Logo
শিরোনাম

ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস আজ

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ জানুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৮২১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আজ ২৪ জানুয়ারি, বাঙালি জাতির স্বাধিকার আন্দোলনের অন্যতম প্রধান মাইলফলক ঊনসত্তরের ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস। মুক্তিকামী নিপীড়িত জনগণের পক্ষে জাতির মুক্তিসনদ খ্যাত ছয় দফা এবং পরবর্তীতে ছাত্র সমাজের দেওয়া ১১ দফা কর্মসূচির প্রেক্ষাপটে সংঘটিত হয়েছিল এই গণঅভ্যুত্থান।

দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে শহীদ মতিউর স্মৃতি সৌধে (নবকুমার ইনস্টিটিউট, বকশীবাজার, ঢাকা) শ্রদ্ধাঞ্জলি এবং আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

ঐতিহাসিক ২০ জানুয়ারি ৬৯র গণঅভ্যুত্থানের নায়ক শহীদ আসাদের আত্মদানের পর ২১, ২২, ২৩ জানুয়ারি শোক পালনের মধ্য দিয়ে ঢাকায় সর্বস্তরের জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে ২৪ জানুয়ারি এই অভূতপূর্ব গণঅভ্যুত্থানের সৃষ্টি হয়। এই গণঅভ্যুত্থানের পথ ধরে রক্তাক্ত সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাঙালি জাতি মহান স্বাধীনতা অর্জন করে।

ঊনসত্তরের এদিন ঢাকায় সচিবালয়ের সামনের রাজপথে নবকুমার ইনস্টিটিউটের নবম শ্রেণির ছাত্র কিশোর মতিউর ও রুস্তম শহীদ হন। প্রতিবাদে সংগ্রামী জনতা সেদিন সচিবালয়ের দেয়াল ভেঙে আগুন ধরিয়ে দেয়। বিক্ষুব্ধ জনগণ আইয়ুব-মোনায়েম চক্রের দালাল, মন্ত্রী, এমপিদের বাড়িতে এবং তাদের মুখপত্র হিসেবে পরিচিত তৎকালীন দৈনিক পাকিস্তান ও পাকিস্তান অবজারভারে আগুন লাগিয়ে দেয়। জনগণ আইয়ুব গেটের নাম পরিবর্তন করে আসাদ গেট নামকরণ করে।


আরও খবর

জাতীয় পতাকা দিবস আজ

মঙ্গলবার ০২ মার্চ 2০২1




টিকা গ্রহণের বয়সসীমা ১৮

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে টিকা গ্রহণের বয়সসীমা আরো কমালো সরকার। সর্বশেষ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যাদের বয়স ১৮, তারাও কোভিড-১৯ টিকা নিতে পারবেন। খুব শিগগিরই এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হবে। আগের সিদ্ধান্ত অনুসারে টিকা গ্রহণের বয়স ছিল ৩৫ বছর।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মুহাম্মাদ খুরশীদ আলম। তিনি জানিয়েছেন, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে টিকা গ্রহণের সর্বনিম্ন বয়সসীমা ১৮ বছর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দ্রুত সময়ের মধ্যেই এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হবে।

রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতাল পরিদর্শন শেষে আজ শুক্রবার দুপুরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। অধ্যাপক খুরশীদ আলম বলেন, আজ (শুক্রবার) সকালে এ বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের সঙ্গে আলোচনা করে আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যেই এই সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন শুরু করব।

প্রসঙ্গত, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর গত ১৯ জুলাই করোনার টিকা নেওয়ার বয়স ৩০ বছর নির্ধারণ করে। তার আগে গত ৫ জুলাই বয়সসীমা নির্ধারণ করা হয় ৩৫ বছর। বাংলাদেশে যখন টিকার জন্য নিবন্ধন শুরু হয় তখন ৫৫ বছর বয়সীদের টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু নিবন্ধনের ক্ষেত্রে তেমনটা সাড়া না পাওয়ায় বয়সসীমা কমানোর সিদ্ধান্ত হয়। সেই অনুযায়ী আরো বেশি সংখ্যক মানুষকে করোনার টিকা কর্মসূচির আওতায় আনতে বয়সসীমা কমিয়ে ৫৫ থেকে ৪৪ বছর করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

