Logo
শিরোনাম

মহাষ্টমীতে আজ কুমারী পূজা

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
পাঁচ থেকে সাত বছরের বালিকাকে সাজানো হবে কুমারী মাতৃকারূপে। এ উপলক্ষ্যে রামকৃষ্ণ মিশন ও এর আশপাশে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে

শারদীয় আবেশ লেগে আছে প্রকৃতি জুড়ে। নীলাকাশ, সাদা মেঘের ভেলা, কাশফুলের সমারোহ। শিউলি ঝরা প্রভাত। ঘাসের পরে শিশির বিন্দু। রাত গভীরে শীত শীত আমেজ। তার মধ্যে পূজামণ্ডপগুলো মুখরিত ঢাকের বাদ্য আর উলুধ্বনি-শঙ্খের আওয়াজে। হিন্দুদের উত্সবের জোয়ার বইছে চারদিকে।

গতকাল থেকেই মন্দিরগুলোতে ঠাকুর দর্শনের জন্য দর্শনার্থীদের ঢল নেমেছে। হাজার হাজার হিন্দু ভক্ত-দর্শনার্থী ঢাকেশ্বরী মন্দির, তাঁতীবাজার, জগন্নাথ হল, শাঁখারিবাজার, সিদ্ধেশ্বরী, বনানীসহ বিভিন্ন মন্দিরে দুর্গাকে দর্শন ও প্রার্থনা-তর্পণে যাচ্ছেন। মুখরিত হয়ে উঠছে প্রতিটি মন্দির প্রাঙ্গণ।

গতকাল মহাসপ্তমী বিহিত থেকেই মূলত উত্সবের জোয়ার নামল পূজায়। আর মাত্র দুটি দিবানিশির প্রহর পেরুলেই উমার কৈলাশ গমন। ঠাকুর থাকবে কতক্ষণ’—এই সুর এখন ভক্ত প্রাণে। আজ শারদীয় দুর্গাপূজার মহাষ্টমী। সকালে রাজধানীর রামকৃষ্ণ মিশনে কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত হবে। এক বালিকার মধ্যে শুদ্ধ নারী রূপ চিন্তা করে হিন্দু ধর্মীরা তাকে দেবী’ জ্ঞানে পূজা করবে। প্রথা ও নিরাপত্তার কারণে মেয়েটির নাম এবং পরিচয় পূজা সূচনার পূর্বাবধি প্রকাশ করা হয় না। সব নারীতে মাতৃরূপ উপলব্ধি করাই কুমারী পূজার লক্ষ্য। পাঁচ থেকে সাত বছরের বালিকাকে সাজানো হবে কুমারী মাতৃকারূপে। এ উপলক্ষ্যে রামকৃষ্ণ মিশন ও এর আশপাশে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

মেরুতন্ত্রে বলা আছে, সর্বকামনা সিদ্ধির জন্য ব্রাহ্মণ কন্যা, যশোলাভের জন্য ক্ষত্রিয় কন্যা, ধনলাভের জন্য বৈশ্য কন্যা ও পুত্রলাভের জন্য শূদ্রকুল জাত কন্যা কুমারী পূজার জন্য যোগ্য। গুণ ও কর্ম অনুসারেই এই জাতি বা বর্ণ নির্ধারিত হয়। সে জন্যই প্রচলিত শাস্ত্র অনুসারে, বিভিন্ন মিশন ও মন্দিরগুলোতে সর্বমঙ্গলের জন্য ব্রাহ্মণ কন্যাকেই দেবীজ্ঞানে পূজা করা হয়। সব নারীর মধ্যেই বিরাজিত রয়েছে দেবীশক্তি। তবে কুমারী রূপেই মা দুর্গা বিশেষভাবে প্রকটিত হয়েছিলেন। তাই কুমারী রূপে নারীকে দেবীজ্ঞানে সম্মান জানানোর একটি হচ্ছে কুমারী পূজা’। ১৯০১ সালে স্বামী বিবেকানন্দ শুরু করেছিলেন বেলুড়মঠের দুর্গাপুজো। সেই বছরই কুমারী পুজোর প্রচলন করেছিলেন তিনি।

এদিকে দুর্গোত্সবে গতকাল ছিল মহাসপ্তমী। এদিন ত্রিনয়নী দেবী দুর্গার চক্ষুদান করা হয়। নবপত্রিকা প্রবেশ ও স্থাপন শেষে দেবীর মহাসপ্তমীবিহিত পূজা অনুষ্ঠিত হয়। পূজাশেষে যথারীতি অঞ্জলি প্রদান, প্রসাদ বিতরণ ও ভোগ আরতির আয়োজন ছিল। বিভিন্ন মন্দিরের পুরোহিতরা জানান, দুর্গাকে বিশেষ রীতি অনুসারে স্নান করানো হয়। দুর্গার প্রতিবিম্ব আয়নায় ফেলে বিশেষ ধর্মীয় রীতিতে তা স্নান করানোর পর বস্ত্র ও নানা উপচারে মায়ের পূজা দেওয়া হয়। হিন্দু ধর্মমতে, এবার দেবী এসেছেন ঘোড়ায় চড়ে আর যাবেন দোলায় চড়ে। এ বছর সারা দেশে ৩২ হাজার ১১৮টি মণ্ডপে হচ্ছে দুর্গাপূজা।

