Logo
শিরোনাম

পিরিয়ডের সময় তলপেটে যখন তীব্র ব্যথা

প্রকাশিত:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ১১১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মেয়েদের মাসিক শুরুর পর তাকে কাউন্সিলিংয়ের পাশাপাশি অন্তত ছয় মাস পর্যবেক্ষণে রাখার জন্য পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কৈশোর বান্ধব স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রের অধ্যাপক শিউলী চৌধুরী বলছেন, জীবনের শুরুতে ভয় বা মাসিক সংক্রান্ত সমস্যা কাটিয়ে ওঠার সঙ্গে মেয়েদের মানিয়ে নিতে সহায়তা করবে।

মাসিকের সময় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ অনেক মেয়ের জন্যই খুবই কষ্টদায়ক হয়ে দাঁড়ায়। আবার অনেকে স্বাভাবিকের থেকে অনেক বেশি সময় ধরে তলপেটে প্রচুর ব্যথা অনুভব করেন।

মেয়ে এবং তার পরিবারের করণীয়: অধ্যাপক শিউলি চৌধুরীর মতে প্রথমত কাউন্সিলিং প্রয়োজন। দ্বিতীয়ত তাকে পর্যাপ্ত পরিমাণ সুষম ও পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে এবং তৃতীয়ত বিশ্রাম। এমন পরিস্থিতিতে এসব বিষয়গুলো নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি আরও বলছেন, প্রচুর রক্তক্ষরণের ফলে রক্তস্বল্পতা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে পরে জটিল সমস্যা হতে পারে। তাই এই সময় পুষ্টিকর বিশেষ করে আয়রন সমৃদ্ধ খাবার অধিক পরিমাণ খেতে হবে। মাসিকের সময় মেয়েদের শরীর থেকে ভিটামিন ও খনিজ বের হয়। তাই এই সময় চিকিৎসক বা পুষ্টিবিদের সঙ্গে কথা বলে সুষম খাদ্যের তালিকা করা উচিত।

এ বিষয়ে মায়েদের উচিত মেয়ের সমস্যার শুরু থেকেই খোলামেলা আলাপ করা এবং কাউন্সিলিংয়ের মাধ্যমে ৬ মাস পর্যন্ত ক্যালেন্ডার বা গণনার মাধ্যমে মাসিকের সময়কাল পর্যবেক্ষণ করে ডায়েরিতে নোট করা।

এ অধ্যাপকের মতে, মাসিকের সময় মেয়েদের শরীরে হরমোনাল পরিবর্তন হয়ে থাকে। অনেকের নিয়মিত মাসিক হলেও কারও কারও ক্ষেত্রে দেরি করে হয়ে থাকে। আবার অনেকের রক্তক্ষরণ বেশি হয় যা রক্তস্বল্পতার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই এই সময় উদ্বিগ্ন না হয়ে পরিচর্যা করা উচিত।

মাসিককে কেন্দ্র করে মেয়েদের শরীরের পরিচর্যার কিছু বিষয়কে বিবেচনায় রাখার জন্য বলছেন এ বিশেষজ্ঞ। বিষয়গুলো হলো-

পুষ্টিকর খাবার বিশেষ করে আয়রন সমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ।

হাইজিন সম্পর্কে ধারণা।

পর্যাপ্ত বিশ্রাম।

খাবারে পর্যাপ্ত প্রোটিন ও ভিটামিন নিশ্চিত করা।

প্রয়োজনে কৈশোরবান্ধব স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রের সহায়তা নেয়া।

ইউনিসেফের পরামর্শ :

বাবা-মা ও পরিবারের অন্য নারীদের সঙ্গে কথা বলা।

স্যানিটারি ন্যাপকিন বা পরিষ্কার কাপড় ব্যবহার করা এবং অভিজ্ঞদের কাছে ব্যবহার বিধি জেনে নেয়া।

মাসিকের সময় ব্যবহৃত পোশাক নোংরা পানিতে না ধোয়া বরং সাবান ও পরিষ্কার পানি দিয়ে ভালো করে ধোয়া।

মাসিকের কাপড় অন্ধকার ও স্যাঁতস্যাঁতে জায়গায় না শুকিয়ে বরং পরিষ্কার জায়গায় রোদে শুকানো ও নিরাপদ জায়গায় সংরক্ষণ।

পুষ্টিকর খাবার বিশেষ করে দুধ, মাছ, মাংস, ডিম, শাক সবজি ও ফলমূল খেতে হবে। অন্য সময়ের তুলনায় বেশি খাবার খাওয়া।

তলপেটের ব্যথার সময় বোতলে গরম পানি নিয়ে স্যাক দিলে আরাম পাওয়া যাবে।

অতিরিক্ত ব্যথা বা সংরক্ষণ হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

বিশ্রামে থাকতে হবে, তবে স্কুলে যাওয়া বা ঘরের কাজ করার মতো স্বাভাবিক কাজ করা অব্যাহত রাখা।

মাসিকের সময় চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে কিছু ব্যায়াম শরীর ও মনকে ভালো রাখতে পারে।



