Logo
শিরোনাম

প্রতি ঈদে ১২ লাখ টাকার ট্রেনের টিকিট বিক্রি করতেন সহজের রেজাউল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ১০৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দীর্ঘ ছয় বছর ধরে রেলওয়ে টিকেটিংয়ের সঙ্গে জড়িত রেজাউল করিম। এ খবরে প্রতি ঈদে ২-৩ হাজার ট্রেনের টিকিট সরিয়ে নিতেন, যা কালোবাজারে বিক্রির মাধ্যমে প্রতি মৌসুমে আয় করতেন ১০-১২ লাখ টাকা। সম্প্রতি সহজ ডটকমে দায়িত্ব পাওয়া রেজাউল এর আগে সিএনএস বিডিতেও কর্মরত ছিলেন।

ট্রেনের অনলাইন টিকিট জালিয়াতির অভিযোগে সহজ ডটকমের সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার মো. রেজাউল করিমকে (৩৮) আটকের পর এসব তথ্য জানায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার (২৭ এপ্রিল) দিবাগত রাতে বিমানবন্দর স্টেশন থেকে সহযোগী এমরানুল আলম সম্রাটকে (২৮) আটক করা হয়।

এসময় তাদের স্মার্টফোন থেকে অবৈধ উপায়ে সংগ্রহ করা বিপুল পরিমাণ ট্রেনের ই-টিকিট জব্দ করা হয়।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) বিকেলে রাজধানীর কারওয়ান বাজার র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মোমেন।

তিনি বলেন, ঈদযাত্রায় ট্রেনের টিকিটের বিপুল চাহিদা থাকে। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে কালোবাজারে টিকিট বিক্রি করে আসছিল একটি চক্র। অধিকাংশ মানুষই অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার চেষ্টা করছেন। কিন্তু ঈদ উপলক্ষে সকালে টিকিট ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই শেষ হয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়।

এমন অভিযোগে র‌্যাব-১ এর গোয়েন্দা দল কমলাপুর স্টেশন থেকে আটক সহজ ডটকমের সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার রেজাউল করিমকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। এক পর্যায়ে তার দেওয়া তথ্যে টিকিট কালোবাজারির বিষয়টি নিশ্চিত হয় র‌্যাব। পরে সহযোগী এমরানুলকে আটক করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১ এর কর্মকর্তা বলেন, রেজাউল গত ছয় বছর ধরে ট্রেনের টিকেটিংয়ের সঙ্গে জড়িত। সহজ ডটকমের আগে অনলাইনে টিকিট বিক্রির দায়িত্বরত প্রতিষ্ঠান সিএনএস বিডিতেও কর্মরত ছিলেন তিনি। অভিজ্ঞকর্মী হিসেবে সহজ ডটকম তাকে নিয়োগ দেয়।

রেজাউল প্রতি ঈদে প্রায় ২-৩ হাজার অনলাইন টিকিট অবৈধ উপায়ে সরিয়ে নিতেন। এসব টিকিট কালোবাজারে বিক্রির মাধ্যমে প্রতি মৌসুমে আয় করতেন ১০-১২ লাখ টাকা।

পরিচিতজনদের কাছ থেকে ৫০০ টাকা লাভে টিকিট বিক্রি করতেন রেজাউল। এছাড়া অন্যদের কাছে নির্ধারিত দামের চেয়ে ১ হাজার থেকে ১ হাজার ৫০০ টাকা বেশি দামে টিকিট বিক্রি করতেন। তার দাবি, রেলওয়ের বিভিন্ন ভিআইপির টিকিটের আবদার মেটানোর সুযোগে নির্বিঘ্নে তিনি এ কাজ করে আসছিলেন।

র‌্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, রেজাউল পরিচিতজনদের মাধ্যমে অবৈধ উপায়ে টিকিটপ্রত্যাশীদের একটি বড় শ্রেণি গড়ে তুলেছেন। এর বাইরেও কালোবাজারে তার টিকিট বিক্রেতা রয়েছে। সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার সুবাদে সার্ভার থেকে টিকিট বুক করে কিনে নিতেন।

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিতে তার এ সংক্রান্ত বিভিন্ন যোগাযোগ চলতো বিভিন্ন অ্যাপে। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের পরিবর্তে লেনদেন করতেন নগদ অর্থে। তাকে আটকের মধ্য দিয়ে ট্রেনের টিকিট কালোবাজারির একটি বিষয় উন্মোচিত হয়েছে বলে দাবি করেন র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক।


আরও খবর



রাম চরণের মাথা গরম!

