Logo
শিরোনাম

রংপুরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৪৩৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাইফুল ইসলাম মুকুল, রংপুর- রংপুরে নবম শ্রেনীর এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণের দায়ে মেহেদী হাসান রাব্বী নামে এক যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক মো. যাবিদ হোসেন এ মামলায় প্রমানিত না হওয়ায় চারজনকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনাকারী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) খন্দকার রফিক হাসনাইন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলা ও আদালত সূত্রে গেছে, রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার তৎকালীন এক শিক্ষা কর্মকর্তা সন্তানদের লেখাপাড়ার সুবিধার্থে নগরীর ধাপ শ্যামলী লেন এলাকায় পরিবার নিয়ে বসবাস করতেন। তার বড় মেয়ে নগরীর একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নবম শ্রেণিতে পড়তেন।

স্কুলে যাওয়া আসার পথে ওই স্কুলছাত্রীকে একই এলাকার ভাড়াটিয়া প্রতিবেশী লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার পূর্ব সারডুবি গ্রামের নুরুজ্জামান ঠগের ছেলে মেহেদী হাসান রাব্বী প্রেমের প্রস্তাব দিতেন। এক পর্যায়ে আসামি ২০১৮ সালের ৭ জুলাই ওই শিক্ষার্থীকে অপহরণ করে ঢাকায় নিয়ে যান এবং সেখানে তাকে ধর্ষণ করেন।

এ ঘটনায় মেয়ের বাবা বাদি হয়ে ১০ জুলাই রংপুর কোতোয়ালি থানায় পাঁচজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অনুসন্ধান চালিয়ে ঘটনার সাত দিন পর ঢাকার আশুলিয়া থেকে অপহরণকারীসহ ওই শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করেন। প্রায় তিন বছর আদালতে বিচারাধীন থাকার পর বুধবার মামলাটির রায় ঘোষণা করা হয়।

আসামি মেহেদী হাসান রাব্বীকে অপহরণের জন্য ১৪ বছর এবং ধর্ষণের অভিযোগে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেন বিচারক। অপর চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের খালাস দেওয়া হয়।

পিপি খন্দকার রফিক হাসনাইন বলেন, ১২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে অপরহণ ও ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত মামলার মূল আসামি মেহেদী হাসান রাব্বীকে দুটি অপরাধে ১৪ বছর ও যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেছেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি পলাতক রয়েছেন। যেদিন গ্রেফতার হবেন সেদিন থেকে রায় কার্যকরের প্রক্রিয়া শুরু হবে।


আরও খবর

বেগমগঞ্জে আ’লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




সাম্প্রদায়িক হামলায় জড়িত সবাই চিহ্নিত : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাম্প্রদায়িক হামলার সঙ্গে জড়িত সবাইকে চিহ্নিত করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ধর্ম যার যার, উৎসব সবার। সেটাই আমরা অনুসরণ করে যাচ্ছি। এবারই প্রথম একটু ব্যতিক্রম দেখলাম। এবার দুর্গাপূজার ওপরে আক্রমণের এমন দৃশ্য দেখলাম। আমরা সবকিছু বের করে ফেলেছি। সবগুলোকে চিহ্নিত করে ফেলেছি। এরা আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধরা পড়েছে। কেন এই কাণ্ড ঘটিয়েছে সবকিছু আপনাদের জানাতে সক্ষম হব, ইনশাআল্লাহ।

শনিবার সন্ধ্যায় তেজগাঁও কলেজের মিলনায়তনে ঢাকা পশ্চিম অঞ্চলের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল, সবার জন্য চিকিৎসা, সবার জন্য বাসস্থানের ব্যবস্থা। তার চিন্তা ছিল একটি অসাম্প্রদায়িক দেশের ব্যবস্থা করা, যেখানে হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান সবাই বাংলাদেশের, সবাই বাঙালি, আমরা একত্রিত। যুদ্ধের সময় অনেক হিন্দু ভাই আমাদের সঙ্গে যুদ্ধ করেছেন। আমরা যুদ্ধের পরে সে কথা কেন ভুলে যাব? সবাই মিলেই আমরা বাংলাদেশ। সবাই মিলে এগিয়ে যাচ্ছি বলেই আমরা এই জায়গায় আছি।

