Logo
শিরোনাম

মিয়ানমারে বিমান বিধ্বস্ত, সামরিক কর্মকর্তাসহ নিহত ১২

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১০ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৮২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মিয়ানমারের একটি সামরিক বিমান বিধ্বস্তের খবর পাওয়া গেছে। রুশ সংবাদমাধ্যম স্পুটনিক তাদের খবরে জানিয়েছে, দুর্ঘটনায় ১২ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত আরও চার জন। বিমানটি ১৬ জন যাত্রী নিয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্সও একই রকমের খবর দিয়েছে। মিয়ানমারের সবচেয়ে বড় শহর মান্দালয়ে বিধ্বস্ত হয়েছে। এতে ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তারা ছিলেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। তবে এখন পর্যন্ত বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়নি।

গত ১ ফেব্রুয়ারি ক্ষমতা দখল করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে রাজপথে জোরালো প্রতিবাদ গড়ে উঠলে প্রাণঘাতী বল প্রয়োগ করে সেনা সরকার। দেশটিতে এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে আট শতাধিক বিক্ষোভকারীর মৃত্যু হয়েছে। রাজপথে বিক্ষোভ কিছুটা প্রশমিত হয়ে এলেও সেনা সরকারের বিরুদ্ধে সশস্ত্র প্রতিরোধের প্রস্তুতি নিচ্ছে দেশটির বহু গোষ্ঠী। তবে সামরিক বিমানটি কোনও গোষ্ঠীর হামলায় ধ্বংস হয়েছে কিনা তা এখনও নিশ্চিত নয়।


আরও খবর



ভারতে টিকা সরবরাহে ড্রোন ব্যবহার করা হবে

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৩৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের প্রত্যন্ত অঞ্চলে করোনার টিকা পৌঁছে দিতে ড্রোন ব্যবহার করতে যাচ্ছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। এজন্য তারা দরপত্র আহ্বান করেছে। আগামী ২২ জুনের মধ্যে তা জমা দিতে বলা হয়েছে। রবিবার (১৩ জুন) এখবর দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের পত্রিকা আনন্দবাজার। সবার আগে তেলেঙ্গানা ড্রোনের মাধ্যমে ঘরে ঘরে টিকা পৌঁছে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল। এখনও পর্যন্ত যা খবর, রাজস্থানের বিকানির থেকে এই প্রকল্প শুরু হতে পারে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিষয়টির তদারকিতে রয়েছে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর)। তাদের তরফেই দরপত্র চেয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। বলা হয়েছে, কমপক্ষে ৪ কেজি পর্যন্ত ওজন বইতে সক্ষম হতে হবে ড্রোনগুলিকে। মাটি থেকে উল্লম্ব ভাবে উড়তে হবে সেগুলিকে। মাটি থেকে কমপক্ষে ১০০ মিটার উচ্চতায় উড়তে হবে।

আরো বলা হয়, যে জায়গা থেকে টিকা বোঝাই করে ড্রোনগুলিকে ওড়ানো হবে, টিকা সরবরাহ করে ফের সেখানে ফেরত আসতে হবে সেগুলিকে। এছাড়াও টিকা নিয়ে ড্রোনগুলি যাতে নিরাপদে মাটিতে নামে, জিপিএস-এর মাধ্যমে তার গতিবিধি নির্ভুল ভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যায়, তাও নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।


আরও খবর



ফিলিস্তিন অঞ্চলে প্রায় দু'লাখ লোকের স্বাস্থ্য সহায়তা প্রয়োজন: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিওএইচও) সতর্ক করে বলেছে, গত মাসে ইসরাইল ও হামাসের মধ্যকার সংঘাতের পর দখলকৃত ফিলিস্তিন অঞ্চলের প্রায় দুলাখ লোকের স্বাস্থ্য সহায়তা প্রয়োজন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পূর্বাঞ্চলীয় ভূমধ্যসাগরীয় আঞ্চলিক কার্যালয়ের এক বিবৃতিতে বুধবার এ কথা বলা হয়েছে।

