শিরোনাম

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে করতে ভরসা থাকুক রসুনে

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৪০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কোভিড উদ্বেগে নিজে সুস্থ থাকতে ও পরিজনদের সুস্থ রাখতে অনেকেই জোর দিচ্ছেন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির উপর। আর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে একটি কার্যকর উপাদান হয়ে উঠতে পারে রসুন। শুধু আধুনিক পুষ্টিবিদরাই নন, প্রাচীন আয়ুর্বেদের মধ্যেও রয়েছে রসুনের গুণাগুণ সংক্রান্ত নানা তথ্য। এক ঝলকে দেখে নিন এই কঠিন সময়ে কী ভাবে রসুনই হয়ে উঠতে পারে আপনার বন্ধু।

১। রসুনে থাকে ভিটামিন বি, ম্যাগনেশিয়াম, ফসফরাস, সোডিয়াম, আয়রন ও জিঙ্কের মতো নানা খনিজ। পাশাপাশি এতে থাকে অ্যালিসিন নামক একটু উপাদান যা বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

২। রসুনে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট থাকে যা পক্স, শ্বসনতন্ত্রের নানা রোগ ও সাধারণ সর্দি জ্বর নিরাময়ে চমকপ্রদ কাজ করে। তাই করোনা-স্ফীতির বহু আগে থেকেই শ্বাস যন্ত্রের নানা রোগের পথ্য হিসেবে রসুনের প্রচলন রয়েছে।

৩। বিশেষজ্ঞদের মতে হার্ট ভাল রাখতেও বেশ উপযোগী রসুন। রসুনে উপস্থিত অ্যালিসিন রক্তে ট্রাইগ্লিসারাইড এর পরিমাণ কমাতে সাহায্য করে ফলে ভালো থাকে সংবহনতন্ত্র।

৪। বিভিন্ন জীবাণুর আক্রমণ প্রতিরোধ করতেও রসুন বেশ কার্যকর। পাশাপাশি রক্তে শর্করার পরিমাণ হ্রাস করতে সাহায্য করে রসুন। প্রাকৃতিক উপায়ে প্রদাহ নির্মূল করতেও রসুন সহায়তা করে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

নিউজ ট্যাগ: রসুন

আরও খবর

মুখে স্বাদ ফেরাতে বানান মুরগির পুলি

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২

চাইনিজ সবজি রান্নার সহজ রেসিপি

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




পিটার ডি হাসের যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত হিসেবে মনোনয়ন চূড়ান্ত

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পিটার ডি হাসকে যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী রাষ্ট্রদূত হিসেবে বাংলাদেশে মনোনয়ন চূড়ান্ত করেছে দেশটির সিনেট। সিনেট ভোটাভুটিতে গত শুক্রবার ওই মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়। ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলারের স্থলাভিষিক্ত হবেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন গত ৯ জুলাই বাংলাদেশে পরবর্তী মার্কিন রাষ্ট্রদূত হিসেবে দেশটির পেশাদার কূটনীতিক পিটার ডি. হাসকে মনোনয়ন দেন। গত ১৯ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের পররাষ্ট্রবিষয়ক কমিটিতে শুনানিতে তিনি বলেন, বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক, স্থিতিশীল ও সমৃদ্ধ থাকলে পুরো অঞ্চল লাভবান হবে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে আগামী ২০২৩ সালের জাতীয় নির্বাচনে পূর্ণ গণতান্ত্রিক অংশগ্রহণ জোরদারে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের কর্মকাণ্ডকে তিনি এগিয়ে নিতে চান। এছাড়া তিনি মানবাধিকার সুরক্ষা দিতে তিনি বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানাবেন।

পিটার ডি. হাস গত ২০ জানুয়ারি থেকে ২৭ আগস্ট পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরে অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যবিষয়ক ব্যুরোর প্রিন্সিপাল ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি হিসেবে ভারপ্রাপ্ত অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারির দায়িত্ব পালন করেছেন। এর আগে তিনি যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্র দপ্তরের বাণিজ্য নীতি ও আলোচনা বিষয়ে জ্যেষ্ঠ্য উপদেষ্টা/ ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি ও ফ্রান্সের প্যারিসে অর্গানাইজেশন ফর ইকনোমিক কোঅপারেশন অ্যান্ড ডেভেলাপমেন্টে (ওইসিডি) যুক্তরাষ্ট্র মিশনে স্থায়ী উপপ্রতিনিধি ছিলেন।

পিটার হাস যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র সার্ভিসে তার কর্মজীবনে ভারতের মুম্বাইয়ে যুক্তরাষ্ট্র কন্স্যুলেট জেনারেলে কনসাল জেনারেল ছাড়াও পররাষ্ট্র দপ্তরে পাঁচটি ভৌগলিক ব্যুরোতে দায়িত্ব পালন করেছেন।



