শিরোনাম

শামীম ওসমানের সমর্থন নিয়ে চিন্তিত নই: আইভী

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, এমপি শামীম ওসমান কার পক্ষে কাজ করবেন, কাকে সমর্থন দেবেন তা নিয়ে চিন্তিত নই। আর তৈমূর আলম খন্দকার বলেছেন, নারায়ণগঞ্জকে সিন্ডিকেট করে কারা গডফাদার হয়ে উঠেছে তা সবাই জানে।

এদিকে বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে এমপি শামীম ওসমান বলেছেন, এতদিন যেভাবে নামা উচিত ছিল সেভাবে নামেনি। তবে আজ থেকে ইনশাআল্লাহ সেভাবে নামলাম প্রচারণায়।

নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে প্রচারণা ততই তুঙ্গে। ৫ দিন পরেই নগরে নির্বাচন তাই উৎসবের মাত্রা যেন একটু বেশিই।

সোমবার (১০ জানুয়ারি) সকালে বন্দরের ২১ নম্বর ওয়ার্ডে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন নৌকার মেয়র প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী। এ সময় তিনি বলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার গডফাদারের পৃষ্ঠপোষকতায় নির্বাচনে নেমেছেন।

আইভী আরও বলেন, তিনি তো (তৈমূর আলম) গডফাদারের কোলে যেয়েই বসে আছেন, উনি তো গডফাদারের বাইরের কেউ নয়, গডমাদার উনি যে আমাকে বলেছেন, সেটা খারাপ কাজ করেছেন। কারণ তাকে আমি এ ধরনের কথা বলিনি। উনি আশ্রয় নিয়েছে তাদের কাছে সেই কথাটাই বলেছি।     

এর আগে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জের ২নং রেলগেট এলাকায় আওয়ামী লীগ অফিসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়ে আইভী বলেন, শামীম ওসমানের শেখানো কথাই বলেন তৈমূর। এলাকার এমপি কার পক্ষে কাজ করবেন তা নিয়ে চিন্তিত নই।

তিনি আরও বলেন, বিগত দেড় থেকে দুই বছর যাবত শামীম ওসমান এ জায়গা তৈরি করেছে আমার বিরুদ্ধে। শামীম ওসমান যে কথাগুলো বলেছেন কাল সেই কথাগুলো তোতা পাখির মতো তিনি (তৈমূর আলম) উচ্চারণ করেছেন। তিনি কিসের পক্ষে প্রচারণা করবেন জানি না, আমার জানার প্রয়োজন নেই। আমার সমর্থন জনগণ। এখানে দলের সিদ্ধান্তের বাইরে কেন গিয়েছে তা আমি জানি না। তিনি কি করবেন তাও আমি জানি না। সমর্থন দিল বা দিল না সেটা কি খুব বেশি পার্থক্য হয়ে যাচ্ছে।     

এদিকে বন্দরের মদনপুর এলাকায় প্রচারণা চালাতে গিয়ে তৈমূর আলম বলেন, আইভী যা বলছেন তা মনগড়া। গডফাদার আর গডমাদার সম্পর্কে সবাই জানে। 

তৈমূর আলম বলেন, আইভী যা বলেছেন এতে যে তার দলের মধ্যে বিরাট ফাঁকফোকর রয়েছে এটা জনগণের কাছে স্পষ্ট। তারাই তাদের লোকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে। আর তৈমূর আলম খন্দকার জনগণকে নিয়ে মাঠে কাজ করছেন। 

আর নগরবাসী বলছেন, টেকসই উন্নয়ন চান তারা। নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে দুই প্রধান প্রার্থীই সোমবার বন্দর এলাকার বিভিন্ন ওয়ার্ডে জনসংযোগ চালান।

বিকেলে পূর্বনির্ধারিত ঘোষণা অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জের চাষাড়ার একটি কমিউনিটি সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এমপি শামীম ওসমান বলেন, আই অ্যাম দ্যা স্টর্ম! আর এ ঝড়কে চাপা দেওয়া যায় না। এভাবেই সংবাদ সম্মেলনে নানা সমালোচনার জবাব দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ চার আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান। বলেছেন আজকে থেকে নৌকার পক্ষে নামলাম, জয় নৌকার হবেই। জয়ের পর সব প্রশ্নের উত্তর দেয়া হবে আইভীকে।

