Logo
শিরোনাম

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৪ শতাধিক ঘর পুড়ে ছাই

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৪ জানুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৬৪জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কক্সবাজারের টেকনাফের নয়াপাড়া রেজিস্টার্ড শরণার্থী ক্যাম্পে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে স্থানীয় দুটি ঘর, কমিউনিটি সেন্টারসহ রোহিঙ্গাদের ৪ শতাধিক পরিবারের সমন্বয়ে গড়া একটি ব্লক সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) ভোররাতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের সহযোগিতায় ফায়ার সার্ভিস সকাল নাগাদ আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। অগ্নিকাণ্ডে কারো মৃত্যুর ঘটনা না ঘটলেও ২০-২৫ জন নারী-পুরুষ আহত হয়েছেন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে টেকনাফ নয়াপাড়া রেজিষ্টার্ড শরণার্থী ক্যাম্পের ই-ব্লকের একটি ঘর থেকে আকস্মিক অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। পলিথিনের চাল ও বেড়া হওয়ায় আগুন দ্রুত চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে। প্রত্যেক ঘরে গ্যাস সিলিন্ডার থাকায় তার অধিকাংশ বিস্ফোরিত হয়ে আগুন অনিয়ন্ত্রিত হয়ে যায়। খবর পেয়ে টেকনাফ ফায়ার সার্ভিস ও রোহিঙ্গারা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালায়। দীর্ঘ চেষ্টার পর ভোরের দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

অগ্নিকাণ্ডে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ই-ব্লকের অন্তত ৪৩২টি রোহিঙ্গা বসতি, ১টি ইউএনএইচসিআরের কমিউনিটি সেন্টার এবং পার্শ্ববর্তী ২টি স্থানীয় লোকের বসত ঘরসহ ৪৩৫টি ঘর আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এছাড়া পার্শ্ববর্তী ভাসমান আরো কিছু ঝুপড়ি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে বেশ কয়েকজন দাবি করেন।

ধারণা করা হচ্ছে রোহিঙ্গাদের ব্যবহৃত গ্যাস সিলিন্ডার থেকে এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হতে পারে। তবে অনেকে সিগারেট বা কয়েল থেকেও অগ্নিকান্ড ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা করছেন।

নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পের ইনচার্জ আব্দুল হান্নান অগ্নিকাণ্ডের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভোররাতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটায় কিভাবে তা ঘটলো এখনো জানা যায়নি। আগুনে ৪শতাধিক রোহিঙ্গাদের ঘরের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করছি। সঠিক পরিমাণ নির্ণয়ে কাজ চলছে। অগ্নিকাণ্ডের প্রকৃত কারণ খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

এদিকে, ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে বেলা ১০ টার দিকে কক্সবাজার ত্রাণ শরণার্থী ও পুনর্বাসন বিষয়ক কমিশনার (আরআরআরসি) শাহ রেজওয়ান হায়াত ক্ষতিগ্রস্ত রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।

Share



ভেড়ামারার ক্যানেলে মিলল তরুণীর বিবস্ত্র লাশ

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৭৮জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কুষ্টিয়া থেকে এস এম সুমন

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলায় অজ্ঞাত পরিচয়ে (২৪) এক তরুণীর বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার(১৭ই ফেব্রুয়ারি) সকালে ভেড়ামারা উপজেলার চাঁদগ্রাম ইউনিয়নের চন্ডিপুর বটগাছ নামক স্থানের জিকে ক্যানালের নিচ পানির কিনারায় পড়ে থাকা অজ্ঞাতনামা আনুমানিক (১৮) বছর বয়সের এক মেয়ের বিবস্ত্র লাশ উদ্ধার করেছে ভেড়ামারা থানা পুলিশ।

ভেড়ামারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহজালাল জানান, মৃত নারীর পরিচয় এখন পর্যন্ত সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি,  তবে কিছু আলামত পাওয়া গেছে।  লাশের ময়না তদন্ত করার জন্য কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তবে এলাকাবাসীর দাবি তাকে তামাকের ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করে, ধর্ষকরা মেরে রেখে যায়।

এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন‍্য এবং তাদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানিয়েছেন বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

Share



পূর্ব ঘোষিত সব কর্মসূচি প্রত্যাহার করলেন কাদের মির্জা

প্রকাশিত:রবিবার ২১ ফেব্রুয়ারী 20২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৩৪জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা তার পূর্ব ঘোষিত সব কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে নিজের ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে এসে এবং ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে তিনি সব কর্মসূচি প্রত্যাহার করার ঘোষণা দেন।

ফেইসবুক লাইভে এবং স্ট্যাটাসে তিনি উল্লেখ করেন, নোয়াখালীর রাজনীতির চলমান সংকট নিরসনে আমাদের সকলের আস্থার শেষ ঠিকানা জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করে আমাদের ইতোপূর্বে ঘোষিত সকল ধরনের কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নিলাম। আশাকরি জননেত্রী শেখ হাসিনা ও আমাদের নেতা জনাব ওবায়দুল কাদের সাহেবের হস্তক্ষেপে সকল সমস্যার সমাধান অতিশীঘ্রই হবে।

প্রসঙ্গত গত ১৬ জানুয়ারি বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনের আগ থেকে বিভিন্ন ইস্যুতে আলোচনায় আসে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা। আর এ আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু ছিলেন বসুরহাট পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। তিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই।

Share



অশ্লীল ভিডিও চালানোর অভিযোগে অভিনেত্রী গ্রেফতার

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৩৩জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রমরমিয়ে চলছিল পর্ন র‌্যাকেড। উঠতি মডেল ও অভিনেত্রীদের দিয়ে অশ্লীল ভিডিও বানিয়ে চালানো হচ্ছিল পর্ন ওয়েবসাইট। এমন অভিযোগেই গ্রেফতার করা হল অভিনেত্রী গহনা বশিষ্ঠকে।

গহনা বলিউডের নির্মাতা একতা কাপুরের গান্দি বাতর একজন অভিনেত্রী হিসেবে বেশ সমাদৃত।

পুলিশ সূত্রে খবর, গহনা বশিষ্ঠ যে পর্নো ওয়েবসাইটটি চালাচ্ছিলেন, তাতে তিনি ৮৭টি অশ্লীল ভিডিও আপলোড করেন। যে গ্রাহকরা ওয়েবসাইটটি সাবস্ক্রাইব করতেন তাদের ২ হাজার টাকা করে দিতে হতো।

অভিযোগের প্রমাণ হাতে পেয়ে অবশেষে ৭ ফেব্রুয়ারি মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চ গ্রেফতার করল গহনাকে। আজ রোববারই আদালতে তোলা হবে গহনাকে।

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুসারে বেশকিছু মডেল, অভিনেত্রী এবং প্রযোজনা সংস্থা এই পর্নো র‌্যাকেডের সঙ্গে যুক্ত। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মুম্বাই পুলিশ।

নিউজ ট্যাগ: অশ্লীল ভিডিও
Share

নুসরাতকে নিখিলের ডিভোর্সের নোটিশ পাঠালেন

মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১




হত্যা মামলায় ছেলের ফাঁসি, বাবা-মাসহ পাঁচজনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৬০জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে কৃষক ছিদ্দিক মিয়া হত্যা মামলায় জুয়েল মিয়া (২৭) নামে একজনের মৃত্যুদণ্ড ও পাঁচজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