তিনি বলেন, একটা কথা পরিষ্কার করে বলতে চাই, এই দেশ একটি অসম্প্রদায়িক চেতনার দেশ। আমরা সংখ্যাগরিষ্ঠ এটা ঠিক। প্রিয়নবী বলে গেছেন, সংখ্যালঘুদের দেখে রাখার জন্য। তারা যেন অনিশ্চয়তায় না ভোগে। যারা এই ষড়যন্ত্র করেছে, তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। আইন অনুযায়ী যারা চিহ্নিত হয়েছেন, তাদের ব্যবস্থা হবে। ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজ না করে, সেই ব্যবস্থা করা হবে।

অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আমরা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে মুক্তিযুদ্ধ করেছি। আপনারা যে যেখানেই থাকেন সব সময় মাথা উঁচু করে বাঁচবেন। কারণ আমরা মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান।


আরও খবর



হাইকোর্টে জামিন আবেদন হেলেনা জাহাঙ্গীরের

প্রকাশিত:সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছেন আওয়ামী লীগ থেকে অব্যাহতি পাওয়া হেলেনা জাহাঙ্গীর। সোমবার তার আইনজীবী সৈয়দ ফজলে ইলাহী জামিন আবেদন করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, হেলেনা জাহাঙ্গীর অন্য সব মামলায় নিম্ন আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন। এখন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় জামিন পেলে তিনি মুক্তি পাবেন। এ কারণে এ মামলায় জামিন চেয়ে গত সপ্তাহে হাইকোর্টে আবেদন করেছি। মঙ্গলবার আবেদনটি বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চে শুনানি হতে পারে।

গত ৩০ জুলাই গুলশান থানায় হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়। এছাড়া গুলশান থানায় মাদক, বিশেষ ক্ষমতা, মিরপুর থানায় প্রতারণা মামলা এবং পল্লবী থানার টেলিযোগাযোগ আইনে মামলাও হয় তার বিরুদ্ধে।

২৯ জুলাই রাত ৮টার দিকে গুলশান-২ এ হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। দীর্ঘ চার ঘণ্টা অভিযান শেষে রাত ১২টার দিকে তাকে আটক করা হয়। পরে র‌্যাব সদরদফতরে নিয়ে যাওয়া হয়। হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটকের পর তার প্রতিষ্ঠান জয়যাত্রা টেলিভিশন কার্যালয়েও অভিযান চালায় র‌্যাব। ওই অভিযানের পর র‌্যাব জানায় জয়যাত্রা টেলিভিশন কোনো ধরনের বৈধ কাগজপত্র ছাড়া চলত। হেলেনা জাহাঙ্গীর তার জয়যাত্রা টেলিভিশনের জন্য সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ করেছিলেন। প্রবাসী প্রতিনিধি নিয়োগের নামে তিনি অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন।

ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে মিথ্যাচার, অপপ্রচার ও বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা ও ব্যক্তিদের সম্মানহানি করার অপচেষ্টার অভিযোগে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতার দেখানো হয় ৩০ জুলাই।


আরও খবর



নোয়াখালীতে যাত্রীবাহী বাস খালে পড়ে আহত ৩০

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন

Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর সেনবাগে বাঁধন পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খালে পড়ে গেছে। এ দুর্ঘটনায় ৩০জন যাত্রী গুরুত্বর আহত হয়েছে। এদের মধ্যে কয়েজনের অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসী।

