Logo
শিরোনাম

সেনা অভিযানে মিয়ানমারের রাষ্ট্রপতি ও অং সান সু চি আটক

প্রকাশিত:সোমবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | ৬৬২জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী দেশটির রাষ্ট্রপতি উইন মিন্ট ও ক্ষমতাসীন দলের নেত্রী অং সান সু চিসহ শাসক দলের শীর্ষ কয়েকজন নেতাকে আটক করেছে। আজ সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) ভোরে সেনাবাহিনীর অভিযানে তাদের আটক করা হয়। খবর রয়টার্সের।

ক্ষমতাসীন দলের মুখপাত্র মায়ো নিউন্ট সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে জানান, অং সান সু চি, রাষ্ট্রপতি উইন মিন্ট এবং অন্যান্য শীর্ষ নেতাদের সোমবার ভোরে আটক করা হয়েছে। আমি জনগণকে উত্তেজিত প্রতিক্রিয়া না দেখানোর আহ্বান জানাই। তারা যেন আইন অনুসারে প্রতিক্রিয়া জানায়।

বিবিসির বার্মিজ সার্ভিসের খবরে বলা হয়েছে, নেপিটোয় টেলিফোন ও ইন্টারনেট লাইন বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে। রাজধানী নেপিটো এবং প্রধান শহর ইয়াঙ্গুনের রাস্তায় সৈন্যরা নেমে পড়েছে। সেনা সদস্যরা বেশ কয়েকটি অঞ্চলের মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেছে।

দেশটির সামরিক বাহিনী গত বছরের নভেম্বরে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ব্যাপক ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তোলে। সেনাবাহিনী নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করে সোমবার বসতে যাওয়া সংসদ অধিবেশন বাতিলের দাবি জানায়।

অং সান সু চির নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) নভেম্বরের নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় পায়। তবে সেই নির্বাচনে সংঘাতপূর্ণ অঞ্চলের ভোটারদের ভোট বঞ্চিত করার সমালোচনা করেছিল মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলো।

নিউজ ট্যাগ: অং সান সু চি
Share

আরও খবর



মাদক মামলা থেকেও ইরফানকে অব্যাহতি

প্রকাশিত:সোমবার ০১ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১ | ৫৩জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মাদক আইনে করা মামলায় ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ছেলে ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৩০ নম্বর ওয়ার্ড (বরখাস্ত) কাউন্সিলর ইরফান সেলিমকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১ মার্চ) ঢাকা মহানগর হাকিম শাহিনুর রহমান চূড়ান্ত প্রতিবেদন গ্রহণ করে তাকে অব্যাহতি দেন।

৫ জানুয়ারি ইরফানকে অব্যাহতির সুপারিশ করে মাদক ও অস্ত্র মামলায় চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন পরিদর্শক মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি অস্ত্র মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদনটি গ্রহণ করে ওই মামলা থেকে ইরফান সেলিমকে অব্যাহতি দেন আদালত।

গত বছরের ২৫ অক্টোবর নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমদ খান মোটরসাইকেলে করে যাচ্ছিলেন। এ সময় হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিমের গাড়ি তাকে ধাক্কা মারে। এরপর তিনি সড়কের পাশে মোটরসাইকেল থামিয়ে গাড়ির সামনে দাঁড়ান এবং নিজের পরিচয় দেন। তখন গাড়ি থেকে নেমে ইরফান সেলিম ও তার সঙ্গে থাকা অন্যরা তাকে কিল-ঘুষি মারেন এবং হত্যার হুমকি দেন। তার স্ত্রীকেও অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করেন অভিযুক্তরা।

