Logo
শিরোনাম

পদ্মা ইসলামী লাইফে সিইও নিয়োগ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | ৪৪৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নিয়োগ দিয়েছে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, কোম্পানিটির পরিচালনা পরিষদ একেএম শরিফুল ইসলামকে প্রতিষ্ঠানটির সিইও হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে। গত ৩ জানুয়ারি থেকে একেএম শরিফুল ইসলাম কোম্পানিটির সিইও হিসেবে কাজ শুরু করেন।

নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ইন্স্যুরেন্স ডেভলপমেন্ট অ্যান্ড রেগুলেটরি অথরিটির (আইডিআরএ) এ নিয়োগ অনুমোদন করেছে।


আরও খবর



সাংবাদিক রোজিনার জামিন শুনানি শেষ, পরে আদেশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ মে ২০21 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | ৯৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চুরি ও অফিসিয়াল সিক্রেটস আইনে করা মামলায় দৈনিক প্রথম আলোর সিনিয়র সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের জামিন শুনানি শেষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২০ মে) ঢাকা মহানগর হাকিম বাকী বিল্লার ভার্চুয়াল আদালতে তার জামিন শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। শুনানি শেষে বিচারক বলেন, এ বিষয়ে তিনি পরে আদেশ দেবেন।

এর আগে মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসিম রোজিনার বিরুদ্ধে পুলিশের করা রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করে জামিন শুনানির জন্য ২০ মে দিন ধার্য করেন।

শাহবাগ থানার মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক আরিফুর রহমান সরদার ওইদিন আদালতে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিলেন। বিচারক রিমান্ড নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১৮ মে) রোজিনা ইসলামের রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। একই সঙ্গে তার জামিন শুনানির জন্য বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করেন আদালত। এরপর রোজিনার আইনজীবী প্রশান্ত কুমার কর্মকার তার চিকিৎসার জন্য আবেদন করেন। আদালত কারাবিধি অনুযায়ী তার চিকিৎসার জন্য নির্দেশ দেন। এরপর প্রিজন ভ্যানে তাকে গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে তিনি সেখানেই রয়েছেন।

রোজিনা ইসলাম গেল সোমবার দুপুরের পর পেশাগত দায়িত্ব পালনে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে যান। মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা তাকে একটি কক্ষে আটকে রাখেন। প্রায় ছয় ঘণ্টা পর রাত সাড়ে আটটার দিকে রোজিনাকে শাহবাগ থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরে রাত পৌনে ১২টার দিকে তাঁর বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় মামলা করা হয়।


আরও খবর



পরিস্থিতি দেখে এসএসসি-এইচএসসির বিষয়ে সিদ্ধান্ত : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | ৩২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চলতি বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা হবে কি-না, করোনা পরিস্থিতি দেখে তা বিবেচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি

আজ মঙ্গলবার (১৫ জুন) স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ঢাকার কেরানীগঞ্জের জাজিরা মোহাম্মদিয়া আলিয়া মাদ্রাসায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধনের সময় এ কথা জানান তিনি।

তিনি বলেন, ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য আমরা চেষ্টা করছি সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পরীক্ষা নেয়ার। এখন সেটিও যদি না হয়, আমরা তার বিকল্প নিয়েও চিন্তা করছি। কিন্তু এখন পরীক্ষা আমরা নিতে পারব কি-না, পরীক্ষা নিতে না পারলে বিকল্প কোনো ব্যবস্থা থাকলে- তার সবকিছু নিয়েই কিন্তু আমাদের চিন্তা-ভাবনা আছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, জুলাই থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা গেলে সেপ্টেম্বর-অক্টোবর নাগাদ সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের ওপরই পরীক্ষা নেয়া সম্ভব। তবে যদি ছুটি বাড়ানো হয় তাহলে বিকল্প চিন্তা হিসেবে অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে মূল্যায়ন করার প্রস্তুতি শুরু করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এতে শিক্ষার্থীরা কতটুকু শিখেছে তার একটা মূল্যায়ন করে গ্রেড দেয়া যাবে। এক্ষেত্রে আগের জেএসসি ও নবম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফলকে আমলে নেয়া হতে পারে।

গত বছরের মার্চে সংক্রমণ দেখা দেয়ার আগেই এসএসসি পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়েছিল। কিন্তু এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা আটকে যান। ছুটির সময় কোনো পাবলিক পরীক্ষা হয়নি। আর উচ্চ মাধ্যমিকের পরীক্ষার্থীদের মূল্যায়ন ফল প্রকাশ করা হয় তাদের এসএসসি ও জেএসসির ফলের গড় করে।


