Logo
শিরোনাম

অক্টোবরে ৪৫ শিশুসহ ধর্ষণের শিকার ১০১ জন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ নভেম্বর 2০২1 | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | ৩৪৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গেল অক্টোবরে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে এক হাজার ৬০৩ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার হয়েছে। তাদের মধ্যে শুধু ধর্ষণের শিকার হয়েছে ১০১ জন।যাদের মধ্যে ৪১ জন শিশু ধর্ষণের শিকার, তিনজন দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়। এছাড়া চারজন কন্যাশিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ এ তথ্য জানিয়েছে। সংগঠনটি দেশের দৈনিক পত্রিকা, অনলাইন ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

সংগঠনটি জানিয়েছে, দুজন শিশুসহ সাতজনকে ধর্ষণচেষ্টা করা হয়েছে। চারজন শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছে। পাঁচজন শিশুসহ নয়জন যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে। অ্যাসিডদগ্ধের শিকার হয়েছে তিনজন। অগ্নিদগ্ধের শিকার হয়েছে দুজন। ছয়জন শিশু উত্ত্যক্তের শিকার হয়েছে।

১৬ জন শিশুসহ ১৮ জন অপহরণের শিকার ও একজন কন্যাশিশুকে অপহরণচেষ্টা করা হয়েছে। চারজন শিশুসহ পাচারের শিকার হয়েছে ২৯ জন। যৌতুকের কারণে নির্যাতনের শিকার হয়েছে ছয়জন, যার মধ্যে দুজনকে যৌতুকের কারণে হত্যা করা হয়েছে।

শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে ছয়জন শিশুসহ মোট ২৩ জন। বিভিন্ন কারণে ১২ জন কন্যাশিশুসহ ৫১ জনকে হত্যা করা হয়েছে। এছাড়াও পাঁচজন কন্যাশিশুসহ ১৬ জনকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। ১৪ জন কন্যাশিশুসহ ২৮ জনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

আটজন কন্যাশিশুসহ ১৯ জনের আত্মহত্যা করেছে। বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ করা হয়েছে সাতজনের। দুজন কন্যাশিশুসহ সাইবার অপরাধের শিকার হয়েছে পাঁচজন।

অন্যদিকে, দুঃকজনক হলেও শারদীয় দুর্গাপূজায় বিভিন্ন জেলায় ১৮টি মন্দিরে ও পূজা মণ্ডপে হামলা, ভাংচুর, লুটপাট ও হতাহতের ঘটনার বিষয়ে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে, যা অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশে অনাকাঙ্ক্ষিত বলে জানিয়েছে মহিলা পরিষদ নেত্রীরা।


আরও খবর



জাতীয় দলে নতুন দায়িত্ব পেলেন সুজন

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৮৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের শেষ ম্যাচটাও হেরে ব্যর্থতার ষোলকলা পূর্ণ করে বাংলাদেশ। মূল পর্বে ৫ ম্যাচ খেলে দল হারল পাঁচটিতেই! সর্বশেষ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। টাইগারদের এমন পারফর্ম্যান্স নিয়ে শুধু দেশীয় ভক্ত-সমর্থকেরাই নন সমালোচনায় মুখর সাবেক দেশি-বিদেশি ক্রিকেটাররাও। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাজে পারফরম্যান্স ও চরম ব্যর্থতার পর সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে টাইগারদের নিয়ে। কোচিং স্টাফ, টিম ম্যানেজমেন্ট, নির্বাচক প্যানেল নিয়েও উঠেছে অনেক প্রশ্ন।

সেসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজে দ্রুত ব্যর্থতার বৃত্ত থেকে বের হতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সেজন্য জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজনকে টিম ডিরেক্টর (দলের পরিচালক) হিসেবে নিয়োগ দিতে যাচ্ছে বিসিবি।

