Logo
শিরোনাম

নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন করা হবে : সিইসি

প্রকাশিত:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | ৭৯জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন করা হবে। নির্বাচনের পরিবেশ অত্যন্ত ভালো। কোন ঝুঁকি নেই। ইভিএমে ভোট প্রদানে ভোটারদের কোনো অসুবিধা হবে না। বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটারদের ভোট প্রদান সম্পপন্ন না হলে লাইনে যারা থাকবেন তারা ভোট অধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন।

যশোরের কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পপন্ন করার লক্ষে সোমবার দুপুরে উপজেলা পরিষদের মিলনায়তনে ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা এসব কথা বলেন।

যশোর জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) এর প্রকল্প পরিচালক ব্রিগ্রেডিয়ার আবুল কাশেম, যশোরের পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার, বিভাগীয় নির্বাচন কর্মকর্তা ইউনুচ আলী, যশোর জেলা নির্বাচন অফিসার হুমায়ূন কবির ও কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেন।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার বজলুর রশিদ জানান, আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কেশবপুর পৌরসভার ভোটার সংখ্যা ২০ হাজার সাতশ ২৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার দশ হাজার একশ ৮৫ জন ও নারী ভোটার দশ হাজার পাঁচশ ৪০ জন। পঞ্চম ধাপের এ নির্বাচনে ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ সম্পপন্ন করা হবে।

Share

আরও খবর



মঠবাড়িয়ায় আগুনে দগ্ধ হয়ে নব দম্পতির মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মনিরুল ইসলাম, মঠবাড়িয়াঃ

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌর শহরের পশ্চিম কলেজ পাড়ায় রবিবার ভোর রাতে অগ্নিকাণ্ডে নব দম্পতিসহ একটি বসত ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। স্থানীয় লোকজন ও দমকল বাহিনী এক ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হলেও ইজিবাইক চালক সাইফুল হাওলাদার (২২) ও স্ত্রী মনিরা বেগম (১৮) ঘটনাস্থলেই দগ্ধ হয়ে মারা যায়। অগ্নিকাণ্ডে প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার দাবী করেন।

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, উপজেলার হারজী নলবুনিয়া গ্রামের দরিদ্র আঃ বারেক হাওলাদার স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে পৌর শহরের ৬নং ওয়ার্ডের পশ্চিম কলেজ পাড়ার স্কুল শিক্ষক শহিদুল ইসলাম সারদুলের ভাড়াটিয়া ঘরে বসবাস করে আসছিলেন। শনিবার দিনগত রাত সাড়ে দশটার দিকে আঃ বারেক ও তার পরিবারের ৬ সদস্য ঘুমিয়ে পড়ে। রাত চারটার দিকে হঠাৎ আগুনের লেলিহান শিখা ছড়িয়ে পড়তে দেখে আঃ বারেকের বড় ছেলে শহিদুল ইসলাম চিৎকার দেয়। এসময় আঃ বারেক (৬৫), স্ত্রী রুপিয়া বেগম (৫০), পুত্র ইজিবাইক চালক শহিদুল (৩২) ও তার শ্যালক রাকিব (১৮) ঘর থেকে বের হয়ে আসলেও ঘরের পাটাতনে (মাচায়) ঘুমন্ত নব বিবাহিত সাইফুল হাওলাদার ও তার স্ত্রী মনিরা দগ্ধ হয়ে মারা যায়। এসময় আঃ বারেকের দুই পুত্র শহিদুল ও সাইফুলের ইজিবাইক দুইটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মিরা ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় মৃতদের লাশ উদ্ধার করেন। অগ্নিদগ্ধে নিহত সাইফুলের শ্বশুর পাশ্ববর্তী পাথরঘাটা উপজেলার রুহিতা গ্রামের জেলে আনেচ হাওলাদার জানান, গত সাত মাস আগে সাইফুলের সাথে তার মেয়ের বিয়ে হয়।

মঠবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার সুমন জানান, চার্জে দেয়া ইজিবাইকের বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের মাধ্যমে এ অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ, মাসুদুজ্জামান অগ্নিদগ্ধ হয়ে দম্পতির মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং লাশের ময়না তদন্তের জন্য রবিবার দুপুরে পিরোজপুর জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: অগ্নিকাণ্ড
Share

আরও খবর



আল-জাজিরার প্রতিবেদন নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া নেই : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আল-জাজিরার প্রতিবেদন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এটা নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া নেই। কিছু বলারও নেই। একটা চ্যানেল কী করেছে, কী দেখিয়েছে৷ কী বলতে চেয়েছে। এর সত্য-মিথ্যা দেশবাসী যাচাই করবেন। যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানদের ইন্ধন থাকতে পারে এসব ঘটনায়। কেননা, তারা তো থেমে থাকবে না। তাছাড়া আওয়ামী লীগ বিরোধিতার বিষয়টি তো রয়েছেই।

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় উত্তরণে জাতিংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ গতকাল স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ লাভ করেছে। আমরা উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার পূর্ণ যোগ্যতা অর্জন করেছি। সমগ্র জাতির জন্য এটা অত্যন্ত আনন্দের এবং গর্বের। আমাদের এই উত্তরণ এমন এক সময়ে ঘটলো, যখন আমরা সর্ব কালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছি। আমরা মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের দ্বারপ্রান্তে।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের জন্য এ উত্তরণ এক ঐতিহাসিক ঘটনা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মাত্র সাড়ে তিন বছরে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশকে ধ্বংসস্তূপের মধ্যে থেকে টেনে তুলে স্বল্পোন্নত দেশের কাতারে নিয়ে গিয়েছিলেন। স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে তারই হাতে গড়া বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দেশকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় উন্নীত করলো।