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৪২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের দক্ষিণী সিনেমার মেগাস্টার রাম চরণ। তার বড় বাজেটের আরেকটি সিনেমা আরসি ১৫। গত বছরের শেষের দিকে সিনেমাটির শুটিং শুরু করেন তিনি। সিনেমাটিতে শর্ট টেম্বার চরিত্রে অভিনয় করছেন রাম চরণ। তার বিপরীতে অভিনয় করছেন কিয়ারা আদভানি।

টলিউড ডটনেট এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আরসি১৫ সিনেমায় রাম চরণকে দুটি চরিত্রে দেখা যাবে। একটিতে রাম চরণকে শর্ট টেম্পার চরিত্রে দেখা যাবে। তার এই মাথা গরম স্বভাবের চরিত্রটি দেখে দর্শক মুগ্ধ হবেন। আর অন্য চরিত্রটি গ্রামের একজন রাজনৈতিকের চরিত্রে দেখা যাবে। পরিচালক শংকর এ দুটো চরিত্রই নির্ভুলভাবে তৈরি করেছেন।    

গত এপ্রিল মাসে আরসি১৫ সিনেমার শুটিং সেটের দৃশ্য অন্তর্জালে ফাঁস হয়। ভিডিওতে দেখা যায়দুই পাশে পুকুর। তার মাঝ দিয়ে বয়ে গেছে মাটির পথ। আর সেই পথ ধরে সাইকেল চালিয়ে যাচ্ছেন রাম চরণ। তার পরনে পাজামা-পাঞ্জাবি, মাথার চুল সুসজ্জিত, দাড়ি-গোঁফ নেই। লোদিতে শুটিং চলাকালে ঝোপঝাড়ের আড়াল থেকে কেউ একজন ভিডিওটি ধারণ করে অন্তর্জালে ছড়িয়ে দেন।

এ সিনেমার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিক্যুয়েন্স হলো ট্রেনের মধ্যে অ্যাকশন। এজন্য পরিচালক স্টান্ট কোরিগ্রাফার অনবারিভের সঙ্গে আলোচনা করেছেন, তিনি এর দায়িত্ব পালন করছেন। পলিটিক্যাল-ড্রামা ঘরানার এ সিনেমার বাজেট ২০০ কোটি রুপি। এটি পরিচালনা করছেন জনপ্রিয় নির্মাতা এস. শংকর। রাম চরণ-কিয়ারা ছাড়াও অভিনয় করছেনঅঞ্জলি, জয়রাম, সুনীল, শ্রীকান্ত, নবীন চন্দ্র প্রমুখ। ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে সিনেমাটি মুক্তির কথা রয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: রাম চরণ

আরও খবর



‘৩শ' আসনে ইভিএমে ভোট নেওয়ার সক্ষমতা নেই'

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কতগুলো আসনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হবে তা নিয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। তবে, ৩০০ আসনে ইভিএম ব্যবহার করার সক্ষমতা ইসির নেই বলে জানান তিনি। মঙ্গলবার (১০ মে) নির্বাচনের কমিশনের প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে ভোটার তালিকার হালনাগাদ কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

সিইসি বলেন, বর্তমানে ১০০টির মতো আসনে ইভিএমে নির্বাচন আয়োজনের সক্ষমতা কমিশনের রয়েছে। তাহলে ১০০ আসনে ইভিএমে নির্বাচন করা হবে কিনা, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, এ বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি। কত আসনে ইভিএমে নির্বাচন হবে কি হবে না, সেসব কমিশন সভায় সিন্ধান্ত নেওয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রী ইভিএমে নির্বাচনের কথা বলছেন, এ নিয়ে কমিশন কোনো চাপ অনুভব করছে কিনা, এমনে প্রশ্নে তিনি বলেন, নির্বাচন ইভিএমে হবে না ব্যালটে হবে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে কমিশন। তবে রাজনৈতিক দলগুলো তাদের মতামত দিতে পারেন।


