Logo
শিরোনাম

‘মুছে যাক আমার নাম, কিন্তু বেঁচে থাক বাংলাদেশ’

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ১৯৫জন দেখেছেন

Image

১৯৭১এ মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ দক্ষ হাতে পরিচালনা করে বাঙালি জাতিকে উপহার দিয়েছিল তাদের নিজস্ব ঠিকানা, নিজস্ব ভূমি, বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাড়াবার শক্তি। বাংলাদেশকে তুলে এনেছেন শক্ত হতে। লাইট হাউজের মত আলো ছড়িয়ে দিয়ে গেছেন সারা জীবন।

মৃত্যুর সামনে দাড়িয়ে একমাত্র তিনিই বলতে পেরেছিলেন, মুছে যাক আমার নাম, কিন্তু বেঁচে থাক বাংলাদেশ। তিনি হলেন বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী ও স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম নেতা তাজউদ্দিন আহমদ।

গণমানুষের এই নেতা ১৯২৫ - (২৩ জুলাই) শীতলক্ষ্যার তীরঘেষা গাজীপুর জেলার অন্তর্গত কাপাসিয়ার দরদরিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা মৌলভী মোঃ ইয়াসিন খান এবং মাতা মেহেরুননেসা খান। ৪ ভাই, ৬ বোনের মাঝে ৪র্থ তাজউদ্দীন আহমেদ। ১৯৭১ সালের ২৫শে মার্চ কাল রাতে পাকিস্তান সেনাবাহিনী গণহত্যা শুরু করে। বঙ্গবন্ধুকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যাওয়া হয় পশ্চিম পাকিস্তানে। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়। তাজউদ্দীনের ভাষায়, 'আমি সেদিন সাড়ে সাত কোটি বাঙালির স্বার্থে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম তা হলো : একটি স্বাধীন সরকার প্রতিষ্ঠা করে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম পরিচালনার জন্য কাজ শুরু করা।

মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ১০ এপ্রিল মেহেরপুর জেলার মুজিবনগরে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সনদ ঘোষণা করা হয়। ১১ এপ্রিল তাজউদ্দীন বেতারে ভাষণ দেন। ১৭ এপ্রিল মুজিবনগরে আনুষ্ঠানিকভাবে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের অস্থায়ী সরকারের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। তাজউদ্দীন আহমদ হন বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী। শেখ মুজিবুর রহমানের অনুপস্থিতিতে অস্থায়ী রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব নেন সৈয়দ নজরুল ইসলাম। অস্থায়ী সরকার ১৬ই ডিসেম্বর স্বাধীনতা অর্জন পর্যন্ত কলকাতা থেকে কার্য পরিচালনা করে। ১৭ এপ্রিল বাংলাদেশের অস্থায়ী সরকার গঠনের পর তাজউদ্দিন আহমেদ ব্যারিস্টার আমিরুল ইসলামকে সাথে নিয়ে ভারতের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেন। কিন্তু ভারতের সীমান্তে পৌঁছে, তিনি বিনা প্রটোকলে ভারতে প্রবেশ করেন নাই।

এ সময় তিনি বলেছিলেন, একটি স্বাধীন দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অন্য দেশে তিনি কোন প্রটোকল ও আমন্ত্রণ ছাড়া প্রবেশ করতে পারেন না। এটা করলেও তার দেশের জন্য অসম্মানজনক। অতঃপর ওপারের ভারতীয় বাহিনী তাকে গার্ড অফ অর্নার দিয়ে ভারতে নিয়ে যায়।

২২ ডিসেম্বর তাজউদ্দীন আহমদ, সৈয়দ নজরুল ইসলামসহ বাংলাদেশ সরকারের নেতৃবৃন্দ ঢাকায় প্রত্যাবর্তন করেন। শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্ত হয়ে ফিরে আসলে তাজউদ্দীন আহমদ প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ান। তিনি অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। ১৯৭৩-এ ঢাকা-২২ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন৷ বাংলাদেশের প্রথম জাতীয় বাজেট পেশ করেন, প্রথম পাঁচশালা পরিকল্পনা প্রণয়ন করেন।

পড়াশুনার হাতে খড়িটা বাবার কাছে আরবি শিক্ষার মাধ্যমে। এই সময়ে ১ম শ্রেণিতে ভর্তি হন বাড়ির দুই কিলোমিটার দূরের ভূলেশ্বর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে৷ ১ম ও ২য় শ্রেণীতে ১ম স্থান অর্জন করেন। ৪র্থ শ্রেণিতে ভর্তি হন বাড়ি থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার দূরের কাপাসিয়া মাইনর ইংলিশ স্কুলে। এরপর পড়েছেন কালিগঞ্জ সেন্ট নিকোলাস ইনস্টিটিউশন, ঢাকার মুসলিম বয়েজ হাই স্কুল ও সেন্ট গ্রেগরিজ হাই স্কুলে। ১৯৪৩ সালে তাজউদ্দীন আহমদ অধ্যায়ন কালে মুসলিম লীগের রাজনীতিতে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত হন। ১৯৪৪ সালে বঙ্গীয় মুসলিম লীগের কাউন্সিলের সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৪৪ সালে তিনি ম্যাট্রিক ও পরবর্তীতে ইন্টারমিডিয়েট পরীক্ষায় অবিভক্ত বাংলার সম্মিলিত মেধাতালিকায় যথাক্রমে দ্বাদশ ও চতুর্থ স্থান (ঢাকা বোর্ড ) লাভ করেন। ১৯৫০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে বি.এ (সম্মান) ডিগ্রী লাভ করেন। ১৯৬৪ সালে রাজনৈতিক বন্দী হিসেবে কারাগারে থাকা অবস্থায় এল.এল.বি. ডিগ্রীর জন্য পরীক্ষা দেন এবং পাস করেন

