Logo
শিরোনাম

প্রাইভেটকারে নারীকে টেনেহিঁচড়ে নেওয়া সেই ঢাবি শিক্ষক মারা গেছেন

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ১৫৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গত বছরের ২ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাস এলাকায় প্রাইভেটকার চাপায় রুবিনা আক্তার (৪৫) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, ঢাবির চারুকলা অনুষদের সামনের রাস্তা থেকে প্রাইভেটকারের নিচে আটকে নীলক্ষেত মোড় পর্যন্ত ওই নারীকে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যান ঢাবির সাবেক শিক্ষক আজহার ওরফে জাফর শাহ (৫৬)।

কারাগারে থাকা ঢাবির সেই সাবেক শিক্ষক আজহার ওরফে জাফর শাহ আজ শুক্রবার মারা গেছেন। আজ শুক্রবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার (কেরানীগঞ্জ) থেকে অচেতন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

কেন্দ্রীয় কারাগারের কারারক্ষী মো. আলআমিন জানান, কারাগারে হাজতি হিসেবে বন্দী ছিলেন তিনি। সেখানে অসুস্থ হয়ে পড়লে কারাচিকিৎসকের পরামর্শে তাঁকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে এলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। জাফর শাহের বাবার নাম মাইনুদ্দিন জাহাঙ্গীর শাহ। তাঁর হাজতি নম্বর-১১৭ / ২৩।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া জানান, কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে কারারক্ষীরা অচেতন অবস্থায় সেই সাবেক শিক্ষককে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরে তাঁর মৃত্যু হয়।

ঢাবির সাবেক শিক্ষককে আসামি করে ভাইয়ের মামলাগাড়িচাপায় নারীর মৃত্যু: ঢাবির সাবেক শিক্ষককে আসামি করে ভাইয়ের মামলা

মৃত জাফর শাহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সাবেক সহযোগী অধ্যাপক ছিলেন। ২০০৭-২০০৮ সালের দিকে নৈতিক স্খলনের অভিযোগে তাঁকে চাকরিচ্যুত করা হয়।

ঘটনার দিন নিহত রুবিনা আক্তারের আত্মীয় নুরুল আমিন জানান, রুবিনাদের বাসা হাজারীবাগ এলাকায়। তেজগাঁও স্বামীর বাসা থেকে রুবিনাকে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে হাজারীবাগ যাচ্ছিলেন। পথে শাহবাগ থানাধীন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের সামনের রাস্তায় প্রাইভেটকারটি পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। তখন রুবিনা পড়ে গেলে প্রাইভেটকারটি তাঁর ওপর উঠিয়ে দেয়। এতে গাড়ির বাম্পারের সঙ্গে আটকে যান তিনি। তখন তাঁকে টেনেহিঁচড়ে প্রায় নীলক্ষেত পর্যন্ত নিয়ে যায় প্রাইভেটকারের চালক জাফর শাহ। তখন লোকজন তাঁর পিছু নেয়। ধাওয়া দিয়ে নীলক্ষেত এলাকায় গিয়ে তাঁর গতিরোধ করে গাড়ির নিচ থেকে ওই নারীকে বের করে। ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলেও বাঁচানো যায়নি রুবিনাকে।

তখন উত্তেজিত লোকজন ওই প্রাইভেটকার চালককে গণধোলাই দেয়। পরে পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে ভর্তি করায়। পরবর্তীতে নিহত রুবিনার পরিবার মামলা করলে হাসপাতাল থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। চিকিৎসা শেষে তাঁকে কারাগারে পাঠানো হয়।