আরও খবর

যে ৫ খাবার লিভারের চর্বি দূর করে

বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১




অনেক কষ্টে বড় হয়েছি, খাবারটাও ঠিকমতো পাইনি বলেই কাঁদলেন বর্ষা

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৭৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা ও শিল্পপতি-অভিনেতা অনন্ত জলিলের স্ত্রী আফিয়া নুসরাত বর্ষা। শৈশব ও কৈশোর ছিলো তার নানা প্রতিবন্ধকতায় ভরপুর। প্রায়ই ঘরে খাবার থাকতো না। সকালের নাস্তা না খেয়েই স্কুলে গিয়েছেন। সেই কঠিন সময় ও অতীতকে ভুলে যাননি বর্ষা। নিজের আজকের অবস্থানটাকে যেমন উপভোগ করেন তেমনি অতীতের দিনগুলোকেও স্মরণ করেন। সম্প্রতি একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে নিজের জীবনের জানা অজানা অনেক গল্পই শোনালেন বর্ষা। সেখানে তার অতীত নিয়েও কথা বলেন তিনি।

খোঁজ-দ্য সার্চ সিনেমায় অভিনয় করে চলচ্চিত্রে পা রাখেন বর্ষা। ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত এ সিনেমায় চিত্রনায়ক অনন্ত জলিলের বিপরীতে অভিনয় করেছেন তিনি। এরপর একসঙ্গে অনেকগুলো সিনেমায় অভিনয় করেছেন অনন্ত-বর্ষা। কাজ করতে গিয়ে প্রেম ও বিয়ে। বর্তমানে দুই সন্তান নিয়ে তারা সুখী দম্পতি।

সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে বর্ষা তার জীবনের ফেলে আসা দিনগুলো নিয়ে বলেন, আমি খুব সাধারণ ঘরের মেয়ে ছিলাম। এমনও হয়েছে সকালে আনমনে স্কুলে চলে গিয়েছিলাম। আমার ঘরে খাবারও ছিল না যে আমি এটা খেয়ে যাব। হঠাৎ করে স্কুলে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেছিলাম। তারপর আমার টিচার আমাকে তার বাসায় নিয়ে গিয়ে ডিম দিয়ে খিচুড়ি খাইয়েছিলেন। তারপর আবার ক্লাসে আসি।

কথাগুলো বলতে বলতে কয়েক সেকেন্ডের জন্য থেমে যান বর্ষা। তার চোখের কোণায় পানি জমে যায়। নিজেকে সামলে অভিনেত্রী আরও বলেন, আমার ৮-১০ বছর পর্যন্ত অনেক কষ্টে দিন কেটেছে। খাবারটাও ঠিকমতো পাইনি। তারপর আলহামদুলিল্লাহ, আমার ফ্যামিলি এটাকে ওভারকাম করতে পেয়েছে।

ছোটবেলা থেকেই মানুষের ভালোবাসা অনেক বেশি পেতেন বলেন জানান চিত্রনায়িকা বর্ষাা। তার ভাষায়, প্রাইমারি শেষ করে হাইস্কুলে যাওয়ার পরও টিচারদের ভালোবাসা পেয়েছি। বার্ষিক অনুষ্ঠানে নাটক করতে শিক্ষকরা আমাকে ছেলেদের চরিত্রগুলো দিতেন। একবার চেয়ারম্যান চরিত্রে অভিনয় করে কলম উপহার পেয়েছিলাম।

সিরাজগঞ্জে বেড়ে ওঠা বর্ষা কি ছোটবেলা ফিরে পেতে চান? এমন প্রশ্নের উত্তরে তার জবাব, সত্যি কথা বলতে কী, আমি আসলে ছোটবেলায় ফিরে যেতে চাই না। কারণ অনেক কষ্টে বড় হয়েছি। তবে ধানমন্ডি লেকে গিয়ে চটপটি-ফুসকা খাওয়া, নদীর ধারে বসা, বান্ধবীদের সঙ্গে গল্প করা খুব মিস করি। এখন চাইলেই এগুলো করতে পারি না। আমার কাছে মনে হয়- ইশ, ওই দিনগুলোতে যদি ফিরে যেতে পারতাম। তাহলে বান্ধবীদের অনেক ভালো ভালো খাওয়াতে পারতাম। হাহাহা।

নিজের জীবনের অতীতকে ভুলে যেতে চান না বর্ষা। লুকিয়েও রাখতে চান না। তিনি মনে করেন দীর্ঘদিনে সংগ্রাম ও পরিশ্রমের পর আজকে তার যে অবস্থান তা হয়তো কারো জন্য প্রেরণা হতেও পারে। যদি তার জীবন একটি মানুষকেও প্রেরণা দেয়, স্বপ্ন দেখায় তবে সেটা হবে তার জন্য বিরাট প্রাপ্তি। হতাশাকে জয় করেই পৃথিবীতে বাঁচতে হয়।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে নেত্রী-দ্য লিডার সিনেমার কাজ নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন বর্ষা। তুরস্কের সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হচ্ছে এ ছবিটি।



