Logo
শিরোনাম

প্রতিদিন অনলাইনে প্রায় ২০০ কোটি টাকার পশু বিক্রি হচ্ছে

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মহামারি করোনা ভাইরাসের ভয়াবহ সংক্রমণ এড়াতে কোরবানির পশু বিক্রির মাধ্যম হিসেবে অনলাইন প্লাটফর্ম বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। কোরবানির ঈদকে কেন্দ্র করে প্রতিদিন এ মাধ্যমে প্রায় ২০০ কোটি টাকা পশু বিক্রি হচ্ছে। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী অনলাইনে পশু বিক্রি ২০০০ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। গড়ে প্রতিদিন ১৭ হাজারের পশু বিক্রি হচ্ছে অনলাইনে।

শনিবার (১৭ জুলাই) প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কোরবানিযোগ্য পশু বিক্রয় কার্যক্রম অগ্রগতির সর্বশেষ প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে। ২ জুলাই থেকে ১৭ জুলাই পর্যন্ত ১৬ দিনে অনলাইনে এসব পশু বিক্রি হয়েছে। এ পর্যন্ত গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়াসহ কোরবানিযোগ্য পশুর অনলাইন বাজার বসেছে প্রায় ১৮০০টি।

প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, গত ১৬ দিনে মোট ২ লাখ ৮৯ হাজার ৮১৯টি পশু বিক্রি হয়েছে, যার বাজারমূল্য দুই হাজার ১৪২ কোটি ৫৫ লাখ ৭ হাজার ১৬৮ টাকা। গত একদিনে শনিবার বিক্রি হয়েছে ২৫ হাজার ৯৯২টি পশু। যার বাজারমূল্য ১৭৭ কোটি ৮৬ লাখ ৬ হাজার ৩৪১ টাকা।

প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, অনলাইনে পশু বিক্রিতে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে চট্টগ্রাম বিভাগ। এ বিভাগে মোট ১ লাখ ৪৩ হাজার ৪১৬টি পশু বিক্রি হয়েছে, যার বাজারমূল্য ১ হাজার ২৫ কোটি ২১ লাখ ২৪ হাজার ৯৪৮ টাকা।

পরের স্থানে রয়েছে ঢাকা বিভাগ। এ বিভাগে এখন পর্যন্ত ৪০ হাজার ৫০৬টি পশু বিক্রি হয়েছে ৩৮৭ কোটি ৪৬ লাখ ৯৩ হাজার ২৩২ টাকায়।

রাজশাহী বিভাগে ৪১ হাজার ২৮১টি পশু বিক্রি হয়েছে ২৩৫ কোটি ৯৩ লাখ ৮২ হাজার ৮৪০ টাকায়। খুলনা বিভাগে ১৬ হাজার ৩০৩টি কোরবানির পশু বিক্রি হয়েছে ১০৩ কোটি ৬৪ লাখ ১৯ হাজার ১০০ টাকায়। বরিশাল বিভাগে দুই হাজার ২৭০টি গবাদি পশু বিক্রি হয়েছে ১৫ কোটি ৫১ লাখ ৭৯ হাজার ৪০০ টাকায়।

সিলেট বিভাগে ৩ হাজার ২৬৩টি কোরবানির পশু বিক্রি হয়েছে ১৯ কোটি ১৯ লাখ ৩৪ হাজার ২৫৮ টাকায়। রংপুর বিভাগে ৪১ হাজার ১৭৬টি পশু বিক্রি হয়েছে ২০৯ কোটি ২৩ লাখ ৯ হাজার ৩১০ টাকায়। ময়মনসিংহ বিভাগে ১ হাজার ৬০৪টি পশু বিক্রি হয়েছে ১৪ কোটি ৬৩ লাখ ৪৬ হাজার ৪০০ টাকায়।

মোট ২ লাখ ৮৯ হাজার ৮১৯টি পশু বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে গরুর সংখ্যা ২ লাখ ২৩ হাজার ৩৪৯টি এবং ছাগল ও ভেড়া রয়েছে ৬৬ হাজার ৪৭০টি। সবমিলিয়ে কোরবানির মোট বাজারমূল্য মোট বাজারমূল্য ২ হাজার ১৪২ কোটি ৫৫ লাখ ৭ হাজার ১৬৮ টাকা।


