Logo
শিরোনাম

র‌্যাবের নতুন ডিজি এম খুরশীদ হোসেন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ সেপ্টেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৪২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অতিরিক্ত আইজিপি এম খুরশীদ হোসেন পুলিশের এলিট ফোর্স র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মহাপরিচালক (ডিজি) হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের উপসচিব ধনঞ্জয় কুমার দাসের সই করা এক প্রজ্ঞাপনে তাকে এ নিয়োগ দেওয়া হয়। জনস্বার্থে এ আদেশ আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হবে বলে জানানো হয়েছে।

র‌্যাবের বর্তমান ডিজি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনকে পরবর্তী পুলিশপ্রধান হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে সরকার। এর ফলে চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনের স্থলাভিষিক্ত হলেন খুরশীদ হোসেন।

খুরশীদ হোসেন ১২তম বিসিএস (পুলিশ) ব্যাচের কর্মকর্তা। বর্তমানে তিনি পুলিশ সদরদপ্তরের অতিরিক্ত আইজিপি (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশনস) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার জন্ম গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে।


আরও খবর



যে রোগে ভুগছেন পুষ্পা খ্যাত রাশমিকা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৩০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের দক্ষিণী সিনেমার তুমুল জনপ্রিয় নায়িকা রাশমিকা মান্দানা। তাকে ভারতের জাতীয় ক্রাশ বলা হয়ে থাকে। বিষয়টিকে আনুষ্ঠানিক রূপ দেওয়ার জন্য উঠে পড়ে লেগেছেন তার ভক্তরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো আন্দোলন শুরু করে দিয়েছেন তারা। বিশেষ করে পুষ্পা : দ্য রাইজ মুক্তির পরপরই তিনি আলোচনায় আসেন। তবে সম্প্রতি সেই রূপের কিছুটা ভাটাও পড়েছে। জানা গেল এ অভিনেত্রী হাঁটুর সমস্যায় ভুগছেন।

ভারতের একাধিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সম্প্রতি ভারতের নামকরা অর্থোপেডিকস ডা. গুরুবারেড্ডির কাছে গিয়েছিলেন রাশমিকা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রাশমিকার সঙ্গে সেই ছবি পোস্ট করেন গুরুবারেড্ডি। মূলত, তিনিই জানান, হাঁটুর সমস্যায় ভুগছেন এ নায়িকা। তবে তা গুরুতর নয়। খুব তাড়াতাড়ি ঠিক হয়ে যাবে। পাশাপাশি তিনি জানান, পুষ্পা সিনেমায় রাশমিকার অভিনয় তার অনেক পছন্দ হয়েছে।

এদিকে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে রাশমিকা অভিনীত প্রথম বলিউড সিনেমা গুডবাই। বিকাশ বেহল পরিচালিত এ সিনেমায় আরও অভিনয় করছেন অমিতাভ বচ্চন। সিনেমাটি ৭ অক্টোবর মুক্তি পাবে। রাশমিকা খুব শিগগিরই পুষ্পা- টু বা পুষ্পা: দ্য রুল সিনেমার শুটিং শুরু করবেন বলেও জানা গেছে। গত বছরের ডিসেম্বরে মুক্তি পায় এই ফ্যাঞ্চাইজির প্রথম সিনেমা পুষ্পা: দ্য রাইজ। সুকুমার পরিচালিত এ সিনেমা বক্স অফিসে ৩০০ কোটি রুপির বেশি আয় করেছে।


আরও খবর

দুরন্তপনার ৫ বছর

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




খারকিভ থেকে পালিয়েছে রুশ সেনারা

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পূর্বাঞ্চলীয় খারকিভে ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর পাল্টা আক্রমণের গতি খুব ভয়ঙ্কর কিছু নয়। ত্রিশটির বেশি শহর ও গ্রাম দখলদার রুশবাহিনীর কাছ থেকে মুক্ত করা হয়েছে। এসব এলাকা থেকে রুশ সেনারা আরও পূর্বদিকে পালিয়েছে। রুশরা তেমন কোনও বা একেবারেই প্রতিরোধের চেষ্টা করেনি। এমনটিই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

