Logo
শিরোনাম

লক্ষ্মীপুরে শিশুকে ধর্ষণ ও হত্যায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ অক্টোবর ২০২১ | ১২৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুদ্দৌলা কুতুবী এ রায় দেন

লক্ষ্মীপুরে চাঞ্চল্যকর সাত বছরের শিশু নুসরাত জাহানকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় শাহ আলম রুবেল নামের একজনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সেইসঙ্গে আসামিকে এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও চার বছর সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়। একই মামলায় বোরহান উদ্দিন নামের অপর একজনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুদ্দৌলা কুতুবী এ রায় দেন।

রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট মো. আবুল বাশার। এদিকে রায়ের পর আদালতপাড়ায় অপেক্ষমান মামলার বাদী শিশু নুসরাতের মা রেহানা বেগম ও চাচা আকবর হোসেন রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং রায় দ্রুত কার্যকরের দাবি জানান।

আদালত সূত্রে জানা যায়, জেলার রামগঞ্জ উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামের ফয়েজে নূর মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান ২০১৮ সালের ২৩ মার্চ দুপুরে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের ঘটনায় নুসরাতের মা রেহানার বেগম রামগঞ্জ থানায় একটি ডায়েরি করেন। পরে ২৬ মার্চ পুলিশ উপজেলার ব্রক্ষ্মপাড়ার ব্রিজের নিচ থেকে নুসরাতের বস্তাবন্দি মৃতদেহ উদ্ধার করে। পরে তদন্তে ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ড প্রমাণিত হয়। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অপরাধে পুলিশ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করলে আদালত দীর্ঘ শুনানি শেষে ও ১৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণের পর এ রায় দেন।

নিউজ ট্যাগ: লক্ষ্মীপুর

আরও খবর



প্রাণহানি সাড়ে ৪ হাজারের নিচে, শনাক্ত ৩ লাখ

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৩৫৬ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে ৪১ হাজারের বেশি

চলমান করোনা মহামারিতে বিশ্বজুড়ে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা আরও কমেছে। একইসঙ্গে আগের দিনের তুলনায় কমেছে নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪ হাজারের বেশি মানুষ। একই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা নেমে এসেছে ৩ লাখে।

রোববারের মতো সোমবারও দৈনিক সংক্রমণের শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাজ্য। অন্যদিকে দৈনিক মৃত্যুতে শীর্ষে রয়েছে রাশিয়া। এরপরই রয়েছে ব্রাজিল-যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো। এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৪ কোটি ১৪ লাখের ঘর। অন্যদিকে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪৯ লাখ ১৩ হাজার।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪ হাজার ২২৩ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে ১১০০ জন। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৪৯ লাখ ১৩ হাজার ৯৩৬ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৩৫৬ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে ৪১ হাজারের বেশি। এতে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪ কোটি ১৪ লাখ ৫৪ হাজার ৫৮০ জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাজ্যে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৫ হাজার ১৪০ জন এবং মারা গেছেন ৫৭ জন। মহামারির শুরু থেকে এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮৪ লাখ ৪৯ হাজার ১৬৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৩৮ হাজার ৫৮৪ জন মারা গেছেন।

গত এক দিনে যুক্তরাষ্ট্রে করোনার নতুন সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা অনেকটাই কমেছে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজার ৯৪৭ জন এবং মারা গেছেন ১৬১ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৪ কোটি ৫৭ লাখ ৯২ হাজার ৫৩২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৭ লাখ ৪৪ হাজার ৫৪৬ জন মারা গেছেন।

অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে রয়েছে রাশিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মারা গেছেন ৯৯৭ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩৪ হাজার ৩০৩ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৭৯ লাখ ৯২ হাজার ৬৮৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ২৩ হাজার ৩১২ জনের।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১২৫ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৫ হাজার ৭৩৮ জন। অপরদিকে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২ কোটি ১৬ লাখ ৪৪ হাজার ৪৬৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৩ হাজার ৩২৪ জনের।

এদিকে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৬৫ জন এবং নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ হাজার ২৮৯ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৩ কোটি ৪০ লাখ ৮১ হাজার ৪৯ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ৫২ হাজার ৩২১ জন।