একটি সূত্রে জানা যায়, কোচের ওপর ছড়ি না ঘোরালেও, তাদের কাজ-কর্মের ওপর নজরদারি করতে পারবেন সুজন। তার কাঁধেই সেই ক্ষমতা দেওয়া হচ্ছে বোর্ড থেকে।

চলতি মাসে পাকিস্তান সিরিজ থেকেই কাজ শুরু করবেন খালেদ মাহমুদ সুজন। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ১৬ নভেম্বর তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি আর দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ঢাকায় পা রাখবে পাকিস্তান দল। ১৯ নভেম্বর শেরেবাংলায় প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ।

বিশ্বকাপ দলের বাইরে থাকা সাত তরুণ- নাজমুল হোসেন শান্ত, সাইফ হাসান, ইয়াসির আলী রাব্বি, পারভেজ হোসেন ইমন, তৌহিদ হৃদয়, কামরুল ইসলাম রাব্বি ও তরুণ বাঁহাতি স্পিনার তানভির ইসলামসহ জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের নিয়ে রোববার থেকেই মাঠে নামবেন সুজন।


আরও খবর



অভিষেক সুখকর হলো না ইয়াসিরের

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৩৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ইয়াসির আলীর অভিষেক হয়েছে টেস্ট ফরম্যাট দিয়ে। গত দুই বছরের বেশি সময় ধরে জাতীয় দলের সঙ্গে থাকলেও অবশেষে জাতীয় দলের জার্সিতে খেলার সুযোগ হয়েছে এই ব্যাটারের। লিটন দাসের ১১৪ রানে সাজঘরের ফেরার পর ইয়াসির আলীকে বোল্ড করে ফিরিয়েছেন পেসার হাসান আলী।

হাসান আলীর লেংথ বল সামনের পায়ে খেলার চেষ্টা করলেও ব্যাট-বলে কানেক্ট করতে পারেননি ইয়াসির, তার খেসারৎ, স্টাম্প উড়ে যাওয়া। টেস্ট অভিষেকে ১৯ বলে মাত্র ৪ রানে ফিরতে হলো তাকে। ঘরের মাঠে অভিষেক ইনিংসটা স্মরণীয় করে রাখতে পারলেন না চট্ট্রলার ছেলে।

প্রথম দিনে চালকের আসনে থাকা বাংলাদেশের দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই ২ উইকেট নিয়ে পাকিস্তানকে ভালো শুরু এনে দিয়েছেন হাসান আলী।

ইয়াসিরের বিদায়ে বিপাকে পড়তে হলো দলকে। তবে মুশফিকুর রহিম অপরাজিত রয়েছেন ৯১ রানে। তাকে সঙ্গ দিচ্ছেন টেস্ট অভিষিক্ত মেহেদী হাসান মিরাজ। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২৭১ রান।


আরও খবর



‘বৈশ্বিক মানবতার স্বার্থে দৃঢ় অংশীদারিত্ব গড়ে তোলার আহ্বান’

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বর্তমান কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে বৈশ্বিক মানবতার অভিন্ন স্বার্থে দৃঢ় অংশীদারিত্ব গড়ে তোলার জন্য বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জাতিসংঘ সংস্থার ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে ইউনেস্কো সদরদপ্তরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার সহিষ্ণুতা ও মর্যাদা সঞ্চারিত করার মাধ্যমে শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দিচ্ছে। তিনি বলেন, এ লক্ষ্যে আমরা শিক্ষা, বিজ্ঞান, সংস্কৃতি এবং যোগাযোগকে কার্যকর হাতিয়ার হিসাবে বেছে নিয়েছি।

ইউনেস্কোর মহাপরিচালক অড্রে আজোলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আমাদের সাফল্য উদযাপনের এক অনন্য মুহূর্ত। এছাড়াও এটি শতবর্ষ উদযাপনের আগে পরবর্তী ২৫ বছরে সংস্থার কার্যকলাপগুলোকে পুনর্বিবেচনা এবং আত্মসমালোচনা করার একটি গুরুত্বপূর্ণ উপলক্ষ।

