Logo
শিরোনাম

মামুনুল হককে নিয়ে যা বললেন কথিত সেই স্ত্রী’র ছেলে (ভিডিও)

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ১০২১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

মামুনুল হক আমার মাকে কু-প্রস্তাব দেয়। তখন আমার মা তাকে বাধা দেয় পরে মামুনুল হক ফিরে আসে কিন্তু তার মধ্যে তখন থেকেই কাম ভাব জেগে ওঠে, সে লোভ সামলাতে পারছিলনা, সে সুযোগের অপেক্ষায় ছিল

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকের কথিত সেই স্ত্রীর প্রথম ঘরের বড় ছেলে আব্দুর রহমান সম্প্রতি সোস্যাল মিডিয়ায় একটি বিবৃতি দিয়েছেন। ওই ভিডিও বক্তব্যে বলেছেন, আমার বাবা হাফেজ শহীদুল ইসলাম ওরফে শহীদুল্লাহ মামুনুল হককে নিজের প্রাণের চেয়েও ভালোবাসতো আর এই ভালোবাসার সুযোগ নিয়ে তিনি (মামুনুল হক) বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। কতবড় গাদ্দার হলে মামুনুল হক এটা করতে পাবে।

 

আমার বাবা-মায়ের মধ্যে যখন ডিভোর্স হয়নি তখন আমার বাবার অনুপস্থিতিতে মামুনুল হক একবার আমাদের বাসায় আসে, তখন আমার মা ছোট ভাইকে বুকের দুধ পান করাচ্ছিল। এই দৃশ্য দেখে মামুনুল হক আমার মাকে কু-প্রস্তাব দেয়। তখন আমার মা তাকে বাধা দেয় পরে মামুনুল হক ফিরে আসে কিন্তু তার মধ্যে তখন থেকেই কাম ভাব জেগে ওঠে, সে লোভ সামলাতে পারছিলনা, সে সুযোগের অপেক্ষায় ছিল।

 

কিন্তু সেই সুযোগ এত তারাতারি হয়ে যাবে তা মামুনুল হক বুঝতে পারে নি। যখনই সে সুযোগ পেয়েছে তখনই আমার বাবা-মায়ের মধ্যে দূরত্ব তৈরী করেছে। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হতেই পারে কিন্তু মামুনুল হক সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ভাঙন সৃষ্টি করেছে। এই ভাবে করে সে একটা পরিবারের খুশি-ভালোবাসা-আনন্দ-মিলমিশ পুরোপুরি ধ্বংস করে দিয়েছে। একই ভাবে মামুনুল হক যে কত পরিবারের-মানুষের সম্পর্ক ধ্বংস করেছে তার ঠিক নেই।

 

আমি বাংলাদেশের মানুষের কাছে আশা করবো এর যেন সঠিক বিচার হয়। আপনারা কারোর অন্ধ ভক্ত হয়েন না, কাউকে অন্ধ ভাবে বিশ্বাস করবেন না। কেননা সবারই মুখোশের আড়ালে একটা চেহারা থাকে। এই লোকটা আলেম নামধারী একটা মুখোশধারী জানোয়ার। এর মধ্যে কোন মনুষ্যত্ব নেই। সবসময় সুযোগের অপেক্ষায় থাকে কাকে কখন কিভাবে দূর্বল করা যাবে। 

 

প্রসঙ্গত, শনিবার (৩ এপ্রিল) বিকেল ৩টায় রয়াল রিসোর্টের ৫ম তালার ৫০১ নম্বর কক্ষে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে নারীসহ অবরুদ্ধ করে রাখে স্থানীয়রা। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে।


আরও খবর

দুদকের তালিকায় শতাধিক ভিআইপি

বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১




কান ফেস্টিভালে বিজয়ের মুকুট ছিনিয়ে নিলেন জুলিয়ার

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৫৫জন দেখেছেন
এস এম মনির

Image

২০২১ সালের কান ফেস্টিভালে বিজয়ের মুকুট ছিনিয়ে নিলেন ফরাসি নারী নির্মাতা জুলিয়ার দুকুরনো। তার টাইটেন চলচ্চিত্রটি এবারের ৭৪তম কান উৎসবের সেরা পুরস্কার স্বর্ণ পাম বা পাম দ্যর জিতে নিয়েছে।

১৭ জুলাই স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টা ২৫ মিনিটে সমাপনী আয়োজনে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। চলচ্চিত্র আসরের বিচারক প্রধান স্পাইক লি পুরস্কারের আগেই তথ্য বলে ফেলেছিলেন বলে পরে দুঃখ প্রকাশ করেন।