আরও খবর

আবুধাবিতে ড্রোন হামলায় তিনজন নিহত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল করোনা আক্রান্ত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। করোনায় আক্রান্ত হলেও হালকা কিছু উপসর্গ ছাড়া তেমন কোনো জটিলতায় ভুগছেন না বলে জানিয়েছেন তিনি। কেজরিওয়াল মঙ্গলবার সকালে নিজেই টুইট করে তার করোনায় আক্রান্তের খবর জানান।

তিনি লিখেছেন, কোভিড টেস্টে আমি পজিটিভ হয়েছি। হালকা কিছু লক্ষণ আছে। বাড়িতে আইসোলেশনে আছি। গত কয়েক দিন যারা আমার সংস্পর্শে এসেছেন, দয়া করে আপনারা আইসোলেশনে যান, করোনা পরীক্ষা করুন।

ভারতজুড়ে নতুন করে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হয়েছে। দিল্লিতে এর প্রকোপটা বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে ৪ হাজার ৯৯ জনের দেহে এই ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে, দিল্লিতে করোনা শনাক্তের হার এখন ৬ দশমিক ৪৬ শতাংশ। করোনায় আক্রান্ত বা সন্দেহে সেখানে এখন ৬ হাজার ২৮৮ জন হোম আইসোলেশনে রয়েছে। দিল্লিতে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সোমবার একজনের মৃত্যু হয়েছে।

বিশ্বের অনেক দেশের মতো ভারতেও করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন উদ্বেগ হিসেবে দেখা দিয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই ভ্যারিয়েন্ট সবচেয়ে বেশি ছড়াচ্ছে দিল্লিতে।


আরও খবর

আবুধাবিতে ড্রোন হামলায় তিনজন নিহত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




ঢাবির হলে বিবাহিত ছাত্রী না থাকার নিয়ম বাতিলে আইনি নোটিশ

প্রকাশিত:বুধবার ২২ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
শুধুমাত্র বিশেষ ক্ষেত্রে, বিবাহিত ছাত্রীকে চলতি সেশনে হলে থেকে অধ্যয়নের সুযোগ দেওয়া হবে। অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রী হলে থাকতে পারবে না

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেয়েদের হলগুলোতে বিবাহিত ছাত্রীরা থাকতে পারবে না-এমন নিয়ম বাতিল চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এতে নোটিশ পাওয়ার তিন কার্যদিবসের মধ্যে নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক বিধানটি বাতিল না করলে উচ্চ আদালতে শরণাপন্ন হওয়ার কথা জানানো হয়েছে।

বুধবার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, রেজিস্ট্রার, প্রক্টর এবং সামসুন্নাহার, কুয়েত-মৈত্রী ও সুফিয়া কামাল হলের প্রাধ্যক্ষ বরাবর এই নোটিশ প্রেরণ করেন। নোটিশে বলা হয়, সম্প্রতি গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি ছাত্রী হলে বিবাহিত হওয়ার কারণে কতিপয় ছাত্রীর আবাসিক সিট বাতিল করা হয়েছে। সামসুন্নাহার হলের আবাসিক ছাত্রীদের সিট বণ্টন সম্পর্কিত ও অন্যান্য শৃঙ্খলামূলক নিয়মবিধির ১৬ নম্বর বিধিতে বলা হয়েছে কোনো ছাত্রী বিবাহিত হলে অবিলম্বে কর্তৃপক্ষকে জানাবে। অন্যথায় নিয়ম ভঙ্গের কারণে তার সিট বাতিল হবে।

শুধুমাত্র বিশেষ ক্ষেত্রে, বিবাহিত ছাত্রীকে চলতি সেশনে হলে থেকে অধ্যয়নের সুযোগ দেওয়া হবে। অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রী হলে থাকতে পারবে না। উক্ত বিধানের ফলে কার্যত বিবাহিত শিক্ষার্থীরা হলের আবাসিক সুবিধা গ্রহণ করে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হবে। বিষয়টি নিয়ে বর্তমানে শিক্ষার্থীদের মধ্যে মারাত্মক অসন্তোষ এবং চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠে এমন বৈষম্যমূলক বিধান থাকার বিষয়টি প্রিন্ট এবং ইলেক্ট্রনিক গণমাধ্যমে গুরুত্বের সাথে প্রকাশিত হচ্ছে।

এতে আরো বলা হয়, বাংলাদেশের সংবিধানের ২৭ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সকল নাগরিক আইনের দৃষ্টিতে সমান এবং ২৮ (১) ও (২) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী কেবল ধর্ম, গোষ্ঠী, বর্ণ, নারী-পুরুষভেদ বা জন্মস্থানের কারণে কোনো নাগরিকের প্রতি রাষ্ট্র বৈষম্য প্রদর্শন করবে না। রাষ্ট্র ও গণজীবনের সর্ববস্তরে নারী পুরুষের সমান অধিকার লাভ করবে। বিবাহিত ছাত্রীদের জন্যে এমন নিয়ম নারীদের উচ্চশিক্ষা গ্রহণের পথে প্রতিবন্ধকতা এবং সংবিধানের ২৭ এবং ২৮ নম্বর অনুচ্ছেদের সাথে সম্পূর্ণ সাংঘর্ষিক।