আরও খবর



রোজিনা গোপন তথ্য নিয়ে যাচ্ছিলেন, তিনি অন্যায় করেছেন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ মে ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | ১০৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম গোপনে রাষ্ট্রীয় নথি নিয়ে যাচ্ছিলেন দাবি করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। মঙ্গলবার (১৮ মে) দুপুরে রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ দাবি করেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সাংবাদিক রোজিনার পূর্বের কোনো সংবাদের জন্য তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। সোমবার (১৭ মে) যে ঘটনা ঘটেছে সে ঘটনা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তিনি না বলে সরকারি ফাইল নিয়ে যাচ্ছিলেন। সেগুলোর ছবি তুলছিলেন। অনুমতি ছাড়াই ওই রুমে প্রবেশ করেছেন। এগুলো রাষ্ট্রীয় গোপন বিষয়। তিনি অন্যায় করেছেন।

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে জাহিদ মালেক বলেন, সাংবাদিক রোজিনাকে কোনো শারীরিক নির্যাতন করা হয়নি। এই তথ্য সঠিক নয়। এটি একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। সাংবাদিক রোজিনা যে কাজটি করেছেন তা উচিত হয়নি। তিনি অন্যায় করেছেন।

একজন অতিরিক্ত সচিব সাংবাদিক রোজিনার গলা চেপে ধরেছিলেন সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, বিষয়টি অবশ্যই তদন্ত করে দেখা হবে। তবে আমি এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করেছি। তিনি একজন অতিরিক্ত সচিব। আমাকে তিনি টেলিফোনে বলেছেন, তিনি রোজিনাকে শারীরিক নির্যাতন করেননি। বরং রোজিনা তার উপর হামলা করেছিল। ঘটনার পর রোজিনাকে যখন আটকানোর চেষ্টা করা হয় তখন তিনি ওই অতিরিক্ত সচিবকে খামচি দিয়েছেন, থাপ্পড় মেরেছেন। এরপর পুলিশ আসলে তাকে পুলিশের কাছে তুলে দেওয়া হয়।

তিনি বলেন, কোনো নির্দোষ লোক সাজা পাক এটা আমি চাই না। দেশের ক্ষতি হোক এরকমটা আমরা চাই না। তিনি অপরাধ না করে থাকলে আইনের মাধ্যমেই তা প্রমাণ হবে। আমরা সব সাংবাদিকদের সম্মান করি। আমরা সাংবাদিকদের সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করার চেষ্টা করি। আমার বাসার দরজায় আসলেও আমি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলি।

মন্ত্রী আরও বলেন, সাংবাদিক রোজিনাকে ছয় ঘণ্টা আটকে রাখা হয়েছে এটা ভুল। ঘটনার সময় সেখানে বিভিন্ন পদস্থ পাঁচ-ছয়জন উপস্থিত ছিলেন। ঘটনার পর সেখানে পুলিশ এসেছে। ঘটনার আধাঘণ্টার মধ্যে পুলিশ এসেছে। আমার আগে এ খবর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেনেছেন। বরং রোজিনা সেখানে কাউকে সাহায্য করছিল না। তাকে জোর করে কেউ রুমে নিয়ে যায়নি।



আরও খবর

সরকারি শূন্যপদ ৩ লাখ ৮০ হাজার

মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১




সাভারে জোড়া খুনের প্রধান আসামী গ্রেফতার

প্রকাশিত:সোমবার ১৪ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | ৮০জন দেখেছেন
Image

সাভার থেকে সাব্বিব হোসেন

অবশেষে সাভারে জোড়া খুনের প্রধান আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার ভোর রাতে সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের হেমায়েতপুর থেকে তাকে গ্রেফতার করে সাভার মডেল থানা পুলিশ। আটক খুনির নাম শাহাজালাল (২৩)।

পুলিশ জানায়, গত ১১ জুন বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে আপন দুই খালাতো ভাইকে খুন করে এই শাহজালাল। নিহতদের ফেসবুক ও মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে প্রথমে সাত জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। পরে অনুসন্ধান করে গ্রেফতার করা হয় শাহজালালকে।