আরও খবর

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৭০

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩

শুক্রবার রাজধানীর যেসব মার্কেট বন্ধ

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩




আল্লাহ নিজ হাতে গজব না ফেললে দেশে দুর্ভিক্ষ হবে না : খাদ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ১৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আল্লাহ নিজ হাতে গজব না ফেললে দেশে দুর্ভিক্ষ হবে না জানিয়ে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, দেশে চালের সর্বকালের সর্বোচ্চ মজুত আছে, দুর্ভিক্ষ হবে না। হওয়ার কোনো চান্স নেই। যদি আল্লাহ নিজ হাতে গজব না ফেলেন। বুধবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের দ্বিতীয় অধিবেশন শেষে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী আরও বলেন, আমনটা ভালো হয়েছে। আমন যেখানে প্রতি বিঘা জমিতে ১৫ থেকে ১৬ মণ হতো, সেখানে এবার ২০ থেকে ২৫ মণ হয়েছে। তাছাড়া সামনে আবার বোরোর আবাদ। বোরোর ফলনও ভালো হবে। অতএব শঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। তবে গ্লোবালি যে মার্কেট বৃদ্ধি আছে সেটার সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশকেকেও চলতে হবে।

চালের এত মজুত তবুও দাম কমছে না কেন- জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, চালের দাম যাদের জন্য অসহনীয় তাদের জন্য ওএমএস, খাদ্যবান্ধব ভিজিডি, ভিজিএফ আছে। অতএব শঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই। সবাই ভালো আছে। তবে খাদ্যের অপচয় যেন রোধ হয় সেদিকে সবাইকে লক্ষ্য রাখতে হবে। কারণ অনেক বিয়ে বাড়িতে ১৫ থেকে ২০ পারসেন্ট খাবার নষ্ট হয়। এগুরো রোধ করতে হবে।


আরও খবর



ভাসানচরে পৌঁছেছেন আরও ৩৫৬ রোহিঙ্গা

প্রকাশিত:সোমবার ২৩ জানুয়ারী 20২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে আরও ৩৫৬ জন রোহিঙ্গা নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার ভাসানচরে পৌঁছেছেন।

রবিবার (২২ জানুয়ারি) বিকালে নৌবাহিনীর দুটি জাহাজে তাদের ভাসানচরে নিয়ে আসা হয়। এ নিয়ে ভাসানচর আশ্রয়ণ কেন্দ্রে রোহিঙ্গা নাগরিকের সংখ্যা ‌দাঁড়ালো ৩০ হাজার ৪৩৫ জনে।

জানা গেছে, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ব্যবস্থাপনায় ও জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) তত্ত্বাবধানে কক্সবাজার থেকে বানৌজা টুনা ও বানৌজা তিমি যোগে ৩৫৬ জন রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে আনা হয়। বিকালে রোহিঙ্গাদের জাহাজ থেকে নামানোর পর নৌবাহিনীর পন্টুন সংলগ্ন হেলিপ্যাডে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখান থেকে গাড়িযোগে ৯০ ও ৯৬ নং ক্লাস্টারে বসবাসের জন্য হস্তান্তর করা হয়।

ভাসানচর থানার ওসি মো. হুমায়ুন কবির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রবিবার বিকালে কক্সবাজার থেকে মোট ৭৬০ জন রোহিঙ্গা আসে। এর মধ্যে ১৫তম ধাপে নতুন করে ৩৫৬ জন রোহিঙ্গা এসেছেন। বাকি ৪০৪ জন রোহিঙ্গা কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বেড়াতে গিয়ে পুনঃরায় ফিরেছেন।

উল্লেখ্য, জেলার ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ২০২০ সালের ৪ ডিসেম্বর প্রথম দফায় এক হাজার ৬৪২, ২৯ ডিসেম্বর দ্বিতীয় দফায় এক হাজার ৮০৪, ২০২১ সালের ২৯ ও ৩০ জানুয়ারি তৃতীয় দফায় তিন হাজার ২৪২, ১৪ ও ১৫ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ দফায় তিন হাজার ১৮, পঞ্চম দফায় ৩ ও ৪ মার্চ চার হাজার ২১, ষষ্ঠ দফায় ১ ও ২ এপ্রিল চার হাজার ৩৭২, সপ্তম দফায় ২৫ নভেম্বর ৩৭৯, অষ্টম দফায় ১৮ ডিসেম্বর ৫৫২, নবম দফায় ২০২২ সালের ৬ জানুয়ারি ৭০৫, দশম দফায় ৩১ জানুয়ারি এক হাজার ২৮৭, ১১তম দফায় ১৭ ফেব্রুয়ারি এক হাজার ৬৫৫ ও ১২তম দফায় ১০ মার্চ দুই হাজার ৯৮২, ৩১ মার্চ ১৩তম দফায় তিন হাজার ৫৩২ ও ১৭ অক্টোবর ১৪তম দফায় ৯৬৩ জন রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়।

