Logo
শিরোনাম

নয়াপল্টনে বিএনপির প্রতিবাদ সমাবেশ

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৪৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর মিরপুরসহ সারাদেশে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে দেশব্যাপী প্রতিবাদ সমাবেশের অংশ হিসেবে নয়াপল্টনে সমাবেশ শুরু করেছে বিএনপি। রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুর আড়াইটার দিকে এ সমাবেশ শুরু হয়েছে।

ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির যৌথ উদ্যোগে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। ইতোমধ্যে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে কয়েক হাজার নেতাকর্মী জড়ো হয়েছেন।

আজকের সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেবেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এছাড়া স্থায়ী কমিটির সদস্যসহ সিনিয়র নেতারা বক্তব্য দেবেন।

বিকেল পৌনে ৩টা নাগাদ মঞ্চে উপস্থিত হয়েছেন- মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান, দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আবদুস সালাম, বিএনপি নেতা রফিকুল আলম মজনু, আমিনুল হক, আবদুস সালাম আজাদ, মোস্তাফিজুর রহমান সেগুন, নবী উল্লাহ নবী, হাবিবুর রশীদ হাবিব, ইকবাল হোসেন শ্যামল, যুবদল নেতা সুলতান সালাউদ্দীন টুকু, মোনায়েম মুন্না, মামুন হাসান, এসএম জাহাঙ্গীর, শফিকুল ইসলাম মিল্টন, গোলাম মাওলা শাহীন প্রমুখ।

সমাবেশের কারণে ফকিরাপুল মোড় থেকে কাইকরাইলের নাইটিংগেল মোড় পর্যন্ত সড়কের দক্ষিণ সাইডে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে দেশব্যাপী যে সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়েছে তার প্রতিবাদে আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকা মহানগরসহ প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন ঢাকায় বিকেল ৩টায় নয়াপল্টনের দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এ প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর



বন্ধুকে গলা কেটে হত্যার পর পাশেই বসেছিলেন যুবক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জামালপুর সদর উপজেলায় জাহিদ হাসান (২৫) নামে এক যুবককে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে বন্ধুর বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার রানাগাছা ইউনিয়নের মহেশপুর কালিবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। জাহিদ পৌর শহরের নয়াপাড়া এলাকার জাবেদ মিয়ার ছেলে।

এ ঘটনায় ধারালো ছুরিসহ সাজু মিয়া (৩০) নামে নিহতের বন্ধুকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করা হয়। তিনি সদর উপজেলার মহেশপুর কালিবাড়ি এলাকায় মৃত শাহেদ আলীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, গত রমজান মাসে কারাগারে জাহিদের সঙ্গে সাজুর পরিচয় হয়। সেই পরিচয় থেকে তাদের মাঝে বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। গত সোমবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার মহেশপুর কালিবাড়ি এলাকায় সাজু মিয়ার বাড়িতে আসেন জাহিদ। রাতে সাজু মিয়ার ঘরে বসে দুই বন্ধু নেশা করে ঘুমিয়ে পড়েন। পরদিন বেলা সাড়ের ১১টার দিকে ঘুম থেকে উঠে সাজু ছুরি দিয়ে জাহিদকে গলা কেটে হত্যা করেন। বন্ধুকে হত্যার পর সাজু মিয়া তার মরদেহ নিয়ে ওই ঘরেই বসে থাকেন। পরে দুপুরে প্রবল বৃষ্টির সময় জাহিদের মরদেহ ঘর থেকে বের করে জামালপুর-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে নিয়ে আসেন। পরে স্থানীয়রা সাজুকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহনেওয়াজ বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহত জাহিদের মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় অস্ত্রসহ একজনকে আটক করা হয়েছে। তবে কী কারণে তাকে খুন করা হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। এ ঘটনায় সদর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিউজ ট্যাগ: গলা কেটে হত্যা