এতে বলা হয়, পশ্চিম তীরসহ দখলকৃত ফিলিস্তিন অঞ্চলে প্রায় দুই লাখ লোকের স্বাস্থ্য সহায়তা প্রয়োজন। আর তা সরবরাহে ডব্লিওএইচও তার তৎপরতা জোরদার করেছে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, পরিস্থিতি ভয়ংকর। তাই সংস্থাটি প্রয়োজনীয় মানবিক সহায়তা সরবরাহ ও এ কাজে যুক্ত লোকজনকে গাজায় অবাধে ঢুকতে দেয়ার আহ্বান জানাচ্ছে।

গতমাসে ইসরাইল অবরুদ্ধ গাজায় বিমান হামলা চালায়। গাজা থেকে হামাস পাল্টা রকেট হামলা চালায়। উভয় পক্ষে ১১ দিনের সংঘাতের পর যুদ্ধবিরতি ঘোষিত হয়। এ সময় ইসরাইলী হামলায় ৬৬ শিশুসহ ২৫৪ ফিলিস্তিনী নিহত হয়। অপরপক্ষে হামাসের ছোঁড়া রকেটে ১২ ইসরাইলী প্রাণ হারায়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিবৃতিতে আরো বলা হয়, সংঘর্ষের কারনে ৭৭ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনী আভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত এবং প্রায় ৩০টি স্বাস্থ্য কেন্দ্র ধ্বংস হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালে হামাস গাজার নিয়ন্ত্রণ নেয়ার পর থেকে ইসরাইল এর স্থল ও আকাশ সীমান্ত অবরুদ্ধ করে রেখেছে। ঘনবসতিপূর্ণ এ এলাকায় প্রায় ২০ লাখ ফিলিস্তিনীর বসবাস। বহির্বিশ্বের সাথে গাজার যোগাযোগের একমাত্র পথ রাফা ক্রসিং যা মিশর সুরক্ষা দিয়ে আসছে। এখানে ইসরাইলের কোন নিয়ন্ত্রণ নেই।

সংস্থার রিক পিপারকর্ণ বলেন, ফিলিস্তিনীদের জীবন মান খারাপের দিকে যাচ্ছে। সহিসংতার কারণে অধিকাংশ লোকেরই জরুরি সহয়তা প্রয়োজন। এছাড়া করোনার মতো অন্যান্য স্বাস্থ্য হুমকিও রয়েছে।

সংস্থাটি বলছে, দখলকৃত ফিলিস্তিন অঞ্চলে ৩১ মে পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছে ৩ লাখ ৩৭ হাজার ১৯১ জন। মারা গেছে ৩ হাজার ৭ ৬৫ জন। সম্প্রতি গাজায় করোনা শনাক্তের হার বেড়ে গেছে।

ফিলিস্তিন অঞ্চলে স্বাস্থ্য সেবা কার্যক্রম জোরদার করার লক্ষ্যে সংস্থাটি ৭০ লাখ মার্কিন ডলার সহায়তার আবেদন জানালেও পাওয়া গেছে মাত্র ২৩ লাখ মার্কিন ডলার।



আরও খবর



সোমালিয়ায় আত্মঘাতী হমলায় নিহত ১৫

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৫৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সোমালিয়ার রাজধানীর এক সেনা ক্যাম্পে ভয়াবহ আত্মঘাতী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে সেনাবাহিনীতে নিয়োগপ্রাপ্ত অন্তত ১৫ সেনা নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার মোগাদিসুর ধেগোবাদন সেনা ক্যাম্পে এই ঘটনা ঘটে।