আরও খবর



বরগুনার ৭ ইউনিয়নে ভোট ১৫ জুন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বরগুনার তালতলী উপজেলার মেয়াদ উত্তীর্ণ ৬টি ইউনিয়ন এবং বেতাগী উপজেলার কাজীরাবাদ ইউনিয়নের উপ-নির্বাচন আগামী ১৫ জুন বুধবার অনুষ্ঠিত হবে। আজ সোমবার নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তপসিলে ভোট গ্রহণের এই তারিখ উল্লেখ করা হয়।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী উল্লেখিত সাত ইউনিয়নে মনোনয়ন পত্র জমাদানের শেষ তারিখ ১৭ মে, বাছাই ১৯ মে ও মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার ২৬ মে।

নির্বাচন কমিশন থেকে ঘোষিত তারিখ অনুযায়ী আগামী ১৫ জুন কড়াইবাড়িয়া, সোনাকাটা, পঁচাকোড়ালিয়া, বড়বগী, ছোটবগী, নিশানবাড়িয়া ও কাজীরাবাদ ইউনিয়নে ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

বরগুনার তালতলী উপজেলার মেয়াদ উত্তীর্ণ ৬টি ইউনিয়ন এবং বেতাগী উপজেলার কাজীরাবাদ ইউনিয়নের উপ-নির্বাচন আগামী ১৫ জুন বুধবার অনুষ্ঠিত হবে। আজ সোমবার নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তপসিলে ভোট গ্রহণের এই তারিখ উল্লেখ করা হয়।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী উল্লেখিত সাত ইউনিয়নে মনোনয়ন পত্র জমাদানের শেষ তারিখ ১৭ মে, বাছাই ১৯ মে ও মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার ২৬ মে।

নির্বাচন কমিশন থেকে ঘোষিত তারিখ অনুযায়ী আগামী ১৫ জুন কড়াইবাড়িয়া, সোনাকাটা, পঁচাকোড়ালিয়া, বড়বগী, ছোটবগী, নিশানবাড়িয়া ও কাজীরাবাদ ইউনিয়নে ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর



বাংলাদেশে বিলুপ্তির ঝুঁকিতে উল্লুক

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ২৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশের বনগুলোতে থাকা উল্লুক এখন বিপন্ন প্রজাতি হিসেবে অনেকটা বিলুপ্তির ঝুঁকিতে পড়েছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি বাংলা। বাংলাদেশের সাম্প্রতিক একটি গবেষণার কথা উল্লেখ করে প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, চার দশক আগেও বাংলাদেশের বনে বসবাসকারী উল্লুকের সংখ্যা ছিল প্রায় তিন হাজার। কিন্তু সেখান থেকে এখন সেটি মাত্র কয়েকশোতে এসে ঠেকেছে।

 বিশ্বজুড়েই এই প্রাণীটি বিলুপ্তির ঝুঁকিতে রয়েছে। আন্তর্জাতিক পরিবেশ সংরক্ষণ সংস্থা আইইউসিএনের বিলুপ্তির ঝুঁকিতে থাকা প্রাণীদের লাল তালিকায়ও রয়েছে এই প্রাণীটি।  এই বিষয়ে সাম্প্রতিক একটি গবেষণার প্রধান জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক হাবিবুন নাহার বিবিসি বাংলাকে বলছেন, দেশের ২২টি বনাঞ্চলে নিবিড় গবেষণা করে আমরা ওয়েস্টার্ন হোলক গিবন বা পশ্চিমা উল্লুক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পেয়েছি। তাতে দেখা গেছে, সরকারিভাবে সুরক্ষিত বনাঞ্চলগুলোয় এই প্রাণীটি সবচেয়ে ভালো অবস্থায় রয়েছে। আবার আগে কয়েকটি বনাঞ্চলে প্রাণীটি আগে দেখা গেলেও সুরক্ষার অভাবে সেখান থেকে হারিয়ে গেছে।  ২০১৯ সালের মার্চ মাস থেকে শুরু করে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশের ২২টি বনে গবেষণা করে ৪৬৮টি উল্লুকের দেখা পেয়েছেন গবেষকরা। সবচেয়ে বেশি দেখা গেছে মৌলভীবাজারের রাজকান্দি সংরক্ষিত বনাঞ্চলে।