তিনি বলেন, ইউনেস্কোর নীতির প্রতি বাংলাদেশের অঙ্গীকার ১৯৭২ সালে আমাদের প্রাথমিক সদস্যপদ লাভের মাধ্যমে প্রতিফলিত। শেখ হাসিনা আরও বলেন, আমরা এই সংগঠনকে বিশ্ব শান্তি ও সম্মিলিত সমৃদ্ধি জোরদারের জন্য অন্যতম কার্যকর মঞ্চ হিসেবে বিবেচনা করি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শান্তি-কেন্দ্রিক পররাষ্ট্রনীতি দ্বারা পরিচালিত বাংলাদেশ সর্বদা বিশ্ব শান্তি উদ্যোগের অগ্রভাগে থাকে। তিনি বলেন, শীর্ষ অবদানকারী হিসেবে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষায় আমাদের অংশগ্রহণ এমনই একটি ঘটনা।

শেখ হাসিনা বলেন, বৃত্তি প্রদান, লিঙ্গ-সংবেদনশীল দৃষ্টিভঙ্গি, স্কুল ফিডিং প্রোগ্রাম, আইসিটি শিক্ষার মতো পদক্ষেপের মাধ্যমে শিক্ষায় আমাদের বিনিয়োগ প্রচুর। তিনি বলেন, তার সরকার স্কুলে বছরের শুরুতে প্রায় ৪ কোটি ২০ লাখ শিক্ষার্থীর মধ্যে বিনামূল্যে ৪০ কোটি পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করছে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের ডিজিটাল বাংলাদেশ মহাপরিকল্পনা আইসিটি ভিত্তিক শিক্ষার মাধ্যমে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য প্রস্তুত করছে। আমরা আমাদের শিক্ষা মহাপরিকল্পনায় আইসিটি চালু করেছি, এর আওতায় প্রায় ৮৩ হাজার স্কুলকে আইসিটি ডিভাইস সরবরাহ করা হয়েছে এবং ৩ লাখ ২৬ হাজার ৯শ ৩৬ জন শিক্ষককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

ইউনেস্কোর এই ঐতিহাসিক ৭৫তম বার্ষিকীতে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইউনেস্কোর মহাপরিচালককে অভিনন্দন জানান।

তিনি বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ইউনেস্কো বিশ্বের জন্য আশা ও শান্তির প্রতীক হয়ে উঠেছে। শেখ হাসিনা বলেন, তার পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন শান্তির প্রবক্তা এবং মানবতায় দৃঢ় বিশ্বাসী।

তিনি বলেন, মানুষের অদম্য কর্মস্পৃহা, অসম্ভবকে সম্ভব করার ও অনতিক্রম্য বাধা অতিক্রম করার ক্ষমতায় তার (বঙ্গবন্ধুর) গভীর আস্থা ইউনেস্কোর চেতনা অনুরণিত করে।

মহামারী বহু মানুষের জীবন কেড়ে নিয়েছে এবং আমাদের জীবন বদলে দিয়েছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, এটি আমাদেরকে উদ্ভাবনী কাজ এবং গতির মাধ্যমে বেঁচে থাকতেও শিখিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী মহামারী থেকে পুনরুদ্ধারের পথে থাকা বিশ্বের সামনে চারটি পরামর্শ তুলে ধরেন।

পরামর্শ তুলে ধরে তিনি বলেন, আসুন আমাদের বিশ্ব মানবতার অভিন্ন কল্যাণের জন্য দৃঢ় অংশীদারিত্ব গড়ে তুলতে এই মুহূর্তটি কাজে লাগাই।