নিউজ ট্যাগ: কুমারী পূজা

আরও খবর

শুভ প্রবারণা পূর্ণিমা আজ

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21

লক্ষ্মীপূজা আজ

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21




ডিবি কার্যালয়ে মঙ্গলবার আসতে বলা হয়েছে মুসা বিন শমসেরকে

প্রকাশিত:সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ১০৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সম্প্রতি ভুয়া অতিরিক্ত সচিব পরিচয়দানকারী আবদুল কাদের নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। তার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে ধনকুবের মুসা বিন শমসেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে ডিবি। এজন্য মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) দুপুরের পর তাকে ডিবি কার্যালয়ে আসতে বলা হয়েছে।

সেখানে কাদেরের মুখোমুখি করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে মুসা বিন শমসেরকে। প্রতারক আবদুল কাদের ধনকুবের মুসা বিন শমসেরের আইন উপদেষ্টা ছিলেন।

এ বিষয়ে ডিবির উপ-কমিশনার (ডিসি-গুলশান) মশিউর রহমান সোমবার বলেন, রবিবার তার (মুসা বিন শমসের) ছেলেকে জিজ্ঞাসাবাদ করে কিছু তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। মঙ্গলবার মুসাকেও ডাকা হয়েছে। তাকে প্রতারকের বিষয়ে কিছু প্রশ্নোত্তর করা হবে।

ডিবি সূত্র জানায়, মুসার বয়স বর্তমানে ৭৭ বছর। তিনি নানা রোগে আক্রান্ত। এছাড়াও তিনি করোনার টিকা নেননি। অসুস্থতার কারণে তাকে সুনির্দিষ্ট সময় উল্লেখ করা হয়নি। তবে তাকে মঙ্গলবার দুপুরের খাবার শেষ করে কার্যালয়ে আসতে বলা হয়েছে। আসা, না আসার বিষয়ে তিনি কোনো নিশ্চয়তা দেননি। তবে ডিবি ধারণা করছেন, প্রতারণার মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তিনি হাজির হবেন।

 

 

নিউজ ট্যাগ: মুসা বিন শমসের

আরও খবর



হিলি স্থলবন্দর দিয়ে শুরু হয়েছে আমদানি-রপ্তানি

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৬০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দিনাজপুরে হিলি স্থলবন্দর ছয়দিন বন্ধ থাকার পর আজ থেকে পুনরায় শুরু হয়েছে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম।

রবিবার (১৭ অক্টোবর) বেলা ১১টায় ভারত থেকে পণ্যবাহী ট্রাক হিলি বন্দরে প্রবেশের মধ্যে দিয়ে দুদেশের মধ্যে বাণিজ্য কার্যক্রম শুরু হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলাহিলি কাস্টমস সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জামিল হোসেন চলন্ত জানান, দুর্গাপূজা উপলক্ষে ১১-১৬ অক্টোবর পর্যন্ত টানা ছয়দিন দুদেশের ব্যবসায়ীদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ ছিল। পূজার ছুটি শেষে রোববার সকাল থেকে পুনরায় এই বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু হয়েছে।

তিনি আরও জানান, দুর্গাপূজা উপলক্ষে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকলেও বন্দরের ভেতরে সব ধরনের কার্যক্রম চালু ছিল।

নিউজ ট্যাগ: হিলি স্থলবন্দর

আরও খবর



খুন করে ভারতে পালানোর সময় হত্যাকারী গ্রেফতার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৭৪জন দেখেছেন

Image

জয়পুরহাট প্রতিনিধি:

জয়পুরহাট সদরের জগদিশপুর গ্রামের মইনুল ইসলাম (২০) ছোট বোনকে উত্তক্ত করার প্রতিবাদ করায় ঘাতকের ছুরিকাঘাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যান। এসময় আহত হয় আরো ৪ জন স্বজন। ঘাতক একই গ্রামের আলম হোসেনের ছেলে আব্দুল হাকিম।

জয়পুরহাট সদর থানার (ওসি) একেএম আলমগীর জাহান জানান, হাকিম দীর্ঘদিন ধরে মইনুলের ছোট বোনকে বিভিন্ন কু-প্রস্তাব ও উত্যক্ত করছিল। এর প্রতিবাদ করায় গত রোববার সন্ধ্যায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে মইনুল তার মা, এক ভাই, ভাইয়ের শ্যালক ও এক প্রতিবেশীকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায় হাকিম। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন। মইনুলের অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে তাকে বগুড়া শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