হাবিবুন নাহার আরও বলেছেন, পরিবেশের ভারসাম্যের জন্য এই প্রাণীটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এরা ফলের বীজ বনাঞ্চলে ছড়িয়ে দিতে সহায়তা করে। যার মাধ্যমে অরণ্যের বিস্তারে সহায়তা হয়।

সর্বশেষ এ গবেষণায় সিলেট ও চট্টগ্রাম এলাকার ২০৪ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে ২২টি বনাঞ্চলের ওপর জরিপ করা হয়। সেখানে কিছু কিছু বন থেকে উল্লুক হারিয়ে গেছে বলে দেখা গেছে। আবার মৌলভীবাজারের রাজকান্দি, পাথারিয়া ও লাউয়াছড়া বনাঞ্চলে অনেক উল্লুক বাস করতে দেখা গেছে। বনাঞ্চলে বড় বড় গাছ কেটে ফেলা, খাদ্য সংকট, অবৈধভাবে উল্লুক শিকারের কারণে বনগুলো থেকে এই প্রাণীর সংখ্যা কমছে বলে মনে করছেন হাবিবুন নাহার।  বানর প্রজাতির লেজবিহীন প্রাণীগুলোকে ইংরেজিতে বলা হয় এপ। গরিলা, ওরাং-ওটাং- এসব প্রাণীও এপ-এর অন্তর্ভুক্ত এবং উল্লুক হচ্ছে সবচেয়ে ছোট জাতের এপ।

বানরের সঙ্গে উল্লুকের বড় পার্থক্য হলো, এই প্রাণীটির যার লেজ নেই। পুরুষ উল্লুক কালো আর স্ত্রী উল্লুক ধুসর লোমের হয়ে থাকে।

নিউজ ট্যাগ: উল্লুক

আরও খবর

পুরনো আবহে ফিরেছে রমজান

রবিবার ০৩ এপ্রিল ২০২২




ইউক্রেনের পক্ষে যুদ্ধ করছে ইসরাইল

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইউক্রেনে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে ইসরাইলিরা। এ ধরনের একাধিক ভিডিও ফুটেজ বেশ কিছুদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

একটি ভিডিও ক্লিপে দেখ যায়, ইসরাইলি যোদ্ধারা দেশটির জনগণকে ধন্যবাদ জানান রাশিয়ার বিরুদ্ধে তাদের এই যুদ্ধে সমর্থন দেওয়ার জন্য। খবর আরব নিউজের।

জেরুজালেম পোস্টে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ভিডিও ক্লিপে এক ইসরাইলি যোদ্ধা ইহুদিবাদী দেশটির সরকার ও জনগণকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছে তাদের ইউক্রেনের পক্ষে যুদ্ধ করতে সহায়তা করার জন্য।

আরেকটি ভিডিও ক্লিপের বরাত দিয়ে টাইমস অব ইসরাইলের এক প্রতবেদনে বলা হয়, স্বেচ্ছায় ইউক্রেনের পক্ষে যুদ্ধ করতে যাওয়া এক ইসরাইলি যুবক বলছে- আমরা নিশ্চিত, এ যুদ্ধে আমাদের দেশ শত্রুদের (রুশ বাহিনী) পরাজিত করে সন্ত্রাসীদের চিরতরে নির্মূল করবে।

তবে, এটা নিশ্চিত নয় যে তারা ইসরাইল থেকে যুদ্ধ করতে ইউক্রেন গেছে, না-কি তারা ইসরাইল এবং ইউক্রেনের দ্বৈত নাগরিক।

তবে ইসরাইল রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে ইউক্রেনকে কোনো অস্ত্র সহায়তা দেবে না বলে প্রকাশ্যে বলে আসছে। এসব ভিডিও ক্লিপ প্রকাশের ফলে বেশ অস্বস্তিতে পড়েছে ইহুদিবাদী দেশটি।


আরও খবর