কানে গত ২৮ বছর পর দ্বিতীয় নারী নির্মাতা হিসেবে জুলিয়া সেরা নির্মাতার এই পুরস্কার জয় করে নিলেন। কানের ইতিহাসে নারী নির্মাতাদের মধ্যে কেবল জেন ক্যাম্পিয়ন স্বর্ণ পাম জেতেন ১৯৯৩ সালে। দ্বিতীয়বারের মতো কোনো নারী নির্মাতার ছবি স্বর্ণ পাম জিতে গেলো ২০২১ সালে এসে।

এদিকে কানের অফিসিয়াল সিলেকশনে প্রথমবার নির্বাচিত হয়েছিল বাংলাদেশের আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ পরিচালিত রেহানা মরিয়ম নূর। গত ৭ জুলাই আ সার্তে রিগা বা তরুণ নির্মাতাদের বিভাগে ছবিটি প্রদর্শিত হওয়ার পর থেকেই প্রশংসায় ভাসছিল ছবিটি।

ধারণা করা হয়েছিল, এই ছবিটি পুরস্কার পাবে। কিন্তু সেই প্রত্যাশা পূরণ হয়নি টিম রেহানা মরিম নূরের। খালি হাতেই ফিরতে হলো বাংলাদেশি এই সিনেমা ও তার টিমকে।

গত ১৬ জুলাই আ সার্তে রিগায় ৬টি বিভাগে পুরস্কার প্রদান করা হয়। এতে সেরা পুরস্কার গ্রান্ড প্রাইজ, রাশিয়ান নারী নির্মাতা কিরা কোভালেনকো পরিচালিত চলচ্চিত্র আনক্লেনচিং দ্য ফিস্টস। জুরি প্রাইজ , গ্রেট ফ্রিডম (সেবাস্টিয়ান মাইজে), এনসেম্বল প্রাইজ, বোন মের (হাফসিয়া হেরৎসি), প্রাইজ অব কারেজ, লা সিভিল (তিওডোরা আনা মিহাই), প্রাইজ অব অরিজিনালিটি , ল্যাম্ব (ভ্লাদিমির জোহানসন), স্পেশাল মেনশন, নচে দে ফুয়েগো (তাতিয়ানা উয়েজো)।


আরও খবর



জিম্বাবুয়েকে বিশাল লক্ষ্য ছুড়ে দিল বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শনিবার ১০ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | ৬৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রথম ইনিংসে ব্যর্থতার পর দ্বিতীয় ইনিংসে টপ অর্ডাররা দারুণ ব্যাটিং করেছেন। হারারেতে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে বোলারদের বিপক্ষে আজ শনিবার (৯ জুলাই) চতুর্থদিন রীতিমত টি-টোয়েন্টি স্টাইলে ব্যাট করেছেন বাংলাদেশে দুই টপ অর্ডার সাদমান ইসলাম এবং নাজমুল হোসেন শান্ত। শেষ ১০ ওভারে স্কোরবোর্ডে তারা রান যোগ করেছেন ৮০টি।

লিড ৪০০ পার হয়ে যাওয়ার পরও অধিনায়ক মুমিনুল ইসলাম অপেক্ষায় ছিলেন শান্ত এবং সাদমানের সেঞ্চুরির জন্য। সেই কাঙ্খিত সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন দুজনই।

ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করেন সাদমান। তার পর ঝড়ের বেগে ব্যাট চালিয়ে রান তোলেন শান্তও। ফলে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নিতে খুব বেশি অপেক্ষা করতে হয়নি তাকে।

এই দুজনের সেঞ্চুরি পূরণ হওয়ার পরপরই ইনিংস ঘোষণা করেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক এবং স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের সামনে জয়ের জন্য ৪৭৭ রানের বিশাল লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছেন। দ্বিতীয় ইনিংসে ১ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ২৮৪ রান। শান্ত ১১৭ এবং সাদমান অপরাজিত ছিলেন ১১৫ রানে।

এর আগে সাদমান ইসলাম সেঞ্চুরির পর দ্রুত গতিতে রান তুলে সেঞ্চুরি তুলে নেন নাজমুল হোসেন শান্তও। ক্যারিয়ারে এটা শান্তর দ্বিতীয় সেঞ্চুরি।

শান্তর আগে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করেন ওপেনার সাদমান ইসলাম। ১৮০ বল খেলে সেঞ্চুরির দেখা পান তিনি। তবে শান্ত সেঞ্চুরি করেন একেবারে ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাট করে। ১০৯ বলে সেঞ্চুরি আসে তার ব্যাটে।


আরও খবর



ঈদুল আযহায় সারাদেশে মোট ৯০ লাখ ৯৩ হাজার ২৪২টি গবাদিপশু কোরবানি হয়েছে

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৭৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