সিটি করপোরেশন নির্বাচন সামনে রেখে একজন আইনপ্রণেতা হিসেবে সংবাদ সম্মেলনে করায় ক্ষমা চেয়ে নেন নির্বাচন কমিশনের কাছে।

আগামী ১৬ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনর অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর



ছাত্র আন্দোলনের নেতা থেকে চিলির সর্বকনিষ্ঠ প্রেসিডেন্ট

প্রকাশিত:সোমবার ২০ ডিসেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চিলির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন গ্যাব্রিয়েল বোরিক। ৩৫ বছর বয়সী বোরিক চিলির ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ প্রেসিডেন্ট। বামপন্থী এই রাজনীতিক সরকারবিরোধী আন্দোলন করে খ্যাতি অর্জন করেন। আন্দোলন-সংগ্রামে যুক্ত হয়ে পড়াশোনাও শেষ করতে পারেননি। এখন তিনিই হতে যাচ্ছেন চিলির ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ প্রেসিডেন্ট।

আল-জাজিরা ও গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, চিলির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন গ্যাব্রিয়েল বোরিক। নির্বাচনে বামপন্থী আদর্শের অনুসারী বোরিক ৫৬ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী পেয়েছেন ৪৪ শতাংশ ভোট। প্রায় ৯৯ শতাংশ ভোটকেন্দ্রের ফলাফলে এমনটাই দেখা যাচ্ছে।

চিলির নির্বাচনে ডানপন্থী রক্ষণশীল নেতা জোসে অ্যান্তোনিও কাস্ত পরাজিত হয়েছেন রোরিকের কাছে। আগামী মার্চে চিলির প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব গ্রহণ করবেন তিনি।

ছাত্র থাকাকালেই অধিকার আদায়ের আন্দোলনে সফলভাবে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন গ্যাব্রিয়েল বোরিক। পড়াশোনা শেষ না করলেও রাজনীতির ময়দানে সফলতা দেখিয়েছেন বোরিক। ২০১৩ সালে তিনি চিলির কংগ্রেসে নির্বাচিত হন এবং দুই মেয়াদে ডেপুটি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

বোরিক চিলিতে ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ করতে চান, চিলিকে কল্যাণমূলক রাষ্ট্রে পরিণত করতে চান। পাশাপাশি পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর ভাগ্য উন্নয়নে রাষ্ট্রীয় বরাদ্দ বাড়াতে চান। অগাস্তে পিনোশে যে একনায়কত্ব কায়েম করেছিলেন সেই জায়গা থেকে দেশকে বের করে আনতে চান।

চিলিতে অর্থনৈতিক বৈষম্যের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালে বেশ কয়েক মাস বিক্ষোভ চলে। এরপর প্রথমবার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোট হলো। এ ভোটের কারণে অবশেষে সংবিধান সংস্কারের পথ তৈরি হয়েছে।


আরও খবর

আবুধাবিতে ড্রোন হামলায় তিনজন নিহত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




শিল্পকলার আয়-ব্যয়ের তথ্য চেয়ে ডিজিকে দুদকের নোটিশ

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৭০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির গত দুই অর্থবছরের বাজেট, ব্যয় এবং ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের নথিপত্র চেয়ে প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক (ডিজি) লিয়াকত আলী লাকীকে নোটিশ পাঠিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সংস্থাটির ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন বুধবার (৫ জানুয়ারি) দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে এই নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

নোটিশে ২০১৯-২০ অর্থবছরে শিল্পকলা একাডেমির বরাদ্দ বাজেট এবং ব্যয় সংক্রান্ত রেকর্ডপত্র সংবলিত নথির ফটোকপি ডিজির কাছে চাওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির ২০২০-২১ অর্থবছরে বরাদ্দ বাজেট এবং ব্যয় সংক্রান্ত রেকর্ডপত্র সংবলিত নথির ফটোকপি এবং অব্যয়িত ৩৫ কোটি টাকাসহ গত বছরের ৩০ জুন ব্যয়করণ সংক্রান্ত রেকর্ডপত্র চাওয়া হয়েছে।