রোববার (২৪ অক্টোবর) বিকাল ৫টারদিকে ফেনী-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের ভূঁইয়ার দিঘী রাস্তার মাথা সংলগ্ন সিএনজি ষ্টেশনের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বাঁধন পরিবহনের একটি বাস চট্টগ্রাম থেকে নোয়াখালী আসার পথে ফেনী-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের ভূঁইয়ার দিঘী রাস্তার মাথা সংলগ্ন সিএনজি ষ্টেশনের সামনে পৌঁছলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার উত্তর পার্শ্বের খালে পড়ে যায়। এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে এসে খালের পানিতে নিমজ্জিত বাসের যাত্রীদের উদ্ধার করে সেবারহাট সহ সেনবাগের কয়েকটি হাসপাতালে প্রেরণ করে।

চন্দ্রগঞ্জ হাইয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)মৃধুল কান্তি মজুমদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরো জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুর্ঘটনার শিকার বাসটি উদ্ধারে চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় পরবর্তীতে আগইনগত প্রদক্ষেপ নেওয়া হবে।


আরও খবর



পুলিশের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে ফের বাইকে আগুন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ১২৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর পলাশীতে ট্রাফিক পুলিশের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে আবারও রাইড শেয়ারিংয়ের এক চালক নিজের মোটরসাইকেলে আগুন দিয়েছেন।

মামলায় ত্যক্তবিরক্ত হয়ে বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) দুপুরের দিকে নিজের ডিসকভার মোটরসাইকেলে আগুন দেন ইলিয়াস মিয়া (৪০) নামের ওই ব্যক্তি।

লালবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এম মোরশেদ জানান, পাঠাও চালক ইলিয়াসের বিরুদ্ধে আগের দুটি মামলা ছিল। আজ আরও একটি মামলা দেয় সার্জেন্ট। তৃতীয় মামলার পর ঘটনাস্থল থেকে ১০০ গজ দূরে গিয়ে তিনি নিজের মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেন।

ওসি আরও বলেন, ইলিয়াসের সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছি, তিনি ১৩ বছর দেশের বাইরে ছিলেন। তার কাপড়ের ব্যবসা ছিল। করোনায় ব্যবসা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ কারণে দেড় মাস আগে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর থেকে তিনি ঢাকায় আসেন। যাত্রাবাড়ী মাতুয়াইল এলাকায় একটি মেসে থেকে রাইড শেয়ারিংয়ে মোটরসাইকেল চালান।

নিউজ ট্যাগ: বাইকে আগুন

আরও খবর

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৮৯

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




একই পরিবারের ৩ জনকে গলা কেটে হত্যা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৪৪৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আজ বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) সকালে ওই পরিবারের বড় ছেলেকে আটক করেছে পুলিশ। তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম জানা যায়নি

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জ এলাকায় একই পরিবারের তিনজনকে গলা কেটে হত্যার ঘটনা ঘটেছে।

গতকাল বুধবার (১৩ অক্টোবর) দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের নতুন বাজার এলাকার মোস্তফা সওদাগর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ।

নিহতরা হলেন নতুন বাজারের ব্যবসায়ী মোস্তফা সওদাগর (৭০), তাঁর স্ত্রী জোসনা আক্তার (৫৫) ও তাঁদের ছেলে আহমদ হোসেনকে (২৫)।

ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আজ বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) সকালে ওই পরিবারের বড় ছেলেকে আটক করেছে পুলিশ। তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম জানা যায়নি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গতকাল দিবাগত গভীর রাতে  নতুন বাজার এলাকার মোস্তফা সওদাগরের বাড়িতে তিনজনকে হত্যার এ নির্মম ঘটনাটি ঘটে। খুনিরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে তাদের। খবর পেয়ে আজ বৃহস্পতিবার ভোর থেকে পুলিশ ঘটনাস্থলে অবস্থান করছে। উৎসুক মানুষ এবং সাংবাদিকদের ঘটনাস্থলে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।

তবে মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূর হোসেন মামুন একই পরিবারের তিনজনকে হত্যার ঘটনা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, 'আমরা ঘটনার মোটিভ জানার চেষ্টা করছি। বিস্তারিত পরে জানানো হবে।'

নিউজ ট্যাগ: চট্টগ্রাম

আরও খবর