জার্মানির ইউনিভার্সিটির অব ব্রেমেন-এর রাশিয়া বিশেষজ্ঞ নিকোলায় মিত্রোখিন বলেন, ব্যাপক হতাহতের পর চার মাসে রাশিয়ার সেনাবাহিনী ইউক্রেনে যে সাফল্য অর্জন করেছিল মাত্র চারদিনে ইউক্রেন তা ধূলিসাৎ করে দিয়েছে। তবে যে গতিতে ও সহজভাবে রুশ সীমান্তের পশ্চিমে ও বিচ্ছিন্নতাবাদী লুহানস্কের উত্তরের এলাকাটির নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে ইউক্রেন তাতে রাশিয়ার সামরিক সক্ষমতা ও পরিকল্পনা নিয়ে অনেক প্রশ্ন জাগছে।

খারকিভ থেকে প্রকাশিত ভিডিও এবং ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীর প্রতিবেদন অনুসারে, রুশ সেনারা তাদের কামান বা সাঁজোয়া যান খুব একটা রেখে যায়নি। ব্যাপক নিরাপত্তায় সুরক্ষিত এলাকা থেকে তাদের চলে যাওয়া কোনও তুমুল লড়াইয়ের পর আতঙ্কে পলায়ন নয়। দখলকৃত কুপিয়ানস্ক ও ইজিউম থেকে রুশ সীমান্তে যাওয়ার মাত্র একটি সংকীর্ণ সড়ক রয়েছে।

মিত্রোখিন বলেছেন, কিন্তু সংকীর্ণ সড়ক রুশদের সেনা প্রত্যাহার আটকে দেয়নি। এটি কয়েক ঘণ্টা নয়, অন্তত কয়েক দিনে হয়েছে। এতে ক্রেমলিনের একটি ইচ্ছাকৃত সিদ্ধান্তের গুরুত্ব তুলে ধরছে। তারা এলাকাটি ছেড়ে এখানকার মানবশক্তি ও অস্ত্র কাছের বিচ্ছিন্নতাবাদী এলাকায় কাজে লাগাতে চাইছে। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মনে হচ্ছে এটি ওপর মহল থেকে নেওয়া। এই সিদ্ধান্ত হতে পারে খারকিভ থেকে রাশিয়ার সেনা পুরোপুরি প্রত্যাহার করা এবং সম্ভাব্য সেনা ও অস্ত্র ডনেস্ক এবং সম্ভবত লুহানস্ক সীমান্তে অবস্থান শক্তিশালী করতে ব্যবহার করা হবে। কিন্তু এর ফলে যা ঘটলো তা হলো এপ্রিলে ইউক্রেনের উত্তরাঞ্চল থেকে রাশিয়ার সেনা প্রত্যাহারের পুনরাবৃত্তি।

এপ্রিলে কিয়েভসহ ইউক্রেনের চারটি অঞ্চল থেকে শুভেচ্ছার নিদর্শন হিসেবে নিজেদের সেনা প্রত্যাহার করেছিল মস্কো। তবে ইউক্রেনীয় কর্মকর্তা ও বিশ্লেষকরা বলেছিলেন, ভুল পরিকল্পনা এবং সেনা ও সামরিক সরঞ্জাবে বিপুল পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতির কারণে রাশিয়া পিছু হটতে বাধ্য হয়েছিল।

প্রশ্নবিদ্ধ রুশ সেনাদের প্রশিক্ষণ: অপর বিশ্লেষকরা মিত্রোখিনের পর্যালোচনার সঙ্গে একমত নন। অনেকে মনে করেন, রাশিয়ার অল্প প্রশিক্ষিত ন্যাশনাল গার্ডসম্যান ও রণক্ষেত্রে বেসামরিকদের বাধ্য করে মোতায়েনের পর এই প্রত্যাহার করা হলো।

দৈনিক পত্রিকা নভোয়া গাজেতাতে এক নিবন্ধে রশ প্রতিরক্ষা বিশ্লেষক ইউরি ফিয়োদোরভ বলেন, এদের বেশিরভাগের প্রশিক্ষণ খুব দুর্বল। তাদের কোনও লড়াইয়ের অভিজ্ঞতা নেই। অনেক সময় কী ঘটছে তা সম্পর্কে তাদের কোনও ধারণাই ছিল না। ফলে তারা কেন নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিতে যাবে।

রাশিয়ার কারাগার মনিটরিং করা একটি মানবাধিকার সংস্থা রাস সিদিয়াসচায়া-এর ওলগা রোমানভা ফেসবুকে লিখেছেন, ইউক্রেনে লড়াইয়ের জন্য ইতোমধ্যে সাত থেকে ১০ হাজার দণ্ডপ্রাপ্তকে রিক্রুট করা হয়েছে। শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তাদের ভুল পরিকল্পনার ফলে তারা খারকিভে সেনা সমাবেশ ঘটায়নি এবং সেখানে থাকা বাহিনীর সহযোগিতায় অতিরিক্ত সেনা মোতায়েনে ব্যর্থ হয়েছে।