আরও খবর



রানির শেষকৃত্যে আমন্ত্রণ পায়নি রাশিয়া-বেলারুশ-মিয়ানমার

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২ | ৪৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্যে রাশিয়া, বেলারুশ এবং মিয়ানমারের কোনো প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণ জানায়নি ব্রিটেন। আগামী সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হবে। একটি সূত্র মঙ্গলবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে আকস্মিক হামলা চালায় রাশিয়া। ওই হামলাকে কেন্দ্র করে ব্রিটেন এবং এর পশ্চিমা মিত্র দেশগুলো রাশিয়া এবং এর ঘনিষ্ট মিত্র বেলারুশকে বিশ্ব মঞ্চ থেকে বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টায় অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞাসহ বেশ কিছু পদক্ষেপ নেয়। অপরদিকে রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন, নিপীড়ন, নির্বিচারে হত্যা এবং তাদের দেশত্যাগে বাধ্য করায় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ মিয়ানমারও ব্রিটেনের নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েছে। এসব কারণে রাশিয়া, বেলারুশ বা মিয়ানমারের কোনো প্রতিনিধি রানির শেষকৃত্যে অংশ নিতে পারবেন না। যেসব দেশের সঙ্গে ব্রিটেনের কূটনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে সেসব দেশের বেশিরভাগ রাষ্ট্রপ্রধানই রানির শেষকৃত্যে অংশ নেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ পেয়েছেন। লন্ডনে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্যে প্রায় ৫শ বিদেশি বিশিষ্ট ব্যক্তি যোগ দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন থেকে শুরু করে কানাডা, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শীর্ষ নেতারা এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ফলে কয়েক বছরের মধ্যে এটাই হতে যাচ্ছে ব্রিটেনের সবচেয়ে বড় কূটনৈতিক সমাবেশ।

এর আগে বিদেশি অতিথিদের জন্য বিশেষ নির্দেশাবলি প্রকাশ করে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ। নির্দেশনায় বলা হয়েছে, লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দরে কোনো ব্যক্তিগত প্লেন অবতরণের অনুমতি পাবে না। ওই বিমানবন্দর ব্যবহার করতে হলে অতিথিদের বাণিজ্যিক ফ্লাইট ব্যবহার করতে হবে। তবে লন্ডনের অন্যান্য বিমানবন্দরে নামলে ব্যক্তিগত প্লেন ব্যবহার করতে পারবেন অতিথিরা। বিমানবন্দরে নামার পরে প্রাইভেটকারে নয়, বরং সব বিশ্বনেতা ও তাদের সফরসঙ্গীদের অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছাতে হবে বাসে চড়ে। থাকবে না হেলিকপ্টার ব্যবহারের সুযোগও। তবে অতিথিদের বাসে যাওয়ার জন্য থাকবে পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা।

শেষকৃত্য অনুষ্ঠানস্থলে স্থান স্বল্পতার কারণে অতিথিদের সংখ্যাও সীমিত রাখতে বলা হয়েছে। প্রধান অতিথির সঙ্গে স্বামী/স্ত্রী অথবা সঙ্গী ছাড়া আর কেউ অনুষ্ঠানে থাকতে পারবেন না। নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ব্রিটিশ সরকার দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছে যে, অনুষ্ঠানস্থলে সীমিত জায়গার কারণে প্রধান অতিথির পরিবারের অন্য কোনো সদস্য, কর্মী বা অনুসারী প্রবেশ করতে পারবেন না।

৭০ বছরের বেশি সময় দ্বিতীয় এলিজাবেথ ব্রিটেনের সিংহাসনে ছিলেন। এই দীর্ঘ সময় ধরে তিনি ব্রিটেনের জনগণের প্রাত্যহিক জীবনের এক অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছিলেন। স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যার পর রানির মৃত্যুর ঘোষণা দেয় বাকিংহাম প্যালেস। যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে দীর্ঘমেয়াদি এই রানি ৯৬ বছর বয়সে মারা যান।

নিউজ ট্যাগ: রানি এলিজাবেথ

আরও খবর

‘হাসি’ মানুষের সবচেয়ে ভালো ওষুধ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




খেলার মাঠে বাজে আচরণ, শাস্তি পেলেন আসিফ ও ফরিদ আহমাদ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৫৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

খেলার মাঠে বাজে আচরণ করায় শাস্তি পেয়েছেন পাকিস্তানের ব্যাটসম্যান আসিফ আলি ও আফগানিস্তানের পেসার ফরিদ আহমাদ। আইসিসির আচরণবিধির লেভেল ওয়ান ভঙ্গ হওয়ায় তাদের ম্যাচ ফির ২৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। সেই সঙ্গে তারা একটি করে ডিমেরিট পয়েন্টও পাচ্ছেন।

