Logo
শিরোনাম

রাশিফল: আজকের দিনটি কেমন যাবে?

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পুরনো জ্যোতিষশাস্ত্রের এমন একটি ধরন, যার মাধ্যমে বিভিন্ন সময়কাল নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। যেমন দৈনিক রাশিফল প্রতিদিনের ঘটনার ভবিষ্যকথন করে, তেমন সাপ্তাহিক, মাসিক তথা বার্ষিক রাশিফল যথাক্রমে সপ্তাহ, মাস এবং বছরের ভবিষ্যদ্বাণী করে। বৈদিক জ্যোতিষে ১২টি রাশি- মেষ, বৃষ, মিথুন, কর্কট, সিংহ, কন্যা, তুলা, বৃশ্চিক, ধনু, মকর, কুম্ভ ও মীন-এর ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। একই রকমভাবে ২৩টি নক্ষত্রেরও ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়ে থাকে। 

মেষ: শুভ কাজে যুক্ত হওয়ার সম্ভাবনা। পদস্থ ব্যক্তির আনুকূল্য পাবেন। ব্যাবসায়িক কিছু বকেয়া বিল আদায়ের চেষ্টা সফল হতে পারে। দূরদৃষ্টির সঙ্গে অর্থের সদ্ব্যবহার করুন।

বৃষ: কোনো প্রচেষ্টার অগ্রগতি হবে। বিদেশ থেকে ভালো সংবাদ পেতে পারেন। শিক্ষার্থীদের শিক্ষায় অগ্রগতি। আর্থিক অবস্থা ভালো বলা যায়। প্রিয়জনের অনুপ্রেরণায় উদ্যমী হয়ে উঠবেন।

মিথুন: কর্মপ্রার্থীরা নতুন কাজের সন্ধান পাবেন। স্বার্থের পরিপন্থী কারো অনুরোধ রক্ষা করতে হতে পারে। ভুল সিদ্ধান্তে বিপর্যয় আসার আশঙ্কা। দ্বিধা-দ্বন্দ্বে না থেকে প্রয়োজনে বলিষ্ঠ সিদ্ধান্ত নিন।

কর্কট: কর্মক্ষেত্রে আপনার গুরুত্ব বাড়বে। অবিবাহিতদের বিয়ের আলোচনায় অগ্রগতি। আর্থিক যোগাযোগ শুভ। যৌথ কাজে অগ্রগতি। অন্যের দায়িত্ব নেবেন না। ইতিবাচক মনোভাব রাখুন।

সিংহ: পরিবারের সঙ্গে সামাজিক ক্রিয়াকলাপ আনন্দদায়ক হবে। প্রতিকূল অবস্থার মধ্যেও ভালো কিছু হবে। এমন ব্যক্তির সঙ্গে মেলামেশা বন্ধ করুন যারা আপনার সুনাম নষ্ট করবে। আবেগ পরিহার করুন।

কন্যা: আকস্মিক প্রাপ্তির সম্ভাবনা আছে। কর্মক্ষেত্রে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা পাবেন। প্রত্যাশা পূরণে বাধা-বিপত্তি দূর হবে। কাজে পারদর্শিতা দেখাতে সমর্থ হবেন।

তুলা: আর্থিক বিষয়ে দুশ্চিন্তা কমবে। সম্পত্তিসংক্রান্ত কাজে অগ্রগতি। আর্থিক বিষয়ে কোনো যোগাযোগে আশাবাদী হবেন। কর্মপরিবেশ অনুকূলে থাকবে। বকেয়া আদায়ে সচেষ্ট হতে পারেন।

বৃশ্চিক: কোনো শুভ প্রচেষ্টার জন্য দিনটি শুভ। বর্তমান পরিস্থিতি পরিবর্তনের সুযোগ আসবে। পেশাগত যোগাযোগ ফলপ্রসূ হবে। সমস্যা সমাধানে অন্যের সহযোগিতা পাবেন।

ধনু: অর্থপ্রাপ্তির সম্ভাবনা আছে। সামাজিক কাজে অংশীদার হতে পারেন। ব্যবসায়ীরা নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করতে পারেন। একাগ্রতার সঙ্গে কাজ করলে সুফল পাবেন। ভালো থাকবেন।

মকর: কর্মক্ষেত্রে কিছু ইতিবাচক সংবাদ পাবেন। নিজের কাজে অন্যকে খুশি করতে পারবেন। বকেয়া আদায়ে অগ্রগতি। পুরনো সমস্যা কাটিয়ে উঠতে পারবেন। প্রার্থনায় শান্তি পাবেন।

কুম্ভ: প্রত্যাশিত কাজে কিছু ঝামেলা দেখা দিতে পারে। অহেতুক ব্যয়ের কারণে চাপ থাকতে পারে। গুরুদায়িত্ব গ্রহণে অনীহা আসতে পারে। সময়োচিত সিদ্ধান্ত কাজে সাফল্য আনবে।