প্রধানমন্ত্রী তার প্রথম পরামর্শে মহামারী আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থাকে মারাত্মকভাবে ব্যাহত করেছে উল্লেখ করে বলেন, পুনরুদ্ধারের জন্য, ডিজিটাল সরঞ্জাম ও পরিষেবা, ইন্টারনেট অ্যাক্সেস, ডিজিটাল বিষয়বস্তু এবং শিক্ষকদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে বিনিয়োগ করে শিক্ষাকে অগ্রাধিকার দিতে আমাদের একটি বৈশ্বিক পরিকল্পনা দরকার।’ তিনি বলেন, দ্বিতীয়ত, যে প্রযুক্তি-সহায়ক অর্থপূর্ণ শিক্ষার পরিবেশ তৈরির জন্য অবশ্যই সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব গড়তে হবে।

তৃতীয় পরামর্শে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনকে অবশ্যই একটি বৈশ্বিক গণপণ্য হিসাবে বিবেচনা করা উচিত বলে উল্লেখ করে বলেন, আমাদের অবশ্যই সবার কাছে, বিশেষ করে, বিশ্বব্যাপী ছাত্র ও শিক্ষকদের কাছে টিকা লাভের সুযোগ নিশ্চিত করতে হবে।

চতুর্থ ও শেষ পরামর্শে তিনি বলেন, আমাদের জনগণের কল্যাণের জন্য প্রযুক্তি স্থানান্তরকে গুরুত্ব দিয়ে বিজ্ঞান ও বৈজ্ঞানিক গবেষণার সুবিধাকে কাজে লাগাতে হবে।


আরও খবর



চীন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের সমালোচনায় বাইডেন

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জলবায়ু সম্মেলন কপ-২৬ এ চীন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের অংশ না নেওয়ার কঠোর সমালোচনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন

মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) রাতে সম্মেলনে দেওয়া এক বক্তব্যে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, `জলবায়ুর মতো এমন কঠিন ও জটিল একটি বিষয় থেকে চীন নিজেদের দূরে সরিয়ে নিচ্ছে। তাদের পথই অনুসরন করে সম্মেলন থেকে দূরে অবস্থান করছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

এদিকে সোমবার (১ নভেম্বর) স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে শুরু হওয়া ছাব্বিশতম বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনে (কপ-২৬) ১২০টি দেশের সরকার ও রাষ্ট্র প্রধান অংশ নিচ্ছেন। সম্মেলনে অংশ নিতে চীন ও রাশিয়া অবশ্য নিজেদের প্রতিনিধি পাঠিয়েছে। রোববার (১৪ নভেম্বর) এ সম্মেলন শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

চীন বিশ্বে সবচেয়ে বেশি কার্বন নিঃসরণকারী দেশ। তাদের পরেই অবস্থান যুক্তরাষ্ট্রের। ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ), ভারত ও রাশিয়া কার্বণ নিঃসরণকারী দেশগুলোর মধ্যে উপরের দিকেই রয়েছে। সূত্র: বিবিসি।


আরও খবর



আজকের ভালো মন্দ

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৮৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আজ আপনার জন্মদিন হলে পাশ্চাত্য জ্যোতিষে আপনি বৃশ্চিক রাশির জাতক/ জাতিকা। আপনার জন্মসংখ্যা : ৭। আপনার ওপর প্রভাবকারী গ্রহ : মঙ্গল ও নেপচুন। আপনার শুভ সংখ্যা : ৭ ও ৯। শুভ বার : মঙ্গল ও সোম। শুভ রত্ন : রক্তপ্রবাল ও এমিথিস্ট।

মেষ (২১ মার্চ-২০ এপ্রিল)

দিনটি মিশ্র সম্ভাবনাময়। ব্যবসায়িক দিক ভালো যাবে না। বিক্রয়-বাণিজ্যে লোকসান হতে পারে। সামাজিক সংকট এড়িয়ে চলুন। রিপুকে সংযত রাখুন।

বৃষ (২১ এপ্রিল-২০ মে)

দাম্পত্য সম্পর্ক ভালো থাকতে পারে। অপরের প্রতি সদাচরণ করুন। ব্যবসায়িক দিক ভালো যাবে। বিক্রয়-বাণিজ্যে লাভবান হতে পারেন। জ্ঞাতিশত্রু সম্পর্কে সতর্ক থাকুন।