কুখ্যাত বেসরকারি ভাড়াটে যোদ্ধা গোষ্ঠীর সাবেক রুশ ভাড়াটে যোদ্ধা মারাত গাবিদুলিন বলছেন, এই সেনা প্রত্যাহার রাশিয়ার শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তাদের গভীর সমস্যার ইঙ্গিত দিচ্ছে। এতে দেখা যাচ্ছে আমাদের জেনারেলরা কীভাবে বাস্তবতার সঙ্গে সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন এবং প্রতিরক্ষার জন্য গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় দুর্বল ইউনিট মোতায়েন করে অপেশাদারিত্বের প্রমাণ দিচ্ছেন।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মিত্র হিসেবে পরিচিত চেচেন নেতা রমজান কাদিরভও সমালোচনা করেছেন। উত্তর-পূর্ব ইউক্রেনে নিজেদের প্রধান ঘাঁটি থেকে রুশ বাহিনীর পিছু হটার ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, আজ বা কাল যদি বিশেষ সামরিক অভিযান পরিচালনার ক্ষেত্রে পরিবর্তন করা না হয়, তাহলে আমি দেশের নেতৃত্বের কাছে যেতে বাধ্য হবো, যাতে তাদের কাছে পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করা যায়।

নিউজ ট্যাগ: ইউক্রেন

আরও খবর

‘হাসি’ মানুষের সবচেয়ে ভালো ওষুধ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রী পালিয়ে যাওয়ায় স্বামীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২ | ৫৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীতে স্ত্রী তার প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ায় বেলাল হোসেন (৩২) নামে তার স্বামী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। বুধবার রাত ৮টার দিকে রাজধানীর আদাবরের সুনিবিড় এলাকার জাহাঙ্গীর আলম রোডে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় স্বামীর লেখা একটি ডায়েরি উদ্ধার করে পুলিশ। তার গ্রামের বাড়ি বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার রহমতপুর ইউনিয়নের মুদ্রকারী গ্রামে।

স্থানীয়রা জানান, কয়েকদিন আগে তার স্ত্রী ঘরে আড়াই বছরের সন্তান রেখে তার প্রেমিকের হাত ধরে পালিয়ে যান। এরপর থেকে তিনি পাগলের মতো এদিক ওদিক খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন। ছোট বাচ্চাটি দিনরাত কাঁদত। গতকাল তার স্ত্রী বড় ভাই এসে তার কাছে বাচ্চাটি দিয়ে গ্রামের বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছে।

বেলাল পাশেই একটা গার্মেন্টসে কাজ করতেন। আজকে কাজে না যাওয়ায় কয়েকজন ডাকতে এসে কোনো শব্দ না পেয়ে দরজার ফাঁকা দিয়ে তাকিয়ে দেখে ওপরে রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। এরপর পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় নিহতের বৌয়ের বড় ভাই হাসান বলেন, গত ১৫ দিন আগে আমাকে বেলাল ফোন করে বলেছিল- আমার বোন আমাদের বাড়িতে আসছে কিনা? কোথাও তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। পরে আমি আমার আত্মীয়স্বজন যারা আছে সবার বাড়িতে খোঁজাখুঁজি করলাম। কারো বাসায় সে যায় নাই। তখন কয়েকদিন পর বেলাল ফোন করে বলল- আমার বোন একটা ছেলের সাথে পালিয়ে গেছে। সে এটা ফেসবুকে দেখেছে। তখন আমার বোন আর পালিয়ে যাওয়া ছেলের ছবি আমার ইমোতে পাঠিয়েছে।

গতকাল আমি ঢাকা যাওয়ার পর আমাকে বলল- তার ছোট বাচ্চাকে এতিমখানায় দিয়ে দিবে। তখন আমি বলি আমার কাছে থেকে সে বড়ো হবে। বড় হলে আপনি আপনার বাচ্চাকে নিয়ে আইসেন। এই বলে আমি গ্রামে আসার সময় গতকাল বাচ্চাটিকে আমার সঙ্গে নিয়ে বসি। আজকে শুনলাম সে গলায় ফাঁস দিয়ে মারা গেছে।

