Logo
শিরোনাম

মুক্তির প্রথম দিনেই আয়ের রেকর্ড গড়লো কনজ্যুরিং থ্রি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৬৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাড়া জাগানো ভৌতিক সিনেমাগুলোর মধ্যে অন্যতম কনজ্যুরিং। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে এই ছবির সিকুয়েল কনজ্যুরিং থ্রি। করোনার মধ্যে মুক্তি পাওয়া ছবির মধ্যে প্রথম দিনে সর্বোচ্চ আয়ের রেকর্ড গড়েছে এই ছবিটি।

সম্প্রতি হরর ছবি অ্যা কোয়াইট প্লেস পার্ট টু মুক্তির পর প্রথম দিনে ৬ মিলিয়ন ডলার আয় করে রকের্ড গড়েছিল। কনজ্যুরিং থ্রি সেই রেকর্ড ভেঙে প্রথম দিনে আয় করেছে ১০ মিলিয়ন ডলার। গত ৪ জুন মুক্তি পায় ছবিটি।

দ্য কনজুরিং: দ্য ডেভিল মেড মি ডু ইট সন্ত্রাস, খুন এবং অজানা দুষ্টের শীতল গল্প যা অভিজ্ঞ জীবনের অলৌকিক তদন্তকারী অ্যাড এবং লরেন ওয়ারেনকে চমকে দিয়েছে। একটি ছোট ছেলের আত্মার লড়াইয়ের সাথে শুরু হয় ছবির গল্প। তাদের ফাইলগুলির মধ্যে একটি সবচেয়ে চাঞ্চল্যকর ঘটনা‌।

নিউজ ট্যাগ: কনজ্যুরিং থ্রি

আরও খবর



গুদাম থেকে ৫৩ টন চিনি গায়েব

প্রকাশিত:শনিবার ০৫ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কুষ্টিয়ার চিনিকলের গুদাম থেকে ৫৩ টনের মতো চিনি গায়েব হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (৩ জুন) বিষয়টি টের পাওয়ার পর স্টোর কিপার ফরিদুল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া তদন্তের স্বার্থে কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

আজ শনিবার (৫ জুন) দুপুর ১টার পর বিষয়টি নিশ্চিত করেন মহাব্যবস্থাপক (কারখানা) কল্যান কুমার দেবনাথ।

জানা গেছে, চিনিকলের গুদাম থেকে চিনি গায়েবের ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তের জন্য কারখানার মহাব্যবস্থাপককে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কল্যান কুমার দেবনাথ বলেন, কিভাবে চিনি সরানো হলো এবং এর সঙ্গে কারা জড়িত তা বের করতে ইতোমধ্যেই কাজ শুরু করেছে তদন্ত কমিটি।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাকিবুর রহমান খান বলেন, বিভিন্ন সময় এই চিনি সরানো হয়েছে। কীভাবে এই চিনি সরানো হলো এবং এর সঙ্গে কারা জড়িত তা বের করা হবে। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন অনুযায়ী জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।

নিউজ ট্যাগ: কুষ্টিয়া চিনিকল

আরও খবর



ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে নেপালে প্রথম মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৪ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৯১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ব্ল্যাক ফাঙ্গাস নামে পরিচিত মিউকরমাইকোসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে নেপালে প্রথম কোনও ব্যক্তির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। নেপালের সেতি প্রাদেশিক হাসপাতালের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

মৃত ব্যক্তি একজন ৬৫ বছর বয়সী পুরুষ। টেম্পোরাল লোব এনসেফালাইটিস ধরার পড়ার পর তাকে হাসপাতালের ইনটেন্সিভ কেয়ার ইউনিটে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল।

সেতি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, ন্যাসাল সোয়াবে ছত্রাকের হাইফা এবং বায়োপসি পরীক্ষায় নাক ও ঠোঁটে মিউকর পাওয়ার পর তিনি ৩ জুন (বৃহস্পতিবার) মারা যান।

তবে ওই ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন না বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র কৃষ্ণ প্রসাদ পৌদেল বলেছেন, নেপালে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে অন্তত ১০ জনের আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

মিউকরমাইকোসিস বা ব্ল্যাক ফাঙ্গাস প্রাণঘাতী এক রোগ। আক্রান্ত রোগীকে বাঁচাতে অনেক সময় রোগীর চোখ, নাক বা চোয়াল অপসারণ করতে বাধ্য হন চিকিৎসকরা, যেন রোগটি মস্তিষ্কে না পৌঁছায়। এই রোগে মৃত্যুহার ৫০ শতাংশ।

ভারতে হাজার হাজার মানুষ ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। দিল্লিতে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসকে মহামারি ঘোষণা করা হয়েছে। ভারতে লাখ লাখ করোনা রোগীদের সুস্থ করতে স্টেরয়েড প্রয়োগের কারণে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নেপালে এপ্রিল থেকে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অনেক বেড়ে গেছে। মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে দৈনিক আক্রান্তের হার ছিল ৯ হাজারের বেশি। বর্তমানে সংক্রমণ কিছুটা কমে এলেও হাসপাতালগুলোতে রোগীদের চাপ অনেক বেশি। দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ৭ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে ভ্যাকসিন চেয়ে আবেদন করেছেন।'


