Logo
শিরোনাম

পলি ব্যাগে সমাবর্তনের কস্টিউম বিতরণের বিষয়টি কাম্য নয়: ভিসি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেছেন, সমাবর্তনের কস্টিউম বিতরণে পলিথিন ব্যবহারের বিষয়টি কোনোভাবেই কাম্য নয়। আমাদের নজরে আসার পর অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তা বন্ধ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৩তম সমাবর্তনের ঢাকা কলেজ ভেন্যু পরিদর্শনে এসে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি কস্টিউম বিতরণের জন্য নির্ধারিত দুই বুথে এমন অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটেছে। বাকি বুথগুলোতে টিস্যু ব্যাগ ব্যবহার করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ১৯ নভেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৩তম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। এরইমধ্যে রেজিস্ট্রেশন করা শিক্ষার্থীদের মাঝে টুপি-গাউন বিতরণ হয়েছে। এসব কস্টিউম পলি ব্যাগে বিতরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

তথ্যগত কিছু ক্রুটি রয়েছে উল্লেখ করে ভিসি আরও বলেন, কনভোকেশন গাউন সবসময় স্বতন্ত্রভাবেই দেওয়া হয়। সেক্ষেত্রে টিস্যু ব্যাগ ব্যবহার করা হয়। তবে এ বছর দু-একটি পয়েন্টে পলিব্যাগ ব্যবহার করা হয়েছে। বিষয়টি কোনভাবেই কাম্য নয়। আজ সকালে এসেই আমি সব নমুনা সংগ্রহ করেছি। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে পলিব্যাগ ব্যবহার বন্ধ করা হয়েছে। সবগুলো বুথে পলি ব্যাগ ব্যবহার করা হয়েছে- এমন কিছু বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানো হয়েছে। সবগুলো বুথে নয় বরং এক বা দুটি বুথে এমনটা হতে পারে। তবে বিষয়টি আমলে নিয়ে সাথে সাথেই আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি। আশা করি এই ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটবে না।

উপাচার্যের সঙ্গে এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী, ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোহাম্মদ ইউছুফ, উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক এ. টি. এম. মইনুল হোসেন, ঢাকা কলেজ ভেন্যুর আহ্বায়ক ড. মো. মোহসেন উদ্দিন ফিরোজ, শিক্ষক পরিষদ সম্পাদক ড. মো. আব্দুল কুদ্দুস সিকদার, বিসিএস শিক্ষা সমিতির ঢাকা কলেজ ইউনিটের সম্পাদক ড. মো. দিললুর রহমান, সহকারী অধ্যাপক ওবায়দুল করিম, মো. আলতাফ হোসেন, নাসির উদ্দীনসহ অন্যান্য শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



ফিলিস্তিনি কিশোরের ছুরিকাঘাতে ৩ ইসরায়েলি নিহত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৩১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অধিকৃত পশ্চিমতীরে এক ফিলিস্তিনি কিশোরের ছুরিকাঘাতে ৩ ইসরায়েলি নিহত হয়েছে। পশ্চিমতীরের অবৈধ এক ইসরায়েলি বসতির ভেতরে ছুরিকাঘাতে প্রাণ হারায় তারা। এই ঘটনায় ওই ফিলিস্তিনি কিশোরকে গুলি করে হত্যা করেছে ইসরায়েলি সেনা। ফিলিস্তিনিরা হামলাকারীকে নায়ক হিসেবে আখ্যা দিয়েছে।

পশ্চিমতীরে একটি ইহুদি বসতির কাছে এক ফিলিস্তিনি কিশোর তিনজন ইসরায়েলিকে হত্যা করেছে। এই ঘটনার পর মঙ্গলবার সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলো ওই ফিলিস্তিনি কিশোরকে নায়ক হিসেবে আখ্যা দিয়ে তার কর্মকা-ের প্রশংসা করেছে। ঘটনাটি এমন সময় ঘটল যখন ইসরায়েলে আবারও কট্টর ডানপন্থি নেতা বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ক্ষমতায় এসেছেন।

ফিলিস্তিনের অধিকৃত পশ্চিমতীরের এরিয়েল সেটেলমেন্ট নামে একটি ইহুদি বসতির শিল্প অঞ্চলে ৩ ইসরায়েলিকে হত্যার এই ঘটনা ঘটে। ইসরায়েলি কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, ছুরি হাতে থাকা এক ব্যক্তি এই হামলা চালায় এবং পরে তাকে একজন সেনা গুলি করে হত্যা করে।

নিউজ ট্যাগ: ইসরায়েলি নিহত

আরও খবর



ট্রলিং ক্যাম্পেইনে জড়িত অ্যাকাউন্ট সরাল টুইটার

প্রকাশিত:রবিবার ০৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

৪ হাজার ৪০০ কোটি ডলারে বিশ্বের শীর্ষ ধনী ইলন মাস্ক টুইটার অধিগ্রহণের পর সমন্বিত ট্রলিংয়ের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয় মাইক্রোব্লগিং প্লাটফর্মটি। প্রতিষ্ঠানটির সেফটি ও সিকিউরিটি প্রধান ইয়োয়েল রথ জানিয়েছেন, টুইটার তাদের নীতিগুলো শিথিল করেছে, এ কথা ব্যবহারকারীদের জানাতেই ট্রলিংয়ের ঘটনা ঘটেছে।