এ ছাড়া ২০২১ সালের মে মাসে সাগর পথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার চেষ্টা করা ৩০৬ জন রোহিঙ্গাকে সমুদ্র থেকে উদ্ধার করে ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্থানান্তর করা হয়।


আরও খবর

কুকুর বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেলো যুবকের

বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩




অনুষ্ঠানে চেয়ার না পাওয়ায় কর্মীদের পাথর ছুড়লেন মন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঘটনাটি ভারতের তামিলনাড়ুর। সেখানে দলীয় এক অনুষ্ঠানে বসার জন্য চেয়ার দিতে দেরি করায় নিজ দলের কর্মীদের উদ্দেশ্য করে পাথর ছুঁড়ে মেরেছেন তামিলনাড়ুর দুগ্ধ ও দুগ্ধ উন্নয়ন মন্ত্রী এসএম নাসার। মঙ্গলবার রাজ্যটির তিরুভাল্লুর জেলায় এ ঘটনাটি ঘটে।

এসএম নাসার শুধু মন্ত্রীই নন, ক্ষমতাসীন ডিএমকে দলের নেতাও। কর্মীদের সঙ্গে তার এমন ব্যাবহারের ভিডিওটি মুহূর্তেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা গেছে, বিরক্ত মন্ত্রী মাটি থেকে একটি পাথর তুলে দলীয় কর্মীদের দিকে ছুঁড়ে মারছেন। এমনকি চেয়ার পেতে এত সময় নেওয়ায় চিৎকার করতেও দেখা গেছে তাকে। এ সময় নাসারের পেছনে দাঁড়িয়ে থাকা কয়েকজনকে হাসতেও দেখা যায়।

এ ঘটনায় বিরোধীরা বলছেন, একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে মানুষ ও রাজনীতির প্রতি তার সম্মান থাকা জরুরি। উল্লেখ্য, এর আগেও বিভিন্ন বিতর্কে জড়িয়েছিলেন স্ট্যালিনের মন্ত্রীসভার এ সদস্য। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে কর বাড়ানো নিয়ে তিনি মিথ্যা প্রচার করেন বলে অভিযোগ উঠেছিল। এছাড়াও দলীয় আরেক অনুষ্ঠানে মাইক্রোফোন হাত থেকে পড়ে যাওয়ায় এক কর্মীকে কনুই দিয়ে ধাক্কা মারতেও দেখা গিয়েছিল তাকে।


আরও খবর



স্ত্রীর মামলায় হেরে ভারতীয় দল থেকে বাদ শামি

প্রকাশিত:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ২২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইন্দোরে তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছে ভারত। সিরিজের শেষ ম্যাচে ভারতের দলে নেই মোহাম্মদ শামি। তার বদলে ভারতের একাদশে জায়গা মিলেছে উদীয়মান তারকা উমরান মালিকের।

সিরিজের শেষ ম্যাচে ভারত মাঠে নামার একদিন আগে সোমবার শামির বিরুদ্ধে ঘরোয়া নির্যাতন মামলার রায় দেয় আলিপুর জেলা ও দায়রা আদালত। এই ঘটনার ২৪ ঘটনার মধ্যেই দল থেকে বাদ ডানহাতি এ পেসার। ধারণা করা যাচ্ছে, মামলার রায়ের কারণে আজকের একাদশ নির্বাচনে প্রভাব পড়েছে।  