বৃহস্পতিবার আইসিসি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়। অভিযুক্ত দুই ক্রিকেটারই নিজেদের শাস্তি মেনে নেওয়ায় আর আনুষ্ঠানিক শুনানির প্রয়োজন পড়েনি।

শারজাহতে বুধবার এশিয়া কাপে পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের ম্যাচে উত্তপ্ত পরিবেশ সৃষ্টি করেন আসিফ ও ফরিদ। পাকিস্তান ইনিংসের ১৯তম ওভারে ঘটে এই কাণ্ড।

আসিফ আউট হওয়ার পরেই উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়েন ফরিদসহ আফগানিস্তানের খেলোয়াড়রা। আসিফের সামনে গিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন ফরিদ। তাতেই মেজাজ হারান আসিফ। ফরিদকে ধাক্কা মেরে দেন। ছেড়ে দেননি আফগান পেসারও। আসিফকে অনুসরণ করতে থাকেন। সম্ভবত কিছু বলতেও থাকেন।

তারপরই পেছন ঘুরে ব্যাট উঁচিয়ে ফরিদকে মারতে যান পাকিস্তানের খেলোয়াড় আসিফ। সেই উত্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে চলে আসেন আম্পায়ার এবং আফগানিস্তানের খেলোয়াড়রা। ফরিদ এবং আসিফকে সরিয়ে নিয়ে যান তারা।


আরও খবর

হার দিয়ে সিরিজ শুরু বাংলাদেশের

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২

১৬৮ রানের লক্ষ্য পেল বাংলাদেশ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




দেশে রপ্তানিতে বইছে সুবাতাস

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বৈশ্বিক সংকটকালে ডলার ধরে রাখতে এলএনজির মতো উচ্চমূল্যের জ্বালানিপণ্য আমদানি কমিয়ে দেয় সরকার। এতে দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদন কিছুটা ব্যাহত হয়। জ্বালানি সাশ্রয়ে আগস্টজুড়ে রাজধানীসহ সারাদেশে আবাসিক ও বাণিজ্যিক এলাকার পাশাপাশি রপ্তানিমুখী শিল্প এলাকায় শিডিউল করে লোডশেডিং কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। তবে লোডশেডিংয়ের প্রভাবে দেশের রপ্তানি খাতে বড় কোনো ধাক্কা লাগেনি। বরং চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে রপ্তানিতে সুবাতাসই বইছে।

সদ্য সমাপ্ত আগস্ট মাসে বিভিন্ন পণ্য রপ্তানি করে ৪৬০ কোটি ৭০ লাখ ডলার আয় করেছেন দেশীয় উদ্যোক্তারা। গত অর্থবছরের একই সময়ে অর্থাৎ আগস্টে ৩৩৮ কোটি ৩০ লাখ ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছিল। সে হিসেবে এ বছর আগস্টে রপ্তানি প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৩৬ দশমিক ১৮ শতাংশ, যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৭ দশমিক ১৪ শতাংশ বেশি।  চলতি (২০২২-২৩) অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে (জুলাই-আগস্ট) পণ্য রপ্তানি থেকে ৮৫৯ কোটি ১৮ লাখ ডলার এসেছে, যা গত অর্থবছরের (২০২১-২২) একই সময়ের চেয়ে ২৫ দশমিক ৩১ শতাংশ বেশি। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

রপ্তানির মতোই ইতিবাচক ধারায় ফিরেছে রেমিট্যান্স। চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে প্রবাসীরা ২ বিলিয়ন ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। গত অর্থবছরের শুধু এপ্রিল মাসে রেমিট্যান্স ২ বিলিয়ন ডলারের বেশি এসেছিল। চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাস জুলাই ও আগস্টে প্রবাসীদের পাঠানো ৪১৩ কোটি ডলার সমপরিমাণ অর্থ দেশে এসেছে। আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় যা ৪৫ কোটি ডলার বা ১২ দশমিক ২৯ শতাংশ বেশি।