এবছর পবিত্র ঈদুল আযহায় সারাদেশে মোট ৯০ লাখ ৯৩ হাজার ২৪২টি গবাদিপশু কোরবানি হয়েছে। যার মধ্যে ৪০ লাখ ৫৩ হাজার ৬৭৯টি গরু-মহিষ, ৫০ লাখ ৩৮ হাজার ৮৪৮টি ছাগল-ভেড়া ও অন্যান্য ৭১৫টি গবাদিপশু কোরবানি হয়েছে।

ঢাকা বিভাগে ৯ লাখ ৭৩ হাজার ৮৩৩টি গরু-মহিষ, ১২ লাখ ৬৫ হাজার ৫৬টি ছাগল-ভেড়া ও অন্যান্য ৩৬৩টিসহ মোট ২২ লাখ ৩৯ হাজার ২৫২টি, চট্টগ্রাম বিভাগে ১০ লাখ ৭১ হাজার ২৩১টি গরু-মহিষ, ৮ লাখ ২৮ হাজার ৮৬টি ছাগল-ভেড়া ও অন্যান্য ২০১টিসহ মোট ১৮ লাখ ৯৯ হাজার ৫১৮টি, রাজশাহী বিভাগে ৬ লাখ ১৬ হাজার ৭৩৩টি গরু-মহিষ, ১২ লাখ ১৬ হাজার ২৮৩টি ছাগল-ভেড়া ও অন্যান্য ১২৯টিসহ মোট ১৮ লাখ ৩৩ হাজার ১৪৫টি, খুলনা বিভাগে ২ লাখ ৩৯ হাজার ১৪৭টি গরু-মহিষ, ৬ লাখ ১৮ হাজার ৪৪৩টি ছাগল-ভেড়া ও অন্যান্য ১১টিসহ মোট ৮ লাখ ৫৭ হাজার ৬০১টি, বরিশাল বিভাগে ২ লাখ ৬৬ হাজার ৬২১টি গরু-মহিষ, ১ লাখ ৯৫ হাজার ৩৫৮টি ছাগল-ভেড়াসহ মোট ৪ লাখ ৬১ হাজার ৯৭৯টি, সিলেট বিভাগে ২ লাখ ৯ হাজার ৫৬৯টি গরু-মহিষ, ১ লাখ ৯৯ হাজার ৩৬৪টি ছাগল-ভেড়া ও অন্যান্য ৮টিসহ মোট ৪ লাখ ৮ হাজার ৯৪১টি, রংপুর বিভাগে  ৪ লাখ ৯৬ হাজার ২২০টি গরু-মহিষ, ৫ লাখ ৪৮ হাজার ৬৩৯ টি ছাগল-ভেড়াসহ মোট ১০ লাখ ৪৪ হাজার ৮৫৯টি এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ১ লাখ ৮০ হাজার ৩২৫টি  গরু-মহিষ, ১ লাখ ৬৭ হাজার ৬১৯টি ছাগল-ভেড়া ও অন্যান্য ৩টিসহ মোট ৩ লাখ ৪৭ হাজার ৯৪৭টি গবাদিপশু কোরবানি হয়েছে।

করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সরকার এবছর অনলাইন প্ল্যাটফর্মে গবাদিপশু ক্রয়-বিক্রয় কার্যক্রম গ্রহণ করে। সরকারের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় ও আইসিটি বিভাগসহ অন্যান্য দপ্তর-সংস্থা, জেলা-উপজেলা প্রশাসন, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশসহ অন্যান্য বেসরকারি সংগঠন ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে গবাদিপশুর ডিজিটাল হাট পরিচালনা করে। যার প্রেক্ষিতে এবছর অনলাইনে মোট ৩ লাখ ৮৭ হাজার ৫৭৯টি গবাদিপশু বিক্রয় হয়েছে যার আর্থিক মূল্য ২ হাজার ৭৩৫ কোটি ১১ লাখ  ১৫ হাজার  ৬৭৮ টাকা। গতবছর অনলাইন প্ল্যাটফর্মে গবাদিপশু বিক্রয় হয়েছিল ৮৬ হাজার ৮৭৪টি যার আর্থিক মূল্য ছিল ৫৯৫ কোটি ৭৬ লাখ ৭৪ হাজার ৭৪ হাজার ৮২৯ টাকা। এবছর গতবছরের তুলনায় প্রায় ৫ গুণ বেশি গবাদিপশু অনলাইন প্ল্যাটফর্মে বিক্রয় হয়েছে। আগামী বছর অনলাইন প্ল্যাটফর্মে গবাদিপশু ক্রয়-বিক্রয়ের পরিসর আরো বাড়ানোর লক্ষ্যে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় কাজ করবে।