শামির বাদ পড়ার দিনে স্কোয়াডে জায়গা মেলেনি আরেক পেসার মোহাম্মদ সিরাজের। তার বদলে আজ যুজবেন্দ্র চহালকে খেলাচ্ছে ভারত। একমাত্র জেনুইন পেসার হিসেবে স্কোয়াডে আছেন উমরান। তাকে সঙ্গ দেবেন শার্দুল ঠাকুর এবং হার্দিক পান্ডিয়া। কুলদীপ যাদব এবং যুজবেন্দ্র চাহালের সঙ্গে স্পিন আক্রমণে থাকছেন ওয়াশিংটন সুন্দর।

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যে সিরিজ জিতে নিয়েছে ভারত। শেষ ম্যাচে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমেছে ভারত। টস জিতে ভারতের অধিনায়ক বলেন, আমরা চাই ভাল খেলতে। সেটাই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য। এই মাঠে খেলা বেশ উপভোগ্য। এই মাঠে যখনই খেলতে এসেছি, প্রচুর রান উঠেছে।

প্রথম দুই ম্যাচেই ভারতের ব্যাটার এবং বোলাররা দাপট দেখিয়েছেন। প্রথম ম্যাচে ডাবল সেঞ্চুরি করেন শুভমন গিল। দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ১০৮ রানে অল আউট করেন মোহাম্মদ শামিরা। একাই ৩ উইকেট নেন শামি। আর এবার তাকে বাইরে রেখেই তৃতীয় ম্যাচ খেলতে নামল ভারত।  


আরও খবর

টিভিতে আজকের খেলা

বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩




সাকিবের দারুণ ইনিংসের পরও হার, টানা দ্বিতীয় জয় সিলেটের

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শুরুতে ঝড় তুললেন সাকিব আল হাসান। তাতে বড় সংগ্রহ দাঁড় করালো ফরচুন বরিশাল।

জবাব দিতে নেমে আক্রমণাত্মক খেললো সিলেট সিক্সার্সও। তৌহিদ হৃদয় পেলেন হাফ সেঞ্চুরির দেখা। দুই ইনিংস মিলিয়ে ছয় ক্যাচ ফেলা ও অসংখ্য ফিল্ডিং মিসের ম্যাচে শেষ অবধি জয় পেলো সিলেট। 

শনিবার শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে বিপিএলের চতুর্থ ম্যাচে ফরচুন বরিশালকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে সিলেট স্ট্রাইকার্স। শুরুতে ব্যাট করতে নেমে সাকিব আল হাসানের ঝড়ে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৯৪ রান করে বরিশাল। জবাব দিতে নেমে পুরো এক ওভার হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় সিলেট। টুর্নামেন্টে এটি তাদের টানা দ্বিতীয় জয়। 

টস জিতে ব্যাট করতে নামে সিলেট। দলটির দুই ওপেনার চতুরঙ্গা ডি সিলভা ও আনামুল হক মিলে তুলে ফেলেন ৬৭ রান। ২১ বলে ২৯ রান করা আনামুলকে বিদায় করে এই জুটি ভাঙেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। এরপর চতুরাঙ্গা (৩৬)-কে ফেরান পাকিস্তানি স্পিনার ইমাদ ওয়াসিম। 

৬ রানের ব্যবধানে দুই ওপেনারকে হারানোর পর চাপে পড়ে যায় বরিশাল। দলীয় সংগ্রহ ১০৮ রানের মাথায় তৃতীয় উইকেটও হারায় তারা। এবার তিনে নামা ইফতিখার আহমেদকে (১৩) ক্যাচ দিতে বাধ্য করেন মাশরাফি। তবে এরপর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে জুটি গড়ে ধাক্কা সামাল দেন সাকিব। ২০ বল স্থায়ী তাদের জুটিতে আসে ৩০ রান। ১২ বলে ১৯ রান করে রিয়াদ লঙ্কান পেস অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরার শিকার হয়ে ফেরেন।