আরও খবর

ব্যাংকে লেনদেন দেড়টা পর্যন্ত

রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১




জ্বর হলে করোনা টেস্টের সাথে ডেঙ্গু পরীক্ষাও করাতে হবে: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৯০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সম্প্রতি জ্বর হলে করোনা টেস্টের পাশাপাশি ডেঙ্গু পরীক্ষাও করাতে হবে। এমনটাই বলছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। গতকাল রবিবার (১৮ জুলাই) সারাদেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত বুলেটিনে অধিদপ্তরের মুখপাত্র ও লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আপনারা জানেন দেশের করোনা পরিস্থিতি এখন ঊর্ধ্বগামী। এ অবস্থায় ডেঙ্গু পরিস্থিতিও যদি অবনতি হয়, তাহলে আমাদের পক্ষে সামাল দেওয়া কঠিন হবে। আর রাজধানীসহ সারাদেশের মশক নিয়ন্ত্রণে যারা দায়িত্বপ্রাপ্ত আছেন, তারা যদি নিজেদের জায়গা থেকে নিজেকে উজাড় করে না দেন, তাহলে পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে থাকবে।

তিনি বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে সাধারণ মানুষকেও অনেক বেশি সচেতন হতে হবে। ছাদে ফুলের টব, বাসার আশেপাশের ড্রেনসহ সবকিছু পরিষ্কার রাখতে হবে। বাথরুমের কমোড, বালতিসহ কিছুতেই যেন পানি জমে না থাকে। বিশেষ করে ৩ দিন বা তার অধিক সময়ের জন্য কোথাও চলে গেলে বাসায় কোনো পাত্রে পানি জমিয়ে রাখা যাবে না।


আরও খবর



সিলেটে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনা ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করছে সিলেটে। বিগত দিনকে ছাড়িয়ে গেছে আক্রান্ত ও মৃত্যু।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে সিলেটে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১২ জন আর আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮১ জন। রবিবার (১৮ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেট কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ডা. নুরে আলম শামীম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, মৃত্যু ও আক্রান্তের দিক থেকে বিগত দিনগুলোকে ছাড়িয়ে গেছে। নতুন করে মারা যাওয়া ১২ জনের ১১ জনই সিলেটের এবং একজন মৌলভীবাজারের বাসিন্দা। 

এ নিয়ে বিভাগের চার জেলায় মোট ৫৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন সর্বমোট ৩৩ হাজার ৩৫ জন। 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, নতুন করে আক্রান্ত ৬৮১ জনের মধ্যে সিলেট জেলার ২২৫ জন, সুনামগঞ্জের ৯৮ জন, হবিগঞ্জের ১০৫ জন, মৌলভীবাজারের ১৮৮ জন এবং ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরো ৬৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়।


আরও খবর



অনুমতি পেলেই বাংলাদেশে টিকা উৎপাদন শুরু করবে চীন

প্রকাশিত:সোমবার ১২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৭০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সরকারের অনুমতি পেলেই চীন বাংলাদেশে যৌথ টিকা উৎপাদন শুরু করতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত চীনের ডেপুটি চিফ অব মিশন হুয়ালং ইয়ান।আজ সোমবার (১২ জুলাই) অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-চায়না অ্যালামনাই আয়োজিত এক ওয়েবিনারে এ কথা জানান তিনি।

চীনের ডেপুটি চিফ অব মিশন হুয়ালং ইয়ান বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে টিকার যৌথ উৎপাদন শুরু করতে চায় চীন। টিকার যৌথ উৎপাদনে প্রস্তুত চীন। বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে অনুমতি পেলে চীন টিকা উৎপাদন শুরু করবে।

চীনা কমিউনিস্ট পার্টির শতবছর পূর্তিতে আয়োজিত ওয়েবিনারে এবিসিএর প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রদূত মুন্সি ফয়েজ আহমেদ স্বাগত বক্তব্য রাখেন। ওয়েবিনারে কি-নোট স্পিকার হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন ও আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন নিরাপত্তা বিশ্লেষক ও সাবেক নির্বাচন কমিশনার এম সাখাওয়াত হোসেন।

এ সময় সিনোফার্ম থেকে বাংলাদেশ সরকারের কেনা ৫০ লাখ টিকা আগস্টের শুরুর দিকে আসতে পারে বলে জানান চীনের ডেপুটি চিফ অব মিশন।