মীন: কোনো আশা পূরণ হতে পারে। শুভ সংবাদে আশাবাদী হবেন। কর্মক্ষেত্রে সুনাম বজায় থাকবে। অর্থ উপার্জনের সুযোগ আসবে। কাজে কৌশলী হলে সফলতা পাবেন।


আরও খবর



রাত ১১টা থেকে মোবাইল নেটওয়ার্ক পরিষেবা বিঘ্নিত হতে পারে

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৭৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আট ঘণ্টা মোবাইল নেটওয়ার্ক সেবায় বিঘ্ন ঘটতে পারে। বুধবার (৭ এপ্রিল) রাত ১১টা থেকে বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) সকাল ৭টা পর্যন্ত গ্রাহকরা সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিটিআরসি)।

বিটিআরসির (মিডিয়া উইং) উপ-পরিচালক জাকির হোসেন খাঁনের সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দ্বিতীয় ধাপে ২১০০ মেগাহার্টজ তরঙ্গের নতুন বিন্যাসের জন্য ৭ এপ্রিল রাত ১১টা থেকে ৮ এপ্রিল সকাল ৭টা পর্যন্ত মোবাইল সেবায় বিঘ্ন ঘটতে পারে।

এর আগে ২৯ মার্চ গণমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে বিটিআরসি জানায়, প্রথম ধাপে ১৮০০ মেগাহার্টজের তরঙ্গ বিন্যাসের কারণে ১ এপ্রিল রাত ১১টা থেকে ২ এপ্রিল সকাল ৭টা পর্যন্ত ৮ ঘণ্টা এবং দ্বিতীয় ধাপে ২১০০ মেগাহার্টজ তরঙ্গের নতুন বিন্যাসের জন্য ৭ এপ্রিল রাত ১১টা থেকে ৮ এপ্রিল সকাল ৭টা পর্যন্ত মোবাইল ফোন সেবায় বিঘ্ন ঘটতে পারে। এ তথ্য জানিয়ে মোবাইল গ্রাহকদের কাছে দুঃখও প্রকাশ করে প্রতিষ্ঠানটি।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত নিলামের মাধ্যমে মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন, রবি ও বাংলালিংককে নতুন তরঙ্গ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। টেলিটক নতুন কোনো তরঙ্গ বরাদ্দ নেয়নি। তরঙ্গে সেবা দিতে হলে অপারেটরগুলোকে তাদের তরঙ্গ পরিবর্তন করতে হবে। অপারেটরগুলো ৯ এপ্রিল থেকে নতুন তরঙ্গে সেবা দেবে বলে জানা গেছে।

নিউজ ট্যাগ: বিটিআরসি

আরও খবর



ইসলাম ধর্ম সহিংসতায় বিশ্বাস করে না: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | ৬৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
যারা মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ পছন্দ করে না, শান্তির বাংলাদেশ পছন্দ করে না, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ পছন্দ করে না, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ পছন্দ করে না। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের

স্বাধীনতাবিরোধী প্রেতাত্বাদের এই বাংলাদেশে উত্থান ঘটতে দেওয়া হবে না বলে মন্তব্য করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) দুপুরে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে ঢাকার গেন্ডারিয়ায় মিল ব্যারাক নৌ জেটিতে বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি আয়োজিত নৌ র‌্যালি, ২০২১ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

এসময় তিনি বলেন, “’৭১ এর রাজাকাররা কেউ হেফাজত নামে, কেউ নেজামে ইসলাম নামে, কেউ মুসলীম লীগ নামে নতুন করে দেশে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করছে। ইসলাম ধর্ম সহিংসতায় বিশ্বাস করে না, সন্ত্রাসকে পছন্দ করে না, জঙ্গীবাদে বিশ্বাস করে না। মহানবী রাসুলুল্লাহ (সা.) ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করতে নিষেধ করেছেন। কারো উপর জুলুম না করতে বলেছেন, ফেৎনা-ফেসাদ সৃষ্টি না করার জন্য বলেছেন। তিনি বলেছেন এগুলো যুদ্ধের চেয়ে বড় অপরাধ। কিন্তু ইসলামের নামধারী কিছু উচ্ছৃঙ্খল, সাম্প্রদায়িক শক্তি বাংলাদেশকে নতুন করে অস্থিতিশীল অবস্থায় নিয়ে যেতে চাইছে।