রিয়াদ বিদায় নিলেও জারি থাকে সাকিবের তাণ্ডব। অবশ্য ব্যক্তিগত ৩২ রানে জীবন পান তিনি। পাকিস্তানের পেসার মোহাম্মদ আমিরের বলে লং অনে তুলে মেরেছিলেন টাইগারদের বাঁহাতি অলরাউন্ডার। বল সেখানে থাকা ফিল্ডার ইমাদ ওয়াসিমের হাত থেকে ফসকে যায়। এরপর সাকিব আরও আগ্রাসী হয়ে ওঠেন। 

১৭তম ওভারে তার ৩ চার ও ১ ছক্কায় আসে ১৯ রান। এর মধ্যে প্রথম বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ফিফটি তুলে নেন সাকিব; মাত্র ২৬ বলে। হায়দার আলীর সঙ্গে ১৪ বল স্থায়ী সাকিবের পঞ্চম উইকেট জুটিতে আসে ৩৩ রান। এর মধ্যে হায়দারের অবদান মাত্র ৩ রান। বাকি ৩০ রান আসে সাকিবের ব্যাট থেকে; ৮ বলে। 

১৯তম ওভারের শেষ বলে ব্যক্তিগত ৬৬ রানে ফের জীবন পান সাকিব। এবার আকবর আলী সহজ ক্যাচ ধরতে পারেননি। জীবন পেয়েই পরের বলে ছক্কা হাঁকান সাকিব। পরের ওভারের প্রথম বলেই অবশ্য সাকিব ঝড় থামিয়ে দেন মাশরাফি। তার বলে ক্যাচ নেন

‘দুর্ভাগা’ আমির। তবে রিপ্লেতে দেখা যায় নো বল’ ছিল। কিন্তু আম্পায়ার আউট দিয়ে দেন। 

বিদায়ের আগে ৩২ বলে ৭ চার ও ৪ ছক্কায় ৬৭ রান করেন সাকিব। শেষদিকে ১২ বলে ১৭ রানের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে বরিশালের সংগ্রহ ২০০-এর কাছাকাছি নিয়ে যান করিম জানাত। সিলেটের হয়ে ৪ ওভারে ৪৮ রান দিয়ে ৩ উইকেট পান মাশরাফি বিন মুর্তজা। একটি করে উইকেট নেন রেজাউর রহমান রাজা, ইমাদ ওয়াসিম ও থিসারা পেরেরা। 

জবাব দিতে নেমে শুরুটা একদমই ভালো হয়নি সিলেট স্ট্রাইকার্সের। দলীয় ১ রানে রান আউট হয়ে সাজঘরে ফেরত যান উদ্বোধনী ব্যাটার কলিন আকারম্যান। এরপর নাজমুল হোসেন শান্তর সঙ্গে ১০১ রানের জুটি গড়েন তৌহিদ হৃদয়। ৩১ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন তিনি। 

৭ চার ও ১ ছক্কায় ৩৪ বলে ৫৫ রান করে করিম জিনাতের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফেরত যান এই ব্যাটার। তার সঙ্গী নাজমুল হোসেন শান্ত ৫ চার ও ১ ছক্কায় খেলেন ৪৮ রানের ইনিংস, তিনি হয়েছেন রান আউট।

ঝড় তুলেন কদিন আগেই টেস্ট সেঞ্চুরি পাওয়া জাকির হাসানও। ৩ চার ও ৪ ছক্কায় ১৮ বলে ৪৩ রান আসে তার ব্যাট থেকে। বাকি কাজটুকু সারেন মুশফিকুর রহিম ও থিসারা পেরেরা। ৩ চার ও ১ ছক্কায় ১১ বলে ২৩ রান করে মুশফিক ও ৯ বলে ২০ রান করে পেরেরা দলের জয় নিশ্চিত করেন।  


আরও খবর