আরও খবর



বাংলাদেশের পথে চীনের ৬ লাখ টিকা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১১ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৭৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বেইজিং এয়ারপোর্ট থেকে বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছে চীনের উপহার আরও ৬ লাখ ভ্যাকসিন। শুক্রবার (১১ জুন) ঢাকা চীনা দূতাবাস এ তথ্য জানিয়েছে।

আগামী রবিবার (১৩ জুন) চীনের দ্বিতীয় দফা উপহারের ভ্যাকসিন বুঝে পাবে বাংলাদেশ। চীনের প্রথম দফা উপহারের মতোই এটাও সিনোফার্ম ওর ভ্যাকসিন।

বাংলাদেশ ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) প্রথমে সিনোফার্ম-এর ভ্যাকসিন অনুমোদন দিয়েছিল। সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পর বাংলাদেশও দ্বিতীয় চীনা ভ্যাকসিন সিনোভ্যাক জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন দেয়।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.এ কে আব্দুল মোমেন জানিয়েছেন, সিনোফার্ম ভ্যাকসিন ক্রয় সংক্রান্ত চুক্তি চূড়ান্ত প্রায়। আর এক সপ্তাহের মধ্যেই সিনোফার্ম কেনার চুক্তির আলোচনা শুরু হবে।

চীনের দেয়া উপহারের প্রথম দফার ৫ লাখ ডোজ করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা ১২ মে ঢাকায় আসে।


আরও খবর



বিএনপি আসলে ক্ষমতার পাগল

প্রকাশিত:শনিবার ১২ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ১০৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি আসলেই ক্ষমতাপাগল। ক্ষমতা ফিরে পাওয়ার মোহে বিএনপির নেতারা এখন মিথ্যাচার আর ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছেন। তাঁরা দিগ্বিদিক শূন্য।

ওবায়দুল কাদের আজ শনিবার নিজ বাসভবন থেকে এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, যারা দেশের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী নয়, তারাই দেশকে অকার্যকর ও ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায়।

বিএনপির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তের অভিযোগ এনে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য বিএনপির নেতারা ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তে নেমেছেন। তাঁদের চরিত্র এখন দেশবাসীর কাছে স্পষ্ট। দেশের মানুষ বিএনপির নেতাদের সম্পর্কে বেশ ভালো করেই জানে। তাঁদের কোনো ষড়যন্ত্রই সফল হবে না।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপিই একের পর এক দেশের গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিতর্কিত করছে। বিএনপিকে নির্বাচনে বিজয়ের গ্যারান্টি দিলে নির্বাচন কমিশন তাদের ভাষায় নিরপেক্ষ, আর তাদের পক্ষে রায় দিলেই বিচার বিভাগ স্বাধীন। বিএনপির নেতাদের অপরাধ ও দুর্নীতির বিচার না করলে দুদক ভালো। তারা নিজেরই গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে পরিকল্পিতভাবে প্রশ্নবিদ্ধ করছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বর্তমানে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় অভিষিক্ত উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বাংলাদেশ আজ বিশ্ব সভায় সম্ভাবনাময় দেশ।

বিএনপিকে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির পৃষ্ঠপোষক উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, তারা যতই অস্বীকার করুক, সাম্প্রদায়িক অপশক্তির তোষণ নীতি থেকে বের হতে পারবে না।


আরও খবর



এবার দেশে অনুমোদন পেল জনসনের টিকা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মহামারি করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জরুরি ব্যবহারের জন্য দেশে অনুমোদন পেয়েছে জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা। মঙ্গলবার ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর এ অনুমোদন দিয়েছে।

ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জনসনের টিকা ৭৮ শতাংশ পর্যন্ত সুরক্ষা দিতে পারে। জনসন টিকার সুবিধা হলো এটি সিঙ্গেল ডোজ। অর্থাৎ এই টিকার এক ডোজই যথেষ্ট। আরা দেশে অনুমোদিত বাকি টিকাগুলো দুই ডোজের।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ ডিসেম্বর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ফাইজারের টিকা জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন করে। এই টিকা ১২ বছরের উপরের বয়সীদের ব্যবহারের উপযোগী এটি সংরক্ষণ করতে হিমাঙ্কের নিচে ৬০ থেকে ৯০ ডিগ্রি তাপমাত্রা প্রয়োজন হয়। তবে ২ থেকে ৮ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ৫ দিন সংরক্ষণ করা সম্ভব।

দেশের করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর এ নিয়ে চারটি টিকা ইমারজেন্সি ইউজ অথরাইজেশন প্রদান করেছে। প্রথমেই ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট কর্তৃক উদ্ভাবিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্র্যাজেনেকা টিকার অনুমোদন দেওয়া হয়। পরে জরুরি ব্যবহারের জন্য রাশিয়ার উৎপাদিত টিকা স্পুটনিক-এর অনুমোদন দেওয়া হয়। ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর তারপরেই অনুমোদন দেয় চীনের সিনোফার্মের টিকা।


আরও খবর