এ প্রসঙ্গে মন্ত্রী আরো বলেন, দেশ যখন শান্তিতে আছে, মানুষের যখন অভাব-অনটন নেই, অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসার সব সুযোগ যখন মিলছে, এটা একটা শ্রেণির লোকদের ভালো লাগছে না। এরা হলো মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি। ওরা মারা যায়নি। ওদের প্রেতাত্বারা বেঁচে আছে। ওদের সন্তানরা এদেশে এখনও বেঁচে আছে। যারা মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ পছন্দ করে না, শান্তির বাংলাদেশ পছন্দ করে না, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ পছন্দ করে না, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ পছন্দ করে না। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের যে অপ্রতিরোধ্য গতি এটা ওদের ভালো লাগছে না। এজন্য বেগম খালেদা জিয়া নিজ বাড়িতে থেকেও অকৃতজ্ঞের মতো মির্জা ফখরুল ও কয়েকজনকে দিয়ে দেশের পরিবেশ অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছেন।

শ ম রেজাউল করিম আরো বলেন, এ সময়ে একজন মানুষও না খেয়ে নেই, বিবস্ত্র অবস্থায় নেই, টাকার অভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে পারে না এমন অবস্থায় নেই। বাংলাদেশে অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, চিকিৎসা ও শিক্ষায় অভাবনীয় উন্নতি হয়েছে। বর্তমানে ইলিশ অহরণে বাংলাদেশ পৃথিবীর সেরা অবস্থানে রয়েছে। মিঠা পানির মাছ উৎপাদনে তৃতীয় অবস্থান, স্বাদু পানির মাছ উৎপাদন বৃদ্ধিতে দ্বিতীয় অবস্থান এবং চাষের মাছ উৎপাদনে পঞ্চম অবস্থানে থেকে সারাবিশ্বে মাছ উৎপাদনে আমরা আমূল পরিবর্তন আনতে পেরেছি। এক্ষেত্রে মৎস্যজীবীদের বড় ভূমিকা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মৎস্য খাতকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছেন। তিনি চান ভাতে-মাছে বাঙালি সংস্কৃতির মাছ যেন বিলুপ্ত হয়ে না যায়। মাছের সংকট যেন না হয়। মাছের মাধ্যমে মানুষের পুষ্টি ও আমিষের চাহিদা যেন মেটানো যায়। মাছ রপ্তানি করে যেন আমরা বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে পারি, মৎস্য চাষের মাধ্যমে যেন বেকারদের বেকারত্ব দূর করা যায়, তারা যেন উদ্যোক্তা হতে পারে। সে জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বড় বড় প্রকল্প গ্রহণ করেছেন। মৎস্য চাষ এখন গর্বের বিষয়। এটি এখন অর্থ-বিত্তের সুযোগ করে দিচ্ছে।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, শেখ হাসিনার নেতৃত্ব ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সমালোচনা যেখানেই হবে সেখানে প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য মৎস্যজীবী লীগের প্রতিটি নেতা-কর্মীদের এসময় আহ্বান জানান মন্ত্রী। 

বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি মোঃ সায়ীদুর রহমানের সভাপতিত্বে সংগঠনটির কার্যকরী সভাপতি সাইফুল ইসলাম মানিক, সাধারণ সম্পাদক লায়ন শেখ আজগর নস্করসহ ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ ও বিভিন্ন জেলা-উপজেলা ও মহানগর কমিটির নেতৃবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



আজ রাজধানীতে চালু হচ্ছে ১০টি ইউটার্ন

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৭৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
ইউটার্নগুলো আগেও চালু ছিল। তবে এবার আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে এগুলো চালু করতে যাচ্ছি। একইসঙ্গে সড়কটির রাইটটার্ন বন্ধ করে দেব। এটা এই প্রকল্পের অন্যতম দিক

রাজধানীর তেজগাঁও সাতরাস্তা মোড় থেকে উত্তরা হাউজবিল্ডিং পর্যন্ত সড়কে আনুষ্ঠানিকভাবে আজ শনিবার থেকে চালু হতে যাচ্ছে ১০টি ইউটার্ন। সড়কটিতে ১০টি ইউটার্ন চালুর সঙ্গে সঙ্গে ডানে মোড় নেওয়ার (রাইটটার্ন) পয়েন্টগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, বাস্তবায়নাধীন ঢাকার তেজগাঁও সাতরাস্তা মোড় থেকে উত্তরা হাউজবিল্ডিং পর্যন্ত ১১টি ইউটার্ন নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় উত্তরা রাজলক্ষ্মীর সামনে, উত্তরা র্যা ব-১ অফিস, ফ্লাইং ক্লাব কাওলা, বনানী ওভারপাস, বনানী আর্মি স্টেডিয়ামের সামনে, বনানী চেয়ারম্যানবাড়ি, মহাখালীর আমতলী, মহাখালী বাস টার্মিনালের সামনে, তেজগাঁও নাবিস্কো মোড় এবং সাতরাস্তার বিজি প্রেস এলাকায় নির্মিত ১০টি ইউটার্ন যানবাহনের ব্যবহারের জন্য শনিবার উন্মুক্ত করা হবে।