পরবর্তীতে টিকা গ্রহণের বয়সসীমা ফের কমিয়ে ৪০ বছর করা হয়। এর পর তৃতীয় দফায় গত ৫ জুলাই টিকা গ্রহীতাদের বয়স কমিয়ে ৩৫ বছর করা হয়। আর গত ১৯ জুলাই চতুর্থ দফায় তা কমিয়ে ৩০ বছর করার ঘোষণা দেওয়া হয়। সর্বশেষ টিকা গ্রহণের বয়সসীমা ১৮ করার সিদ্ধান্ত হলো।


আরও খবর



ইকুয়েডরকে হারিয়ে সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনা

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ১০০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কোপা আমেরিকার শিরোপা ছোঁয়ার নেশায় বুঁদ লিওনেল মেসি। দেশকে কিছু এনে দিতে পারেননি। অথচ ট্রফি আর শিরোপা রাখার জায়গা নেই তার ব্যক্তিগত শো-কেসে। সবই ক্লাব ফুটবলের।

স্বদেশি কিংবদন্তি ম্যারাডোনা হতে হবে তাকে। খুশি করতে হবে আর্জেন্টাইনদের। স্প্যানিশদের নয়।  মনযোগ শুধুই কোপা আমেরিকায়।

এমন লক্ষ্য নিয়েই দলকে নিয়ে রবিবার কোপা আমেরিকার চতুর্থ সেমি ফাইনালে ইকুয়েডরের মুখোমুখি হয়েছে আর্জেন্টিনা।

তার ফলও পেলেন মেসি। তার অসাধারণ নৈপুণ্যে ইকুয়েডরকে ৩-০ গোলে হারাল আর্জেন্টিনা। তিনটি গোলেই রয়েছে মেসির অবদান। অসাধারণ ফ্রি-কিক থেকে একটি করেছেন নিজেই। বাকি দুটো করিয়েছেন ডি পল ও  মার্টিনেজকে দিয়ে।

শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলে ইকুয়েডরকে চাপে রাখে আর্জেন্টিনা। পরীক্ষা নিতে থাকেন ইকুয়েডরের গোলরক্ষক গালিন্দেজের। যদিও বেশিরভাগ শটই লক্ষ্য বরাবর ছিল না।

২ মিনিটের মাথায় আর্জেন্টিনার প্রথম আক্রমণ প্রতিহত করেন গালিন্দেজ। ৫ মিনিটের মাথায় ইকুয়েডরের পোস্ট লক্ষ্য করে শট নেন ডি পল, তবে লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ১৪ মিনিটের মাথায় গোললাইন থেকে বল প্রতিহত করে দলের পতন রোধ করেন আরবোলেতা।

১৭ মিনিটে কর্ণার পায় আর্জেন্টিনা। কিক নেন মেসি। চমৎকার কিকে বল পান পেজেল্লা। বুক থেকে বল নামিয়ে ইকুয়েডরের পোস্ট লক্ষ্য করে শট নিলেও তা টার্গেটে ছিল না। ২০ মিনিটের মাথায় হলুদ কার্ড দেখেন ইকুয়েডরের অ্যাঞ্জেলো প্রেসিয়াদো।

২২ মিনিটের মাথায় গোলের সহজ সুযোগ নষ্ট করলেন খোদ মেসি। ইকুয়েডরের গোলরক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে পারলেন না মেসি। তার শট পোস্টে প্রতিহত হয়।

২৪ মিনিটের মাথায় অফসাইডের আওতায় পড়েন মেনা। ইকুয়েডরের আক্রমণ ভেস্তে যায়। ৩১ মিনিটের মাথায় হলুদ কার্ড দেখলেন ইকুয়েডরের ফ্র্যাঙ্কো।

অবশেষে উল্লাসে ভাসার উপলক্ষ পেল আলবিসেলেস্তেরা। ৪০ মিনিটের মাথায় মেসির পাস থেকে গোল করলেন ডি পল।  ১-০ গোলে লিড নিল আর্জেন্টিনা। ৪৪ মিনিটের মাথায় হলুদ কার্ড দেখেন এসতাপিনান।

