Logo
শিরোনাম

অপরাধে জড়িয়ে কুয়েত ছাড়তে হলো ৩৫০০ বাংলাদেশিকে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

এক বছরে বিভিন্ন অপরাধে সাজা পাওয়া প্রায় ৩০ হাজার প্রবাসীকে নিজ দেশে ফেরত পাঠিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যর দেশ কুয়েত। তাদের মধ্যে বাংলাদেশি প্রবাসী রয়েছেন ৩ হাজার ৫০০ জন।

আজ মঙ্গলবার কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে ইংরেজি দৈনিক কুয়েত টাইমসর এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, ২০২২ সালে মাদক সেবন ও বেচাকেনা, মারামারি, চুরি, মাদক তৈরি, পতিতাবৃত্তি, আকামার মেয়াদ উত্তীর্ণ এবং আইন লঙ্ঘন করাসহ বিভিন্ন অপরাধে সাজা পাওয়া প্রায় ৩০ হাজার প্রবাসীদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে। নিজ দেশে ফেরত যাওয়া প্রবাসীদের মধ্যে ১৭ হাজার পুরুষ এবং ১৩ হাজার নারী।

নিজ দেশে ফেরত আসা পুরুষ প্রবাসীদের মধ্যে ৬ হাজার ৪০০ জন ভারতীয়, ৩ হাজার ৫০০ জন বাংলাদেশি এবং ৩ হাজার মিশরীয় নাগরিক। নারীদের মধ্য ৩ হাজার ফিলিপিনো, ২ হাজার শ্রীলঙ্কান, ১ হাজার ৭০০ ভারতীয় এবং ১ হাজার ৪০০ জন ইথিওপিয়ান নাগরিক।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, কুয়েতের জনসংখ্যায় ভারসাম্য ও দেশটির শ্রমবাজারে অতিরিক্ত প্রবাসীর সংখ্যা নিয়ন্ত্রণে আনতে অভিযুক্তদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া চলতি বছরও দেশটির শ্রমবাজারে প্রবাসী নাগরিকদের ভারসাম্য আনতে প্রয়োজনে আরও প্রবাসীদের নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে পারে দেশটির সরকার।

কুয়েতে প্রবাসী বাংলাদেশি আরমান মিঞা বলেন, কুয়েতের আইন মধ্যপ্রাচ্যে অনেকে দেশের তুলনায় কঠোর। তাই যারা দেশটিতে কর্মরত রয়েছেন, তাদের উচিত দেশের আইন ভালোভাবে মেনে চলা।


আরও খবর



গ্যাসের মূল্য পুনর্নির্ধারণে প্রধানমন্ত্রীকে এফবিসিসিআইয়ের চিঠি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ১৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গ্যাসের দাম পুননির্ধারণে সরকারের ওপর চাপ বাড়ছে। রেকর্ড পরিমাণ গ্যাসের দাম কমানোর দাবিতে গত ২৪ জানুয়ারি পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ) প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী ও বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের কাছে দুইটি পৃথক চিঠিও প্রদান করেছে। এবার একই দাবিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন।

প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া এফবিসিসিআইর চিঠিতে বলা হয়, কোভিড-পরবর্তী বিদ্যমান বিশ্ব অর্থনৈতিক পরিস্থিতি মোকাবিলা করে যখন আমরা সম্মিলিত প্রচেষ্টায় অর্থনৈতিক কার্যক্রমকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি সে মুহূর্তে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি আমাদের অর্থনীতিকে চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলবে বলে আমরা আশঙ্কা করছি।

চিঠিতে আরও দাবি করা হয়, কোভিড মহামারি ও ইউক্রেন সংকটের ফলে বিশ্বব্যাপী খাদ্যপণ্য, শিল্পের কাঁচামাল ও উৎপাদন উপকরণসহ সব খাতে ব্যাপক মূল্য বৃদ্ধি সে সঙ্গে সার্বিক পরিবহন ব্যয় এবং মুদ্রা বিনিময় হার অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় ব্যবসা পরিচালনার খরচ অত্যধিক বেড়ে চলেছে। এতে শিল্প কারখানাগুলো সচল রাখা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