পরদিন (২৬ অক্টোবর) সকালে ইরফান সেলিম, তার দেহরক্ষী মো. জাহিদুল মোল্লা, এ বি সিদ্দিক দিপু এবং গাড়িচালক মিজানুর রহমানসহ অজ্ঞাত দু-তিনজনকে আসামি করে ধানমন্ডি থানায় মামলা করেন ওয়াসিফ আহমদ খান। ওই দিনই পুরান ঢাকার বড় কাটরায় ইরফানের বাবা হাজী সেলিমের বাড়িতে দিনভর অভিযান চালায় র‍্যাব। এ সময় র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত মাদক রাখার দায়ে ইরফান সেলিমকে এক বছর কারাদণ্ড দেন। ইরফানের দেহরক্ষী মো. জাহিদকে ওয়াকিটকি বহন করার দায়ে দেন ছয় মাসের সাজা।

 

নিউজ ট্যাগ: ইরফান সেলিম
Share

আরও খবর



বিশ্বে প্রথম দ্রুতগতির ফাইভজি নেটওয়ার্ক চালু

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | ৪৫জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে দ্রুতগতির ফাইভজি সেবা চালু করল রাশিয়া। রাশিয়ান টেলিকম অপারেটর এমটিএস জানিয়েছে, তারা রাজধানীর মস্কো ও এর আশপাশের ১৪টি এলাকায় ফাইভজি নেটওয়ার্ক স্থাপন করেছে। এলাকাগুলোর মধ্যে মস্কোর জনপ্রিয় গোর্কি পার্ক, মস্কোর স্টেট ইউনিভার্সিটি এলাকা ও মস্কো সিটি ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস সেন্টার অন্যতম।

 এ বিষয়ে এমটিএসের সভাপতি আলেক্সি কর্নিয়া জানান, দফায় দফায় পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানোর পর প্রথমবারের মতো রাশিয়ায় বড় পরিসরে ফাইভজি সেবা চালু করেছি আমরা, যা আমাদের হাজার হাজার গ্রাহককে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা নিশ্চিত করবে।

এমটিএস জানিয়েছে, নতুন প্রজন্মের এই নেটওয়ার্কে সেকেন্ডে এক দশমিক পাঁচ গিগাবাইট গতিতে ডাটা ডাউনলোড করতে পারবে ব্যবহারকারীরা। ফলে ১০ গিগাবাইটের কোনো সিনেমা বা ফাইল ডাউনলোড করা যাবে এক মিনিটেরও কম সময়ে। তবে চাইলেই গ্রাহকরা ফাইভজি সেবা পাবেন না।

এমটিএস জানিয়েছে, ফাইভজি কাভারেজ আছে এমন এলাকা বা কাছাকাছি এলাকায় যখন যেসব গ্রাহক অবস্থান করবে, তখন তাদের খুদেবার্তা পাঠিয়ে পঞ্চম প্রজন্মের টেলিকম সেবা ব্যবহারের আমন্ত্রণ জানানো হবে। দ্রুত মোবাইল ইন্টারনেট ছাড়াও, ভবিষ্যতে ফাইভজি নেটওয়ার্ক নগরীর পরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়ন ও সুরক্ষা নিশ্চিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে আশা করছে টেলিকম সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানটি।

শিগগিরই ফাইভজি নেটওয়ার্কের আওতায় আরো নতুন নতুন এলাকাকে সংযুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছে এমটিএস কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া এই গ্রীষ্মেই রাশিয়ার বন্দরনগরী সেন্ট পিটার্সবাগের অন্তত ১০টি এলাকায় ফাইভজি সেবা চালুর ঘোষণাও দিয়েছে টেলিকম সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানটি।

ফাইভজি চালু ও সেবা প্রদানে বিশ্বে প্রথম সারিতে থেকে নেতৃত্ব দিতে চায় রাশিয়া। ২০২৪ সালের মধ্যে অন্তত ১০টি বড় শহরে পঞ্চম প্রজন্মের টেলিকম সেবা চালু করতে চায় দেশটি। পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলে এই সময়ে পাঁচ মিলিয়ন মানুষ ফাইভজি সেবার আওতায় আসবে। ২০৩০ সালের মধ্যে রাশিয়ার জনসংখ্যার এক তৃতীয়াংশেরও বেশি ফাইভজি সেবার আওতায় আসবে। দেশটিতে ফাইভজি গ্রাহক সংখ্যা পাঁচ কোটিতে দাঁড়াবে বলে আশা করছে রুশ কর্তৃপক্ষ।