মিথুন (২১ মে-২০ জুন)

শরীর খুব একটা ভালো না-ও থাকতে পারে। আহারে-বিহারে সতর্ক থাকুন। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন। শত্রুদের দুর্বল ভাববেন না। সীমা লঙ্ঘন করা থেকে বিরত থাকুন।

কর্কট (২১ জুন-২০ জুলাই)

বিদ্যার্থীদের জন্য দিনটি শুভ। পড়াশোনায় মন বসাতে পারবেন। সৃজনশীল কাজে অংশ নিতে পারেন। সে ক্ষেত্রে সাফল্যের সম্ভাবনা আছে। ধর্মীয় কাজে আনন্দ পাবেন।

সিংহ (২১ জুলাই-২১ আগস্ট)

মাতৃস্বাস্থ্য ভালো যাবে। অসুস্থ মায়ের আরোগ্যলাভ হতে পারে। মন ভালো থাকবে। পড়াশোনার প্রতি আগ্রহ বোধ করতে পারেন। আবেগ সংযত রাখুন।

কন্যা (২২ আগস্ট-২২ সেপ্টেম্বর)

আত্মীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ হতে পারে। ব্যক্তিগত যোগাযোগে সুফল পাবেন। ঠাণ্ডা সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। প্রতিবেশীদের সঙ্গে যোগাযোগ হতে পারে। প্রাপ্ত তথ্য ভালোভাবে যাচাই করে নিন।

তুলা (২৩ সেপ্টেম্বর-২২ অক্টোবর)

বাড়িতে অতিথি সমাগম হতে পারে। অতিথি আপ্যায়নে ব্যয় বৃদ্ধি পেতে পারে। মূল্যবোধ বজায় রাখুন। প্রদত্ত প্রতিশ্রুতি রক্ষা করার চেষ্টা করুন। পাওনা টাকা আদায়ের জন্য তাগাদা দিন।

বৃশ্চিক (২৩ অক্টোবর-২১ নভেম্বর)

আত্মপ্রতিষ্ঠার চেষ্টা জোরদার করুন। সে ক্ষেত্রে সাফল্য পেতে পারেন। শরীর ভালো থাকবে। অসুস্থদের আরোগ্য লাভের সম্ভাবনা আছে। জ্ঞাতিশত্রু সম্পর্কে সতর্ক থাকুন।

ধনু (২২ নভেম্বর-২০ ডিসেম্বর)

দিনটি মিশ্র সম্ভাবনাময়। শরীর অসুস্থ হতে পারে। অবহেলা না করে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন। গোপন শত্রু সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। আর্থিক দিক ব্যয়বহুল হতে পারে।

মকর (২১ ডিসেম্বর-১৯ জানুয়ারি)

আর্থিক দিক ভালো যেতে পারে। উপার্জন বৃদ্ধির প্রচেষ্টা জোরদার করুন। কোনও আশা পূরণ হতে পারে। বন্ধুদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখুন। প্রয়োজনে তাদের সহযোগিতা নিন।

কুম্ভ (২০ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি)

পিতৃস্বাস্থ্য ভালো যাবে। অসুস্থ পিতার আরোগ্যলাভ হতে পারে। সামাজিক কাজে অংশ নিতে পারেন। সে ক্ষেত্রে সাফল্যের সম্ভাবনা আছে। কর্মস্থলে সিনিয়রদের পরামর্শ অনুযায়ী কাজ করুন।

মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ)

আধ্যাত্মিকতার প্রতি অনুরাগ বোধ করতে পারেন। জ্ঞানস্পৃহা বৃদ্ধি পাবে। মন ভালো থাকবে। জীবনকে অর্থবহ করে গড়ে তোলার চেষ্টা করুন। ভ্রমণের সুযোগ পেতে পারেন।

 

নিউজ ট্যাগ: আজকের রাশিফল

আরও খবর

আজকের ভালো মন্দ

রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১