৪৫ মিনিটে আর্জেন্টিনার ব্যবধান দ্বিগুন করার সুযোগ পান গঞ্জালেজ। কিন্তু মেসির মতোই ব্যর্থ হন তিনি।

রেফারি প্রথমার্ধে ৪ মিনিট সময় সংযোজন করেন। এই চার মিনিটে ইকুয়েডরের প্রাপ্তি একটি হলুদ কার্ড। যোগ করা শেষ মুহূর্তের আগে হলুদ কার্ড দেখেন ওতামেন্দি।

দ্বিতীয়ার্ধে সমতায় ফেরার ছকে আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে ইকুয়েডর। দলকে শক্তিশালী করতে গ্রুয়েজোকে তুলে নিয়ে এসত্রাদাকে মাঠে নামায় কোচ হারনান দারিয়ো গোমেজ।

বদলি আনে আর্জেন্টিনাও। পালাসিয়সের বদলে মাঠে নামায় প্লাতাকে। ৫০ মিনিটে আর্জেন্টিনার ওপর আক্রমণ চালায় ইকুয়েডর। গঞ্জালেজের শট পোস্টের উপর দিয়ে মাঠের বাইরে চলে যায়।

৫৮ মিনিটে আর্জেন্টিনার দুর্দান্ত এক চেষ্টা ভেস্তে যায়। এসতাপিনানের শট প্রতিহত করেন মার্টিনেজ।

৬৬ মিনিটের মাথায় হলুদ কার্ড দেখেন গঞ্জালেজ। ৭০ মিনিটে ফ্র্যাঙ্কোকে তুলে নিয়ে সাইসেডোকে মাঠে নামায় ইকুয়েডর।

এর এক মিনিট পরেই সেলসো ও পারেদেসকে তুলে নিয়ে ডি মারিয়া ও রদ্রিগেজকে মাঠে নামান আর্জেন্টাইন কোচ স্কলানি।

৮৪ মিনিটে ফের সফল মেসি। এবার মেসির অস্ত্র লউতারো মার্টিনেজ। লিওর পাস থেকে বল ধরে ইকুয়েডরের জালে বল জড়িয়ে দেন মার্টিনেজ। ২-০ গোলে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। হাতে সময় তেমন নেই। অথচ একটি গোলও শোধ করা হয়নি। অনেকটাই মরিয়া হয়ে ওঠে ইকুয়েডর। কিন্তু আর্জেন্টিনার ছন্দময় ফুটবলের কাছে পরাস্ত হয় তারা।

৮৯ মিনিটের মাথায় ডি মারিয়াকে ফাউল করে লাল কার্ড দেখেন ইকুয়েডরের হিনকাপি। ফ্রি-কিক পেয়ে যায় আর্জেন্টিনা।

৯৩ মিনিটে স্পট কিক থেকে অসাধারণ এক গোল করেন মেসি। যা দেখার অপেক্ষায় ছিল ফুটবলবিশ্ব। শেষ মুহূর্তে হলেও ফুটবলপ্রেমীদের সেই আশা পূরণ করে দেন আর্জেন্টাইন খুদেরাজ। ৩-০ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে আর্জেন্টিনা।


আরও খবর



৫ হাজার ইসরায়েলিকে নাগরিকত্ব দিয়েছে আমিরাত

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৬৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আরব আমিরাত দিন দিন মুসলিমদেশ চির দুশমন ইহুদীবাদী ইসরাইলের দিকে ঝুঁকে পড়ছে। ফিলিস্তিনের ইসলামি জিহাদ আন্দোলন অভিযোগ করে বলেছে যে, পাঁচ হাজার ইসরায়েলিকে নাগরিকত্ব দিয়ে ফিলিস্তিনি জাতি ও মুসলিম বিশ্বের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। আবুধাবিকে বিশ্বাসঘাতক ও আপসকামী সরকার বলেও বর্ণনা করেছে এই প্রতিরোধ আন্দোলন।

ইসলামি জিহাদের মুখপাত্র তারিক সালমি ইয়েমেনের আল-মাসিরা টিভিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এই অভিযোগ করেছেন। তিনি দখলদার ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের ব্যাপারে আমিরাতসহ অন্যান্য আরব দেশকে তাদের ভুল হিসাব-নিকাশ পুনর্বিবেচনা করা আহ্বান জানান।