এফবিসিসিআইয়ের চিঠিতে গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রেক্ষিত বর্ণনা করে বলা হয়, ঘোষিত ২০৪১ সালের রূপকল্প বাস্তবায়ন, এসডিজি অর্জন ও ট্রিলিয়ন ডলার ইকনোমিতে পদার্পণ করতে আমাদের অধিকতর বিনিয়োগ ও টেকসই শিল্পায়নের বিকল্প নেই। চাহিদা অনুযায়ী স্পট মার্কেট থেকে জ্বালানি গ্যাস ক্রয় করা হলে উৎপাদন খাতে নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহ নিশ্চিত করার শর্তে এফবিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে ক্যাপটিভ-এর ক্ষেত্রে গ্যাসের মূল্য প্রতি কিউবিক মিটার ১৬ টাকার স্থলে সর্বোচ্চ ২৫ টাকা অর্থাৎ ৫৭% বৃদ্ধি করা যেতে পারে বলে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল।

তবে ক্যাপটিভ খাতে গ্যাসের মূল্য ৮৭.৫% বৃদ্ধি করে ৩০ টাকা করা হয়েছে। পাশাপাশি বৃহৎ, মাঝারি ও ক্ষুদ্র শিল্প খাতে ব্যবহৃত গ্যাসের বর্তমান হার যথাক্রমে ১১ দশমিক ৯৮, ১১ দশমিক ৭৮ ও ১০ দশমিক ৭৮ টাকা থেকে বৃদ্ধি করে সকল স্তরে একই হার ৩০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

বিদ্যুৎ খাতে ব্যবহৃত গ্যাসের মূল্য ৫ দশমিক ০২ টাকা থেকে বৃদ্ধি করে ১৪ টাকা করা হয়েছে। আগামী ফেব্রুয়ারি থেকে নতুন মূল্য কার্যকর করার কথা বলা হয়েছে।

এতে দেখা যায়, বৃহৎ শিল্পে প্রতি ইউনিট গ্যাসের দাম ১১ টাকা ৯৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়। অর্থাৎ দাম বেড়েছে প্রায় তিন গুণ।

শিল্পে উৎপাদিত নিজস্ব বিদ্যুৎ কেন্দ্রের (ক্যাপটিভ) জন্য ইউনিট প্রতি গ্যাসের দাম ১৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। সার কারখানায় ব্যবহৃত গ্যাসের দাম ১৬ টাকা (ইউনিট প্রতি) অপরিবর্তিত থাকছে।

মাঝারি শিল্পে ব্যবহৃত গ্যাসের দাম ১১ টাকা ৭৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পে ব্যবহৃত গ্যাসের দাম ১০ টাকা ৭৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। এতে শিল্প কারখানাগুলো সচল রাখা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।


আরও খবর

বেড়েছে সবজি-ডিমের দাম

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩




সরকারি চাকরিতে ৩ লাখ ৫৮ হাজার ১২৫ পদ শূন্য

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় বা বিভাগ ও অধিদপ্তরে ৩ লাখ ৫৮ হাজার ১২৫টি পদ শূন্য আছে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। আজ বুধবার সংসদের অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি এ তথ্য জানান।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের সংসদ অধিবেশন শুরু হলে প্রশ্নোত্তর টেবিলে প্রশ্ন উত্থাপিত হয়।

সরকারদলীয় সংসদ সদস্য কাজিম উদ্দিন আহম্মেদের করা প্রশ্নের জবাবে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে সর্বশেষ প্রকাশিত স্ট্যাটিসটিকস অব সিভিল অফিসার্স অ্যান্ড স্টাফস-২০২১ বইয়ের (জুন, ২০২২ সালে প্রকাশিত) তথ্য অনুযায়ী, সরকারের অধীনে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়/বিভাগ/অধিদপ্তর/পরিদপ্তর ও সরকারি কার্যলয় সমূহে বেসামরিক জনবলের মোট শূন্য পদ ৩ লাখ ৫৮ হাজার ১২৫টি।