আদাবর থানার ওসি শাকের মো. জুবায়ের জানান, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। সেখান থেকে তার হাতে লেখা একটি ডায়েরি উদ্ধার করি। ডায়েরি দেখে মনে হলো তাদের স্বামী স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক কোনো কলহ চলছে। সেই ঘটনা থেকে তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন।


আরও খবর

জেনে নিন রাজধানীতে কখন কোথায় লোডশেডিং

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




বিজয়া দশমী আজ

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শারদীয় দুর্গাপূজায় আজ বিজয়া দশমী। পাঁচ দিনব্যাপী শারদ উৎসবের শেষ দিন। প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় এ উৎসব।

বিসর্জনের দিনে ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে সকাল ৯টা ৫৭ মিনিটের মধ্যে দশমীর বিহিত পূজা এবং পূজা শেষে দর্পণ বিসর্জন। দুপুর ১২টায় রয়েছে স্বেচ্ছায় রক্তদান। বিকাল ৪টায় রয়েছে বিজয়া শোভাযাত্রা। শারদীয় দুর্গাপূজার বিজয়া দশমী উপলক্ষ্যে আজ সরকারি ছুটির দিন।

বিজয়া দশমীতে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মাঝে অন্যরকম আবেগ ও মন খারাপ করা এক অনুভূতির সৃষ্টি হয়। কারণ, দশমী মানেই দুর্গা মায়ের ফিরে যাওয়া। অপেক্ষায় থাকতে হবে আরও একটি বছর।

মঙ্গলবার মণ্ডপে মণ্ডপে মহানবমীতে দেবীর বন্দনায় ভক্তকুলে ছিল ভিন্ন এক আবহ। ঢাকঢোল, কাঁসর-ঘণ্টাসহ বিভিন্ন বাদ্য, ধূপ আরতি ও দেবীর পূজা-অর্চনায় ছিল প্রাণখোলা উচ্ছ্বাস। সেই সঙ্গে ছিল এক মানবিক ও সুন্দর পৃথিবীর প্রার্থনা। এদিন সকাল থেকে ঢাকাসহ সারা দেশের মণ্ডপে মণ্ডপে শুরু হয় আনুষ্ঠানিকতা। পুরাণ মতে, এ তিথিতে দেবী দুর্গার আশীর্বাদ নিয়ে লঙ্কার রাজা রাবণকে বধ করেছিলেন দশরথ পুত্র শ্রীরামচন্দ্র। এছাড়া ১০৮টি নীলপদ্ম দিয়ে দেবী দুর্গার পূজা করেছিলেন রামচন্দ্র। তাই এ মহানবমীতে ষোড়শ উপাচারের সঙ্গে ১০৮টি নীলপদ্মে পূজিত হয়েছেন দেবী দুর্গা।

মহানবমীর দিনে দেবী দুর্গাকে প্রাণভরে দেখে নেওয়ার সময়। দুর্গাপূজার অন্তিম দিন বলা যায় মহানবমীর দিনটিকে। পরের দিন কেবল বিজয়া ও বিসর্জনের পর্ব। মহাষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে গত শনিবার শুরু হয় পাঁচ দিনব্যাপী সার্বজনীন শারদীয় দুর্গোৎসব। সনাতনী শাস্ত্র অনুযায়ী, এবার দেবীদুর্গা জগতের মঙ্গল কামনায় গজে (হাতি) চড়ে মর্ত্যলোকে এসেছেন। এতে প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঝড়বৃষ্টি হবে এবং শস্য ও ফসল উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে। অন্যদিকে, স্বর্গে বিদায় নেবেন নৌকায় চড়ে। ফলে জগতের কল্যাণ সাধিত হবে।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ সূত্র থেকে জানা যায়, এবার সারা দেশে ৩২ হাজার ১৬৮টি মণ্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপন হচ্ছে। এসব মণ্ডপে নির্বিঘ্নে উৎসব উদযাপনের জন্য প্রশাসনের পাশাপাশি প্রতিটি পূজা উদযাপন কমিটিও নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে। মণ্ডপে মণ্ডপে লাগানো হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা। এছাড়া আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সূত্র জানান, এ বছরের শারদীয় দুর্গোৎসব যেন শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপিত হয় সেজন্য কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। রাজধানীসহ সারা দেশের মণ্ডপে নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য পুলিশের বিশেষ ব্যবস্থা রয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: বিজয়া দশমী

আরও খবর

আজ কৈলাসে ফিরবেন দেবী

বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২




ওয়ার্ক পারমিট নেই বলিউডে যুক্ত ৯০ শতাংশ বিদেশির!