সাম্প্রতিক ট্রলিং ক্যাম্পেইনগুলো মোকাবেলা করার বিষয়ে একটি আপডেট জানিয়েছে টুইটার। সিকিউরিটি প্রধান রথ টুইটারে কীভাবে মানহানিকর টুইটের বিষয়ে তাদের নীতিগুলো প্রয়োগ করে কিংবা কী পরিবর্তন আসছে সে সম্পর্কেও কথা বলেছেন। তিনি বলেন, যে ১ হাজার ৫০০ টুইটার অ্যাকাউন্ট মুছে ফেলা হয়েছে, সেগুলো সমানসংখ্যক ব্যক্তির অ্যাকাউন্ট নয়। এছাড়া এদের মধ্যে অনেকেই বারবার নীতি লঙ্ঘন করে আসছিলেন।

টুইটার ব্যবহারকারী ও ভিজিটরদের রিপোর্টগুলোর ব্যাপারে আলাদা নিয়ম মেনে চলে। এ কারণে প্লাটফর্মটিতে ঘৃণ্য আচরণের সঙ্গে জড়িত না থাকা তৃতীয় পক্ষের রিপোর্টগুলো প্রায়ই গুরুত্ব দেয়া হয় না। এ ধরনের রিপোর্টগুলোকে নিয়ম লঙ্ঘন হয়নি বলেই ধরে নেয় টুইটার। তবে আগামী দিনে টুইটার রিপোর্টগুলোর বিষয়ে তাদের নীতিগুলো কীভাবে প্রয়োগ করতে পারে সে বিষয়েও প্রশ্ন উঠেছে। প্রশ্নের তথ্যানুযায়ী, টুইটার কনটেন্ট মডারেশনের জন্য ব্যবহূত অভ্যন্তরীণ টুলসগুলোয় বেশির ভাগ কর্মীদের অ্যাকসেস সীমিত করেছে।

নিউজ ট্যাগ: ইলন মাস্ক

আরও খবর

হাইড্রোজেন দিয়ে উড়বে উড়োজাহাজ

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২

পুরোনো টুইট আর্কাইভ করবেন যেভাবে

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




সিলেটে এক ঘণ্টা আগেই গণসমাবেশ শুরু

প্রকাশিত:শনিবার ১৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নির্ধারিত সময়ের এক ঘণ্টা আগেই সিলেটে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশ শুরু হয়েছে। শনিবার (১৯ নভেম্বর) দুপুর ১২টায় সমাবেশ শুরুর কথা থাকলেও বেলা ১১টায় শুরু হয়।  বেলা ১১টায় জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে গণসমাবেশ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়। এরপর বিভিন্ন জেলা, মহানগর ও অংঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য দেন।

এদিকে ভোর থেকে সিলেট সরকারি আলিয়া মাদরাসার মাঠে নেতাকর্মীদের অবস্থান করতে দেখা গেছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে লোক সমাগম। এক পর্যায়ে পরিপূর্ণ হয়ে যায় মাঠ। বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ইতোমধ্যে সিলেটে অবস্থান করছেন। সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেবেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেবেন ড. ম‌ঈন আলী, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

প্রসঙ্গত, নিত্যপণ্য ও জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি, পুলিশের গুলিতে নেতা-কর্মীদের মৃত্যুর প্রতিবাদ এবং বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে দেশের সব বিভাগে গণসমাবেশ করছে বিএনপি। চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, খুলনা, রংপুর, বরিশাল, ফরিদপুরের পর আজ সিলেটে গণসমাবেশ করছে তারা। এটি বিএনপির সপ্তম বিভাগীয় গণসমাবেশ।


আরও খবর



খোলামেলা পোশাকে বিপাকে বিশ্বকাপের ‘আবেদনময়ী’ মডেল

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ২৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কাতার বিশ্বকাপে এবার এমন অনেক কিছুই দেখছেন ভ্রমণকারীরা, যা আগের কোনো বিশ্বকাপে দেখা যায়নি। মুসলিম দেশ হওয়ায় স্টেডিয়ামে নিষিদ্ধ করা হয়েছে বিয়ার পান। ভ্রমণকারী নারী-পুরুষের জন্যও আছে পোশাক পরিধানে কড়াকড়ি।

আইনের কড়াকড়িকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বেশ খোলামেলা পোশাকে ফটোশুট করেছেন ক্রোয়েশিয়ার সাবেক বিশ্বসুন্দরী ও ইনস্টাগ্রাম মডেল ইভানা নোল। তাঁকে বলা হচ্ছে কাতার বিশ্বকাপের সবচেয়ে আবেদনময়ী নারী। একটু বেশিই আবেদনময়ী হতে গিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কটূক্তির শিকার হয়েছেন ক্রোয়েট সুন্দরী।