করোনা মহামারির মধ্যেও গবাদিপশু উৎপাদন, কোরবানির পশু প্রস্তুতকরণ, অনলাইন প্ল্যাটফর্মে বিপণন কার্যক্রম পরিচালনা ও খামারিদের উদ্বুদ্ধকরণ, পশুর হাটে ভেটেরিনারি মেডিকেল সেবা প্রদানসহ সুষ্ঠুভাবে কোরবানির সার্বিক ব্যবস্থাপনার জন্য ষংশ্লিষ্ট সকল প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি ও মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব রওনক মাহমুদ। একইসাথে স্থানীয় সরকার বিভাগ, স্থানীয় প্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, প্রাণিসম্পদ খাতের খামারি, উদ্যোক্তা, ডেইরি অ্যাসোসিয়েশনসহ কোরবানির সাথে সম্পৃক্ত সকল সরকারি-বেসরকারি দপ্তর-সংস্থা ও সংগঠনকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী ও সচিব।


আরও খবর



রাজশাহী মেডিকেলে আরও ১৪ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ১০ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শনিবার সকাল ৮টার মধ্যে তারা মারা যান। এর আগে গত ২৮ জুন সর্বোচ্চ ২৫ জন মারা যান।

হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, নতুন করে মারা যাওয়া ১৪ জনের মধ্যে ছয়জন করোনা পজিটিভ ছিলেন। আর বাকি আটজন মারা গেছেন করোনার উপসর্গ নিয়ে।

মৃত ১৪ জনের মধ্যে রাজশাহীর সাতজন, নাটোরের চারজন, পাবনার একজন, চুয়াডাঙ্গার একজন এবং জয়পুরহাটের একজন রোগী ছিলেন। হাসপাতালটিতে এ মাসের দশদিনে  ১৭১ জনের মৃত্যু হলো। এর আগে জুন মাসে করোনা ইউনিটে মারা গেছেন ৩৫৪ জন।

হাসপাতাল পরিচালক শামীম ইয়াজদানী আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৬০ জন। শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি ছিলেন সর্বোচ্চ ৫২২ জন। হাসপাতালে মোট করোনা ডেডিকেটেড শয্যার সংখ্যা এখন ৪৫৪টি।


আরও খবর



শরীয়তপুরের ৫০ গ্রামে উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল আজহা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সউদী আরবের সঙ্গে মিল রেখে শরীয়তপুরের ছয় উপজেলার ৫০ গ্রামের মানুষ ঈদুল আজহা উদযাপন করছেন। মঙ্গলবার জেলার বেশ কয়েকটি স্থানে ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হলেও প্রধান ও বড় জামায়াত অনুষ্ঠিত হয় নড়িয়ার সুরেশ্বর দরবার শরীফ মাঠ প্রাঙ্গণে। এ জামায়াত অনুষ্ঠিত হয় সকাল সাড়ে ৯টায়।

সউদীসহ মধ্যপ্রাচ্যের ৬৯ দেশে সোমবার (১৯ জুলাই) চাঁদ দেখা যাওয়ায় মঙ্গলবার ওইসব দেশে ঈদুল আজহা উদযাপিত হচ্ছে। তাই সউদীসহ মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে শাহ্ সুরেশ্বরীর (রা.) অনুসারীরা ঈদুল আজহা উদযাপন করছেন।

সুরেশ্বর দরবার শরিফের গদিনীনিশিল পীর সৈয়দ তৌহিদুল হোসাইন শাহীন নূরী বলেন, আমরা শুধু ঈদ না সব ধর্মীয় উৎসব সউদী আরবের সঙ্গে মিল রেখে পালন করি। আজ সেখানের মতো আমরা কোরবানির ঈদ পালন করছি।

তিনি বলেন, সুরেশ্বর দরবার শরীফ মাঠ প্রাঙ্গণে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টায় ঈদুল আজহার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। পরে পশু কোরবানি করা হয়। শরীয়তপুরের ছয় উপজেলার ৫০ গ্রামের অর্ধলক্ষাধিক ধর্মপ্রাণ মুসলমান বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে ঈদুল আজহা উদযাপন করেছেন।

সুরেশ্বর দায়রা শরিফের প্রতিষ্ঠাতা হজরত জান শরীফ শাহ সুরেশ্বরীর (রা.) শরীয়তপুরসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় প্রায় এক কোটি মুসলমান মঙ্গলবার ঈদের নামাজ আদায় করেছেন।

তিনি আরও বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে সরকারি নির্দেশনা থাকায় সীমিত আকারে মসজিদে মসজিদে নামাজ আদায় করা হয়েছে।


আরও খবর

পবিত্র ঈদুল আজহা আজ

বুধবার ২১ জুলাই 20২১

আজ চাঁদপুরের ৪০ গ্রামে ঈদ

মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21