এছাড়া করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ইরানে ১৯৯ জন, তুরস্কে ১৮৬ জন এবং ইউক্রেনে ২১৯ জন মারা গেছেন। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় মেক্সিকোতে মারা গেছেন ৩১৩ জন। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত উত্তর আমেরিকার এই দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৮৪ হাজার ৩২১ জনের।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর

আরও ১৭৩ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

করোনায় মৃত্যু কমেছে, শনাক্ত বেড়েছে

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




কুমিল্লার ঘটনায় ‘নির্ভুল তদন্ত’ চলছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৭৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সম্প্রতি কুমিল্লায় একটি মন্দিরে পবিত্র কোরআন অবমাননার বিষয়ে সাংবাদিকের প্রশ্নে তদন্তের অগ্রগতি কথা জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। ওই ঘটনার নেপথ্যে বিস্তারিত তথ্য নির্ভুল তদন্তের মাধ্যমে শিগগিরই জানানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। আজ রোববার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা জানান।

সস্প্রতি কুমিল্লার ঘটনায় কয়েকজনকে চিহ্নিত করেছেন সেটা অগ্রগতি জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক চেতনার দেশ। এ ঘটনার পেছনে অবশ্যই কোনো কারণ আছে। কিছুদিনের মধ্যে আমরা আরও ক্লিয়ার বলতে পারব। কুমিল্লার ঘটনায় আমাদের তদন্তকারী কর্মকর্তা, গোয়েন্দা সংস্থাসহ সংশ্লিষ্টরা বিষয়টি খুব সিরিয়াসলি দেখছেন। আমরা একটি নির্ভুল তদন্তের মাধ্যমে পুরো ঘটনা আপনাদের শিগগিরই জানাব বলে আমরা বিশ্বাস ও আশা করি।

তিনি আরও বলেন, আমরা মনে করি আমাদের দেশের লোক ধর্মভীরু, কিন্তু ধর্মান্ধ নয়। কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ঘটে যাওয়া ঘটনাটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করার জন্যই ঘটানো হয়েছে। এটা কে করেছেন বা কার ইন্ধনে করেছেন, তদন্তের মাধ্যমে বেরিয়ে আসবে। আমরা প্রমাণ পেলেই আপনাদের সামনে তুলে ধরব। প্রকৃত অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা অবশ্যই করব।


আরও খবর



ক্যাম্পেইনে ২ দিনে প্রথম ডোজ টিকা নিলেন ৭৮ লাখ মানুষ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দ্বিতীয় ডোজের টিকা দেওয়া হয়েছে ১ লাখ ৪৮ হাজার ১৫১ জনকে

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে গত ২ দিনের টিকা ক্যাম্পেইনে প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন ৭৮ লাখ ১১ হাজার ২১৬ জন। একইসঙ্গে এ সময়ে দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন আরও ২ লাখ ৮২ হাজার ২০ জন। সবমিলিয়ে গত ২ দিনে মোট প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন ৮০ লাখ ৯৩ হাজার ২৩৬ জন।

গতকাল বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত টিকা বিষয়ক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে প্রথম ডোজের টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে ১১ লাখ ৮৬ হাজার ৯৩ জনকে। তাদের মধ্যে ৫ লাখ ৭৯ হাজার ৬৩৭ জন পুরুষ এবং নারী ৬ লাখ ৬ হাজার ৪৫৬ জন। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ১০ লাখ ৮৯ হাজার ৩৫ ডোজ টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে চীনের সিনোফার্মের। আর ৭০ হাজার ৮৮০ ডোজ দেওয়া হয়েছে অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা। এছাড়া ১১ হাজার ৬৫৩ ডোজ দেওয়া হয়েছে ফাইজার এবং ১৪ হাজার ৫২৫ ডোজ দেওয়া হয়েছে মডার্নার টিকা।