ফরহাদ হোসেন বলেন, এর মধ্যে প্রথম শ্রেণির ৪৩ হাজার ৩৩৬টি, দ্বিতীয় শ্রেণির ৪০ হাজার ৫৬১, তৃতীয় শ্রেণির ১ লাখ ৫১ হাজার ৫৪৮ এবং চতুর্থ শ্রেণি পদে শূন্য পদ ১ লাখ ২২ হাজার ৬৮০টি। এর মধ্যে ৪০তম বিসিএসে ১ হাজার ৯২৯ জনকে নিয়োগ করা হয়েছে। আর ৪২তম বিশেষ বিসিএসে (স্বাস্থ্য) ক্যাডারে ৩ হাজার ৯৬৬ জন সহকারী সার্জন নিয়োগ করা হয়েছে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ৪১তম বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষা চলমান। ৪৩তম বিএসএসের লিখিত পরীক্ষার উত্তরপত্র মূল্যায়ণ চলছে, ৪৪তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা গত ১১ জানুয়ারি শেষ হয়েছে। আগামী মার্চের দ্বিতীয় সপ্তাহে ৪৫তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি টেস্টের সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারিত আছে।

সরকারি অফিসসমূহে শূন্য পদের বিপরীতে নিয়োগ চলমান প্রক্রিয়া জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, দ্বিতীয় শ্রেণির (১০-১৩তম গ্রেড) নিয়োগ পিএসসির মাধ্যমে হয়ে থাকে। ১৪ থেকে ২০তম গ্রেডের নিয়োগ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগ/অধিদপ্তর/সংস্থার নিয়োগবিধি অনুযায়ী হয়ে থাকে। আদালতে মামলা থাকায় নিয়োগবিধি প্রণয়ন কার্যক্রম শেষ না হওয়ায় এবং পদোন্নতি যোগ্য প্রার্থী না পাওয়ায় কিছু শূন্য পদ পূরণ করা যায় না।

জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য মুজিবুল হক চুন্নুর প্রশ্নের জবাবে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, ৪০তম বিসিএসের নন-ক্যাডার পদে ৫ হাজার ৪৩৬টি শূন্য পদের চাহিদাপত্র পাওয়া গেছে। এগুলো যাচাই-বাছাই শেষে প্রকৃত সুপারিশযোগ্য শূন্য পদের সংখ্যা জানানো সম্ভব হবে।

সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য শামসুন নাহারের প্রশ্নের জবাবে ফরহাদ হোসেন বলেন, স্ট্যাটিসটিকস অব সিভিল অফিসার্স অ্যান্ড স্টাফস-২০২১ প্রতিবেদন অনুযায়ী, দেশের সরকারি চাকারিজীবীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৫৪ হাজার ৯২৭ জন। এর মধ্যে নারী ৪ লাখ ৪ হাজার ৫৯১ জন, যা মোট চাকরিজীবীর প্রায় ২৬ শতাংশ। ২০১০ সালে ছিল ২১ শতাংশ। তিনি প্রথম শ্রেণির পদে নারীদের জন্য আলাদা কোটা না থাকলেও ১৩ থেকে ২০তম গ্রেডে নিয়োগে নারীদের জন্য ১৫ শতাংশ কোটা সংরক্ষণ করা আছে।

নিউজ ট্যাগ: সরকারি চাকরি

আরও খবর



বিটিভিসহ ৪ প্রতিষ্ঠানে নতুন ডিজি, বিআইডব্লিউটিসিতে চেয়ারম্যান

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ইনস্টিটিউট, জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরে নতুন মহাপরিচালক (ডিজি) নিয়োগ দিয়েছে সরকার।

এছাড়া বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনে (বিআইডব্লিউটিসি) নতুন চেয়ারম্যান নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত দুটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

এরমধ্যে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মনিরুজ্জামানকে বাংলাদেশ টেলিভিশনের ডিজি, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. নুরুল আলমকে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ইনস্টিটিউটের ডিজি করা হয়েছে।

অন্যদিকে, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. জাফর উল্লা হক জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরের ডিজি, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মিজানুর রহমানকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের ডিজি করা হয়েছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) চেয়ারম্যান হয়েছেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. শফি উল হক।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ৭ নভেম্বরের প্রজ্ঞাপনে পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত অতিরিক্ত সচিব সঞ্জয় কুমার ভৌমিককে বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান হিসেবে বদলির আদেশে তার জন্য প্রযোজ্য অংশটুকু বাতিল করা হয়েছে বলেও জানানো হয় প্রজ্ঞাপনে।

পৃথক প্রজ্ঞাপনে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (অতিরিক্ত সচিব) মো. আবুল কালাম আজাদকে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব হিসেবে বদলি করা হয়েছে।