আবুল হাশিম প্রাদেশিক মুসলিম লীগের সাধারণ সম্পাদক হওয়ার পর ১৯৪৩ সালে তাজউদ্দীন আহমদ মুসলিম লীগের রাজনীতিতে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত হন। ১৯৪৪ সালে বঙ্গীয় মুসলিম লীগের কাউন্সিলের সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৭৫-এর ১৫ আগস্ট, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করার পর হত্যাকারীদের নির্দেশে তাজউদ্দীন আহমদকে গৃহবন্দী করা হয়। গ্রেপ্তারের পর তাঁকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়। কারা অন্তরীণ হলেন আরো ৩ জন জাতীয় নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলাম, এম মনসুর আলী, এএইচএম কামরুজ্জামান। ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর ঢাকা কেন্দ্রীয় জেলখানার একই দিনে জেলখনায় বন্দি অবস্থায় তাঁর সাথে সৈয়দ নজরুল ইসলাম, মোঃ মনসুর আলী এবং এ এইচ এম কামরুজ্জামানকেও নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়, যা বাংলাদেশের ইতিহাসে জেলহত্যা নামে কুখ্যাত হয়ে আছে।

লেখক: ফাহাদ মশিউর রহমান, সম্পাদক নিউজপোস্ট২৪.কম

নিউজ ট্যাগ: তাজউদ্দিন আহমদ

আরও খবর

শেখ হাসিনার নেতৃত্ব এখনও অপরিহার্য

বৃহস্পতিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০২২




আজও কাঁপছে দিল্লি, তাপমাত্রা ১.৯

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে কয়েক দিন ধরেই কমছে তাপমাত্রা। গত কয়েক দিন কুয়াশার দাপট চলছে নয়াদিল্লিসহ উত্তর প্রদেশ, পাঞ্জাব, হরিয়ানা ও রাজস্থানে। কুয়াশার কারণে দিল্লিতে কমলা সতর্কতা জারি করেছে দেশটির আবহাওয়া ভবন।

এর মধ্যে দেশটির রাজধানী দিল্লিতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল গতকাল শনিবার (৭ জানুয়ারি)। আজ রোববারও অবস্থা প্রায় একই রকম। ফলে আজ দিল্লির তাপমাত্রা সর্বনিম্ন ১ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। গতকাল ছিল সর্বনিম্ন ১ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

হাড় কাঁপানো ঠান্ডার সঙ্গে ঘন কুয়াশার মধ্যে বাতাসের গুণমানও অত্যন্ত খারাপ পর্যায়ে পৌঁছেছে দিল্লিতে। আজ রাজধানীর বাতাসের গুণমান সূচক (এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স) ৩৫৯। খবর এনডিটিভির।

ভারতের আবহাওয়া অফিসের বরাত দিয়ে ইকোনমিক টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত দিল্লিসহ কয়েকটি রাজ্যে এমন পরিস্থিতি বজায় থাকবে। এ ছাড়া কাশ্মীরে তুষারপাত চলছে। কুয়াশারা কারণে নয়াদিল্লি থেকে উড়োজাহাজ ও ট্রেন চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। গত কয়েক দিনই এমন পরিস্থিতি চলছে।

এএনআই খবরে বলা বলেছে, আজ সকাল ছয়টা পর্যন্ত কোনোও উড়োজাহাজ ছাড়েনি। তবে খারাপ আবহাওয়ার কারণে প্রায় ২০টি উড়োজাহাজ দেরিতে ছেড়েছে। কুয়াশার কারণে ৪২টি ট্রেন দেরিতে ছেড়েছে।

নিউজ ট্যাগ: নয়াদিল্লি

আরও খবর



কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ বাংলাদেশি নিহত

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় চার বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও দুইজন। স্থানীয় সময় শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) ভোর ৫টায় কাতারের আল শামাল হাইওয়েতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গলের মো. রাহাত, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মো. সিরাজুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জের মো. শাকিল ও মো. ইউসুফ মাতব্বর। গুরুতর আহত মো. জামাল উদ্দিন ও হাবিবুর রহমান অপু দোহার হামাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের বাড়িও নারায়ণগঞ্জ।

নিহত সিরাজুল, শাকিল ও ইউসুফের মরদেহ দোহার হামাদ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। রাহাতকে শনিবার কাতারের আবু হামুর কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