সেনা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আদান বলেন, নুতন নিয়োগপ্রাপ্ত সেনাদের সারিতে আত্মঘাতী হামলাকারী লুকিয়ে ছিল। এরপর ভয়াবহ বিস্ফোরণে ক্যাম্পটি কেঁপে ওঠে। হামলায় অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছে উল্লেখ করে এই সেনা কর্মকর্তা মৃত্যু বাড়ার আশঙ্কা করেন।

রয়টার্স নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, হামলায় আহতদেরকে মোগাদিসুর মদিনা হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুতে প্রায় ১৮ মাস পর এমন ভয়াবহ হামলা হলো। তবে এখন পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী হামলায় দায় স্বীকার করেনি। সোমালিয়াতে হোটেল এবং নিরাপত্তা ফাঁড়িতে হামলা খুবই সাধারণ ঘটনা।

২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে শহরের সিটি সেন্টারের একটি নিরাপত্তা ফাঁড়িতে এক হামলায় ৮১ জন নিহত হয়েছিল। এরপর সর্বশেষ বড় হামলার ঘটনা ঘটে ২০২০ সালের আগস্টে। ওই হামলায় ১১ জন নিহত হয়।

কাতারভিত্তিক আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, ব্গিত ৩০ বছর যাবৎ অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন সমস্যা গৃহযুদ্ধ, সংঘাত, সশস্ত্র বিদ্রোহ, দুর্ভিক্ষে জর্জরিত সোমালিয়া।


নিউজ ট্যাগ: সোমালিয়া

আরও খবর



শেরপুর পৌর এলাকায় ১৪ দিনের বিধিনিষেধ আরোপ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১১ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শেরপুর প্রতিনিধি:

শেরপুর জেলায় করোনা সনাক্তের হার দ্রুত গতিতে বেড়ে যাচ্ছে। গত মে মাসের তুলনায় আক্রান্তের সংখ্যা তিনগুন বেড়ে গেছে। জেলায় গোটা মে মাসে ৬৮ জনের শরীরে করোনা সনাক্ত হয়েছিলো। আর জুন মাসের প্রথম ১০ দিনেই ৮০ জন আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১০ জুন ৬৯ জনের করোনা পরীক্ষা করে ১৪ জনের শরীরে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। এদের সবার বাড়িই শেরপুর পৌর এলাকায়। স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণেই জেলায় দ্রুত করোনা পরিস্থিতি অবনতি হচ্ছে এমনটাই মনে করছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। এতে উদ্বিগ্ন জেলার সচেতন মহল।

এ অবস্থায় জেলার শীর্ষ কর্মকর্তাদের এক জরুরী মিটিং বৃহস্পতিবার রাত ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত জেলা প্রশাসকের বাসভবন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে ১১জুন সকাল ৬টা থেকে ২৪জুন রাত ১২টা পর্যন্ত ১৪ দিনের কঠোর বিধি-নিষেধ (আংশিক লকডাউন) আরোপ করা হয়। আরোপিত বিধি-নিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ারও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বিধিনিষেধের মধ্যে রয়েছে, করোনায় আক্রান্তের বাড়ি পুরোপুরি লকডাইনে থাকবে। আক্রান্ত ব্যক্তি ও তার পরিবারের সদস্যরা বাড়ির বাইরে যেতে পারবে না। সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক, বিবাহ, ধর্মীয় অনুষ্ঠান, জন্মদিন, পিকনিক স্পট, পর্যটন ও পার্কসমুহ বন্ধ থাকবে, সকাল ৭টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকানপার্ট খোলা রাখা যাবে। স্বাস্থ্য না মানলে ওইসব দোকানপার্ট ও স্বপিংমলকে বন্ধ করে দেয়া হবে। জরুরী পরিসেবা ও প্রয়োজন ছাড়া কেউ সন্ধা ৭টা থেকে সকাল সাতটার মধ্যে বাড়ির বাইরে বের হতে পারবে না। হোটেল রেস্তোরায় কেউ বসে খেতে পারবে না। শুধুমাত্র পার্সেল দিতে পারবে। সিএনজি, অটোরিক্সাসহ ক্ষুদ্র যানবাহনে দুই জনের বেশি যাত্রী উঠানো যাবে না। যাত্রীবাহী যানবাহনে অর্ধেকের বেশি যাত্রী উঠানো যাবে না। আর সবাইকে মাক্স পরা বাধ্যতামূলক।