Share

আরও খবর

মোবাইল চুরি করে আর পার পাবে না চোর

মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১




চার লেন হচ্ছে নওগাঁর প্রধান সড়ক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ মার্চ 2০২1 | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | ৭০জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
নওগাঁর ঢাকা রোডের মোড় থেকে চৌমাশিয়ার (নওহাটা) মোড় পর্যন্ত সাড়ে ১৬ কিলোমিটার সড়কটি ৪লেনে উন্নীত করার পরিকল্পনার গ্রহন করেছে নওগাঁ সড়ক ও জনপদ বিভাগ

তিলোত্তমা শহর নওগাঁ, ছোট যমুনা নদী বিভক্ত করেছে এই নওগাঁ শহরকে। মূলত ছোট যমুনা নদীকে ঘিরেই গড়ে উঠেছে তিলোত্তমা এই শহর। আর শহরে চলাচলের জন্য একটি প্রধান সড়কই ভরসা। দিন যতই যাচ্ছে ততই নওগাঁ শহরে বসতি সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। বৃদ্ধি পাচ্ছে ছোট ছোট যানবাহন কিন্তু সেই তুলনায় আধুনিকায়ন হচ্ছে না শহরের অভ্যন্তরের বড়-ছোট জনগুরুত্বপূর্ন সড়কগুলো। যার কারণে ছুটির দিন বাদে শহরের যে কোন রাস্তা কিংবা সড়কে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত যানযান জট লেগেই থাকে। শহরকে এই যানজট মুক্ত করার লক্ষ্যে শহরের প্রধান সড়ক প্রসস্থ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে নওগাঁ সড়ক ও জনপদ বিভাগ।

১৮৭৭ সালে নওগাঁ মহকুমা গঠিত হয়। এরপর প্রায় ১০৭ বছর পর ১১টি উপজেলা নিয়ে ১৯৮৪ সালের ১মার্চ নওগাঁ জেলায় রুপান্তর হয়। নওগাঁ শহর থেকে ৫কিলোমিটার দূরে সান্তাহার রেল জংশন স্থাপন হলে তা মূলত ছিলো নওগাঁর জন সাধারণের চলাচলকে কেন্দ্র করে। সান্তাহারে রেল চলাচল শুরু হলে নওগাঁর গুরুত্ব আরো বেড়ে যায়। প্রয়োজন দেখা দেয় পাকা সড়কের। তখন রাজশাহী জেলা বোর্ডের উদ্যোগে সান্তাহার থেকে একটি প্রসস্থ সড়ক নির্মান করা হয় মহাদেবপুর পর্যন্ত। সড়কটি ছিল প্রথম দিকে সুরকী বিছানো সড়ক। অনেক পরে সড়কটি সান্তাহার থেকে নওগাঁর কাজীর মোড় পর্যন্ত কনক্রিট করা হয়। বিভিন্ন সময় ধীরে ধীরে সড়কটি তার রুপ পাল্টাতে থাকে। এরপর বর্তমান অবস্থায় এসে পৌঁছে। কিন্তু ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যা ও যান চলাচল বৃদ্ধি পাওয়ায় এই সড়কটি এখন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

নিত্যদিন অসহনীয় যানজট আর ফুটপাত বিহীন সড়কটি নওগাঁ শহরবাসীর জন্য আগে ছিল বিড়ম্বনার এখন তা হয়ে উঠেছে গলার কাটা। শত শত সিএনজি চালিত থ্রি হুইলার, ব্যাটারী চালিত ইজিবাইক, বউ সোহাগী, রিক্সা, মটর সাইকেল, বাস, ট্রাকসহ নানান যানবাহনের জটে শহরটি যেনো দিন দিন মরন ফাঁদে পরিণত হচ্ছে। ছোট বড় দূর্ঘটনা এখন প্রতিদিনের বিষয়। স্কুল কলেজগামী শিক্ষার্থী ও পথচারীরা হয়ে পড়েছে ওই যানজটের অন্যতম শিকার। এই দূর্ভোগ থেকে উত্তরনের একমাত্র উপায় হচ্ছে সড়ক প্রসস্থকরন।

