতে দেখতে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক প্রায় দুশ পয়েন্ট নেই হয়ে যায়।

দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইতে দাম বেড়েছে মাত্র ৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার। বিপরীতে দাম কমেছে ২৫১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। আর ৬৬টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এতে লেনদেন শেষে ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ৪৩ হাজার ৩৪৫ কোটি টাকা। যা আগের কার্যদিবসের লেনদেন শেষে ছিল ৪ লাখ ৫৮ হাজার ৬৮০ কোটি টাকা। অর্থাৎ একদিনেই ডিএসইর বাজার মূলধন কমেছে ১৫ হাজার ৩৩৫ কোটি টাকা। মূলধন বাড়ার অর্থ হলো, তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর শেয়ারের দাম সম্মিলিতভাবে ওই পরিমাণ বেড়েছে।

বড় অঙ্কের বাজার মূলধন কমার পাশাপাশি সবকটি মূল্যসূচকের বড় পতন হয়েছে। দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক আগের দিনের তুলনায় ১৮১ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৮৮ পয়েন্টে নেমে গেছে। এর মাধ্যমে গত বছরের ৯ মার্চের পর সূচকটির সব থেকে বড় পতন হল।

প্রধান মূল্যসূচকের পাশাপাশি বড় পতন হয়েছে ডিএসইর অপর দুই সূচকের। এর মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ৮২ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৯০১ পয়েন্টে নেমে গেছে। আর ডিএসইর শরিয়াহ্ সূচক ৩৬ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ১৬৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এদিকে সূচকের বড় পতনের দিনে ডিএসইর লেনদেন হয়েছে ৫২১ কোটি ১৭ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৪৫১ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। এ হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ৬৯ কোটি ৮৪ লাখ টাকা।

অপর শেয়ার বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই কমেছে ৫৪২ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৭৫ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেওয়া ২১৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৩টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৮৪টির। আর ১৯টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: শেয়ার বাজার

আরও খবর