এর আগে মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) টিকা ক্যাম্পেইনের প্রথম দিনে সারাদেশে প্রথম ডোজের টিকা প্রয়োগ করা হয় ৬৬ লাখ ২৫ হাজার ১২৩ জনকে। এ নিয়ে সবমিলিয়ে ক্যাম্পেইনে প্রথম ডোজের টিকা দেওয়া হয়েছে ৭৮ লাখ ১১ হাজার ২১৬ জনকে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দ্বিতীয় ডোজের টিকা দেওয়া হয়েছে ১ লাখ ৪৮ হাজার ১৫১ জনকে। সবমিলিয়ে ১ দিনে টিকা ক্যাম্পেইন ও স্বাভাবিক টিকা কার্যক্রম মিলিয়ে ৮০ লাখ ৯৩ হাজার ২৩৬ জনকে টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টা থেকে সারাদেশের নির্ধারিত টিকা কেন্দ্রগুলোতে টিকা ক্যাম্পেইন শুরু হয়ে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলে। এরপর যেসব কেন্দ্রে লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়নি সেসব কেন্দ্রে আজও টিকাদান কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানায়, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড থেকে শুরু করে সিটি করপোরেশন ও শহর এলাকা জুড়ে এ কর্মসূচি সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। কর্মসূচিতে সরকারি, বেসরকারি ও সেচ্ছাসেবীসহ প্রায় ৮০ হাজার লোক অংশ নিয়েছেন।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর

আরও ১৭৩ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

করোনায় মৃত্যু কমেছে, শনাক্ত বেড়েছে

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




সিনোফার্মের আরও ৫৫ লাখ টিকা আসছে রাতে

প্রকাশিত:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চীনের সিনোফার্মের আরও ৫৫ লাখ ডোজ করোনা টিকা বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে দেশে আসবে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার এ তথ্য জানিয়েছিল।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ টিকার এই চালান আসার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে দেশে গত সোমবার রাতেও ২০ লাখ ডোজ টিকা এসেছে। এর মধ্যে ছিল চীনের সিনোফার্মের ১০ লাখ ডোজ এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকার ১০ লাখ ডোজ টিকা।

দেশে এখন পর্যন্ত করোনার টিকা নিবন্ধনকারী সংখ্যা সাড়ে পাঁচ কোটি ছাড়িয়েছে। তাদের মধ্যে জাতীয় পরিচয়পত্রের মাধ্যমে পাঁচ কোটি ৪২ লাখ ৫৮ হাজার ২১৫ জন ও পাসপোর্ট এর মাধ্যমে সাত লাখ ৭৭ হাজার ৪৬১ জন নিবন্ধন করেন।

এদিকে দেশে এতোদিন প্রাপ্তবয়স্কদের টিকা দেওয়া হলেও গত বৃহস্পতিবার থেকে স্কুলগামী শিশুদের টিকা প্রদান শুরু হয়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছেন দেশে এক কোটির বেশি শিশুকে করোনা টিকা দেয়া হবে।


আরও খবর



আবারও সংঘর্ষে জড়াল ভারত চীনের সেনারা

প্রকাশিত:শনিবার ০৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের অরুনাচল প্রদেশে বিতর্কিত লাইন অব অ্যাকচুয়াল কনট্রোল (এলএসি) বরাবর তাওয়াং সেক্টরে মুখোমুখি সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে দুপক্ষের অসংখ্য সেনা।

গত সপ্তাহে ঘটে এ সংঘর্ষের ঘটনা। তবে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বরাতে শুক্রবার এ খবর জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস। কয়েকদিন আগে চীনা সেনারা ভারতের উত্তরখন্ডেও সীমান্ত পার করে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে পড়েছিল। পরে ভারতীয় সেনা সেই স্থানে যাওয়ার কিছু আগে অনুপ্রবেশকারী চীনা সেনা ভারতীয় ভূখণ্ড ত্যাগ করে।