এছাড়া ২০২০-২১ অর্থবছরে ভার্চুয়াল অনুষ্ঠান আয়োজন সংক্রান্ত রেকর্ডপত্র সংবলিত নথির ফটোকপি চাওয়া হয়েছে। ২০১৯-২০২০ অর্থবছর থেকে ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ তারিখ পর্যন্ত ব্যয় সংক্রান্ত বিভিন্ন ভাউচার, ক্যাশবই এবং শিল্পকলা একাডেমির নামীয় সোনালী ব্যাংক, সেগুনবাগিচা শাখা থেকে ব্যাংক স্টেটমেন্টের কপি চাওয়া হয়েছে শিল্পকলা ডিজির কাছে।

লিয়াকত আলী লাকীকে আগামী ১১ জানুয়ারির মধ্যে এসব তথ্য দুদকের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ইব্রাহিমের কাছে জমা দিতে বলা হয়েছে নোটিশে।

গত সোমবার শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহণ, ক্ষমতার অপব্যবহার, বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতিসহ ভুয়া বিল ভাউচারের মাধ্যমে শত কোটি টাকা আত্মসাতসহ বিপুল পরিমাণ অর্থ বিদেশে পাচারের অভিযোগ অনুসন্ধানের জন্য টিম গঠন করে দুদক।

দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ইব্রাহিম ও সহকারী পরিচালক আফনান জান্নাত কেয়ার সমন্বয়ে টিম গঠন করা হয়েছে এবং পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনকে তদারককারী কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

দুদকে আসা অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, প্রায় এক যুগ ধরে শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালকের দায়িত্বে থাকা লিয়াকত আলী লাকী অনিয়মের মাধ্যমে সরকারি তহবিল থেকে ২৬ কোটি টাকা তুলে নেন।

অভিযোগে বলা হয়, ২০২১ সালের ৩০ জুন শিল্পকলা একাডেমির আগের সচিব নওশাদ হোসেন বদলি হন। সেদিনই নতুন আদেশ জারি করে একাডেমির চুক্তিভিত্তিক পরিচালক সৈয়দা মাহবুবা করিমকে সচিবের দায়িত্ব দেন শিল্পকলার ডিজি। ৩০ জুন থেকে ১৯ জুলাই পর্যন্ত প্রায় ২৬ কোটি টাকা বিভিন্ন কৌশলে উত্তোলন করেন লাকী। পরস্পর যোগসাজশে এই অনিয়ম সংঘটিত হয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান।

লিয়াকত আলী লাকীর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের মধ্যে আরও রয়েছে সঙ্গীত বিভাগের কক্ষে ব্যবহারের জন্য পর্দা, ক্রোকারিজ ও ফার্নিচার না কিনে ভুয়া ভাউচারের মাধ্যমে অর্থ বরাদ্দ, ডান্স এগেইনস্ট করোনা কর্মসূচির আওতায় নৃত্যদলের সম্মানী, হার্ডডিস্ক ক্রয়, ডকুমেন্টেশন, প্রপস-কস্টিউম, প্রচার ও বিবিধ ব্যয় দেখিয়ে মোটা অঙ্কের বরাদ্দ দেন তিনি।


আরও খবর



‘মেজর জিয়া ও আকরাম অন্য দেশে গা ঢাকা দিয়েছে’

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ ডিসেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ব্লগার অভিজিৎ হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্ত হয়েছে। আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের একটি গ্রুপ এই হত্যাকাণ্ডে অংশগ্রহণ করেছে। ওই সময় আমাদের দেশে জঙ্গিগোষ্ঠীর উত্থান হয়েছিল। তবে আমাদের দেশের নিরাপত্তায় যারা আছে তারা জঙ্গিদের সকল কর্মকাণ্ড ব্যর্থ করে দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) বিকেল ৩টার দিকে মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলা পরিষদের সামনে মুক্তিযোদ্ধার ভাস্কর্য উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড ও একজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মেজর জিয়া ও আকরামকে আমরা খুঁজছি। কিন্তু আমাদের কাছে তথ্য আছে তারা অন্য কোনো দেশে গা ঢাকা দিয়ে আছে।