সালমি বলেন, বিশেষ করে সাম্প্রতিক গাজা যুদ্ধে যখন ফিলিস্তিনি জনগণের শক্তিমত্তা এবং তেল আবিবের অজেয় থাকার ভুয়া দাবি প্রমাণিত হয়েছে তখন ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করে আরব দেশগুলোর দুর্বলতা প্রকাশ করা উচিত হবে না।

এর আগে বৃহস্পতিবার এমিরাটস লিকস ওয়েবসাইট জানায়, গত তিন মাসে প্রায় ৫ হাজার ইসরায়েলি সংযুক্ত আরব আমিরাতের নাগরিকত্ব লাভ করেছে। আমিরাত বিদেশিদেরকে নাগরিকত্ব দেয়ার বিধান রেখে আইন সংশোধন করার পর ইসরায়েলিরা এই নাগরিকত্ব পেলো। এর আগে বিদেশিদেরকে নাগরিকত্ব দিতো না সংযুক্ত আরব আমিরাত

বিভিন্ন সূত্রের বরাতে এমিরাটস লিকস জানায়, ইসরায়েলিরা তাদের নাগরিকত্ব ত্যাগ না করেই আমিরাতের নাগরিকত্ব গ্রহণ করার সুযোগ লাভ করেছে। এই নাগরিকত্ব লাভের ফলে ইহুদিরা এখন অনায়াসে এবং অগ্রিম ভিসা গ্রহণ ছাড়াই পারস্য উপসাগর ও আরব দেশগুলো অতিক্রম করতে পারবে।



আরও খবর



ময়মনসিংহে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই যুবক নিহত হয়েছেন। সোমবার ভোরে গফরগাঁও যশরা ইউনিয়নের ভারইল গ্রামে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

র‌্যাবের দাবি, নিহত দুই যুবক ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। এ সময় আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধারের পাশাপাশি নিজেদের দুই সদস্য আহত হওয়ার দাবি করেছে র্যাব।

র‌্যাব জানায়, ভোরে গফরগাঁও যশরা ইউনিয়নের ভারইল গ্রামে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল ডাকাতরা। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে অভিযানে যায় র্যাবের টহল দল।

এ সময় তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি চালায় ডাকাত দল। র‌্যাব পাল্টা গুলি চালালে পালিয়ে যায় ডাকাতরা। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে আহত অজ্ঞাত পরিচয়ের দুই ডাকাতকে উদ্ধার করা হয়। তাদের গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে পরীক্ষার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই দুই ডাকাতকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে। গফরগাঁও থানার ওসি অনুকূল সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে।


আরও খবর



বগুড়ায় ২৪ ঘণ্টায় ১৭ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ১১ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | ৪৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বগুড়ায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় তিন হাসপাতালে ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে ৷ এ সময়ের মধ্যে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৮৩ জনের। 

রোববার (১১ জুলাই) দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেন বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন।

অন্যদিকে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতাল, শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল ও টিএমএসএস হাসপাতালে করোনা উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন বাংলানিউজকে জানান, বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শমিজেক) হাসপাতালের পলিমারেজ চেইন রিঅ্যাকশন (পিসিআর) ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় জেলার মোট ২৮২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

এতে ১০৮ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে, এছাড়া জিন এক্সপার্ট মেশিনে ২৬ নমুনায় ১৬ জন, এন্টিজেন পরীক্ষায় ১৩৮ জনের মধ্যে ৩৬ জন এবং বেসরকারি টিএমএসএস মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ৪১টি নমুনার মধ্যে ২৩ জনসহ মোট ১৮৩ জনের পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। এ নিয়ে বগুড়ায় মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ হাজার ৭০৭ জনে দাঁড়ালো। আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৩ হাজার ৫৩৫ জন। এছাড়া নতুন সাত জনসহ মোট মৃত্যু সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৬৭ জনে এবং বর্তমানে করোনা আক্রান্ত চিকিৎসাধীন রয়েছে ১ হাজার ৭০৫ জন।


আরও খবর