বিশ্বকাপের আগেই কাতারের ধর্মীয় রীতিনীতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার জন্য দর্শক ও ভ্রমণকারীদের আহ্বান জানিয়েছিল ফিফা। অনুরোধ ছিল পোশাকের প্রতি সতর্ক থাকার। আরব দেশের নারীদের প্রতি নির্দেশ ছিল সব সময়ই যেন মাথা ঢাকা থাকে স্কার্ফে এবং কোনোভাবেই যেন বক্ষ বিভাজনী দেখা না যায়। অন্য দেশের নারীদের পোশাকের ব্যাপারে এতটা কড়াকড়ি না থাকলেও অন্তত কাঁধ থেকে নাভি পর্যন্ত যেন ঢাকা থাকে এমন পোশাক পরার অনুরোধ জানিয়েছিল ফিফা।

কাতার বিশ্বকাপে নিজ দেশ ক্রোয়েশিয়ার খেলা দেখতে গিয়ে একাধিক ছবি পোস্ট করেছেন নোল। মরক্কোর বিপক্ষে ম্যাচে কাতারের নিয়ম মেনে মাথা ঢাকলেও যথেষ্ট আঁটসাঁট পোশাক পরেছিলেন সাবেক মিস ক্রোয়েশিয়া। ক্রোয়েশিয়ার পতাকার নকশায় ঢাকা পোশাকে দেখিয়েছেন নিজের দেশপ্রেম।

কিন্তু ম্যাচের পরে কাতারের আইনকে পাত্তাই দেননি নোল। স্বদেশের পতাকার নকশা করা খোলামেলা সুইমস্যুট পরে ইনস্টাগ্রামে ছবি ও ভিডিও পোস্ট করেছেন তিনি। সেই ভিডিও পোস্ট হওয়ামাত্রই কাতার পুলিশকে ট্যাগ করেছেন এক অনুসারী। আরেক অনুসারী লিখেছেন, কাতারের ধর্ম আর সংস্কৃতির প্রতি তোমার কোনো শ্রদ্ধাই নেই, জাহান্নামে যাও।

কাতারের আইন অনুযায়ী পোশাক নিয়ে বিতর্ক বা আইন অমান্য করা হলে গুনতে হবে বড় জরিমানা। হতে পারে জেলও। নোলের ক্ষেত্রে কী সিদ্ধান্ত নেয় কাতার পুলিশ, সেটাই এখন দেখার!


আরও খবর

রোনালদোকে টপকে গেলেন মেসি

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




ধর্ষণ মামলায় জামিন পেতে ১ কোটি খরচ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ২৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অস্ট্রেলিয়ায় সদ্য শেষ হওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে গিয়ে এক নারীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার হন শ্রীলংকার তারকা ক্রিকেটার ধানুস্কা গুনাথিলাকা।

ওই নারীর করা অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে টিম হোটেল থেকে গুনাথিলাকাকে গ্রেফতার করে নিউ সাউথ ওয়েলস পুলিশ। ধর্ষণের সেই মামলা থেকে মুক্তি পেতে ১ কোটি টাকা গচ্ছা দিতে হল লংকান তারকাকে। 

ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোর প্রতিবেদন অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার পার্কলি জেল থেকে ভার্চুয়ালি সিডনির ডাউনিং সেন্টার লোকাল কোর্টে হাজিরা দেন ধানুষ্কা। বিচারক জানান, একজন অস্ট্রেলিয়ান নাগরিকের বিরুদ্ধে যদি একই অভিযোগ উঠত, তাহলে যেভাবে বিচার হতো সেভাবেই ধানুষ্কার মামলার বিচার হবে।

ধানুষ্কার আইনজীবী মুরুগান থঙ্গরাজ দাবি করেন, সেটা করা হলে ধানুষ্কার জামিন মঞ্জুর হয়ে যাওয়ার কথা। 

মামলার সরকারি আইনজীবী কেরি-অ্যান ম্যাককিনন বলেন, জামিন মঞ্জুর হলে অস্ট্রেলিয়া ছেড়ে পালিয়ে যেতে পারেন ধানুস্কা। সেইসঙ্গে অভিযোগকারীর নিরাপত্তাও বিঘ্নিত হতে পারে। 

শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড জানায়, অস্ট্রেলিয়ায় এক নারীকে যৌন নির্যাতন করার অভিযোগে ধানুস্কা গুনাথিলাকা গ্রেফতার হয়েছেন। যে কারণে তাকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত করার সিদ্ধান্ত নেয় ক্রিকেট পরিচালনা কমিটি। প্রসঙ্গত, গুনাথিলাকা শ্রীলংকার হয়ে ৮টি টেস্ট, ৪৭টি ওয়ানডে ও ৪৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেন।


আরও খবর

রোনালদোকে টপকে গেলেন মেসি

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২