এর আগে গত ৬ জুলাই হুয়ালং ইয়ান জানিয়েছিলেন, করোনাভাইরাসের টিকার যৌথ উৎপাদনে চীনা কোম্পানিগুলো বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করবে।

গত ৭ জুলাই পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন জানান, যৌথভাবে দেশে টিকা উৎপাদনে বাংলাদেশ অনেক দূর অগ্রসর হয়েছে। ড. মোমেন বলেছিলেন, আমরা টিকার যৌথ উৎপাদনের জন্য চীন ও রাশিয়ার সঙ্গে কথা বলেছি। তাদের কাছে আমরা দেশে টিকা উৎপাদনে যাওয়ার প্রস্তাব রেখেছি। এটা নিয়ে আলোচনা অনেক দূর অগ্রসর হয়েছে। সবশেষ গত শনিবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক ভিডিও বার্তায় জানান, চীন ও রাশিয়ার সঙ্গে টিকার যৌথ উৎপাদনে আলাপ চলছে।


আরও খবর



দুই বাসের সংঘর্ষে রংপুরে নিহত ৬

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রংপুরের মিঠাপুকুরে দুই যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ছয়জন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন দুই বাসের কমপক্ষে ৩০ জন যাত্রী।

রবিবার (১৮ জুলাই) সকাল সোয়া ৭টার দিকে উপজেলার বলদীপুকুর বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিক হতাহতের পরিচয় জানা যায়নি।

জানা যায়, ঢাকা থেকে রংপুরগামী সেলফী পরিবহন ও রংপুর থেকে ঢাকাগামী জোয়ানা পরিবহনের দুটির বাসের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে সেলফী পরিবহনের চালকসহ ঘটনাস্থলেই ছয়জন নিহত হন। আহত হয়েছেন দুই বাসের অন্তত ৩০ জন যাত্রী। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে এবং আহতদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠায়।

মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।


আরও খবর



করোনার টিকা নিতে নিবন্ধন করেছেন খালেদা জিয়া

প্রকাশিত:সোমবার ১২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ জুলাই ২০২১ | ৮০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের টিকা নিচ্ছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। ইতিমধ্যে করেছেন নিবন্ধন। তবে কবে টিকা নিতে পারবেন তা এখনো নিশ্চিত হতে পারেননি সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী। কারণ অনলাইন নিবন্ধনের পর এখনো তিনি ফিরতি এসএমএস পাননি।

সোমবার বিকালে টিকার জন্য খালেদা জিয়ার নিবন্ধন করার নিশ্চিত করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের অন্যতম ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেনের বরাত দিয়ে শায়রুল বলেন, ডা. জাহিদ হোসেন জানিয়েছেন চেয়ারপারসন টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন।

জানা গেছে, গত ৯ জুলাই সুরক্ষা অ্যাপ থেকে টিকার নিবন্ধন করেছেন করোনা থেকে সেরে ওঠা বেগম খালেদা জিয়া। মহাখালীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট অ্যান্ড হাসপাতালে টিকা নেয়ার কথা রয়েছে।

খালেদা জিয়ার করোনা শনাক্ত হয় গত ১৪ এপ্রিল। প্রথম দিকে বাসায় চিকিৎসা নিলেও পরে শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে ২৭ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে গত ৯ মে তার করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ আসে। তারপরও শারীরিক সমস্যা থাকায় প্রায় দেড় মাস তাকে হাসপাতালে থাকতে হয়। কিছুদিন সেখানকার করোনারি কেয়ার ইউনিটেও (সিসিইউ) রাখা হয়েছিল বিএনপি চেয়ারপারসনকে।

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ৫৪ দিন চিকিৎসার পর গত ১৯ জুন রাতে তিনি গুলশানের বাসায় ফেরেন। পুরোপুরি সুস্থ না হলেও হাসপাতালে জীবাণু এবং দেশে করোনার ডেলটা ধরনের সংক্রমণের মধ্যে ঝুঁকি এড়াতে খালেদা জিয়াকে বাসায় নেওয়া হয়। বর্তমানে তিনি বাসাতেই আছেন।

এভারকেয়ার হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের মেডিকেল বোর্ডের তত্ত্বাবধানে এখনো খালেদা জিয়ার করোনাপরবর্তী চিকিৎসা চলছে।


আরও খবর