বহুবছর ও বহু কাটখড় পোড়ানোর পর নওগাঁর মানুষের দীর্ঘদিনের দাবীর পরিপ্রেক্ষিতে প্রধান সড়কটি দুই লেন করা হলেও তা মূল শহরের কিছু ব্যক্তি মালিকানার স্থাপনার কারণে দুই লেনের জন্য যে জায়গার প্রয়োজন তাও করা সম্ভব হয়নি। এবার নওগাঁবাসীর জন্য সুখবর বয়ে আনছে নওগাঁ সড়ক ও জনপদ বিভাগ। নওগাঁর ঢাকা রোডের মোড় থেকে চৌমাশিয়ার (নওহাটা) মোড় পর্যন্ত সাড়ে ১৬ কিলোমিটার সড়কটি ৪লেনে উন্নীত করার পরিকল্পনার গ্রহন করেছে নওগাঁ সড়ক ও জনপদ বিভাগ। সড়কের প্রয়োজনে নির্মাণ করা হবে, ব্রীজ, কালর্ভাট, ড্রেন, ফুটপাত ও রোড ডিভাইডারসহ নানান অবকাঠামো। মোট ১০০ ফুট প্রসস্থ হবে বর্তমান সড়কটি। আগামী ১মাসের মধ্যে এ সংক্রান্ত ডিপিপি সাবমিট করা হবে বলে সওজ অফিস সূত্রে জনা গেছে।

অপরদিকে শহরের মধ্যে ছোট যমুনা নদীর উপরের লিটন সেতুটি ২লেনের। বর্তমান লিটন সেতুটি ব্যাপক সংস্কারের আওতায় আনা হবে। এই সেতুর আদলে পাশে আরেকটি নতুন সেতু নির্মাণ করা হবে। একই ভাবে শহরের অপর তুলশী গঙ্গা নদীর উপর ২লেনের যে সেতুটি আছে তার পাশে আরো একটি ২লেনের সেতু নির্মান করা হবে। সড়কটি চার লেনে উন্নীত করতে গিয়ে সড়কের দু’ধারে ব্যক্তি মালিকানাধীন যে জমি ও অবকাঠামো অধিগ্রহন করা হবে তারা জমির মূল্যবাবদ ৩গুণ ও অবকাঠামোর জন্য ২গুন অর্থ পাবেন।

নওগাঁ সওজ সূত্রে জনা গেছে, নওগাঁ সদর আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দীন জলিল জন ও নওগাঁ-৪ (মহাদেবপুর-বদলগাছী) আসনের সংসদ সদস্য ছলিম উদ্দীন তরফদার সেলিম নওগাঁ সড়ক বিভাগকে গত বছর নভেম্বর মাসের দিকে সড়ক প্রসস্থকরণ বিষয়ে একটি ডিও লেটার দেন। এই বিষয়ে একই মতামত ব্যক্ত করেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি। এরপর সড়ক বিভাগ ডিপিপি প্রস্তুতির কাজে হাত দেয়। ডিপিপির কাজ শেষ হয়েছে এবং আগামী ১মাসের মধ্যে তা সাবমিট করা হবে। এতে প্রাথমিক ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ৯শ কেটি টাকা।

নওগাঁ সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সাজেদুর রহমান সাজিদ জানান, এই বিষয়ে সাংসদ মহোদয়গনের কাছ থেকে ডিও লেটার পাওয়ার পর একটি প্রাথমিক পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে। নওগাঁর পশ্চিম ঢাকা রোড (বাইপাস মোড়) থেকে মহাদেবপুর উপজেলার চৌমাশিয়া মোড় পর্যন্ত সাড়ে ১৬কিলোমিটার সড়কটি ৪ লেনে উন্নীত করার প্রাথমিক পরিকল্পনার কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। আগামী ১মাসের মধ্যে সরকারের সড়ক বিভাগের দপ্তরে ডিপিপি সাবমিট করা হবে। সড়ক প্রসস্থ করতে গিয়ে আর যা যা করার প্রয়োজন তার সব কিছুই করা হবে।