একইসঙ্গে সড়কের উভয়দিকে ডানে মোড় নেওয়ার সব পয়েন্ট বন্ধ করে দেওয়া হবে। এ জন্য ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ট্র্যাফিক বিভাগের সহযোগিতা নেবে ডিএনসিসি। বন্ধ হতে যাওয়া ডানে মোড় নেওয়ার পয়েন্টগুলো হলোনেভি হেড কোয়ার্টারের শাখা রাস্তা, বনানী রোড নম্বর ২৭, বনানী কাকলী, বনানী রোড নম্বর ১১, মহাখালী আমতলী মোড়, তেজগাঁও কোহিনুর মোড়, লাভ রোড মোড়। রাজধানীর যানজট হ্রাস করতে এসব এলাকায় চলাচলকারী যানবাহনকে ইউটার্নগুলো ব্যবহার করতে অনুরোধ করেছে ডিএনসিসি।

ডিএনসিসির নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ ফরহাদ বলেন, ইউটার্নগুলো আগেও চালু ছিল। তবে এবার আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে এগুলো চালু করতে যাচ্ছি। একইসঙ্গে সড়কটির রাইটটার্ন বন্ধ করে দেব। এটা এই প্রকল্পের অন্যতম দিক। এর ফলে যানজট কমে আসবে।

প্রসঙ্গত, তেজগাঁও সাতরাস্তা মোড় থেকে উত্তরা হাউজবিল্ডিং পর্যন্ত সড়কে ১১টি ইউটার্ন নির্মাণের প্রকল্প হাতে নেওয়া হলেও পরে ১০টি ইউটার্ন নির্মাণের সিদ্ধান্ত হয়।


আরও খবর

লকডাউনেও ট্রাফিক জ্যাম

মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১




সিভিল এভিয়েশন-রেল মন্ত্রণালয়ের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে : আতিকুল

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১ | ৮৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
সরকারি দুটি প্রতিষ্ঠানের ডোবায় কোটি কোটি মশার প্রজনন হচ্ছে। এসব মশা বিমানবন্দরের ভেতরে ঢুকছে। অবিলম্বে এসব ডোবা থেকে কচুরিপানাসহ ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার করতে হবে

রাজধানীর উত্তরায় বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (সিভিল এভিয়েশন) ও রেলপথ মন্ত্রণালয়ের পৃথক ডোবা এবং নালায় মশার লার্ভা দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করে তাদের বিরুদ্ধে মামলার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।

সোমবার (১৫ মার্চ) ডিএনসিসি মেয়র মশা নিধনে চলমান ক্রাশ প্রোগ্রাম পরিদর্শনে গিয়ে তিনি এই ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, সরকারি দুটি প্রতিষ্ঠানের ডোবায় কোটি কোটি মশার প্রজনন হচ্ছে। এসব মশা বিমানবন্দরের ভেতরে ঢুকছে। অবিলম্বে এসব ডোবা থেকে কচুরিপানাসহ ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার করতে হবে। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।


আরও খবর



‘ও’ এবং ‘এ’লেভেল পরীক্ষা বন্ধের নির্দেশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ এপ্রিল ২০২১ | ৮০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এবং লেভেল পরীক্ষা বন্ধের নির্দেশনা জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টরকে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) মন্ত্রণালয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করে।

চিঠিতে বলা হয়, বর্তমানে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি বিবেচনায় অতিমারির কারণে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার লক্ষ্যে এবং এখনও পরিস্থিতি সম্পূর্ণ অনুকূলে না আসায় বাংলাদেশে বাংলা মিডিয়া ও সাধারণ ধারার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোনও পাবলিক পরীক্ষা আপাতত অনুষ্ঠিত হচ্ছে না।

অন্যদিকে বর্তমানে কোভিড-১৯ অতিমারির কারণে যুক্তরাজ্য এবং আমাদের প্রতিবেশী অন্যান্য দেশেও ক্যামব্রিজ পদ্ধতির পরীক্ষা গ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সার্বিক বিবেচনায় এ সময়ে আমাদের দেশেও এ পরীক্ষা গ্রহণ করা যুক্তিসঙ্গত হবে না মর্মে প্রতীয়মান হওয়ায় ২০২১ সালের এপ্রিল থেকে অনুষ্ঠেয় ক্যামব্রিজ পদ্ধতির এবং লেভেলের পরীক্ষাগুলো গ্রহণ না করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

প্রসঙ্গত, গত বছর ৮ মার্চ দেশে করোনা রোগী শনাক্ত হলে ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। দফায় দফায় তা বাড়িয়ে আগামী ২৯ মার্চ পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা হয়।


আরও খবর