সভায় জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব ও সিভিল সার্জন ডাঃ একেএম আনোয়ারুর রউফ প্রমুখ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 

শেরপুরের  জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ একেএম আনোয়ারুর রউফ জানান, আমরা সবার সাথে পরামর্শ করে কিছু বিধিনিষেধ দিয়েছি। আগামী রবিবার আবার বসবো। তখন পরিস্থিতি বিবেচনায় ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও খবর



ওবায়দুল কাদের আপনার স্ত্রী আপনাকে নষ্ট করছে : কাদের মির্জা

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৮৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি

বাংলাদেশ আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা বলেছেন, দুইটা পোলা মারা গেছে। আর কত মায়ের বুক খালি হইবো ওবায়দুল কাদের সাব। অন হইতে খেমা দেননা এইগান। কোরইছেনতো মালা চোককোনালি খেলা খেলাইছোনতো। আমনে দিন দিন ধ্বংস হই যান। আপনি নিজে আপনাকে নষ্ট করছেন, আপনার স্ত্রী আপনাকে নষ্ট করছে। আমনের ৪৭ বছরের রাজনীতি এখানে আই কোরছি। আমনে করেন নাই। আমনে ভোট কোরছেন,বকৃক্তা দিছেন। সুন্দর বকৃক্তা মানুষ হুইনছে,আমনেরে একটু পচন্দ করে। হেটাও ঠিক আছে। কিন্তু আমনেতো আমনের কারণে ধ্বংস হই যান। 

রবিবার (১৩ জুন) দুপুর ১২টায় নিজের ফেইজবুল অ্যাকাউন্ট থেকে লাইভে এসে তিনি এসব কথা বলেন।

মেয়র  বলেন, ওবায়দুল কাদের সাহেব নিজের চেহারাটা আয়না দিয়ে দেখুন। বউয়ের খপ্পরে পড়িয়েননা। এই মহিলার লাগাম টানি ধরেন, স্ত্রীকে সামলান। স্ত্রীকে বলেন তার চেহারাটা আয়না দিয়ে দেখতে। এ মহিলা চোখটোক লাই যেমনে কথা কয় হেটা বন্ধ করার। সে কি নেত্রী নাকি। নষ্ট পোলা সব সে ফালে, তার কি স্বার্থ, সে কি রাজনীতি করে। আপনার বউয়ের কিচ্ছা আবুল ফজল লিখেও শেষ করতে পারবে না। তিনি (ইসরাতুন্নেছা কাদের) কোথায় কোথায় রাত্রে থাকে, দেশের বাইরে কোথায় ওনার কি আছে সব খবর আমার কাছে আছে। সেটা পরে আরেক দিন বলব।

কাদের মির্জা বলেন, কোম্পানীগঞ্জের একটা পাগলও বলবে গত পাঁচ মাস এখানকার অস্থিতিশীল পরিস্থিতির জন্য ওবায়দুল কাদেরই দায়ী। এটা বলা অপরাধ হলে আমাকে বহিষ্কার করে দিন। বাংলাদেশে আপনি নমিনেশন দেন যাদের কোন অতীত নেই। কারে দেন চেহারাটা কি আপনি দেখেছেন। আপনার তোষামদি করে এ জন্য ভোটে দাঁড় করান। অন এইগান চোককোনালি খামাদি আই যদি অন্যায় করি আর বিচার করেন, জেলে দেন। আই রাজি আছি এখন জেলে দেন। আর বহিস্কার করলে করেন। আই এগাইন চিন্তা করিনা।


আরও খবর