আরও খবর



বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ মাতাতে আসছেন মালান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)কে সামনে রেখে প্রস্তুতি শুরু করেছে দলগুলো। শেষ মুহূর্তে ইংলিশ ক্রিকেটার দাভিদ মালানকে দলে ভিড়িয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। আগামী ৫ জানুয়ারি ঢাকায় পা রাখবেন ইংল্যান্ডের তারকা এই ব্যাটার।

কুমিল্লার হয়ে আগেও বিপিএলে খেলেছেন মালান। তার খেলতে আসার বিষয়টি কুমিল্লা ফ্র্যাঞ্চাইজি তাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে জানিয়েছে।

সেখানে মালানের একটি ভিডিও পোস্ট করে তারা লিখেছে, ওয়ার্ল্ড ক্লাস ইংলিশ টপ অর্ডার ব্যাটার, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ব্যাট হাতে এক বিধ্বংসী নাম দাভিদ মালান এবার বিপিএল ২০২৩ এ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের জার্সি গায়ে মাঠ মাতাবেন। মালানকে ভিক্টোরিয়ান্স পরিবারে স্বাগতম।


আরও খবর



এবার আস্থা ভোটের মুখে পাক প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আস্থা ভোটে হেরে গত বছরের এপ্রিলে ক্ষমতা হারিয়েছিলেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। আর এবার সেই আস্থা ভোটের মুখেই হয়তো পড়তে যাচ্ছেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ। বিশ্বকাপজয়ী সাবেক ক্রিকেটার এবং ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এমন দাবিই সামনে এনেছেন। ভারতীয় বার্তাসংস্থা পিটিআইয়ের বরাত দিয়ে রবিবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ডক্টর আরিফ আলভি শিগগিরই প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফকে আস্থা ভোটে নিজের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে বলবেন বলে দেশটির ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানিয়েছেন।

শনিবার সন্ধ্যায় হাম নিউজ টিভিতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ইমরান এই মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, শেহবাজ শরিফ পাঞ্জাবে আমাদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা পরীক্ষা করেছেন এবং এখন তার প্রমাণ করার পালা যে তিনি জাতীয় পরিষদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পান কিনা।

করাচি ও হায়দ্রাবাদের স্থানীয় নির্বাচনের ইস্যুতে ক্ষমতাসীন জোটের একটি অংশ পদত্যাগের হুমকি দিয়েছে দাবি করে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের চেয়ারম্যান ইমরান খান বলেন, প্রথমে, শেহবাজকে আস্থা ভোটের পরীক্ষা দিতে হবে... এবং পরে তার জন্য আমাদের অন্যান্য পরিকল্পনা রয়েছে।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি ইমরানের পিটিআইয়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এবং দেশটির ক্ষমতাসীন ফেডারেল জোট খুব অল্প সংখ্যাগরিষ্ঠতায় টিকে আছে। পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদে মুতাহিদ্দা কওমি মুভমেন্ট-পাকিস্তানের (এমকিউএম-পি) সাতজন সদস্য আছে, যদি তারা পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নেয়, তাহলে শেহবাজ সরকার টিকে থাকতে পারবে না।

উল্লেখ্য, পাঞ্জাবের গভর্নর পিএমএল-এন-এর সদস্য বালিগুর রহমান সম্প্রতি প্রদেশটির ক্ষমতাসীন পিটিআই-পিএমএলকিউ-এর মুখ্যমন্ত্রী চৌধুরী পারভেজ এলাহির কাছে আস্থা ভোটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে বলেন। তিনি বেশ সফল ভাবেই সেটি করতে পরেছেন এবং এরপর গত বৃহস্পতিবার পাঞ্জাব বিধানসভা ভেঙে দেওয়ার জন্য গভর্নরকে পরামর্শ দিয়েছেন। এরপর শনিবার সন্ধ্যায় বিধানসভা ভেঙে দেওয়া হয়। ইমরান খান চান ফেডারেল সরকার আগাম জাতীয় নির্বাচন ঘোষণা করুক এবং এই উদ্দেশ্যে তিনি তার পাঞ্জাব এবং খাইবার পাখতুনখাওয়া সরকারকে উৎসর্গ করেছেন। গত বছরের এপ্রিলে অনাস্থা ভোটের মাধ্যমে বিশ্বকাপজয়ী সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খানকে ক্ষমতা থেকে অপসারণ করা হয়।


আরও খবর