খবরে বলা হয়, গত সপ্তাহে প্রায় ২০০ চীনা সেনাকে আটকে দেয় ভারতীয় সেনারা। লাইন অব কন্ট্রোলের খুব কাছে চলে এসেছিল চীনা লাল ফৌজ। তখনই ভারতীয় সেনারা তাদের আটকে দেয়। কয়েক ঘণ্টা দুদেশের সেনা মুখোমুখি দাঁড়িয়েছিল। একপর্যায়ে দুই তরফের কমান্ডারদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। তবে এ ঘটনায় কোনো পক্ষের কোনো ক্ষতি হয়নি। এই মুহূর্তে এই অঞ্চলে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

এর আগে গত বছর সীমান্ত বিবাদের জেরে পূর্ব লাদাখে সংঘর্ষে জড়িয়েছিল ভারত ও চীন। সেই ঘটনায় ভারতীয় সেনার প্রায় ২০ জন সেনাকর্মী মারা গিয়েছিল। চীনা সেনারও প্রায় ৪০ জনের হতাহত হওয়ার খবর মিলেছিল। সেই সংঘর্ষের পর থেকেই ভারত সংলগ্ন বিভিন্ন সীমান্ত সেক্টরে শক্তি বাড়ায় চীন।

লাদাখে সেনা প্রত্যাহারের কথা বলা হলেও বিভিন্ন অজুহাতে সেখানেও সেনা মোতায়েন বাড়িয়েছে বেইজিং। সঙ্গে রয়েছে অত্যাধুনিক অস্ত্রসম্ভার।

তবে যুদ্ধ-সংঘাত নয়, আলোচনার টেবিলেই সমস্যার সমাধান খুঁজছে নয়াদিল্লি। শিগগিরই বৈঠকে বসতে যাচ্ছে দুই দেশের শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তারা। পূর্ব লাদাখ সীমান্ত নিয়ে এটা হবে উভয় পক্ষের ১৩তম বৈঠক। তবে এই বৈঠক সফলতা নিয়ে সন্দিহান বিশেষজ্ঞরা। এর আগে ১২ বার বৈঠক করেও কোনো সমাধান মেলেনি।

সীমান্তে সেনা উপস্থিতিকে কেন্দ্র করে ভারত এবং চীনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই উত্তেজনা বিরাজ করছে। বারবার দুপক্ষের মধ্যে বৈঠক হলেও এ বিষয়ে এখনো কোনো সমাধান মেলেনি। প্যাংগং থেকে চীন তাদের সেনা সদস্যদের সরিয়ে নিলেও এখনো লাদাখের বহু জায়গায় ঘাঁটি রয়েছে দেশটির সামরিক বাহিনীর।

ভারতের সীমান্তবর্তী এলাকায় চীনের টহলদারিও চলছে। সীমান্ত এলাকায় সেনা সরানোর প্রক্রিয়া নিয়ে চলতি আগস্টে ১২তম বৈঠকে বসে নয়াদিল্লি-বেইজিং। কমান্ডার পর্যায়ে প্রায় ৯ ঘণ্টা ধরে আলোচনা হলেও ইতিবাচক কোনো ফল আসেনি।

তবে ভারতের আশা, চীন পূর্ব লাদাখ সীমান্তে অবশিষ্ট সমস্যাগুলোর দ্রুত সমাধান করার চেষ্টা করবে ও দ্বিপাক্ষিক চুক্তি মেনে চলবে। এ প্রসঙ্গে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেন, চীনের পক্ষ থেকে উসকানিমূলক আচরণ এবং একতরফা পদক্ষেপের ফলে এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত হচ্ছে।

আমাদের আশা যে চীন পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় অবশিষ্ট সমস্যাগুলোর দ্রুত সমাধানের জন্য কাজ করবে এবং দ্বিপাক্ষিক চুক্তি ও প্রটোকলগুলো সম্পূর্ণরূপে মেনে চলবে। অরুনাচল সীমান্ত নিয়েও ভারতের সঙ্গে চীনের সমস্যা রয়েছে। এই সীমান্ত ১ হাজার ১২৬ কিলোমিটার দীর্ঘ। অরুনাচল প্রদেশকে দক্ষিণ তিব্বতের অংশ হিসাবে দাবি করে বেইজিং। যদিও ভারতের তরফে তার বিরোধিতা করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: ভারত চীন

আরও খবর