এ ব্যাপারে জয়পুরহাট সদর থানায় মামলা হলে ভারতে পালিয়ে যাবার সময় পাঁচবিবি উপজেলার সীমান্তবর্তী উচনা এলাকা থেকে হাকিমকে গ্রেফতার করা হয় বলেও জানান ওসি।

নিউজ ট্যাগ: জয়পুরহাট হত্যা

আরও খবর



ফিলিস্তিন নামে কোনো স্বাধীন রাষ্ট্র হতে দেব না: ইসরাইলি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ০৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ১১৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইসরাইলের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আইলেদ সাকেদ বলেছেন, ফিলিস্তিন নামে কোনো রাষ্ট্রই হতে দেবো না আমরা। সম্প্রতি সংযুক্ত আরব আমিরাত সফরে গিয়ে এ মন্তব্য করেছেন ইহুদিবাদী দেশটির এ মন্ত্রী। খবর আরব নিউজের।

আমিরাতে অনুষ্ঠিত দুবাই এক্সপো-২০২০ এর অনুষ্ঠানে সোমবার দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ সাইফ বিন জায়েদ আল-নাহিয়ানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ইসরাইলের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আইলেদ সাকেদ।

বুধবার সকালে তিনি ফিলিস্তিন নিয়ে তার সরকারের দৃষ্টিভঙ্গি আমিরাত সরকারের কাছে তুলে ধরেন। এ সময় তিনি বলেন, ইসরাইলের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী স্বাধীন ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রের ঘোর বিরোধী। বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেত এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়াইর ল্যাপিদ তাদের শাসনামলে কোনো ভাবেই ফিলিস্তিনি রাষ্ট্র গঠন করতে দেবেন না বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত বছর আরব দেশগুলোর সমালোচনা উপেক্ষা করে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যস্থতায় ইহুদিবাদী দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে সংযুক্ত আরব আমিরাত। 

ফিলিস্তিনিরা এ ঘটনাকে মুসলিম উম্মাহর সঙ্গে আমিরাতের বিশ্বাসঘাতকতা বলে উল্লেখ করে নিন্দা জানিয়েছেন।  


আরও খবর



বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন পেল ম্যালেরিয়ার প্রথম টিকা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ২৬২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্বের অন্যতম প্রাণঘাতি রোগ ম্যালেরিয়া। একশ বছরের বেশি সময় ধরে চেষ্টার পর এ রোগের বিরুদ্ধে কার্যকর টিকা তৈরি করা হয়েছে, যার অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য মতে, মশাবাহিত এ রোগে বিশ্বে ২০১৯ সালে আক্রান্ত হন ২৩ কোটি মানুষ, মৃত্যু হয় চার লাখ ৯ হাজারের। এসব মৃত্যুর ৯৫ শতাংশই ঘটে সাব সাহারা আফ্রিকায়। ২০১৯ সালে এ রোগে ৫ বছরের কম বয়সি শিশুর মৃত্যু হয়েছে দুই লাখ ৭৪ হাজার। এখন এ টিকা তৈরির মাধ্যমে প্রতিবছর আফ্রিকায় লাখো শিশুর মৃত্যু ঠেকানোর পথ তৈরি হলো।

আরটিএস,এস নামের এ টিকা ছয় বছর আগেই কার্যকর হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে। এরপর ঘানা, কেনিয়া ও মালাউয়িতে এর পরীক্ষামূলক প্রয়োগেও সফলতা আসে।

ডব্লিউএইচও বলছে, সাব-সাহারা আফ্রিকার মতো যেসব এলাকায় ম্যালেরিয়ার মাঝারি থেকে উচ্চ প্রকোপ দেখা যায়, সেখানে এই টিকা প্রয়োগ করা উচিত।

পরীক্ষামূলক প্রয়োগে এ টিকা দেওয়া হয়েছে ২৩ লাখ শিশুকে। তাতে দেখা গেছে, এ টিকা নিরাপদ এবং ম্যালেরিয়ার মারাত্মক সংক্রমণ ৩০ শতাংশ কমাতে সক্ষম।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক তেদ্রোস আধানম গেব্রিয়াসুস বলেন, এটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত। শিশুদের জন্য ম্যালেরিয়া টিকার প্রতীক্ষা বহু দিনের। বিজ্ঞান, শিশু স্বাস্থ্য ও ম্যালেরিয়া নিয়ন্ত্রণে এটা যুগান্তকারী ঘটনা। এই টিকা প্রতিবছর লাখো মানুষের জীবন বাঁচাতে পারে।

নিউজ ট্যাগ: ম্যালেরিয়া

আরও খবর