আরও খবর



বাংলাদেশ থেকে আমিরাতে বিমান চলাচলে স্থগিতাদেশ বাড়লো

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৬২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রীয় বিমান চলাচল সংস্থা ইত্তেহাদ এয়ারওয়েজ বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও নেপাল থেকে বিমান চলাচলের স্থগিতাদেশ আগামী ৭ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে। সোমবার ইত্তেহাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ৭ জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও নেপাল থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ইত্তেহাদের বিমান চলাচল স্থগিত থাকবে। যে সকল যাত্রী আমিরাতে প্রবেশের আগে ১৪ দিনের মধ্যে এই সকল দেশ সফর করেছেন, তারা আমিরাতে প্রবেশ করতে পারবেন না।

তবে আমিরাতি নাগরিক, আমিরাতি গোল্ডেন ভিসাধারী ব্যক্তি ও বিভিন্ন দেশের কূটনীতিক মিশনের সদস্যদের জন্য এই আদেশ প্রযোজ্য হবে না।

এর আগে ভারত থেকে আমিরাতে বিমান চলাচলের স্থগিতাদেশ ইতোমধ্যেই ৬ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা করা হয়েছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সংযুক্ত আরব আমিরাত গত ২২ এপ্রিল ভারত থেকে এবং ১২ মে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও নেপাল থেকে যাত্রী পরিবহণকারী বিমান চলাচলে স্থগিতাদেশ দেয়। তবে এই দেশগুলো থেকে আমিরাতে মালবাহী বিমান চলাচল অব্যাহত রয়েছে।


আরও খবর



ইসরাইলে নেতানিয়াহু যুগের ‘অবসান’

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৮ জুন ২০২১ | ৬৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অবশেষে নেতানিয়াহুকে হটাতে ইসরায়েলের বিরোধীদলগুলো সরকার গঠনে একমত হয়েছে। দেশটির বিরোধী ৮ দল জোট সরকার গঠন করলো। ইসরায়েলের নতুন সরকারের প্রধান হচ্ছেন ইয়ামিনা দলের প্রধান নাফতালি বেনেত।

কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরার বরাতে জানা যায়, ইসরায়েলের রাষ্ট্রপতির কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে ডানপন্থী ইয়ামিনা দলের প্রধান বেনেত পরবর্তী ইস্রায়েলি প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করবেন এবং লাপিদ বিকল্প প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন

টুইটারে এক বিবৃতিতে ইয়ার লাপিদ বলেন, এই সরকার ইসরায়েলি সমাজ কে ঐক্যবদ্ধ করতে বদ্ধপরিকর। নতুন সরকার সবার জন্য কাজ করবে, যারা আমাদের পক্ষে তাদের জন্য যারা আমাদের পক্ষে না তাদের জন্যও।

দেশটির অতি ডানপন্থী নেতা নেফতালি বেনেতের নেতৃত্বাধীন ইয়ামিনা পার্টির সঙ্গে সেন্ট্রিস্ট পার্টির নেতা ইয়ার ল্যাপিড ঐক্য করার পর এই জোট সরকার গঠনের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলো। তবে দেশটির সরকার হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার আগে সংসদীয় ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়ে ক্ষমতায় বসতে হবে। এর মধ্য দিয়ে ইসরায়েলে অবসান হতে চলেছে বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর ১২ বছরের শাসন।



আরও খবর



উঠে গেল নৌযান চলাচলে সব নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৮ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ১২৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আবহাওয়া স্বাভাবিক হওয়ায় আজ থেকে সারাদেশে সব ধরনের নৌযান চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে বিআইডব্লিউটিএ। শুক্রবার সকালে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)-এর পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাব কেটে যাওয়ায় যাত্রীবাহী দুই ইঞ্জিনচালিত সবধরনের নৌযান চলাচলের অনুমতি দেয় বিআইডব্লিউটিএ। তবে মাওয়া ও আরিচাসহ দেশের সকল নৌরুটের এক ইঞ্জিনচালিত নৌযান বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়। আজ সকালে দুই ইঞ্জিনচালিত নৌযানের পাশাপাশি সারাদেশে এক ইঞ্জিনচালিত ছোট নৌযান চলাচলেরও অনুমতি দেয় বিআইডব্লিউটিএ।

মঙ্গলবার (২৫ মে) দুপুরে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস-এর কারণে সারাদেশে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।


আরও খবর



সমুদ্র বন্দরসমূহকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত: আবহাওয়া অধিদপ্তর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৬৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, লঘুচাপটি বর্তমানে বিহার ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালা সৃষ্টি হচ্ছে ও বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে। তাই সমুদ্র বন্দরসমূহকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

এছাড়া মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ উত্তর প্রদেশ, লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল, গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে আসাম পর্যস্ত বিস্তৃত হয়েছে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, লঘুচাপের প্রভাবে রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারী ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। বাতাসের গতিবেগ দক্ষিণ-পূর্ব/পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ০৬-১২ কি.মি. যা অস্থায়ীভাবে দমকায় ৩০ কি.মি. পর্যন্ত বৃদ্ধি পেতে পারে ঢাকায়।


আরও খবর