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২ | ৬৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অন্য দেশ থেকে এসে বলিউডে কাজ করছেন অনেকে। বলিউডে কাজ করা এসব বিদেশীর ৯০ শতাংশের কাছেই বৈধ অনুমোদন (ওয়ার্ক পারমিট) নেই। এমনটিই দাবি করেছে ভারতীয় সিনেমার কলাকুশলীদের ইউনিয়ন। তারা বলছেন, বিদেশ থেকে আসা ওই পেশাদারদের জন্য অনেক ভারতীয় কাজ হারাচ্ছেন বলিউডে। অথচ যাদের জন্য তাদের এই দুরবস্থা, তারা আইনতভাবে বলিউডে কাজ করতেই পারেন না।

তথ্যপ্রযুক্তি ও টেলিকম ক্ষেত্রের মতো ভারতীয় সিনেমা জগতেও সম্প্রতি বিদেশি পেশাদারদের ওপর নির্ভরতা বেড়ে গেছে। সংবাদ সংস্থা পিটিআইয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বলিউডে সিনেমাটোগ্রাফি, নির্দেশনা, প্রযোজনা, চিত্রনাট্য লেখা থেকে শুরু করে জুনিয়র শিল্পী, নৃত্যশিল্পী, রূপটান শিল্পী, হেয়ার স্টাইলিস্ট, অ্যাকশন ডিরেক্টর, স্টান্টম্যান, কস্টিউম ডিজাইনার, আর্ট ডিরেক্টর সব ক্ষেত্রেই বিদেশি নিয়োগের প্রবণতা ইদানিং বেড়েছে। মূলত ব্রিটেন, রাশিয়া এবং উজবেকিস্তানের পেশাদারদের ওই কাজে নিয়োগ করা হয়ে থাকে। তার কারণ মূলত দুটি। প্রথমত, বহু প্রতিভা চেখে দেখে কাজের সঠিক লোকটি খুঁজে বের করা। দ্বিতীয়ত, এতে আর্থিকভাবেও উপকৃত হয় ভারতীয় চলচ্চিত্র শিল্প।

যদিও সেই দাবি মানতে নারাজ ইউনিয়নগুলো। ফেডারেশন অব ওয়েস্টার্ন ইন্ডিয়া সিনে এমপ্লয়িজ-এর চেয়ারম্যান অশোক দুবে বলেন, ছবি বানানোর কাজের সঙ্গে কারা যুক্ত থাকবেন, তা মূলত ঠিক করেন প্রযোজকেরা। বিদেশিদের নিয়োগ করার ফলে আমাদের দেশের লোক কাজ পাচ্ছেন না। শুধু তা-ই নয়, অধিকাংশ বিদেশিই ভিসা সংক্রান্ত নিয়মকানুনের তোয়াক্কা না করে বেআইনি ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। অশোকের দাবি, প্রায় ৯০ শতাংশ বিদেশি পেশাদার বেআইনিভাবে এ দেশে কাজ করছেন। তাদের কাছে যথাযথ কাগজপত্রও নেই। এ নিয়ে তিনি মুম্বাই পুলিশেরও দ্বারস্থ হয়েছেন বলে জানান। পুরো বিষয়টা একাধিকবার মুম্বাই পুলিশের নজরে এনেছি আমরা। কিন্তু আমাদের কথায় কোনো গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। আমাদের ইউনিয়নে অন্তত তিন লাখ পেশাদার রয়েছেন। আমরা তাদের জন্য লড়ে যাব।

মূলত, ভারতে পাকিস্তানি অভিনেতাদের বিরুদ্ধে যেভাবে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে, সেভাবে কেন অন্য দেশের পেশাদারদের বিরুদ্ধেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে না, সেই প্রশ্নও তুলেছেন কেউ কেউ। বিজেপি চিত্রপট ইউনিয়নের সভাপতি সন্দীপ ঘুগেও বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তার কথায়, ভারতীয় কলাকুশলীদের প্রতি এটা অবিচার ছাড়া আর কিছু নয়। পর্যটকের ভিসা নিয়ে এ দেশে এসে কাজ করে যাচ্ছেন বিদেশিরা। আমি মুম্বাই পুলিশ এবং ফরেনার্স রেজিস্ট্রেশন অফিসে যোগাযোগ করেছি। কিন্তু কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।

নিউজ ট্যাগ: বলিউড

আরও খবর

দুরন্তপনার ৫ বছর

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২