জানাগেছে, ঐ দিন সাভারের ভাকুর্তা হারুলিয়া গ্রামের নির্জন ধইঞ্চা ক্ষেতে জবাই করা আপন দুই খালাতো ভাইয়ের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এরা হচ্ছে, সাভারের যাদুর চরের রতন খানের ছেলে রায়হান (১৭ এবং রায়হানের খালাতো ভাই বরিশাল গৌরনদীর পশ্চিম শেওড়া গ্রামের নেছার মোল্লার ছেলে নাজমুল হোসেন মোল্লা (২০)। নাজমুল গত বৃহষ্পতিবার নিজ গ্রাম থেকে হেমায়েতপুর যাদুরচরে খালার বাড়িতে বেড়াতে আসে।

এ ঘটনায় নিহতদের পরিবার সেই দিনেই সাভার মডেল থানায় অজ্ঞাত আসামীদের নামে মামলা দায়ের করলে সোমবার ভোর রাতে পুলিশ হেমায়েতপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামী শাহাজালালকে আটক করে।

হেমায়েতপুর ট্যানারী পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ জাহিদুল ইসলাম জাহিদ জানান, এই হত্যাকাণ্ডের সাথে দুজন জড়িত রয়েছে। পলাতক আরেক আসামীকে গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত আছে। তবে, কি কারণে খুনিরা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা আরো তদন্তের পর জানানো যাবে।

সাভার মডেল থানার ওসি মাইনুল ইসলাম জানান, খুনি শাহজালাল পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে যে, তারা দুজন মিলে রায়হান ও নাজমুলকে ছুড়ি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছে।

নিউজ ট্যাগ: জোড়া খুন পুলিশ

আরও খবর



পাটুরিয়া ফেরিঘাটে ঢাকায় ফেরার যুদ্ধে মানুষের ঢল

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ মে ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | ১০৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঈদের ছুটি শেষে নারীর টানে বাড়ি ফেরা মানুষগুলো তাদের নিজ নিজ কর্মস্থলে ফেরা শুরু করেছেন। গতকাল ঢাকামুখী যাত্রীদের চাপ কম থাকলেও আজ সকাল থেকেই চাপ বাড়তে শুরু করেছে। যেখানে মানা হচ্ছে না তেমন স্বাস্থ্যবিধি।

এদিকে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় ঘাট এলাকায় যাত্রীদের পৌঁছাতে হচ্ছে ভেঙে ভেঙে। এতে ভোগান্তির পাশাপাশি দিতে হচ্ছে বাড়তি ভাড়াও।

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ঢাকামুখী যাত্রীরা রোববার সকালে দেশের দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার অন্যতম প্রবেশদ্বার দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ফেরিঘাটের প্রতিটি ফেরিতে যাত্রী ও যানবাহনের ভিড় দেখা গেছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা এরিয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার জিল্লুর রহমান জানান, শনিবার থেকে বাড়ি ফেরা কর্মজীবী মানুষগুলো কর্মস্থলে ফেরা শুরু করেন।

এছাড়া রোববার (১৬ মে) সকাল ৯টার পর থেকে বাংলাবাজার থেকে শিমুলিয়াঘাটে আসা প্রতিটি ফেরিতে যাত্রীর চাপ দেখা যায়। এসব ফেরিতে জরুরি, যাত্রীবাহী ও পণ্যবাহী যানবাহনও পার হচ্ছে।

শিমুলিয়া ফেরিঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মাহবুবুর রহমান বলেন, শিমুলিয়াঘাটে তেমন চাপ না থাকলেও বাংলাবাজার ঘাটে যাত্রী ও যানবাহনের চাপ রয়েছে। সকাল থেকে এ নৌরুটে ১৮টি ফেরি চালু রয়েছে। এসব ফেরিতে প্রচুর সংখ্যক ঢাকামুখী মানুষ শিমুলিয়া ঘাটে আসছেন।

ফেরিঘাটে আসা কয়েকজন যাত্রী বলেন, ঈদের আগে অনেক কষ্ট করে বাড়ি যেতে হয়েছে। তাই কষ্ট এড়াতে তারা একদিন পর কর্মস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন।

তবে ঈদের আগের মতই দূরপাল্লার বাস বন্ধ থাকায় ঘাট পার হওয়ার পর ঘণ্টার পর ঘণ্টা গাড়ির জন্য অপেক্ষা করে ভেঙে ভেঙে ঢাকায় প্রবেশ করছেন কর্মজীবি মানুষেরা। গন্তব্যে পৌঁছাতে যাত্রীদের গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত ভাড়া।



আরও খবর