তবে নোটিশটি এখনো পাননি বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। তিনি বলেন, আমরা বিষয়টি নিয়ে আমাদের মতো করে কাজ করে যাচ্ছি।


আরও খবর



সিয়ামের সঙ্গে নতুন বছর শুরু বুবলীর

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শাকিব খানের সঙ্গে ধারাবাহিক এক ডজন ছবিতে কাজ করার পর গত বছর অন্য নায়কদের সঙ্গে জুটি বাঁধেন আলোচিত চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী। এরই মধ্যে তিনি কাজ করেছেন নিরব হোসেন ও জিয়াউল রোশানের সঙ্গে। নতুন বছরে নায়িকা রসায়নে মজলেন হালের অন্যতম জনপ্রিয় চিত্রনায়ক সিয়াম আহমেদের সঙ্গে।

ইতোমধ্যে রবিবার (২ জানুয়ারি) থেকে শুরু হয়ে গেছে শুটিং। ছবির নাম টান। পরিচালনায় আছেন রায়হান রাফি। এ ছবির মাধ্যমে প্রথমবার জুটি বাঁধলেন সিয়াম-বুবলী। নায়িকা বলেন, আগেও বলেছি এখনও বলছি, আমি যেহেতু শিল্পী তাই সবার সঙ্গেই কাজ করতে চাই। সেই ধারাবাহিকতায় সিয়ামের সঙ্গে জুটি বেঁধেছি। আশা করছি ভালো কিছু হবে।

অন্যদিকে নায়ক সিয়াম আহমেদ বলেন, এটাই আমার নতুন বছরের নতুন ছবির কাজ। খুবই ব্যস্ত একটা বছর আশা করছি। সে অনুযায়ী প্রথম কাজ শুরু করলাম। ছবির গল্পটি অসাধারণ। বুবলীও গুণী অভিনেত্রী। আশা করি, দর্শক আমাদের জুটিকে ভালোভাবে গ্রহণ করবেন।

নতুন এ প্রজেক্ট সম্পর্কে নির্মাতা রায়হান রাফি জানান, রোমান্টিক গল্প নিয়ে নির্মিত হচ্ছে টান। এ ছবির গল্পটা যে কেমন, তা বলে বোঝানো যাবে না। যেহেতু নামটা টান, তাই রোমান্টিক বলা যায়। তবে এর কাহিনিটা একেবারে ভিন্ন মনে হবে দর্শকের কাছে। টানা শুটিং চলবে এ ছবির।

এদিকে, আগামী ৭ জানুয়ারি প্রেক্ষাগৃহে আসছে সিয়ামের নতুন ছবি শান। এখানে তার নায়িকা পূজা চেরি। ছবিটির পরিচালক এম রাহিম। ছবিটি ঘিরে ইতোমধ্যে ভালো আলোচনা শুরু হয়েছে। সে ছবিরই নায়ক সিয়ামের সঙ্গে টান দিয়ে নতুন বছর শুরু করলেন একসময়ের সংবাদ পাঠিকা শবনম বুবলী।


আরও খবর



‘২০৩৫ সালে বাংলাদেশ বিশ্বের ২৫তম বৃহৎ অর্থনীতির দেশ হবে’

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির বলেছেন, বিশ্বের শীর্ষ ৪১তম বড় অর্থনীতির দেশের মধ্য বাংলাদেশও রয়েছে। প্রবৃদ্ধির ধারা অব্যাহত থাকলে আগামী ২০৩৫ সালে বাংলাদেশ হবে বিশ্বের ২৫তম বৃহৎ অর্থনীতির দেশ। বুধবার (২৯ ডিসেম্বর) সকালে হোটেল ইন্টার কন্টিনেন্টালে বণিক বার্তার দ্বিতীয় বাংলাদেশ অর্থনৈতিক সম্মেলন-২০২১ এ মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনায় তিনি একথা বলেন।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক গভর্নর মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন, ড. সালেহউদ্দিন আহমেদ, ড. আতিউর রহমান ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার। দ্য সিটি ব্যাংক লিমিটেডের এমডি ও সিইও মাসরুর আরেফিনের স্বাগত বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বণিক বার্তা সম্পাদক দেওয়ান হানিফ মাহমুদ।

গভর্নর ফজলে কবির বলেন, দেশের প্রবৃদ্ধি বাড়লেও সামনের দিনগুলোতে আমাদের অর্থনীতিতে বেশ কিছু চ্যালেঞ্জ রয়েছে। এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা এবং করোনাভাইরাসের ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে ভূমিকা পালন করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। করোনার কারণে বিশ্ব অর্থনীতি বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে, নতুন করে দারিদ্র্যসীমা বেড়েছে।

তবে আশার দিক হলো করোনায় বিশ্বের অন্যসব দেশের তুলনায় বাংলাদেশের অর্থনীতি তেমন একটা বিপর্যস্ত হয়ে পড়েনি। করোনার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে অর্থনৈতিক নেতৃত্ব দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।


আরও খবর