Share

আরও খবর

সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নওগাঁয়

শনিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২১




শ্রীপুরে কেমিক্যাল কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে আহত ২১, নিহত ১

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:

গাজীপুরের শ্রীপুরে এএসএম কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডে অগ্নিকাণ্ডে একজনের লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস। বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১১টায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়। মারা যাওয়া ব্যক্তির নাম মো. আলমগীর হোসেন (৩৫)।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার টেপিরবাড়ী গ্রামের ওই কারখানার হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড প্ল্যান্টে আগুন লাগে। ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২১ শ্রমিক আহত হন।

আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিট কাজ করে। রাত ৮টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

এ ঘটনায় পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এসএম তরিকুল ইসলাম বলেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের গঠিত তদন্ত কমিটিকে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

Share

আরও খবর



০১ মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত ৫টি ইলিশ অভয়াশ্রমে ইলিশসহ সকল প্রকার মাছ ধরা নিষিদ্ধ

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১ | ৯৫জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইলিশ সম্পদের উন্নয়নে জাটকা সংরক্ষণের জন্য ০১ মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দুই মাস দেশের ৬টি জেলার ৫টি ইলিশ অভয়াশ্রমে ইলিশসহ সব ধরণের মাছ আহরণ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ থাকবে। এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় বরিশাল, চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর, ভোলা, শরীয়তপুর ও পটুয়াখালী জেলার ইলিশ অভয়াশ্রম সংশ্লিষ্ট নদ-নদীতে ইলিশসহ সব ধরণের মাছ ধরা বন্ধ থাকবে।

পাঁচটি অভয়াশ্রম এলাকা হচ্ছে চাঁদপুর জেলার ষাটনল হতে লক্ষীপুর জেলার চর আলেকজান্ডার পর্যন্ত মেঘনা নদীর নিম্ন অববাহিকার ১০০ কিলোমিটার এলাকা, ভোলা জেলার মদনপুর/চর ইলিশা হতে চর পিয়াল পর্যন্ত মেঘনা নদীর শাহবাজপুর শাখা নদীর ৯০ কিলোমিটার এলাকা, ভোলা জেলার ভেদুরিয়া হতে পটুয়াখালী জেলার চর রুস্তম পর্যন্ত তেঁতুলিয়া নদীর প্রায় ১০০ কিলোমিটার এলাকা, শরীয়তপুর জেলার  নড়িয়া ও ভেদরগঞ্জ উপজেলা  এবং চাঁদপুর জেলার মতলব উপজেলার মধ্যে অবস্থিত পদ্মা নদীর ২০ কিলোমিটার এলাকা এবং বরিশাল জেলার হিজলা, মেহেন্দীগঞ্জ ও বরিশাল সদর উপজেলার কালাবদর, গজারিয়া ও মেঘনা নদীর প্রায় ৮২ কিলোমিটার এলাকা। প্রতিবছর মার্চ ও এপ্রিল দুই মাস উল্লিখিত অভয়াশ্রমে ইলিশসহ সব ধরণের মাছ আহরণ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ থাকে। এসময় ইলিশের অভয়াশ্রমসমূহে ইলিশসহ সকল প্রকার মাছ ধরা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ। আইন অম্যান্যকারী কমপক্ষে ১ বছর থেকে সর্বোচ্চ ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড অথবা পাঁচ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা অথবা উভয় দন্ডে দন্ডিত হবেন।

উল্লেখ্য, নিষিদ্ধ সময়ে অভয়াশ্রম সংশ্লিষ্ট ৬টি জেলার জাটকা আহরণে বিরত থাকা ২ লক্ষ ৪৩ হাজার ৭৭৮জন জেলেদের জন্য মাসে ৪০ কেজি করে দুই মাসে ৮০ কেজি হারে মোট ১৯ হাজার ৫০২ মেট্টিক টন ভিজিএফ চাল ইতোমধ্যে বরাদ্দ করেছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

Share

আরও খবর