কিশোরগঞ্জের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আ. রহিম সোমবার সকালে এ রায় ঘোষণা করেন। একইসঙ্গে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিকে দুই লাখ ও যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জুয়েল বাজিতপুর উপজেলার হিলোচিয়া বড়মাইপাড়া গ্রামের জজ মিয়ার ছেলে।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, একই গ্রামের মো. জজ মিয়া (৫২), তার ছেলে মো. কাকন মিয়া (২৯), জজ মিয়ার স্ত্রী মোছা. রহিমা খাতুন, জয়নাল আবেদিনের ছেলে মো. মাহবুব হাসান রঞ্জু ও মজলু মিয়ার ছেলে মো. সাইফুল ইসলাম (৩৫)। এদের মধ্যে মো. সাইফুল ইসলাম ও মো. কাকন মিয়া পলাতক রয়েছেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, জেলার বাজিতপুর উপজেলার হিলোচিয়া ইউনিয়নের বরমাইপাড়া গ্রামের মৃত আহম্মদ আলীর ছেলে কৃষক মো. সিদ্দিক মিয়ার সাথে একই এলাকার আসামিদের জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। ২০১৬ সালের ২২ জানুয়ারি বিকেলে আসামিরা লোহার রড ও শাবল দিয়ে পিটিয়ে ছিদ্দিক মিয়াকে গুরুতর আহত করেন।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে প্রথমে ভাগলপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে ঢাকায় নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় নিহতের ভাই বাদী হয়ে পরদিন ৬ জনকে আসামি করে বাজিতপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ৩০ জুন আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাজিতপুর থানার এসআই মো. নজরুল ইসলাম। আদালত সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে আজ রায় ঘোষণা করেন।

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপক্ষ। তবে উচ্চ আদালতে আপিল করা হবে বলে জানিয়েছেন আসামি পক্ষের আইনজীবীরা।

Share

মাদক মামলায় পারভিনের ১০টি বই পড়ার দণ্ড

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার এক আসামি গ্রেফতার

মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১




মিথ্যা প্রচারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন নাসির

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৪০জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মিথ্যা প্রচারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) স্ত্রী তামিমা তাম্মিকে সঙ্গে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এমনটি জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিয়ে করেন নাসির। পরে ১৯ ফেব্রুয়ারি হয়েছে বিবাহোত্তর সংবর্ধনা। তবে এরই মধ্যে অভিযোগ উঠেছে আগের স্বামীকে তালাক না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেছেন স্ত্রী তামিমা তাম্মি।

তবে এদিন নাসির বলেন, সংবাদ মাধ্যমে যেসব তথ্য আসছে তা সত্যি নয়। আর যারা মিথ্যে প্রচার করছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নাসিরের বিয়ে নিয়ে তৈরি হয় নতুন সমস্যা। তার স্ত্রী তামিমা তাম্মির এর আগে বিয়ে হয়েছিল রাকিব নামের একজনের সঙ্গে। ১০ বছর আগে রাকিবের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল তামিমার। নিকাহনামায় উল্লেখ করা আছে ২০১১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ৩ লাখ টাকা দেন মোহরে বিয়ে হয় তাদের।

স্বামী মো. রাকিব হাসানকে তালাক না দিয়েই জাতীয় দলের নাসির হোসেনের সঙ্গে বিয়ে করেছেন তামিমা তাম্মি। এ নিয়ে উত্তরা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন রাকিব। সেই ডায়েরিতে উঠে এসেছে নতুন এত তথ্য। তিনি দাবি করেন, রাকিব-নাসির ছাড়াও অন্য একজনের সঙ্গে ছয় মাস সংসার করছেন তমিমা।

উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি জিডি করেন রাকিব। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তারুজ্জামান ইলিয়াস। জিডির নম্বর ১৩/২৬।

সাধারণ ডায়েরি সূত্রে জানা যায়, ২০১১ সালে তামিমা তাম্মিকে বিয়ে করেন রাকিব। দাম্পত্য জীবনে তাদের একটি মেয়ে রয়েছে। এর মধ্যেই তামিমা অন্য এক ছেলের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ায়। ছয় মাস সংসার করার পর ফিরে আসে। পরে রাকিবের সঙ্গে ক্ষমা চেয়ে পার পায়। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি নতুন করে নাসিরের সঙ্গে ছবি ভাইরাল হলে রাকিব জানতে পারেন, তামিমা বিয়ে করেছেন।

জিডি করার কারণ উল্লেখ করে রাকিব বলেন, সংসারজীবনে বিবাদীর কাছে অনেক টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার রাখা আছে। এমনকি আমাকে তালাকও দেননি। টাকা ও অলঙ্কার চাইলে বিবাদী আমাকে ক্ষতি করবে বলে হুমকি দিয়েছেন।

Share

করোনা টিকা নিলেন শেখ রেহানা

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১

৭ কলেজের বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ সন্ধ্যায়

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১