জানা গেছে, আল শামাল হাইওয়েতে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি প্রাইভেটকারকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুই প্রবাসী বাংলাদেশির মৃত্যু হয়। চারজনকে হাসপাতালে নেয়ার পর আরও দুজন মারা যান।

কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স মুহাম্মদ মুস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, নিহত তিনজনের মরদেহ দ্রুত দেশে পাঠানো হবে।


আরও খবর



আমেরিকায় তুষারঝড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৫

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আমেরিকায় তীব্র শৈত্যঝড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৫ জনে পৌঁছেছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কানাডার কাছে গ্রেট লেক থেকে মেক্সিকান সীমান্তের রিও গ্র্যান্ডে পর্যন্ত বিস্তৃত এই ঝড়ে কমপক্ষে ৬২ জন মারা গেছে। এদের মধ্যে ২৮ জন নিউ ইয়র্কের পশ্চিমাঞ্চলের বাসিন্দা। মঙ্গলবার পর্যন্ত এই এলাকায় ৯ ইঞ্চি তুষারপাত হতে পারে বলে আবহাওয়া পূর্বাভাসে জানানো হয়েছিল।

নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর বাফেলোতে মারা গেছে ২০ জন। এখানকার যানবাহনে ও তুষারের নিচে মৃতদেহগুলো পাওয়া গেছে। বাফেলো বিমানবন্দরের ৯০ শতাংশ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে জরুরি তহবিল অনুমোদন করেছেন। 

তিনি টুইটারে লিখেছেন, আমার হৃদয় তাদের সাথে যারা এই ছুটির সপ্তাহান্তে প্রিয়জনকে হারিয়েছে।

এরি কাউন্টির নির্বাহী মার্ক পোলোনকারজ সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, আমরা টানেলের শেষের দিকে আলো দেখতে পাচ্ছি, তবে এটি এখনও শেষ হয়নি।

ফ্লাইট ট্র্যাকিং সাইট ফ্লাইট অ্যাওয়ার ডটকমের তথ্যানুযায়ী, সোমবার প্রায় চার হাজার মার্কিন ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।

ভারমন্ট, ওহিও, মিসৌরি, উইসকনসিন, কানসাস এবং কলোরাডোতেও ঝড়ে মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। দক্ষিণ ফ্লোরিডার তাপমাত্রা এতটাই কমে গেছে যে, সেখানে তৃণভোজী প্রাণি ইগুয়ানা বরফে জমে গাছ থেকে পড়ে গেছে। পশ্চিম যুক্তরাষ্ট্রের মন্টানা রাজ্যটি ঠান্ডায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেখানে তাপমাত্রা হিমাঙ্কের ৪৫ ডিগ্রি নিচে নেমে গেছে।


আরও খবর



৭২ আরোহী নিয়ে নেপালে প্লেন বিধ্বস্ত: ৪০ লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৩ জানুয়ারী 20২৩ | ৩৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নেপালে ৭২ জন আরোহী নিয়ে একটি প্লেন বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪০ জনের লাশ উদ্ধার হয়েছে।রোববার সকালে দেশটির কাস্কি জেলার পোখারায় বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের তথ্যমতে, ইয়েতি এয়ারলাইন্সের প্লেনটি নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে পোখারা বিমানবন্দরে যাচ্ছিল। কিন্তু পুরোনো বিমানবন্দর ও নতুন পোখারা বিমানবন্দরের মাঝামাঝিতে প্লেনটি বিধ্বস্ত হয়। প্লেনটিতে ৬৮ যাত্রী ও চারজন ক্রু সদস্য ছিল। উদ্ধার কার্যক্রম শুরু হলেও ধারণা করা হচ্ছে, কেউ বেঁচে নেই।

পোখারা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর আপাতত বন্ধ রয়েছে। তবে, কী কারণে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে তা এখনও জানা যায়নি।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী পুষ্পকমল দাহাল এক টুইট বার্তায় ভয়াবহ এই দুর্ঘটনার সকল সরকারি সংস্থা, নিরাপত্তা বাহিনী ও স্থানীয়দের উদ্ধারকাজে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।


আরও খবর



ডিএমপির তিন এডিসিকে বদলি

প্রকাশিত:রবিবার ২২ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) পদমর্যাদার তিন কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে।

রোববার (২২ জানুয়ারি) ডিএমপি কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে এ পদায়ন করা হয়।

আদেশে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার এ জে এস এম রাশেদ-উল-হাসানকে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার সিটি-সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ, ইন্টেলিজেন্স অ্যান্ড অ্যানালাইসিস বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. আশিক হাসানকে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (স্টাফ অফিসার টু কমিশনার) এবং অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (স্টাফ অফিসার টু কমিশনার) মান্না দেকে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (পিওএম-দক্ষিণ) বিভাগ হিসেবে বদলি করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: ডিএমপি

আরও খবর

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৭০

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩

শুক্রবার রাজধানীর যেসব মার্কেট বন্ধ

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