ইপিবির তথ্য বলছে, আগস্টে ৭১১ কোটি ২৬ লাখ ডলারের তৈরি পোশাক রপ্তানি হয়েছে, যা গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ২৬ দশমিক ১ শতাংশ বেশি। এতে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৭ দশমিক ২৪ শতাংশ বেশি আয় হয়েছে। এছাড়া চামড়াজাত পণ্যে বিগত অর্থবছরের আগস্টের তুলনায় এবার প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ, পাটজাত পণ্যে ২২ দশমিক ৬৭ শতাংশ, সিরামিক পণ্যে ১৮ দশমিক ০৬ শতাংশ, প্লাস্টিকে ৬০ দশমিক ০৯ আর স্পেশালাইজড টেক্সটাইল পণ্যে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৭৩ দশমিক ১৭ শতাংশ।


আরও খবর

৩১ ডিসেম্বরের পর পাম অয়েল বিক্রি বন্ধ

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




ইরানের ওপর আরও নিষেধাজ্ঞার হুঁশিয়ারি বাইডেনের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইরানে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনী যেভাবে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে সেটির সমালোচনা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সোমবার এক বিবৃতিতে এ ঘটনায় হোয়াইট হাউজের উদ্বেগের কথা জানিয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে ইরানের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপেরও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন তিনি। খবর আনাদুলু এজেন্সি ও রয়টার্সের।

বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের নিষেধাজ্ঞার আওতায় আনার কথা বলেন জো বাইডেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ইরানে সমান অধিকার এবং মৌলিক মানবিক মর্যাদার দাবি তোলা শিক্ষার্থী ও নারীসহ শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের ওপর সহিংস দমনপীড়নের খবরে আমি গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের ওপর সহিংসতার সঙ্গে যুক্ত অপরাধীদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে ওয়াশিংটন।

ইরানি জনগণের স্বাধীনভাবে প্রতিবাদ করার অধিকারের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন অব্যাহত রাখার কথাও জানান বাইডেন।

ইরান সরকারের বিরুদ্ধে নিজ দেশের মানুষের মৌলিক স্বাধীনতা অস্বীকার করা এবং ভীতি প্রদর্শন, জবরদস্তি ও সহিংসতার মাধ্যমে ধারাবাহিকভাবে প্রজন্মের আকাঙ্ক্ষাকে দমিয়ে দেওয়ারও অভিযোগ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ইরানি নারী এবং দেশটির সব মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে, যারা তাদের সাহসিকতার মাধ্যমে পুরো দুনিয়াকে অনুপ্রাণিত করছে।

এদিকে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি দেশটিতে দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে চলমান বিক্ষোভের জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলকে দায়ী করেছেন। তিনি অভিযোগ করেছেন, এই দুই দেশ তার দেশের উন্নতি প্রতিহত করতে চাইছে। কয়েক বছরের মধ্যে ইরানের বৃহত্তম এই বিক্ষোভকে দাঙ্গা হিসেবেও উল্লেখ করেছেন তিনি। ৮৩ বছরের আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি বলেন, আমি স্পষ্টভাবে বলছি এই দাঙ্গা ও নিরাপত্তাহীনতা তৈরি করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও দখলদার ইহুদিবাদীরা (ইসরায়েল) এবং তাদের কাছ থেকে যারা অর্থ পেয়েছে। বিদেশে থাকা কয়েকজন বিশ্বাসঘাতক ইরানিও তাদের সহযোগিতা করছে।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর ইরানে পুলিশ হেফাজতে কুর্দি নারী মাশা আমিনি নিহতের ঘটনায় দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে বিক্ষোভ চলছে। কঠোর পোশাকবিধি অমান্য করায় আমিনিকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। হেফাজতে থাকা অবস্থায় অসুস্থ হওয়ার পর হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। এরপর থেকেই ইরানে নারীদের কঠোর পোশাকবিধিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। নরওয়েভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা ইরান হিউম্যান রাইটস (আইএইচআর) জানিয়েছে, বিক্ষোভে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী হাতে এ পর্যন্ত অন্তত ৯২ জন নিহত হয়েছে।


আরও খবর

‘হাসি’ মানুষের সবচেয়ে ভালো ওষুধ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২