সবশেষ সবার প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দলমত নির্বিশেষে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর এ মাহেন্দ্রক্ষণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠার অঙ্গীকার করি।

 

Share

আরও খবর



করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১১ কোটি ২২ লাখ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | ৬২জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃত্যু বিবেচনায় করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হচ্ছে ব্রাজিল। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১ কোটি ১ লাখ ৯৭ হাজার ৫৩১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৪৭ হাজার ২৭৬ জনের

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কোনোভাবেই কমছে না। সবশেষ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ কোটি ২২ লাখ ৫৬ হাজার ১৮৮ জন। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৪ লাখ ৮৪ হাজার ৮৬২ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে ৮ কোটি ৭৭ লাখ ৭৭ হাজার ৪৮৮ জন। করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে এই তথ্য জানা যায়।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে ৫ লাখ ১২ হাজার ৫৯০ জন এখন পর্যন্ত মারা গেছেন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। এই পর্যন্ত ২ কোটি ৮৮ লাখ ২৬ হাজার ৩০৭ জন এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃত্যু বিবেচনায় করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হচ্ছে ব্রাজিল। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১ কোটি ১ লাখ ৯৭ হাজার ৫৩১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৪৭ হাজার ২৭৬ জনের। তবে মৃত্যু বিবেচনায় মেক্সিকোর অবস্থান তৃতীয়। আক্রান্তের দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা ভারত মৃত্যু বিবেচনায় আছে চতুর্থ অবস্থানে। এ পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ১০ লাখ ১৫ হাজার ৮৬৩ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৫৬ হাজার ৪৯৮ জনের।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ১৮৮টি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস
Share

আরও খবর



মঙ্গলে পোঁছাল নাসার রোবট যান

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
জাজেরো নামে গভীর গর্তে (ক্র্যাটার) অবতরণ করে রোবট যান পারসেভারেন্স। সেখানে আগামী দুই বছর অবস্থান করে মঙ্গলে পাথর খননসহ অতীতে

মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার মহাকাশযান পারসেভারেন্স দীর্ঘভ্রমণ শেষে অবশেষে মঙ্গলের বুকে অবতরণ করলো।

বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাত ২টা ৫৫ মিনিটে পারসেভারেন্স মঙ্গলে অবতরণ করার সঙ্গে সঙ্গে লস অ্যাঞ্জেলসের জেট প্রপালসন ল্যাবরেটরিতে উল্লাসে মেতে ওঠেন বিজ্ঞানীরা।

বিবিসি জানিয়েছে, ৬ চাকার এই স্বয়ংক্রিয় রোবট যানটি পৃথিবী থেকে তার ৪৭০ মিলিয়ন কিলোমিটার বা ৪৭ কোটি মাইল পথের যাত্রা শুরু করেছিল ৭ মাস আগে। অবশেষে আজ তার যাত্রার অবসান হলো। জাজেরো নামে গভীর গর্তে (ক্র্যাটার) অবতরণ করে রোবট যান পারসেভারেন্স। সেখানে আগামী দুই বছর অবস্থান করে মঙ্গলে পাথর খননসহ অতীতে কোনো প্রাণের অস্তিত্ব ছিল কিনা তা খুঁজবে।

এর আগে, মঙ্গলগ্রহে নভোযান অবতরণের ১৪টি প্রচেষ্টা নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে সফল হয়েছে ৮টি আর এর সবগুলোই ছিল যুক্তরাষ্ট্রের মিশন। তবে ১৯৯৯ সালে একবার নাসার মঙ্গল মিশন ব্যর্থ হয়েছিল। এবছর মঙ্গলে আরেকটি সফলতার পালক যুক্ত করলো নাসা।

Share

আরও খবর



আল-জাজিরার বিরুদ্ধে সোয়া ৪ হাজার কোটি টাকার মানহানি মামলা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ মার্চ 2০২1 | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | ৩৫জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল-জাজিরায় প্রকাশিত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে নিয়ে প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল কোর্টে ৪ হাজার দুইশ ৪৪ কোটি (৫ শত মিলিয়ন ডলার) টাকার মানহানি মামলা করেছে বঙ্গবন্ধু পরিষদ যুক্তরাষ্ট্র শাখা।

রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) এক সংবাদ সম্মেলনে এই কথা জানান যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ড. রাব্বি আলম। যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু পরিষদ ও যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু কমিশনের পক্ষে এই মামলা করেন ড. রাব্বি আলম, শের-এ-আলম ও রিজভী আলম।

মামলায় বিবাদী করা হয়েছে, আল-জাজিরা ইংলিশ চ্যানেল, কনক সারোয়ার, ইলিয়াস হোসাইন, দেলওয়ার হোসাইন, জুলকারনাইন সাইয়ার, ডেভিড বার্গম্যান ও আল-জাজিরা মিডিয়া নেটওয়ার্ক।

মামলার বাদীরা আল-জাজিরায় প্রকাশিত অল দ্য প্রাইম মিনিস্টারস মেনশীর্ষক প্রতিবেদনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ সরকার ও সেনাবাহিনীকে হেয় প্রতিপন্ন করার লক্ষ্যে' উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মিথ্যা তথ্যপ্রকাশ করা হয়েছে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করা হয়েছে। এর সাথে জড়িতদের সবাইকে বিচারের আওতায় আনার আহ্বান জানানো হয়।

নিউজ ট্যাগ: আল-জাজিরা
Share

আরও খবর