এ সময় ঢাকা-২০ আসনের সংসদ সদস্য বেনজির আহমেদ, মানিকগঞ্জ -১ আসনের সংসদ সদস্য নাঈমুর রহমান দূর্জয়, জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ গোলাম আজাদ খান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট গোলাম মহীউদ্দীন, মানিকগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. রমজান আলী, জেলা পরিষদের নির্বাহী প্রধান দুর-রে শাহওয়াজ, হরিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাইফুল ইসলামসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



ডেঙ্গুতে আক্রান্ত আরও ৯ জন হাসপাতালে

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আরও নয়জন আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকায় চারজন। ঢাকার বাইরে পাঁচজন আক্রান্ত হয়েছেন।

আজ রোববার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার এবং কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গুবিষয়ক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯০ জন। এর মধ্যে ঢাকার ৪৬টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছে ৫৯ জন এবং অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছে ৩১ জন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, গত ১ জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ২৮ হাজার ১৬৩ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছে ২৮ হাজার ৩৫৭ জন। এ ছাড়া ডেঙ্গুতে এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ১০৪ জনের।

 


আরও খবর

দেশে মোট ৫৫ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




বাংলাদেশকে ৮৫০ কোটি টাকা ঋণ দেবে দ. কোরিয়া

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ ডিসেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

এ ঋণের বাৎসরিক সুদের হার হবে ০.০৫ শতাংশ। ১৫ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ (এই সময়ে ঋণের আসল বা সুদ পরিশোধ করতে হবে না) মোট ৪০ বছরের মধ্যে এই ঋণ ফেরত দিতে হবে।

বাজেট সহায়তার অংশ হিসেবে বাংলাদেশকে ১০০ মিলিয়ন ডলার ঋণ দিতে যাচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়া। বাংলাদেশি মুদ্রায় এই অর্থের পরিমাণ ৮৫০ কোটি টাকার বেশি। অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগে (ইআরডি) সোমবার এ বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে একটি ঋণ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

এতে স্বাক্ষর করেন ইআরডির এশিয়া, জেইসি ও এফঅ্যান্ডএফ অনুবিভাগ প্রধান মো. শাহ্‌রিয়ার কাদের ছিদ্দিকী; দক্ষিণ কোরিয়া সরকারের পক্ষে সই করেন কোরিয়া এক্সিম ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর কিম টে-সো।

বলা হয়েছে, অর্থ বিভাগ কর্তৃক প্রোগ্রাম লোন ফর সাসটেইনেবল ইকোনমিক রিকভারি প্রোগ্রাম (সাবপ্রোগ্রাম-১) এর আওতায় এই ঋণ পাবে বাংলাদেশ। দক্ষিণ কোরিয়া সরকারের ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট কো-অপারেশন ফান্ড (ইডিসিএফ) হতে বাংলাদেশকে এ ঋণ দেয়া হচ্ছে।

এ ঋণের বাৎসরিক সুদের হার হবে ০.০৫ শতাংশ। ১৫ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ (এই সময়ে ঋণের আসল বা সুদ পরিশোধ করতে হবে না) মোট ৪০ বছরের মধ্যে এই ঋণ ফেরত দিতে হবে। ইআরডি জানায়, এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারের ঘাটতি বাজেটের জন্য বৈচিত্র্যময় উৎস সৃষ্টি হবে।

প্রোগ্রামের আওতায় ইসলামিক ব্যাংকগুলোকে সরকারের ঋণ গ্রহণ কার্যক্রমে অন্তর্ভুক্তি করা, ডিজিটালাইজেশনসহ উন্নত কর ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে কর ফাঁকি রোধ করা, ভ্যাট আদায় নিশ্চিত করা, কর দাতার সংখ্যা বৃদ্ধির মাধ্যমে আয়করের পরিমাণ বাড়ানো, দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে উন্নত কর সেবা প্রদান, উইথহোল্ডিং করের জন্য ডিজিটালাইজেশনের মাধ্যমে উন্নত ব্যবস্থাপনা, করোনার প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত উদ্যোক্তাদের সহায়তা এবং অর্থনীতির গতি পুনরুদ্ধারে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।

নিউজ ট্যাগ: দক্ষিণ কোরিয়া

আরও খবর